বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

১. সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে জারি হয়েছে বিধিনিষেধ। শুনশান মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভ। ২. করোনা সংক্রমণ বাড়ায় দোকানপাট বন্ধ রেখেছেন লখনউয়ের জনপথ মার্কেটের দোকানিরা। ৩. কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হচ্ছে নয়াদিল্লির নিগমবোধ ঘাটে। ৪. মৃতদেহ পোড়ানোর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর টিন দিয়ে ঢেকে দেওয়া হচ্ছে লখনউয়ের বৈশ্যকুন্ড শশ্মানঘাট। ৫. আমেদাবাদে কোভিড হাসপাতালের বাইরে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন আক্রান্তদের আত্মীয়-পরিজনেরা। বৃহস্পতিবার পিটিআইয়ের তোলা ছবি। 

দেশমুখের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্তে
মুম্বইতে সিবিআইয়ের দ্বিতীয় টিম

মুম্বই: মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্তে বুধবার মুম্বই এল সিবিআইয়ের দ্বিতীয় টিম। সূত্রের খবর, এই দ্বিতীয় টিমের নেতৃত্বে রয়েছেন সুপারিনটেন্ডেন্ট পদমর্যাদার এক পুলিসকর্মী (এসপি)। এছাড়াও এসেছেন প্রায় ছ’জন সিবিআই আধিকারিক। এর আগে মঙ্গলবার মুম্বই আসে সিবিআইয়ের প্রথম টিম। তাদের প্রাথমিক তদন্তের একদিন পরে দ্বিতীয় টিম মুম্বই এল। জানা যাচ্ছে, সিবিআইয়ের এই দু’টি টিমই সম্ভাব্য সাক্ষী, সন্দেহভাজন এবং অভিযোগকারীদের বয়ান রেকর্ড করবে। প্রাক্তন সিপি পরমবীর সিং সহ মুম্বই পুলিসের শীর্ষ আধিকারিকদেরও বয়ান রেকর্ড করা হতে পারে। 
গত মাসে মুম্বই পুলিসের প্রাক্তন সিপি পরমবীর সিং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব থ্যাকারেকে চিঠি লিখে অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করেন। চিঠিতে তিনি লেখেন, সাসপেন্ড হওয়া পুলিস আধিকারিক শচীন ভাজে সহ অন্যান্য পুলিস আধিকারিকদের ঘুস বাবদ মুম্বইয়ের ব্যবসায়ীদের থেকে প্রতিমাসে ১০০ কোটি টাকা তুলতে বলেছিলেন অনিল দেশমুখ। এই ভাজেকেই শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির বাড়ির সামনে বিস্ফোরক বোঝাই এসইউভি রাখার মামলায় গ্রেপ্তার করেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা বা এনআইএ। এ নিয়ে বম্বে হাইকোর্ট সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিলে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন অনিল। তবে ভাজেকে সিবিআই জিজ্ঞাসাবাদ করবে কি না, তা এখনও পরিষ্কার নয়।
এই অবস্থায় শচীন ভাজের নিয়োগকে কেন্দ্র করে পরমবীর সিংকে চেপে ধরার কৌশল নিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র দপ্তরকে ভাজে নিয়ে রিপোর্ট জমা দিয়েছে মুম্বই পুলিস। সেই রিপোর্টকেই পরমবীরের বিরুদ্ধে ঢাল করতে চলেছে সরকার। জানা যাচ্ছে, দেড় দশকেরও বেশি আগে ২০০৩ সালে কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগে সাসপেন্ড করা হয় ভাজেকে। গত বছর করোনার সময়ে কর্মীর অপ্রতুলতার কথা জানিয়ে ভাজেকে সিআইইউতে ফিরিয়ে আনেন পরমবীর। যুগ্ম সিপির (অপরাধ) আপত্তি অগ্রাহ্য করেই এই নিয়োগ করা হয়েছিল। এরপর পরমবীর এবং ভাজে মিলে অনেক ক্ষেত্রেই পুলিসের নানা নিয়ম মানেননি। ঊর্ধ্বতনদের পাশ কাটিয়ে ভাজে সরাসরি কোনও বিষয়ে রিপোর্ট করতেন সিপি পরমবীরকে। এমনকী, টিআরপি কেলেঙ্কারি, ডিসি কার ফিন্যান্স কেস, মুকেশ আম্বানির নিরাপত্তার গাফিলতির মতো গুরুত্বপূর্ণ মামলা নিয়ে মন্ত্রিস্তরের বৈঠকে পরমবীরের সঙ্গে দেখা যেত ভাজেকেও। সিপির নির্দেশে বেশ কিছু বিষয়ের সরাসরি তদন্ত করেছেন ভাজে। অন্যদিকে, শচীন ভাজের এনআইএ হেফাজতের মেয়াদ ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িয়েছে আদালত।

8th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
15th     April,   2021