বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

তৃতীয় ঢেউয়ের জন্য ১ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীকে
তিন মাসের প্রশিক্ষণ, ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: তিন মাসের ক্র্যাশ কোর্স। দেশের ১ লক্ষ যুবক যুবতীকে স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে প্রশিক্ষণ দিয়ে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের জন্য তৈরি করবে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু প্রশিক্ষণের পর তাদের স্থায়ী চাকরির কোনও নিশ্চয়তা দেওয়া হচ্ছে না। স্বাস্থ্য পরিকাঠামোয় তাদের কাজে লাগানো হবে অস্থায়ীভাবে। কোভিড সঙ্কটে গত দেড় বছর ধরে দেখা গিয়েছে, ওষুধ, পরিকাঠামো, হাসপাতালের বেড তো বটেই, উপযুক্ত স্বাস্থ্যকর্মীর অভাবও অনুভূত হয়েছে দেশজুড়ে। কোভিড সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ এখনও বিদ্যমান। সংক্রমণ কমলেও, সতর্কতা শিথিল করা যাবে না বলেই বিশেষজ্ঞদের পক্ষ থেকে বারংবার হুঁশিয়ারি দেওয়া হচ্ছে। সবথেকে বড় অনিশ্চয়তা হল, এবার আসছে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ। সেই নতুন ঢেউ কেমন হবে চরিত্রে এবং কতটা সক্রিয় হবে সেটা এখনও অনিশ্চিত। 
সেই তৃতীয় ঢেউ সামাল দিতে এবং স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর উন্নয়নে সরকারি ও বেসরকারি ক্ষেত্রে কর্মরত ডাক্তার, নার্সদের সহায়তা করার জন্যই আরও এক লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীকে তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই ঘোষণা করেছেন। এই নতুন স্বাস্থ্যকর্মীদেরও কোভিড যোদ্ধা হিসেবেই স্বীকৃতি দেওয়া হবে। ১ লক্ষ অতিরিক্ত স্বাস্থ্যকর্মীকে প্রশিক্ষণ দিতে তিন মাসের একটি ক্র্যাশ কোর্স দেওয়া হবে। তারপর তাদের কাজে লাগানো হবে দেশজুড়ে ছড়িয়ে থাকা চিকিৎসা পরিকাঠামোয়। 
আশ্বাস দিয়ে মোদি বলেছেন, এভাবে সরকারের থেকে প্রশিক্ষণ পাওয়ার পর তাঁরা কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে নিজেদের যথেষ্ট যোগ্য স্থানেই নিয়ে যাবেন। প্রশিক্ষণের সময় এই ১ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীকে বিশেষ ভাতাও দেওয়া হবে। তাদের অস্থায়ীভাবে যখনই কোনও স্বাস্থ্য পরিকাঠামোয় যুক্ত করা হবে, তখনই দেওয়া হবে বিশেষ ভাতা। কিন্তু এই ১ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীকে প্রশিক্ষণের পর স্থায়ী স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে নিয়োগ করা হবে কি না তা নিয়ে এই পরিকল্পনায় কোনও নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি। 
কোভিড সঙ্কটে সবথেকে বেশি অভাব দেখা গিয়েছে স্বাস্থ্যকর্মী তথা প্যারা মেডিকেল স্টাফের। দেশজুড়ে দাবি উঠেছিল, অবিলম্বে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো নির্মাণ করা হোক এবং প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্য কর্মীর সংখ্যা বাড়ানো হোক সরকারি স্তরে। তাই আশা করা হয়েছিল, সরকারি স্তরেই নিয়োগ করা হবে প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীদের। মোট ৬টি বিশেষ স্বাস্থ্য পরিষেবাকে বাছাই করা হয়েছে প্রশিক্ষণের জন্য। হোম কেয়ার, বেসিক কেয়ার, অ্যাডভান্সড কেয়ার, ইমার্জেন্সি কেয়ার, স্যাম্পল কালেকশন এবং মেডিকেল ইকুইপমেন্ট সাপোর্ট। দেশের ২৬টি রাজ্যে ১১১ টি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে এই প্রকল্প শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর এই কৌশল বিকাশ যোজনার অন্তর্ভুক্ত প্রকল্পের জন্য ২৭৬ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। 

19th     June,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021