বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
উত্তরবঙ্গ
 

মেডিক্যালে ফের ২ শিশুর
মৃত্যু, বাড়ছে সুস্থতার হার

সংবাদদাতা, শিলিগুড়ি: উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে শিশুমৃত্যু ক্রমশ কমে আসছে। সঙ্গে বৃদ্ধি পাচ্ছে সুস্থতার হার। অসুস্থ হয়ে শিশুভর্তির সংখ্যাও প্রতিদিন কমছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দু’জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। তবে এরা কেউই অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ইনফেকশনে (এআরআই) আক্রান্ত ছিল না। এআরআই আক্রান্ত শিশুমৃত্যুর ঘটনা এখানে এখন নেই বললেই চলে, এমনটাই দাবি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। তবে এআরআই সংক্রামিত শিশুমৃত্যুর ঘটনা বন্ধ হলেও সংক্রামিত শিশুভর্তি এখনও হচ্ছে। তবে সুস্থতার হারও বৃদ্ধি পাচ্ছে। উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগের প্রধান মধুমিতা নন্দী বলেন, প্রথম থেকেই আমরা প্রতিটি শিশুকে বাঁচানোর জন্য আন্তরিকভাবে চেষ্টা করি। সকলের চেষ্টায় এআরআই সংক্রামিত শিশুদের সুস্থতার হার এখানে মৃত্যুর তুলনায় অনেক বেশি। কাজেই এখন আর আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই যে, এআরআই সংক্রামিত হলেই মৃত্যু হবেই। তবে অভিভাবকদের সচেতন থাকতে হবে। 
হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ১৮ জন শিশু ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে চারজন এআরআই সংক্রামিত। এই চারজনের মধ্যে দু’জন অন্য হাসপাতাল থেকে রেফার হয়ে এসেছে। একজন জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতাল থেকে, আর একজন বেলাকোবা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে এসেছে। সেই তুলনায়  শিশুদের সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার সংখ্যা বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় ২১ জন শিশু সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। এর মধ্যে একজন শিশু এআরআই সংক্রামিত অবস্থায় এখানে ভর্তি হয়েছিল। হাসপাতাল সুপার সঞ্জয় মল্লিক জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় যে দু’জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে, তারা লো বার্থ ওয়েট ছিল। কম ওজন নিয়ে অপরিণত অবস্থায় এদের জন্ম হওয়ায় প্রথম থেকেই নানা জটিল ব্যাধিতে আক্রান্ত ছিল। সাধারণ ব্যাধিতে দু’জন শিশু মারা গেলেও শিশুমৃত্যুর সংখ্যা ক্রমশ কমে আসছে। 
এদিন রাজ্যের  স্বাস্থ্যসচিব এন স্বরূপ নিগম উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে শিশুমৃত্যুর পরিসংখ্যান ও  চিকিৎসা পরিকাঠামোর ব্যাপারে খোঁজখবর নেন। শিশু বিভাগের প্রধান সহ অন্যান্য আধিকারিক এই বৈঠকে ছিলেন। বৈঠক সূত্রে জানা গিয়েছে, স্বাস্থ্যসচিবকে জানানো হয় যে, এখানে শিশুমৃত্যু নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। পরিস্থিতি কখনওই উদ্বেগজনক হয়নি। এখানে শিশু চিকিৎসার সেন্টার অব এক্সেলেন্সি তৈরি হচ্ছে। উন্নত চিকিৎসা সরঞ্জাম অনেকটাই এসে গিয়েছে। আরও আসছে। এই কাজ সম্পন্ন হয়ে গেলে এখানে শিশু বিভাগ আরও উন্নত ও অত্যাধুনিক চিকিৎসা পরিষেবায় সমৃদ্ধ হবে। তখন শিশুদের সুস্থতার হার আরও বৃদ্ধি পাবে। 

26th     October,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021