বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

কংগ্রেস ছেড়ে অখিলেশের
সমর্থনে রাজ্যসভার প্রার্থী সিবাল
আইনজীবীর প্যাঁচে ধাক্কা সোনিয়ার

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: রাজনৈতিক প্যাঁচে আইনজীবী কপিল সিবালের কাছে হেরে গেলেন সোনিয়া গান্ধী। কংগ্রেস ছাড়লেন কপিল সিবাল। গান্ধী পরিবারের বিরুদ্ধে মুখ খোলায় কংগ্রেস তাঁকে রাজ্যসভার টিকিট না দিলেও সমাজবাদী পার্টির সমর্থনে ফের উত্তরপ্রদেশ থেকেই রাজ্যসভার সদস্য হতে চলেছেন তিনি। দাঁড়াচ্ছেন নির্দল হয়ে। আগামী ১০ জুন সংসদের উচ্চকক্ষের ভোটে জিততে বুধবার লখনউতে মনোনয়নপত্রও জমা দিয়েছেন তিনি। 
পাশে ছিলেন সমাজবাদী পার্টি (সপা)সুপ্রিমো অখিলেশ যাদব ও দলের রাজ্যসভার এমপি রামগোপাল যাদব। বিধায়ক সংখ্যার পাটিগণিতে উত্তরপ্রদেশে ১১ আসনের মধ্যে সপা এবার তিনটিতে জিতবে। তারই মধ্যে একটি ‘নির্দল’ সিবালকে দেওয়া হল। বাকি দুই আসনে অখিলেশের স্ত্রী ডিম্পল যাদব এবং দলের নেতা জাভেদ আলি খান দাঁড়াবেন বলে জানা গিয়েছে। 
কংগ্রেস ছাড়লেও সোনিয়া গান্ধীর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কোনও ক্ষোভ প্রকাশ করেননি সিবাল। বলেছেন, ‘আমি বরাবরই নিজের কথা বলতে চেয়েছি। বলেছি। কংগ্রেস আমার সঙ্গে যথেষ্ট ভালো ব্যবহার করেছে। ৩০-৩১ বছর ওই দলে ছিলাম। তাই ছেড়ে যেতে মানসিক চাপ তো থাকেই। গত ১৬ মে কংগ্রেস ছেড়েছি।’তিনি আরও বলেন, ‘রাজ্যসভায় নির্দল এমপি হয়ে মোদি সরকারের নীতির বিরুদ্ধে সরব হব। তার জন্য বিরোধীদের সবার সঙ্গে কথা বলব।’ নির্দল এমপি হিসেবে সংসদে এসে কোনও রাজনৈতিক দলে যোগদান করবেন না বলেও স্পষ্ট করে দিয়েছেন তিনি। বলেন, ‘ওসব করলে টেনথ শিডিউলে সদস্যপদই খারিজ হয়ে যাবে। ফলে কোনও  দলে যোগদানের প্রশ্নই নেই।’ 
একসময় কাকা শিবপালের সঙ্গে লড়াইয়ে সমাজবাদী পার্টির (সপা) নির্বাচনী প্রতীক ‘সাইকেল’ হাতছাড়া হতে বসেছিল অখিলেশের। সিবাল সে সময় তাঁর হয়ে কমিশনে সওয়াল করে প্রতীক রক্ষা করেন। একইভাবে আজম খানের হয়ে সুপ্রিম কোর্টে সওয়াল করে জামিনও আদায় করেছেন। তারই প্রতিদানে কপিল সিবালকে নির্দল প্রার্থী হিসেবেও সম্পূর্ণ সমর্থন দিয়ে রাজ্যসভায় পাঠাচ্ছেন অখিলেশ। 
এদিকে, কপিল সিবাল কংগ্রেস ছাড়ায় দলের কোনও ক্ষতি হবে না বলেই মন্তব্য করেছেন এআইসিসির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) কেসি বেণুগোপাল। রাজ্যসভার এমপি হওয়ার জন্য কং঩গ্রেস ছেড়ে নির্দল হয়ে দাঁড়ানোর সমালোচনা করেছেন সৌগত রায়। কটাক্ষের সুরে সৌগতবাবু বলেছেন, ‘কপিল সিবাল কোনওদিন তৃণমূলস্তরে রাজনীতি করেননি। পদ না থাকলেই অস্থির হন। বাংলা থেকে রাজ্যসভায় গিয়েছেন অভিষেক মনু সিংভি। তাঁকেও সেভাবে বাংলায় পাওয়া যায় না। ‌তাই রাজনীতির এই অনৈতিকতা আমাকে দুঃখ দেয়।’  
মনোনয়ন জমা দিচ্ছেন কপিল সিবাল। ছবি: পিটিআই 

26th     May,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ