বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

করোনা কেড়ে নিয়েছে প্রিয়জনকে। কান্নায় ভেঙে পড়েছেন পরিবারের সদস্যরা। বুধবার পাটনা মেডিক্যাল কলেজে তোলা পিটিআইয়ের ছবি।

কোভিড আবহে রাহুল-ইয়েচুরির
প্রচার অনিশ্চিত, মোর্চা বিপাকে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গোটা দেশের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রা঩জ্যেও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে পুরোদমে। কিন্তু এই মারাত্মক পরিস্থিতিতেও রাজ্যে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভোটের প্রচারে তেমন কোনও লাগাম পড়েনি। রাজনৈতিক দলগুলি কমবেশি বড় জমায়েত বা রোড শো করে গিয়েছে। কিছুটা ব্যতিক্রম হিসেবে সংযুক্ত মোর্চার তরফে এদিন কোনও বড় মাপের জমায়েত করা হয়নি। তবে তারাও যে সর্বত্র কোভিড বিধি হুবহু সব কর্মসূচির ক্ষেত্রে পালন করেছে, তাও নয়। তবে এই অবস্থায় মোর্চার শেষ তিনদফার ভোটের প্রচারের পরিকল্পনা অনেকটাই ঘেঁটে গিয়েছে। ফলে তারা বেশ বিপাকে পড়েছে। মোর্চার অন্যতম শরিক তথা সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি আপাতত রাজ্যে প্রচারে পা রাখতে পারছেন না। পাশাপাশি কংগ্রেসের সর্বভারতীয় নেতা রাহুল গান্ধীও দ্বিতীয় দফায় আর প্রচারে আসবেন কি না তাও কিছুটা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আজ শুক্রবার নির্বাচন কমিশন শেষ তিনদফার ভোট নিয়ে আলোচনার জন্য সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছে। সেই বৈঠকে প্রচার নিয়ে কী সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়, তার উপর ইয়েচুরি বা রাহুলের মতো দুই সর্বভারতীয় নেতা শেষ পর্যন্ত আদৌ আর আসবেন কি না, তা নির্ভর করছে। 
আলিমুদ্দিন সূত্রের খবর, শেষ তিনদফার নির্বাচন একদিনে করার ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিনই ট্যুইট করে প্রস্তাব দিলেও বামফ্রন্ট আইনগত কারণে সরাসরি সেই সুরে সুর মেলাবে না। প্রথম পাঁচদফার ভোটে যুযুধান দল বা প্রার্থীরা যে প্রচারের সুবিধা বা সুযোগ পেয়েছে বাকি তিনদফার ক্ষেত্রে তা না দেওয়া হলে আইনি জটিলতা তৈরি হতে পারে বলে মনে করছেন বাম নেতারা। মাঝপথে কমিশন সেটা জোর করে চাপিয়ে দিতে চাইলে কেবল কোনও দল নয়, একজন নির্দল প্রার্থীও হাইকোর্টে গিয়ে এবিষয়ে মামলা করলে গোটা নির্বাচন প্রক্রিয়া আরও জটের মধ্যে পড়তে পারে বলে তাঁদের আশঙ্কা। তাই মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকেও তারা এই আশঙ্কার মনোভাব জানিয়ে দেবে। তবে প্রচারের পাশাপাশি ভোটগ্রহণের দিন সর্বত্র যাবতীয় কোভিড বিধি মেনে চলার বিষয়ে কমিশন কঠোর মনোভাব গ্রহণ করুক—বৈঠকে তারা সে কথাই জানাবে। এক্ষেত্রে তিনদফার প্রচারে কোনও বড় জমায়েত বা রোড শো করার অনুমতি না দেওয়ার জন্য বাম নেতৃত্ব বৈঠকে সওয়াল করবে বলে ঠিক করেছে। বিপর্যয় মোকাবিলা আইন মোতাবেক কমিশন প্রচার নিয়ে কতটা কঠোর পদক্ষেপ করতে পারে সে বিষয়ে অবহিত করতে বাম শিবিরের তরফে সিপিএমের আইনজীবী-নেতা তথা সাংসদ বিকাশ ভট্টাচার্য ওই বৈঠকে যাবেন। 
এদিকে, প্রদেশ কংগ্রেসও এব্যাপারে বাম শিবিরের সঙ্গেই একমত ব্যক্ত করবে বলে ঠিক করেছে। বস্তুত এদিন দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনের সদর দপ্তরে সিপিএম এবং কংগ্রেস নেতারা যৌথভাবে দরবার করে রাজ্যের শেষ তিন দফার ভোটে তাঁরা কোনও বড় মাপের সভা বা জমায়েত করবে না বলে আগাম জানিয়ে এসেছেন। এই অবস্থায় প্রদেশ নেতৃত্বও এখন রাহুল বা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীদের দক্ষিণবঙ্গের প্রচারে ডাকার ঝুঁকি নিতে পারছে না। এদিন দিল্লি থেকে কেসি বেণুগোপাল সহ হাইকমান্ডের একাধিক নেতা ফোন করে প্রদেশ নেতৃত্বের সঙ্গে রাহুলদের পরবর্তী প্রচার কর্মসূচি নিয়ে কথা বলেন। কোভিড পরিস্থিতি যেভাবে দ্রুত খারাপ হচ্ছে রাজ্যে তাতে এই অবস্থায় রাহুল বা প্রিয়াঙ্কাদের বাংলায় প্রচারে যাওয়া উচিত হবে কি না তা নিয়ে প্রদেশ নেতাদের মত জানতে চায় দিল্লি। যদিও বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান বা প্রবীণ সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্যের মতো সিনিয়র নেতারা এবিষয়টি প্রদেশ সভাপতি অধীর চৌধুরীর সিদ্ধান্তের উপর ছেড়ে দেন।   

16th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
12th     May,   2021