বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

‘বাংলা বামশূন্য, এবার লক্ষ্য বিজেপিমুক্ত দেশ’
ভবানীপুরে জয় নিয়ে প্রত্যয়ী মমতার
 আবেদন, ঝড়-বৃষ্টি মাথায় নিয়েও ভোট দিন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লক্ষ্য তাঁর বহুদূর, দিল্লি। সিপিএমের হাত থেকে বাংলাকে ‘স্বাধীন’ করার পর এবার ‘দেশ বাঁচাতে’ বিজেপিকে সরানোই তাঁর আশু কর্তব্য। বামশূন্য বাংলার পর বিজেপিমুক্ত ভারত। ভবানীপুর উপনির্বাচনের জয় সেই ভিত মজবুত করবে। তাই বুধবার নিজের ‘ঘরে’ দাঁড়িয়ে ভবানীপুর বিধানসভার উপনির্বাচনের প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আর্জি, ‘আমার পাশে থাকুন।’ দেশকে বাঁচাতে পাড়া-প্রতিবেশীর সহযোগিতা তাঁর আগে দরকার। সেটাই ফুটে উঠেছে তৃণমূল সুপ্রিমোর ভাষণে। প্রত্যয়ী মমতার স্পষ্ট বার্তা, ‘খেলা হবে। এরপর দিল্লিও দখল হবে।’
এদিন একবালপুর ও চেতলায় উপনির্বাচন উপলক্ষে গণসংযোগ কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথমে বিকেল সাড়ে চারটের কিছু পরে একবালপুরের সুধীর বসু রোডের ছোট্ট মঞ্চে পৌঁছন তিনি। সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি ও কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। তিনি ঢুকতেই তারস্বরে ‘দিদি... দিদি’ সম্ভাষণে উদ্বেল হয় জনতা। বৃষ্টি উপেক্ষা করেই সভাস্থল জনারণ্য। ৫টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত বক্তব্য রাখেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকে যান চেতলার অহীন্দ্র মঞ্চের সামনে। সেখানেও প্রায় মিনিট চল্লিশেক ভাষণ দেন তিনি। দুই মঞ্চেই এই উপনির্বাচনের গুরুত্ব বারবার জনতাকে বুঝিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। 
এদিন মমতা বলেন, ‘৩০ বছর লড়াই করে সিপিএমের হাত থেকে বাংলাকে স্বাধীন করেছি। এবার বিজেপির সঙ্গে লড়াই করে দেশকে স্বাধীন করব। তাই আপনাদের প্রত্যেকটা ভোটের গুরুত্ব রয়েছে। ১০০ শতাংশ ভোট চাই। তাই ঝড়-বৃষ্টি হলেও ভোট দিতে যাবেন। দিদি তো জিতেই যাবে। এই ভেবে বাড়িতে বসে থাকবেন না।’ এই ভোটের জয় আগামীর দিল্লির জয়কে মজবুত করবে বলেই মনে করেন তিনি। এদিন চেতলার মঞ্চেও মমতা বলেছেন, ‘খেলা হবে। দিল্লিও দখল হবে। ত্রিপুরা, অসম, গোয়াতেও খেলা হবে। কেন্দ্রীয় সরকার দেশে তালিবানি শাসন কায়েম করবে, সেটা হতে দেব না। ভারতকে টুকরো করতে দেব না।’ এদিন ভাষণে ত্রিপুরা ইস্যুতেও বিজেপিকে এক হাত নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ত্রিপুরাতে তৃণমূল কংগ্রেসের মিছিল আটকাতে নভেম্বর মাস পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছে বিজেপি সরকার। তৃণমূল সুপ্রিমোর প্রশ্ন, ‘তাহলে কি ওখানে দুর্গাপুজো ১৪৪ ধারাতেই হবে?’ মা দুর্গার পুজোর সময় ১৪৪ ধারা জারি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মমতা। পাশাপাশি ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থীর হয়ে প্রচার করতে আসা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দিকে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘এসেছেন ভালো কথা। কিন্তু ওঁকে জিজ্ঞাসা করবেন, গ্যাস বা পেট্রলের দাম কবে কমাবেন?’ 
ভবানীপুরের সঙ্গে তাঁর নাড়ির যোগ। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের চড়াই-উতরাইয়ে ভবানীপুরের মানুষকে তিনি সব সময় পাশে পেয়েছেন। আগামীর ‘দিল্লি জয়ের’ জন্য তাই এই উপভোটের গুরুত্ব অপরিসীম। ফের ভবানীপুরের উপনির্বাচনে ময়দানে তাঁর ফেরাকে এদিন ‘ভাগ্যের খেলা’ বলেই তাই দাবি করেছেন মমতা। খিদিরপুরের জমা জলের সমস্যার সমাধানে নতুন পাম্পিং স্টেশন তৈরি হবে বলেও জনতাকে আশ্বস্ত করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। 

23rd     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021