বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

১০০ দিনের কাজ, বাংলা আবাস যোজনার
খুঁটিনাটি জানতে এলেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ১০০ দিনের কাজ ও বাংলা আবাস যোজনার কাজের খুঁটিনাটি খতিয়ে দেখতে সোমবার রাজ্যে এল কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিনিধি দল। তারা ১৬টি জেলায় ব্লকে ব্লকে ঘুরে কাজের গতি-প্রকৃতি এবং কত টাকা খরচ হয়েছে তার বিস্তারিত তথ্য তালাশ করবে। তবে এটা নতুন নয়, এর আগেও বিভিন্ন প্রকল্পের খোঁজ নিতে কেন্দ্র পাঠিয়েছে। 
কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, মাত্র এই দু’টি প্রকল্পের কাজ খতিয়ে দেখতে তারা আসছে কেন? ১০০ দিনের কাজ প্রকল্পে বাংলা গত কয়েক বছর ধরেই প্রথম স্থানে রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার যে লেবার বাজেট দেয় তা কয়েক মাসের মধ্যেই ছাপিয়ে যায় বাংলা। তাই অতিরিক্ত বাজেট বরাদ্দ এবং টাকা বরাদ্দ করতে হয়। তাই এর আগেও ১০০ দিনের কাজের জব কার্ড হোল্ডারদের তালিকা, কী ধরনের কাজ হচ্ছে এবং কত টাকা খরচ হচ্ছে, তা নিয়ে খোঁজখবর করে গিয়েছে। সামান্য কিছু ত্রুটিবিচ্যুতির উল্লেখ করে  সেই সমস্ত টিমের সদস্যরা চিঠি পাঠিয়েছিলেন। তার ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য সরকার।
এবার ১০০ দিনের কাজের পাশাপাশি বাংলার আবাস যোজনার কাজের গতিপ্রকৃতি নিয়ে খোঁজখবর করবেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা। বাংলার আবাস যোজনা নিয়ে এর আগে অনেক অভিযোগ জমা পড়েছে নবান্নে। সেসব নিয়ে পঞ্চায়েত দপ্তর তদন্ত করে ইতিমধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এবার মাত্র দু’টি প্রকল্পের ব্যাপারে খোজ-খবর করতেই কেন্দ্রীয় টিম এসে পৌঁছেছে রাজ্যে।
সাতটি জেলা বাদে সব জেলাতেই আগামী ২৩ তারিখ পর্যন্ত ওই প্রতিনিধিদলের সদস্যরা থাকবেন। জেলাশাসকরা তো বটেই পঞ্চায়েত দপ্তরের অফিসাররাও ওই টিমের সদস্যদের সবরকম সহযোগিতা করবেন। অবশ্য শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, দেশের ১০০টি জেলাকে বেছে এইভাবে প্রতিনিধি দল পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক। এটাকে ন্যাশনাল লেভেল মনিটর বলে জানিয়েছেন পঞ্চায়েত দপ্তরের অফিসাররা। 
এব্যাপারে অবশ্য পঞ্চায়েতমন্ত্রী পুলক রায় বলেন, এটা নতুন কিছু নয়। দেশের ১০০টি জেলার মধ্যে আমাদের রাজ্যের ১৬টি জেলা রয়েছে। আমরা সবরকম সহায়তা করছি। কেন্দ্রীয় টিম আসুক, দেখুক, অসুবিধার কিছু নেই। তবে ১০০ দিনের কাজে যে লেবার বাজেট বাড়ানোর আবেদন আমরা করেছি, তা পূরণ করা হোক। উল্লেখ্য, এই প্রকল্পে কেন্দ্রীয় সরকারের যে বরাদ্দ ছিল তা ছুঁয়ে ফেলেছে রাজ্য। শ্রমদিবসের বাজেট আরও বাড়ানোর জন্য ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রককে চিঠি দিয়েছে পঞ্চায়েত দপ্তর। এই প্রকল্পে এক কোটির বেশি মানুষ কাজে যুক্ত রয়েছেন। যার মাধ্যমে গ্রামীণ অর্থনীতি সচল রয়েছে পঞ্চায়েত দপ্তর সূত্রে জানানো হয়েছে।

18th     January,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ