বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
উত্তরবঙ্গ
 

অনলাইন কেনাকাটার দাপটে মার
খাচ্ছেন ছোট বস্ত্র ব্যবসায়ীরা

 

সংবাদদাতা, পতিরাম: দুর্গাপুজোর আগে অনলাইন ব্যবসার দাপটে বালুরঘাট শহরের ছোট বস্ত্র ব্যবসায়ীরা মার খাচ্ছেন। পুজোর হাতেগোনা আর কয়েকদিন বাকি থাকলেও এখনও বালুরঘাটের তহবাজার কার্যত ফাঁকাই রয়ে গিয়েছে। সকাল থেকে দোকান খুললেও বিকেল পর্যন্ত ক্রেতাদের তেমন দেখা মিলছে না। এদিকে বালুরঘাট শহরে সম্প্রতি অনলাইনে কেনাকাটার প্রচলন বেড়ে গিয়েছে। তাই বাড়িতে বসেই বেশিরভাগ মানুষ জামাকাপড় কিনে ফেলছে। ব্যবসা মার খাচ্ছে বাজারের দোকানদারদের। এমতাবস্থায় বালুরঘাটের বস্ত্র ব্যবসায়ীরা সরকারি সাহায্যের দাবি জানিয়েছেন। 
এবিষয়ে বালুরঘাট শহরের তহবাজারের ব্যবসায়ী শ্যামল সাহা বলেন, একেই করোনা, তার উপর অনলাইন ব্যবসার দাপট। এই দু’য়ের প্রভাবে আমরা একেবারে বসে গিয়েছি। গতবার তবুও ব্যবসা হয়েছিল, কিন্ত এবার একদমই ব্যবসা হচ্ছে না। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত একটা জিনিসও বিক্রি হচ্ছে না। সরকার থেকে পুজার আগে ক্লাবগুলিকে সাহায্য করা হচ্ছে। কিন্তু আমাদের মতো ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা যে মার খাচ্ছি সেই দিকে কেউ নজর দিচ্ছে না। আরেক ব্যবসায়ী সুমিত আগরওয়াল বলেন, করোনার কারণে এখনও পর্যন্ত মানুষের পরিস্থিতি ভালো হয়নি। দুই বছর ধরে তারা সেভাবে কেনাকাটা না করায় আমরা ভীষণভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছি। গতবারও এত খারাপ ব্যবসা হয়নি। তাই ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের পাশে সরকারের দাঁড়ানো উচিত। 
বালুরঘাট ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক হরেরাম সাহা বলেন, ব্যবসায়ীরা যে দাবি জানাচ্ছে তা একদম সঠিক। পুজোর আগে বিভিন্ন ক্লাবে আমাদের চাঁদা দিতে হয়, তা এবারও যাতে মুকুব করা হয় সেজন্য ক্লাব ও প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলব। কারণ এবার ব্যবসা একেবারেই নেই। বস্ত্র থেকে শুরু করে সমস্ত ব্যবসাতেই আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের।  বালুরঘাটের এক মহিলা পায়েল সরকার বলেন, এখন করোনার সংক্রমণ চলছে। তার উপর বাজারে গিয়ে জিনিস কেনার সময় নেই। তাই ঘরে বসেই অনেক ধরনের সামগ্রী পছন্দ করে অর্ডার করলেই সেগুলি পেয়ে যাই। তাই আপাতত অনলাইনেই কিনছি। 
বালুরঘাটের তহবাজারেই কাপড়ের শতাধিক দোকান রয়েছে। এছাড়াও ওই দোকানগুলিতে বহু কর্মী যুক্ত রয়েছেন। বর্তমানে বালুরঘাট শহরের বড় বড় শপিং মল ও বড় দোকানগুলিতে ভিড় হলেও ছোট দোকানগুলিতে একেবারেই ভিড় চোখে পড়ছে না। এদিকে প্রযুক্তির কারণে ব্যবসার কৌশলও বদলে গেছে। ইন্টারনেটে ভর করেই ব্যবসায় নেমে পড়ছেন মহিলা। সম্প্রতি বালুরঘাটের প্রচুর যুবক যুবতী ও মহিলারা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জামাকাপড়ের বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন। আর সেগুলি অনলাইনেই অর্ডার নিয়ে ক্রেতাদের ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন। আর এর সরাসরি প্রভাব পড়ছে বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মধ্যে। 

28th     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021