বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

স্বাধীনতা দিবসের পর ২০ কোটি জাতীয়
পতাকার ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তায় কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: ১৫ আগস্টের পর প্রায় ২০ কোটি জাতীয় পতাকার কী হবে? চিন্তায় কেন্দ্র। স্বাধীনতার ৭৫ বছর পালনে দেশজুড়ে চলছে আজাদি কা অমৃত মহোৎসব। তারই অঙ্গ হিসেবে জাতীয়তাবাদে মেতে উঠতে তেরঙ্গার সঙ্গে সেলফি তুলে সরকারি নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে আপলোড করতেও বলছে কেন্দ্র। পাশাপাশি, আজ থেকে টানা তিনদিন দেশের অন্তত ২০ কোটি বাড়িতে জাতীয় পতাকা প্রদর্শনের টার্গেটও করেছে মোদি সরকার। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘হর ঘর তেরঙ্গা।’ এর জন্য ‘দ্য ফ্ল্যাগ ঩কোড অব ইন্ডিয়া, ২০০২’ সংশোধন করেছে মোদি সরকার। 
সস্তায় সবাইকে জাতীয় পতাকা পাওয়ার সুযোগ করে দিতে ২০২১ সালের ৩০ ডিসেম্বর কোড সংশোধন করা হয়েছে। বলা হয়েছে, এবার থেকে হাতে বোনা সুতির পাশাপাশি মেশিনে বোনা পলিয়েস্টার, উল এবং খাদি সিল্কেরও জাতীয় পতাকাও টাঙানো যাবে। দ্বিতীয়ত, ২০২২ সালের ১৯ জুলাইয়ের সংশোধনীতে বলা হয়েছে, এখন থেকে যেকোনও বাড়িতে দিনরাত পতাকা টাঙানো যাবে। তবে কোথাও পতাকা ‘উত্তোলন’ করলে নিয়ম মাফিক সূর্যাস্তের সময় তা নামাতেই হবে। নরেন্দ্র মোদির ইচ্ছায় স্বাধীনতার ৭৫ বছরে জাতীয়তাবোধ জাগাতে জাতীয় পতাকা প্রদর্শনে সংশোধন তো হল। তারপর? তিনদিন পর কী হবে সেই সব পতাকা? খুলে কোথায় রাখা হবে? ছিঁড়ে বা রঙ চটে গেলেই বা কী হবে? স্বাধীনতার সেলিব্রেশনের জন্য ব্যবহৃত প্লাস্টিকের ছোট ছোট জাতীয় পতাকা যেভাবে অনুষ্ঠান শেষে রাস্তায়, মাঠে এখানে ওখানে ছড়িয়ে থাকে, তা কী করে আটকানো যাবে? কারণ, সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহার তো বন্ধ করেছে সরকারই? চিন্তিত কেন্দ্র। 
জাতীয় পতাকার কোনও অসম্মান করা চলে না। অসম্মানের শাস্তি হিসেবে হতে পারে তিন বছর পর্যন্ত জেল, আর্থিক জরিমানা অথবা দুটিই। তাই রাজ্যগুলিকে সতর্ক করেছে কেন্দ্র। নাগরিকদের উদ্দেশে সরকারের পরামর্শ, হর ঘর তেরঙ্গা কর্মসূচি শেষে জাতীয় পতাকা খুলে সযত্নে ভাঁজ করে তুলে রাখুন। ব্যবহার করুন পরের বছর। তবে কোনও পতাকা ছিঁড়ে বা রঙ নষ্ট হয়ে গেলে বাড়িতে গোপনে পুড়িয়ে ফেলতে হবে। অথবা মাটির গভীরে পুঁতে দেওয়াও যাবে। যদিও প্রকাশ্যে কোনওভাবেই পতাকা পোড়ানো যাবে না। ছোট ছোট প্লাস্টিকের পতাকা ব্যবহারের পর যত্রতত্র বা ডাস্টবিনে ছুঁড়ে না ফেলে পুরসভা থেকে ঠিক করে নির্দিষ্ট একটি জায়গায় জড়ো করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। সেখান থেকে পুরসভা নিয়ম মেনে সম্মানের সঙ্গে তার নিষ্পত্তি করবে। অতি উৎসাহিত হয়ে কোনওভাবেই কেউ যেন জাতীয় পতাকার জামাকাপড় বা রুমাল, সোফার কুশন না বানিয়ে ফেলে, তা নিয়েও বার বার সতর্ক করেছে কেন্দ্র। 

13th     August,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ