বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
উত্তরবঙ্গ
 

বাড়াবাড়ি করলে ঘেরাও করুন বাহিনীকে: মমতা

সুকান্ত গঙ্গোপাধ্যয় ও সন্দীপ বর্মন : কোচবিহার ও মাথাভাঙা: সিআরপিএফ যদি গণ্ডগোল করে, আমি মেয়েদের বলে দিচ্ছি আপনারা একদল ওঁদের ঘেরাও করে রাখবেন, আর অন্যদল ভোট দিতে যাবেন। ভোট নষ্ট করবেন না। আপনি যদি শুধু ঘেরাও করে রাখেন, তাহলে ভাববে, ভালোই তো, ভোটটা তো করল না। এটাই বিজেপির চাল। আর আপনার চাল হচ্ছে, গ্রামে ভয় দেখালে আপনি ভয় পাবেন না। বুধবার কোচবিহার উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের বাণেশ্বরে নির্বাচনী প্রচারে এসে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এভাবেই তাঁর আক্রমণ শানালেন। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার তৃতীয় দফার ভোটে রাজ্যে বিক্ষিপ্ত হিংসার ঘটনা ঘটে। রিগিংও হয় বলে অভিযোগ ওঠে। সেদিন তিনি ভোটপ্রচারে কোচবিহারেই ছিলেন। ভোটে হিংসার কথা তুলে তিনি বলেছিলেন গুন্ডা দিয়ে ভোট করাচ্ছে বিজেপি।   
এদিন মুখ্যমন্ত্রী তাঁর বক্তৃতায় বলেন, ওরা অসম থেকে গুন্ডা নিয়ে আসবে। ভয় পাবেন না। কেন্দ্রীয় বাহিনী ভোট দিতে যেতে বাধা দেবে, আপনারা রুখে দাঁড়াবেন। আপনারা সবাই সকাল সকাল ভোটটা দেবেন। দুর্বল লোককে এজেন্ট হিসেবে না দেওয়ার জন্য কর্মীদের নির্দেশ দিয়ে মমতা বলেন, যাঁরা এজেন্ট থাকবেন তারা মেশিন সিল না করা পর্যন্ত বুথ ছাড়বেন না। বিজেপি টাকা দিলে নেবেন, কেন্দ্রীয় বাহিনী ধমকালে, চমকালেও ভোটটা দিয়ে আসবেন। ওরা যাতে মদ, গুন্ডা দিয়ে ভোট করাতে না পারে, সেটা আমরা নির্বাচন কমিশনকে জানাব। 
এদিন মঞ্চে জিসিপিএ নেতা বংশীবদন বর্মন আর কোচবিহার উত্তর বিধানসভার দলের প্রার্থী বিনয়কৃষ্ণ বর্মনকে দাঁড় করিয়ে নারায়ণী রেজিমেন্ট প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর মিথ্যাচারের কথাও উল্লেখ করেন মমতা। তাঁর বক্তব্য, ওই রেজিমেন্ট গড়ার বিষয়ে এখনও কেন্দ্রীয় সরকার কোনও উদ্যোগ নেয়নি। অথচ এখানে ওরা বলে গিয়েছেন নারায়ণী রেজিমেন্ট হয়ে গিয়েছে। রাজবংশীদের আবেগ নিয়ে ওরা খেলছেন।  তৃণমূল সুপ্রিমো এদিন বলেন, বিজেপি বলছে কেন বিনয়কৃষ্ণ বর্মনকে এখানে প্রার্থী করে নিয়ে এসেছি? নিয়ে এসেছি এই কারণে, এখান থেকে বারবার যাঁরা জেতেন এলাকায় কোনও কাজ করেন না। বিনয় যাতে ভালো করে কাজ করে তা দেখাতে চাই। 
এদিনের দুই সভাতেই দিনহাটার বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিকের নাম না করে তিনি আক্রমণ করেন। বাণেশ্বরে বলেন, যিনি এমপি হয়েছেন, তিনি এমএলএ ইলেকশনে দাঁড়িয়েছেন। এরপর কাউন্সিলার ইলেকশনে দাঁড়াবেন। তারপর গ্রামসভায় দাঁড়াবেন, ক্লাবের ইলেকশনে দাঁড়াবেন।
বাণেশ্বরের সভা শেষ করে মমতা মাথাভাঙার ডাংকোবার মাদ্রাসা চৌপথিতে শীতলকুচি বিধানসভার প্রার্থী পার্থপ্রতিম রায়ের সমর্থনে সভা করেন। সভার শুরুতেই শীতলকুচি বিধানসভার পঞ্চানন বর্মার জন্মভিটা খলিসামারির প্রসঙ্গ তুলে বলেন, খলিসামারিতে পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় ক্যাম্পাস করেছি। ওই এলাকাকে পঞ্চানন নগর হিসেবে গড়ে তোলা হবে। 
কোচবিহার দক্ষিণ কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী মিহির গোস্বামীরও নাম না করে মমতা আক্রমণ করেন। বলেন, যে গদ্দার এখানে ছিল, এখন অন্য জায়গায় পালিয়েছে। রবি ঘোষের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন আমাদের এক গদ্দার। ট্রান্সপোর্টের চেয়ারম্যান, ডেভেলপমেন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান ছিলেন। এতসবের পরেও নির্বাচনের আগে উনি বিজেপিতে গিয়েছেন। উনি নাকি মহান নেতা! কোনওদিন ঘর থেকে বেরন না, একটা ফোন ধরেন না। একটা কাজ পর্যন্ত করেন না। উনি তো আমারই ফোন ধরতেন না, অন্য লোকের ফোন ধরবেন কখনও, প্রশ্ন ছোড়েন মমতা।   নিজস্ব চিত্র

8th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
10th     April,   2021