বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

আসছে না তৃতীয়
ঢেউ, আশ্বাস কেন্দ্রের

সন্দীপ স্বর্ণকার • নয়াদিল্লি: আগামী দিনে কোনও কোনও রাজ্যে বিক্ষিপ্তভাবে সংক্রমণের আঁচ অনুভূত হতে পারে। কিন্তু দেশজুড়ে আঘাত হানতে পারবে না করোনার তৃতীয় ঢেউ। সংক্রমণের হার, টিকাকরণে দ্রুততা এবং ভাইরাসের (সার্স কোভ-টু) গতিপ্রকৃতি বিশ্লেষণ করে এই আশার বাণী শুনিয়েছে কেন্দ্র। সরকারের চিকিৎসা সংক্রান্ত গবেষণা সংস্থা ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর) আশ্বাস দিয়েছে, পরিস্থিতি নাগালের বাইরে যাওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। আর একইসঙ্গে প্রতিষ্ঠানের মহামারীবিদ্যা বিভাগের প্রধান বিজ্ঞানী ডঃ সমীরণ পাণ্ডা রবিবার একান্ত সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ‘যেসব এলাকায় গত তিন মাস করোনা সংক্রমণের পজিটিভিটির হার ৩ শতাংশের কম, সেখানে নিশ্চিন্তে স্কুল খোলা যেতে পারে। ভয়ের কিছু নেই। প্রায় দেড় বছর ধরে গৃহবন্দি জীবন কাটাচ্ছে পড়ুয়ারা। সেখান থেকে বেরিয়ে সহপাঠীদের মুখোমুখি হলে তারা মানসিকভাবে চাঙ্গা হবে... যা স্বাস্থ্যকর এবং প্রয়োজনীয়। তাছাড়া স্কুলে গিয়েই করোনার সংক্রমণ হয়েছে, এমন কোনও প্রমাণ আমাদের সমীক্ষা বা গবেষণায় উঠে আসেনি। এতদিন তো শিশুরা স্কুলে যায়নি, তাহলে শিশুদের করোনা আটকানো যায়নি কেন? আসলে আশেপাশের বড়দের থেকেই ছোটরা সংক্রামিত হয়েছে। এখন পরিস্থিতি বদলেছে। কারণ, অধিকাংশ প্রাপ্তবয়ষ্কই আজ টিকাপ্রাপ্ত। ফলে ছেলেমেয়েদের সংক্রমণের আশঙ্কাও কমেছে।’
২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে শিখর ছুঁয়েছিল করোনা মহামারীর প্রথম ঢেউ। দৈনিক সর্বাধিক সংক্রমণের রেকর্ড ছিল ৯৭ হাজার। দ্বিতীয় ঢেউ সেই সব ছাপিয়ে গিয়েছে। সবথেকে বেশি দৈনিক সংক্রমণ এই পর্বে ৪ লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছিল। ইদানীং সেই হার ৩০ হাজারের আশপাশে ঘোরাফেরা করলেও সিঁদুরে মেঘ দেখছে মানুষ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণও সতর্ক করেছেন, ‘লকডাউন, কন্টেইনমেন্ট জোন, কিংবা ভ্যাকসিন কর্মসূচির মাধ্যমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা গিয়েছে। তাও দ্বিতীয় ঢেউ সম্পূর্ণ বিদায় নেয়নি।’ বিশেষত, কেরল, মহারাষ্ট্র, মণিপুরের মতো কয়েকটি রাজ্যে নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধিতেই সমস্যা বেড়েছে। 
তবে ডঃ সমীরণ পাণ্ডা আশ্বস্ত করেছেন, ‘দেশজুড়ে যেভাবে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ উঠেছিল, তা আর হবে না। যেসব রাজ্যে আগে সংক্রমণ কম হয়েছে বা আগেভাগে কড়া লকডাউনে মানুষকে আটকে রাখা হয়েছে, সেইসব এলাকায় হয়তো সংক্রমণ হবে। প্রবীণ নাগরিকরা বেশি সমস্যায় পড়বেন। তবে দেশজুড়ে তৃতীয় ঢেউ আসবে না। নিশ্চিন্তে থাকুন। বিক্ষিপ্তভাবে যে রাজ্যগুলি আক্রান্ত হবে, সেখানেও সংক্রমণের হার হবে অত্যন্ত কম। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রথম ঢেউয়েরও অর্ধেকের কম হবে। বিশ্লেষণ করেই এই তথ্য পেয়েছি আমরা।’ 
এরপরও আইসিএমআর সতর্ক করেছে, তৃতীয় ঢেউ আসছে না জেনে লাগামছাড়া হলেই বিপদ। কারণ করোনা ভাইরাস এখনও ছড়িয়ে রয়েছে। ফলে আরও কিছুদিন মাস্ক সহ কোভিড বিধি মেনে চলতে হবে। অন্যদিকে, স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, দেশজুড়ে গত ৯৩ দিন সাপ্তাহিক পজিটিভিটির হার ১.৯৮ শতাংশ। সক্রিয় আক্রান্তের হার মাত্র ০.৯০ শতাংশ। 

27th     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021