বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

জুলাইয়ের মধ্যেই যাত্রা শুরু করছে নয়া বিমান সংস্থা আকাশ এয়ার। সেজন্য আমেরিকার পোর্টল্যান্ড থেকে আসছে বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স বিমান। -পিটিআই

ট্রিগারিং ডিভাইসে বিস্ফোরণের ছক
পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠনগুলির

সুখেন্দু পাল, বর্ধমান: দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ট্রিগারিং ডিভাইসের মাধ্যমে বিস্ফোরণের ছক কষেছে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত জঙ্গি সংগঠনগুলি। পাঞ্জাবের জালালাবাদে একটি বিস্ফোরণের ঘটনার তদন্তে নেমে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এমনটাই জানতে পেরেছে। কয়েকমাস আগে সেখানকার একটি ব্যাঙ্কের সামনে বাইকে ডিভাইস রেখেছিল জঙ্গিরা। সেটি ফেটে একজন মারা যান। কয়েকজন জখমও হন। জঙ্গি সংগঠনগুলি জমজমাট এলাকাগুলিতে এভাবেই দূর থেকে নিয়ন্ত্রিত ডিভাইসের মাধ্যমে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে তাদের অস্তিত্ব জানান দিতে চাইছে। সম্প্রতি গোয়েন্দারা ওই ঘটনার তদন্তে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়েছেন। পাঁচজন গ্রেপ্তার হয়েছে। এছাড়া বেশ কিছু ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস উদ্ধার হয়েছে। বিস্ফোরণের ঘটনায় যুক্ত বাকিদের খোঁজেও তল্লাশি চলছে। 
আলকায়দা, আইএস সহ বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনগুলি নতুন করে ঘুঁটি সাজাতে শুরু করেছে। গোয়েন্দারা অন্য একটি ঘটনার তদন্তে নেমে জেনেছেন, জয়েস ই মহম্মদের সহযোগী সংগঠন লস্কর ই মুস্তাফাও (এলইএম) বিহার, ঝাড়খণ্ড সহ বিভিন্ন রাজ্যে তাদের জাল ছড়াতে চাইছে। কয়েকদিন আগে মহম্মদ আরমান আলি, মহম্মদ ইসানুল্লাহ, ইমরান আহমেদ হাজিম ও ইরফান মহম্মদ নামে বিহারের চার অস্ত্র কারবারির বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দেয় এনআইএ। তাদের সঙ্গে লস্কর ই মুস্তাফা জঙ্গি সংগঠনের যোগাযোগ ছিল। দুষ্কৃতীরা ওই জঙ্গি সংগঠনকে অস্ত্র সরবরাহ করত। কার্বাইন, একে ৪৭ সহ বিভিন্ন ধরনের অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র তাদের মাধ্যমে কাশ্মীরে ওই জঙ্গি সংগঠনের কাছে পৌঁছেছে। বিহার থেকে পাঞ্জাব, হরিয়ানা হয়ে আগ্নেয়াস্ত্রগুলি কাশ্মীরে যেত। বহু দিন ধরেই তারা ওই রুটে অস্ত্র সরবরাহ করতে চাইছে। আধিকারিকরা তদন্তে নেমে ওই চারজনকে আগেই গ্রেপ্তার করেছিল। 
গোয়েন্দারা আরও জানতে পেরেছেন, কাশ্মীরে জঙ্গি সংগঠনগুলি অত্যাধুনিক অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। কিন্তু দেশের অন্যান্য প্রান্তে তারা অত্যাধুনিক ডিভাইসের মাধ্যমে হামলার পরিকল্পনা করেছে। পাকিস্তানের বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন দেশে সক্রিয় রয়েছে। এরাজ্যের ডোমকল মহকুমা থেকেও এনআইএ আলকায়দা জঙ্গি সংগঠনের ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছিল। তারা কেরলেও সংগঠন বিস্তার করছিল। ওই জঙ্গি সংগঠনের সদস্য মুর্শিদাবাদের আরও কয়েকজন ফেরার রয়েছে। মুর্শিদাবাদ মডিউলের এই জঙ্গিদেরও দিল্লি সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে হামলার পরিকল্পনা ছিল। তারা বিভন্ন ধরনের বিস্ফোরক তৈরির তালিমও নিয়েছিল। কিন্তু তার আগেই অবশ্য কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার জালে জড়িয়ে যায় তারা। পাঞ্জাবের ঘটনার তদন্তে নেমে গোয়েন্দাদের হাতে বিভিন্ন ধরনের চাঞ্চল্যকর তথ্য এসেছে। 
তারা জেনেছে, পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠনগুলি বিভিন্ন কারণে ট্রিগারিং ডিভাইসের মাধ্যমে বিস্ফোরণ ঘটাতে চাইছে। এই ধরনের ডিভাইসের মাধ্যমে দূর থেকে বিস্ফোরণ ঘটানো যায়। ধরা পড়ার সম্ভাবনা কম থাকে। পিস্তল, কার্বাইন বা গ্রেনেড নিয়ে হামলা চালালে জঙ্গিদেরও প্রাণহানির সম্ভাবনা থেকে যায়। কিন্তু ডিভাইসের মাধ্যমে বিস্ফোরণ ঘটানো হলে জঙ্গিদের প্রাণহানির ঝুঁকি থাকে না।

26th     January,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ