বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

পোলট্রির ডিম বিক্রি হচ্ছে জোড়া ১৪ টাকায়
দাম বৃদ্ধি নিয়ে ব্যবসায়ীরা
দুষছেন মোদি সরকারকেই

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মুরগির মাংসের দামের ওঠা-নামা রীতিমতো চিন্তায় রেখেছে সাধারণ মানুষকে। এবার সেই তালিকায় নতুন সংযোজন পোলট্রির ডিম। বাজার ভেদে ১৪ টাকা জোড়ায় বিকোচ্ছে ডিম। ওমলেট বা ডিম-ভাত খাওয়াও এখন চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।
দিন কয়েক আগেও ১০ বা ১১ টাকা জোড়ায় বিক্রি হতো ডিম। কেন তা ১৪ টাকায় পৌঁছল? ব্যবসায়ীরা বলছেন, উৎপাদন খরচ অস্বাভাবিক বৃদ্ধির ফলে একইসঙ্গে চড়ছে মাংস ও ডিমের দর। ভুট্টা দানা থেকে শুরু করে অন্যান্য খাবারের দাম লাগামছাড়া। সরাসরি চীন থেকে ওষুধ আসছে না। সেই ওষুধ ঘুরপথে অন্য দেশ থেকে চড়া দামে আনতে হচ্ছে। এমনই অভিযোগ এদেশের পোলট্রি ফার্ম মালিকদের। এই পরিস্থিতিতে সস্তায় ডিম বিক্রি করা কঠিন। তাঁদের অভিযোগ, পশুখাদ্য রপ্তানিতে কেন্দ্র পুরোপুরি রাশ টানছে না। বৈদেশিক মুদ্রা বাড়াতে গিয়ে সঙ্কটে ফেলা হচ্ছে অভ্যন্তরীণ ব্যবসাকেই। লক্ষ লক্ষ মানুষের রুটিরুজিতে ধাক্কার ক্ষেত্রেও সরকার নির্বিকার কেন? 
ন্যাশনাল এগ কো-অর্ডিনেশন কমিটির রাজ্য শাখার চেয়ারম্যান মদনমোহন মাইতি বলেন, মুরগির খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ার সমস্যা বহু পুরনো। তবে, এবার ফার্মগুলির দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। আমরা সংগঠনের তরফে কেন্দ্রকে দু’বছর ধরে চিঠি লিখছি। কিন্তু সুরাহা মেলেনি। পশুখাদ্যের দাম না কমলে সমস্যা বাড়তেই থাকবে। একটাই আশার কথা, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া প্রভৃতি দেশ থেকে ফের পাম তেল আমদানি শুরু হয়েছে। এই প্রক্রিয়া স্বাভাবিক হলে পশুখাদ্যের দাম কমতে পারে। তখন হয়তো ডিমের দামেও লাগাম দেওয়া যাবে। মদনমোহনবাবুর ব্যাখ্যা, এখানে পাম তেল আমদানিতে টান পড়ায় বাদাম বা অন্যান্য তৈলবীজের চাহিদা বেড়ে গিয়েছিল। ফলে বেড়েছিল খইলেরও দাম। খইল পশুখাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। পাম তেলের আমদানি স্বাভাবিক হলে খইলের সঙ্কটও কাটতে পারে। আশা করছে সংশ্লিষ্ট মহল।

5th     July,   2022
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ