বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

জঙ্গি যোগের অভিযোগ, বরখাস্ত হিজবুল
প্রধানের ছেলে সহ চারজন সরকারি কর্মী

 

ফিরদৌস হাসান, শ্রীনগর: দেশবিরোধী কাজ ও জঙ্গি যোগের অভিযোগ। চার সরকারি কর্মীকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করলেন জম্মু ও কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা। ছাঁটাই হওয়া এই চার কর্মীর মধ্যেই রয়েছে হিজবুল মুজাহিদিন প্রধান সইদ সালাউদ্দিনের ছেলে সইদ আবদুল মুইদ এবং জম্মু ও কাশ্মীর লিবারেশন ফ্রন্টের (জেকেএলএফ) নেতা ফারুক আহমেদ দার ওরফে বিট্টা ক্যারাটের স্ত্রী আসাবা উল আরজুমান্দ খান। সালাউদ্দিনের ছেলে মুইদ জম্মু ও কাশ্মীরের শিল্পোদ্যোগ উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের আইটি ম্যানেজার পদে কর্মরত ছিলেন। বিট্টা ক্যারাটের স্ত্রী আসাবা জম্মু ও কাশ্মীর অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসের (জেকেএএস) ২০১১ ব্যাচের অফিসার। বরখাস্ত বাকি দুই কর্মীর নাম মুহিত আহমেদ ভাট (কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের সায়েনটিস্ট-ডি) ও মজিদ হোসেন কাদরি (কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সিনিয়র অ্যাসিসট্যান্ট প্রফেসর)। ভারতীয় সংবিধানের ৩১১ ধারায় এই চার কর্মীকে বরখাস্ত করা হল বলে সরকারিভাবে জানানো হয়েছে।
সরকারি নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, তদন্তে আসবা উল আরজুমান্দ খানের (বিট্টা ক্যারাটের স্ত্রী) সঙ্গে জঙ্গি সংগঠন ও পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের সম্পর্ক প্রকাশ্যে এসেছে। জম্মু ও কাশ্মীর প্রশাসনের এক প্রবীণ অফিসার জানিয়েছেন, আসবা প্রথমে ২০০৩ সালে শের-ই-কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষিবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগে চাকরি পেয়েছিলেন। সেই সময় প্রশাসনের অন্দর থেকেই কেউ অনিয়মের মাধ্যমে আসবাকে সেই চাকরি পাইয়ে দিয়েছিল। ২০০৩ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত মাসের পর মাস অনুপস্থিত থাকা সত্ত্বেও তার বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। কাজে অনুপস্থিত থাকলেও সেই সময় জার্মানি, ব্রিটেন, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ডে যায় সে। জেকেএলএফ-এর ক্যুরিয়ার হিসেবে কাজ করতে থাকে। বিভিন্ন বিমানবন্দর থেকে আকাশপথে বিদেশ গেলেও নেপাল ও বাংলাদেশ হয়ে সড়কপথে ফিরে আসত। ২০০৭ সালের আগস্টে তাকে প্রথম চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। এরপর ২০১১ সালে জেকেএএস পরীক্ষায় পাশ করে আসবা। তার কয়েক মাস পরেই বিট্টা ক্যারাটেকে বিয়ে করে সে।
হিজবুল প্রধান সইদ সালাউদ্দিলের ছেলে সইদ আবদুল মুইদ ২০১২ সালে প্রথমে চুক্তির ভিত্তিতে আইটি কনসালট্যান্ট হিসেবে চাকরি পেয়েছিল জেকেইডিআই-তে। সরকারি সূত্রে খবর, তার নিয়োগের ক্ষেত্রেও অনিয়ম হয়েছিল। নিয়োগের প্যানেলে ছিল জঙ্গিদের প্রতি সমানুভূতিশীল অন্তত তিনজন অফিসার। পরে স্থায়ী পদে চাকরি হয় মুইদের। তাকে নিয়োগের সময় বাধ্যতামূলক সিআইডি ভেরিফিকেশনের নিয়ম মানা হয়নি।
চাকরি থেকে বরখাস্ত হওয়া বাকি দুই কর্মীর বিরুদ্ধেও তদন্তে সন্ত্রাস যোগের গুরুতর প্রমাণ মিলেছে বলে সরকারি নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে।

14th     August,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ