বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

১. সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে জারি হয়েছে বিধিনিষেধ। শুনশান মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভ। ২. করোনা সংক্রমণ বাড়ায় দোকানপাট বন্ধ রেখেছেন লখনউয়ের জনপথ মার্কেটের দোকানিরা। ৩. কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হচ্ছে নয়াদিল্লির নিগমবোধ ঘাটে। ৪. মৃতদেহ পোড়ানোর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর টিন দিয়ে ঢেকে দেওয়া হচ্ছে লখনউয়ের বৈশ্যকুন্ড শশ্মানঘাট। ৫. আমেদাবাদে কোভিড হাসপাতালের বাইরে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন আক্রান্তদের আত্মীয়-পরিজনেরা। বৃহস্পতিবার পিটিআইয়ের তোলা ছবি। 

জনসভায় ভিড়ের ছবি পোস্ট করছেন
মোদি, বাংলায় করোনা সতর্কতা শিকেয়

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী তাঁর ট্যুইটারে একের পর এক জনসভার ভিডিও পোস্ট করেছেন। এবং সেই সঙ্গে তাঁর সমাবেশের ভিড়কে কৃতিত্ব হিসেবে ব্যাখ্যা করে জানিয়েছেন, মানুষের মুডই প্রমাণ করছে বিজেপিই ক্ষমতায় আসছে। প্রধানমন্ত্রীর পোস্ট করা ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, অসংখ্য মানুষের ভিড় অথচ কোনও মাস্ক অথবা সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং নেই। 
বুধবার হাওড়া, ডোমজুড়, সিঙ্গুরের রোড শো’র ভিডিও নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেও গৌরবের সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুঝিয়েছেন যে, এই  ভিড়ই প্রমাণ করছে বিজেপি কতটা জনপ্রিয়। সমাবেশ অথবা মিছিলে কম ভিড় হওয়াই বর্তমান বিপজ্জনক পরিস্থিতিতে যেখানে কাঙিক্ষত, সেখানে হুগলির সভায় কেউ আসেনি বলে দুঃখ পেয়ে বিজেপি সভাপতি জগৎপ্রকাশ নাড্ডার সভা বাতিলই হয়ে যায়। 
তবে রাজ্যে রাজ্যে আংশিক লকডাউন, নাইট কার্ফু, মাস্ক না পরলে জরিমানা, একা গাড়ি চালালেও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক বলে আদালতের রায়ে যখন সতর্কতা চলছে, তখনই সম্পূর্ণ বিপরীত অবস্থানে থাকতে বাধ্য হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ। কারণ সব রাজ্যে ভোটপর্ব এক অথবা তিন পর্বে মিটে গেলেও বাংলায় আট দফায় ভোটের কারণে আরও ২০ দিন ধরে চলবে প্রচার। স্বাভাবিকভাবেই কোনও সতর্কতামূলক ব্যবস্থাই এই রা঩জ্যে প্রয়োগ করা হচ্ছে না কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য অথবা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে। কোনও টিমও আপাতত আসছে না। সবথেকে বিপজ্জনক পরিস্থিতির যখন উদ্ভব হয়েছে, তখন পশ্চিমবঙ্গ গোটা দেশের মধ্যে একমাত্র ব্যতিক্রম হয়ে থাকছে করোনা প্রোটোকলে। কারণ ২৯ মার্চ সমাপ্ত হবে আট দফার ভোট প্রক্রিয়া। 
করোনার এই চরম আক্রমণের মধ্যেই কিন্তু অসম, তামিলনাড়ু, কেরল,  স্বস্তি পেয়েছে। কারণ ওইসব রাজ্যে ভোট হয়েছে মাত্র একটি দফা অথবা  তিন দফায়। এবং সেই পর্ব ইতিমধ্যেই সমাপ্ত। এখন করোনা বিধি কড়াভাবে মান্য করতে তাদের কোনও সমস্যা নেই। দেশের রাজনৈতিক মহলে, সোশ্যাল মিডিয়ায় এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে করোনার এই  দ্বিতীয় দফার উদ্বেগজনক সংক্রমণে পশ্চিমবঙ্গের চিত্র নিয়ে জোরদার চর্চা শুরু হয়েছে। আজ প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে জরুরি বৈঠক। ওই বৈঠকে যে কোনও সতর্কতামূলক সিদ্ধান্ত অথবা পদক্ষেপই হোক, সেটা অন্য রাজ্যের সঙ্গে বাংলায় প্রয়োগ কতটা সম্ভব হবে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। 
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক নতুন একঝাঁক নির্দেশিকা ইস্যু করেছে। দিল্লি হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে, একা গাড়ি চালালেও মাস্ক পরতে হবে চালককে। কারণ, রাস্তায় গাড়ি চলছে। অর্থাৎ গাড়ি একটি পাবলিক প্লেস। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক থেকে সরকারের প্রচার বিভাগ পিআইবি, সকলেই সবরকম সতর্কতা নিয়ে সারাদিন ধরে প্রচার শুরু করেছে করোনা ঠেকাতে। কিন্তু তার একটিও পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হচ্ছে না ভোটের কারণে। নতুন করে পাঞ্জাব, ছত্তিশগড়ে আংশিক লকডাউন ও নাইট কারফিউ শুরু হয়েছে। মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, তেলেঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশে চরম সতর্কতা ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু আট দফা ভোটের কারণে পশ্চিমবঙ্গের সতর্কতা বিশ বাঁও জলেই। 

8th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
15th     April,   2021