বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
বিদেশ
 

পুতিন, দুতার্তের সমালোচনা করেই নোবেল
শান্তি পুরস্কার ঝুলিতে পুরলেন ২ সাংবাদিক

অসলো: সাংবাদিকতার পেশায় নিজেদের কাজের মাধ্যমে সরকারের রোষের মুখে পড়েছিলেন দু’জনেই। তাতে অবশ্য আটকাল না স্বীকৃতি।  নোবেল শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন ফিলিপিন্সের মারিয়া রেসা এবং রাশিয়ার দিমিত্রি মুরাটভ। নরওয়ের নোবেল কমিটির তরফে জানানো হয়েছে, গণতন্ত্র এবং দীর্ঘস্থায়ী শান্তির পূর্বশর্ত মতপ্রকাশের স্বাধীনতা। যে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার অধিকার আজ বিশ্বজুড়ে সঙ্কটের মধ্যে রয়েছে, তাকে নিজেদের কাজের মাধ্যমে সযত্নে লালন করে এসেছেন মারিয়া এবং দিমিত্রি। তারই স্বীকৃতি এই পুরস্কার। শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করে দু’জনের নাম ঘোষণা করেন কমিটির চেয়ারপার্সন বেরিট-রেইস অ্যান্ডারসন। তিনি বলেন, ‘এই দু’জন সেই সমস্ত সাংবাদিকদের প্রতিনিধিত্ব করেছেন, যাঁরা বিশ্বজুড়ে সঙ্কটের মধ্যে থাকা গণতন্ত্র ও সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা রক্ষার পক্ষে সওয়াল করতে পিছপা হন না।’
জার্মান সাংবাদিক কার্ল ভন ওসিয়েৎজকির পর এই প্রথম কোনও সাংবাদিক নিজের দেশের সরকারের দুর্নীতির গোপন তথ্য প্রকাশ্যে এনে নোবেল পেলেন। অকুতোভয়, তথ্যনির্ভর সাংবাদিকতার মাধ্যমে যুদ্ধপরবর্তী সময়ে জার্মান সরকারের নতুন করে সশস্ত্রীকরণ প্রকল্পের কিছু গোপন তথ্য প্রকাশ্যে এনে ১৯৩৫ সালে নোবেল পেয়েছিলেন ওসিয়েৎজকি। সেই একই পথে হেঁটে এবার নোবেল-ভাগ্যে শিঁকে ছিঁড়ল মুরাটভেরও। রাশিয়ার তদন্তমূলক সংবাদপত্র ‘নোভায়া গেজেটা’র এডিটর-ইন-চিফ হিসেবে ভ্লাদিমির পুতিন সরকারের বহু দুর্নীতিকে দিনের আলোয়ে এনেছেন মুরাটভ। বিশেষ করে ইউক্রেন-সংঘাত নিয়ে তাঁর তদন্তমূলক প্রতিবেদন যথেষ্ট অস্বস্তিতে ফেলেছে ক্রেমলিনকে। যদিও, খোদ ক্রেমলিন থেকেই এদিন এই পুরস্কার পাওয়ার জন্য সরকারিভাবে মুরাটভকে অভিনন্দন জানানো হয়েছে। 
সোভিয়েত নেতা মিখাইল গর্বাচভের পর রাশিয়ান হিসেবে মুরাটভ নোবেল পেলেন। তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, ১৯৯০ সালে পাওয়া নোবেল পুরস্কারের টাকা দিয়েই ‘নোভায়া গেজেটা’ গড়ে তুলতে সাহায্য করেছিলেন গর্বাচভ। সেদিক থেকে দেখতে গেলে একটা বৃত্ত সম্পূর্ণ করলেন মুরাটভ।
অন্যদিকে, ২০১২ সালে ডিজিটাল মিডিয়া সংস্থা ‘র‌্যাপলার’ প্রতিষ্ঠাতা করেন ফিলিপিন্সের মারিয়া রেসা। তদন্তমূলক সাংবাদিকতার মাধ্যমে পুলিসের মাদক বিরোধী অভিযানের আড়ালে গণহত্যা সহ রডরিগো দুতার্তে সরকারের একাধিক অনৈতিক কর্মকাণ্ডের পর্দা ফাঁস করে প্রচারের আলোয় আসেন মারিয়া। সরকারের বিষনজরে থাকার জেরে একাধিক মামলা দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। যদিও এমনই একটি মামলায় গত আগস্টে ফিলিপিন্সের আদালত মারিয়াকে নির্দোষ তকমা দিয়েছে। এদিন নোবেল কমিটির ঘোষণার পর তিনি বলেন, ‘আমি এখনও ঘোরের মধ্যে রয়েছি।’ আগামী ১০ ডিসেম্বর প্রাপকদের হাতে এই পুরস্কার তুলে দেবে নোবেল কমিটি।

9th     October,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021