বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
উত্তরবঙ্গ
 

বিশ্ববাংলা স্টেডিয়াম নিয়ে
কেন্দ্রকে হুঁশিয়ারি অরূপের
তিনমাসের মধ্যে কাজ না
হলে ফেরত নেবে রাজ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি: খেলাধুলোর মান বাড়াতে পাঁচবছর আগে কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ন্ত্রিত স্পোর্টস অথরিটি অব ইন্ডিয়া’র (সাই) হাতে ২৭ একর জমির উপর গড়ে তোলা একটি ক্রীড়াঙ্গণ তুলে দিয়েছিল রাজ্য সরকার। আসলে তা হস্তান্তর করার পেছনে রাজ্য সরকারের লক্ষ্য ছিল, হয়তো সাইয়ের হাতে পড়ে উৎকর্ষ বাড়বে খেলাধুলোর। কিন্তু, পাঁচবছর পার হলেও এখনও সেই ক্রীড়াঙ্গণে সাই তাদের কার্যকলাপ শুরু করেনি। অবহেলায় ফেলে রেখেছে। তাতে ক্ষুব্ধ রাজ্য সরকার। আগামী তিনমাসের মধ্যে সাই এ ব্যাপারে কাজে না নামলে ওই ক্রীড়াঙ্গণ দেওয়ার চুক্তি বাতিল করে দেবে রাজ্য। সোমবার এমনই কথা জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের ক্রীড়া ও যুবকল্যাণমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। 
ওই ক্রীড়াঙ্গণটি উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়িতে। সেখানে তা বিশ্ববাংলা ক্রীড়াঙ্গণ নামে বহুল পরিচিত। সাইয়ের হাতে বৃহৎ ওই ক্রীড়াঙ্গণ তুলে দেওয়ার পেছনে রাজ্যের একমাত্র লক্ষ্য ছিল উত্তরবঙ্গ থেকে নতুন নতুন প্রতিভা উঠে আসবে সাইয়ের ওই শিক্ষণ শিবির থেকে। কিন্তু, সেসব তো দূর অস্ত, ২০১৬ সালে রাজ্য সরকারের হাত থেকে পাওয়া সেই ক্রীড়াঙ্গণে এক ছটাকও কিছু করেনি সাই। বরং যে পরিকাঠামো গড়ে ওই ক্রীড়াক্ষেত্র কেন্দ্রের হাতে তুলে দিয়েছিল রাজ্যের ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ দপ্তর, বর্তমানে তা ক্রমশই বনবাদাড়ে ভরে গিয়েছে। স্থায়ী কাঠামোর ভেতরে, বাইরে গাছ-আগাছায় ভর্তি। মনে হয় যেন পোড়ো কোনও বাড়ি, ঘন জঙ্গলে ভরা। অথচ প্রায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে তার পরিকাঠামো গড়ে তুলেছিল রাজ্য সরকার। আর জমির দাম প্রায় সাড়ে তিনশো কোটি টাকা। 
বর্তমানে বিশ্ববাংলা ক্রীড়াঙ্গণের ওই হাল দেখে ‘হতাশ’ রাজ্যের ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ দপ্তর। সোমবার তা জানিয়ে সরাসরি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দপ্তরের বিভাগীয় মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। এমনকী বিষয়টি জানিয়ে তিনি কেন্দ্রীয় ক্রীড়া ও যুবকল্যাণমন্ত্রী অনুরাগ সিং ঠাকুরকে একটি চিঠিও দিয়েছেন। ওই চিঠিতে অরূপবাবু লিখেছেন, ২০১৮ সালে তদানীন্তন ক্রীড়ামন্ত্রী কর্নেল আর এস রাঠোর এবং ২০২০তে ওই দপ্তরের মন্ত্রী কিরন রিজিুজুকেও এই বিষয়টি জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু, তাঁদের কাছ থেকে কোনও সাড়া পাননি। আজও অনাদরে পড়ে রয়েছে ২৭ একরের সেই ক্রীড়াঙ্গণ। ভরে যাচ্ছে ঝোপ-ঝাড়ে।  
কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে লেখা ওই চিঠিতে বলা হয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একদিকে মেধা’র অণ্বেষণে দিনরাত কাজ করাচ্ছেন। বিশ্ব বাংলা ক্রীড়াঙ্গণ তাঁর স্বপ্নের প্রকল্প। সেখানে সাইয়ের মতো একটা সংস্থা এতবড় ক্রীড়াঙ্গণ হাতে পেয়েও গত পাঁচবছরেও তা কাজে লাগাতে পারল না। এটা সাইয়ের ব্যর্থতা বলেই মনে করছেন অরূপবাবু। চিঠিতে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন আগামী তিনমাস আরও দেখব। আশা করছি, সাই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ করবেন। কিন্তু, তারপরেও কিছু না হলে চুক্তির (মউ) শর্ত থেকে বেরিয়ে আসবে সরকার। এদিকে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই উত্তরবঙ্গে জোর সমালোচনা শুরু হয়েছে। জলপাইগুড়ির ক্রীড়াপ্রেমীদের কথায়, গত লোকসভা ভোটে উত্তরবঙ্গে ব্যাপক সাফল্য পাওয়ার বিজেপি ঢালাও উন্নয়নের কথা শুনিয়েছিল। কেন্দ্রীয় সরকারে থেকেও বিজেপি আজ পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের উন্নয়নে কিছুই করেনি। উল্টো রাজ্য সরকার এতবড় একটা পরিকাঠামো হাতে তুলে দিলেও পাঁচবছরে তা কাজে লাগাতে পারল না কেন্দ্রীয় সরকার। স্বভাবতই, বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকারের উত্তরবঙ্গের প্রতি দরদ কতটা, তা এই ঘটনা থেকেই প্রমাণিত। 

28th     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021