বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

টানা ৮ ঘণ্টা সিবিআইয়ের জেরা পার্থকে
বক্তব্যে অসঙ্গতি, দাবি এজেন্সির

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এসএসসিতে গ্রুপ ‘সি’ পদে নিয়োগের সুপারিশপত্রের সঙ্গেই পাঠানো হয়েছিল একটি চিরকুট। এমনই দাবি তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইয়ের। সেই চিরকুটে থাকা সইটি কার? তা জানতেই বুধবার দিনভর তারা জিজ্ঞাসাবাদ করল তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী তথা বর্তমান শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। টানা আট ঘণ্টা চলে জেরাপর্ব। সিবিআই সূত্রের খবর, ওই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে প্রথমে কিছুটা দ্বিধাগ্রস্ত ছিলেন পার্থবাবু। পরে অবশ্য তদন্তকারী অফিসারদের কাছে কার্যত মেনে নেন, চিরকুটের সইটি তাঁরই। তবে সুপারিশ করা নামের মধ্যে কতজন বৈধ কিংবা অবৈধ প্রার্থী, সেটি তাঁর পক্ষে বলা সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে উপদেষ্টা কমিটির কর্তাদের কোর্টেই তিনি বল ঠেলেন। আট ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সন্ধ্যায় হাসিমুখেই নিজাম প্যালেস ছাড়েন শিল্পমন্ত্রী। তাঁকে ফের ডাকা হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর।
এসএসসিতে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় এক সপ্তাহ আগেই পার্থবাবুকে একপ্রস্থ জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তাঁর উত্তরে বেশ কিছু অসঙ্গতি ধরা পড়ে বলে দাবি সিবিআই সূত্রের। এরপরই বুধবার সকাল ১১টায় ফের ডেকে পাঠানো হয় মন্ত্রীকে। সেইমতো নির্ধারিত সময়ের কুড়ি মিনিট আগেই পার্থবাবু পৌঁছে যান নিজাম প্যালেসে। সঙ্গে ছিলেন তাঁর আইনজীবীরাও।
নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে দুই বান্ডিল সুপারিশপত্রের প্রতিলিপি সংগ্রহ করেছেন তদন্তকারীরা। তাতে কমপক্ষে আড়াইশো থেকে তিনশো জনের নাম রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। সুপারিশপত্রের উপর সাদা কাগজের চিরকুটে একটি সংক্ষিপ্ত স্বাক্ষর (ইনিশিয়াল) রয়েছে। এদিনের জিজ্ঞাসাবাদ পর্ব শুরু হয় এই চিরকুট দিয়েই। তদন্তকারীরা সেই নথি তুলে ধরেন। সূত্রের খবর, পার্থবাবু প্রথমে নিজেকে ‘ডিফেন্ড’ করার চেষ্টা করেছিলেন। তখন তদন্তকারীরা অন্য আরও নথিতে থাকা ইনিশিয়াল দেখালে, চিরকুটের সইয়ের বিষয়টি তিনি মেনে নেন। সঙ্গে যুক্তিও দেন, মন্ত্রী হিসেবে তাঁর পক্ষে নামের গোটা তালিকা পড়ে দেখা সম্ভব নয়। এর জন্য উপদেষ্টা কমিটির কর্তারা রয়েছেন। তদন্তকারী সংস্থার দাবি, মন্ত্রীর কথা ছাড়া উপদেষ্টা কমিটির কর্তারা এক পাও এগতেন না। তাই অনিয়মের ব্যাপারে তিনি অবশ্যই জানতেন।
মন্ত্রীর অস্বস্তি আরও বাড়ে যখন তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, উপদেষ্টা কমিটি তৈরির ক্ষেত্রে ক্যাবিনেটের কোনও অনুমোদন ছিল কি না। এমনকী কমিটি তৈরির পর কোনও গেজেট নোটিফিকেশন হয়েছিল কি না, সেই প্রশ্নেরও মুখে পড়েন তিনি। সূত্রের খবর, জবাবে পার্থবাবু জানান, ‘এটি অনেকদিন আগেকার বিষয়। তাই এই বিষয়গুলি ঠিকমতো মনে পড়ছে না।’ তবে সিবিআই জেনেছে কমিটির তৈরির জন্য ক্যাবিনেটের অনুমোদন নেওয়া কিংবা গেজেট বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়নি। কার নির্দেশে উপদেষ্টা কমিটি গঠিত হয়েছিল, সেটাই এখন খুঁজে বের করার চেষ্টা চালাচ্ছে সিবিআই। সেইসঙ্গে অবৈধভাবে নিযুক্তদের সঙ্গে আর্থিক লেনদেনের বিষয়টিও তদন্তকারীদের নজরে। এক্ষেত্রে অবশ্য পার্থবাবুর সাফ জবাব, টাকাপয়সা লেনদেনের বিষয়ে তাঁর কিছু জানা নেই। 

26th     May,   2022
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ