বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

ডায়মন্ডহারবার থেকে ক্রুজে এবার কম সময়ে দীঘা, পুরী

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: দীপুদা— অর্থাৎ দীঘা, পুরী, দার্জিলিং।  কম সময়ে স্বল্প খরচে বাঙালির অতি পছন্দের টুরিস্ট ডেস্টিনেশন বলতে এই তিন জায়গা। সারা বছরই বাংলা থেকে অসংখ্য পর্যটক যান এই তিনটি স্পটে। রেলপথ বা সড়কপথে এসব জায়গায় যাতায়াতে বেশি ঝক্কি পোহাতে হয় না। তবে দার্জিলিং বাদ দিলে বাকি দু’টি টুরিস্ট স্পটে এবার জলপথে ভ্রমণের মজা নিতে পারবেন পর্যটকরা। সৌজন্যে ডায়মন্ডহারবার পুরসভা। পিপিপি মডেলে ক্রুজ চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে তারা। এর ফলে হুগলি নদী ও সমুদ্র উপকূল বেয়ে ওই ক্রুজ পর্যটকদের পৌঁছে দেবে দীঘা ও পুরীতে। বাস, ট্রেনের তুলনায় যেতে সময়ও লাগবে অনেক কম। ডায়মন্ডহারবার পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান রাজর্ষি দাস বলেন, এই দু’টি রুটে ক্রুজ চালানোর জন্য খুব শীঘ্রই ট্রায়াল রান হবে। যে সংস্থা আগ্রহ প্রকাশ করেছে, তাদের সঙ্গে একপ্রস্থ কথাবার্তা হয়েছে। পুরসভার পক্ষ থেকে এই জলপথে নজরদারি চালানো হবে।
এর আগে ডায়মন্ডহারবার থেকে গঙ্গাসাগর পর্যন্ত ক্রুজ চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। তার ট্রায়াল রান সফলভাবেই শেষ হয়েছে। সে কথা মাথায় রেখেই এবার দীঘা ও পুরীতে পর্যটকদের পৌঁছে দিতে বিশেষ পরিকল্পনা করছে ডায়মন্ডহারবার পুরসভা। সূত্রের খবর, ডায়মন্ডহারবার জেটি থেকে ক্রুজ ছেড়ে প্রথমে যাবে গঙ্গাসাগর। সেখানে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর তা ছুটবে পুরীর উদ্দেশ্যে। যাত্রী সংখ্যা বাড়লে আগামী দিনে এই রুটে ক্রুজের সংখ্যা বাড়ানো হবে বলে প্রাথমিকভাবে আলোচনা হয়েছে। রাজর্ষিবাবুর কথায়, অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, যেসব পর্যটক তীর্থ করতে আসেন, তাঁদের একটা অংশ গঙ্গাসাগর হয়ে পুরী যান। সেক্ষেত্রে গঙ্গাসাগর থেকে হাওড়া বা শিয়ালদহ হয়ে ট্রেনে কিংবা বাবুঘাট থেকে বাসে অনেকটা ঘুরে জগন্নাথদেবকে দর্শন করতে যেতে হয়। ক্রুজ চালু হলে সেই ঝক্কি আর পোহাতে হবে না দর্শনার্থীদের। তাঁরা কপিলমুনির আশ্রম ঘুরে ক্রুজে করেই পুরী চলে যেতে পারবেন। ডায়মন্ডহারবার থেকে পুরী যেতে সময় লাগবে আনুমানিক ছ’ঘণ্টা। অন্যদিকে, দীঘা যেতে সময় লাগবে মাত্র ১ ঘণ্টা ২০ মিনিট। ক্রুজের ভাড়া কত হবে, তা অবশ্য এখনও ঠিক হয়নি। আলাপ-আলোচনার মধ্যে দিয়েই তা ঠিক করা হবে বলে পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে। পিপিপি মডেলে ক্রুজ চালানো হলে পুরসভার লাভ কতটা হবে? এ বিষয়ে ভাইস চেয়ারম্যানের দাবি, পুরসভার আয় নেহাত কম হবে না। এতে পুরসভার যেমন আয় বাড়বে, তেমনই পর্যটকদেরও জলপথে যাওয়ার নতুন অভিজ্ঞতা হবে। এটাই বড় প্রাপ্তি।

4th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ