বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

১. সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে জারি হয়েছে বিধিনিষেধ। শুনশান মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভ। ২. করোনা সংক্রমণ বাড়ায় দোকানপাট বন্ধ রেখেছেন লখনউয়ের জনপথ মার্কেটের দোকানিরা। ৩. কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হচ্ছে নয়াদিল্লির নিগমবোধ ঘাটে। ৪. মৃতদেহ পোড়ানোর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর টিন দিয়ে ঢেকে দেওয়া হচ্ছে লখনউয়ের বৈশ্যকুন্ড শশ্মানঘাট। ৫. আমেদাবাদে কোভিড হাসপাতালের বাইরে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন আক্রান্তদের আত্মীয়-পরিজনেরা। বৃহস্পতিবার পিটিআইয়ের তোলা ছবি। 

হাওড়ায় দুই প্রার্থীর রোড শোয়ে হিন্দুত্বের 
কার্ড খেলে মন জয়ের চেষ্টা অমিত শাহের

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: রাজ্যে ভোটপর্ব যত এগচ্ছে, বিজেপি ততই তৎপর হচ্ছে ‘হিন্দুত্ববাদী’ রাজনীতির পালে হাওয়া দিতে। বুধবার দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ হাওড়ায় পরপর দু’টি কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে সেই হিন্দুত্ব কার্ডই খেললেন। এদিন তিনি মধ্য হাওড়া কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী সঞ্জয় সিং এবং ডোমজুড় কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে দু’টি আলাদা রোড শো করেন। মধ্য হাওড়ার রোড শোয়ের শেষে তিনি বলেন, আপনারা কি চান না যে, এই রাজ্যে সুষ্ঠুভাবে দুর্গাপুজো হোক? ভালোভাবে সরস্বতী পুজো হোক? আপনারা কি কাটমানি আর সিন্ডিকেটের সরকার চান? রোড শোয়ে উপস্থিত মানুষের উদ্দেশে তিনি প্রশ্নগুলি ছুঁড়ে দেন। 
এদিন তিনি আরও বলেন, বাংলায় বিজেপি সরকার এলে গুন্ডারাজ খতম হবে। বেকারদের চাকরি হবে। ফিরে আসবে শান্তি। এদিন প্রার্থী সঞ্জয় সিংয়ের হয়ে মধ্য হাওড়ার অলোকা থেকে মল্লিকফটক পর্যন্ত রোড শো করেন তিনি। ডোমজুড়ের প্রার্থীর সমর্থনে জগদীশপুর হাট থেকে কোনা পর্যন্ত রোড শো করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, এখনও পর্যন্ত তিন দফায় নির্বাচন হওয়া ৯১টি আসনের মধ্যে ৬৩ থেকে ৬৮টি আসন পাবে বিজেপি। আগামী দিনে দুশোরও বেশি আসন পেয়ে সরকার গড়তে চলেছে বিজেপি। এদিন রোড শো শুরুর আগে স্থানীয় বাসিন্দা শিশির সানার বাড়িতে গিয়ে  মধ্যাহ্নভোজ সারেন অমিত।
রাজ্যে ভোটের প্রচার পর্বের শুরু থেকেই এখানে দুর্গাপুজো ও সরস্বতীপুজো নিয়ে এই ধরনের বক্তব্য রেখে চলেছেন অমিত শাহ থেকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথরা। যদিও মানুষের একটা বড় অংশের প্রশ্ন, রাজ্যে তো ধুমধাম করেই ফি-বছর দুর্গাপুজো হচ্ছে। সরকারও নানাভাবে সাহায্য করছে তাতে। তা সত্ত্বেও বাঙালির প্রিয় দু’টি পুজো অনুষ্ঠানকে ‘বিপন্ন’ বলে প্রচার করে ধর্মের ভিত্তিতে মেরুকরণকেই বিজেপি শক্তিশালী করতে চাইছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ। ভিনরাজ্যের নেতানেত্রীরা যখন এসব বলছেন, তখন জনগণের একাংশ সোল্লাসে তাতে হর্ষধ্বনিও দিচ্ছেন। ফলে গেরুয়া শিবিরের ‘কৌশল’ কাজে লাগছে বলেও মনে করছেন তাঁদের নেতানেত্রীরা। 

8th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
15th     April,   2021