বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

এভারেস্টের একদিন পরই আট
হাজারি লোৎসে জয় পিয়ালির

নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: একদিনের ব্যবধানে দু’টি ‘আট হাজারি’ শৃঙ্গ জয় করলেন চন্দননগরের পিয়ালি। রবিবার সকালে তিনি পা রেখেছিলেন বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ এভারেস্টে। একদিন পর, মঙ্গলবার দুপুরে তিনি এবারের অভিযানের দ্বিতীয় লক্ষ্যও পূরণ করলেন। পা রাখলেন লোৎসে (৮,৫১৬ মিটার) শৃঙ্গের শীর্ষে, যা বিশ্বের চতুর্থ উচ্চতম। ঘরের মেয়ের এই চোয়ালচাপা লড়াই ও সাফল্যে জয়জয়কার চলছে সাবেক ফরাসডাঙা জুড়ে। আর্থিক সঙ্কটের পাহাড়প্রমাণ প্রতিবন্ধকতা তো ছিলই। সেই সঙ্গে পিয়ালির লক্ষ্য পূরণে বাধ সেধেছিল বৈরী আবহাওয়া। ফলে তাঁর লোৎসে অভিযান নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হয়েছিল। কিন্তু একরোখা জেদ শেষপর্যন্ত জিতিয়ে দিল পিয়ালিকে। তাঁর পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার রাতেই লোৎসের উদ্দেশে রওনা হন পিয়ালি। মঙ্গলবার যুগল শৃঙ্গ জয়ের অনন্য সাফল্য ছিনিয়ে আনেন। তবে এক্ষেত্রে তিনি অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়েই শৃঙ্গশীর্ষে উঠেছেন। 
মঙ্গলবার বিকেলে চন্দননগরের কাঁটাপুকুরের বাড়ি থেকে পিয়ালিদেবীর বোন তমালি বসাক বলেন, পর্বতারোহণ আয়োজক সংস্থার তরফে মেসেজ করে দিদির লোৎসে জয়ের কথা জানানো হয়। এ খবর পৌঁছতেই উদ্বেগের প্রহর কেটে গিয়ে খুশির আবহ তৈরি হয় পিয়ালির শুভানুধ্যায়ী মহলে। স্থানীয় কাউন্সিলার মোহিত নন্দী বলেন, ওঁর অনমনীয় মনোভাব, প্রবল জেদেই এই সাফল্য। গোটা চন্দননগর ওঁর ফেরার পথ চেয়ে রয়েছে। অভিযান আয়োজক সংস্থা জানিয়েছে, ৩ নম্বর ক্যাম্পে ফিরে এসেছেন পিয়ালি। তিনি সুস্থ আছেন। 
এত সাফল্যের মধ্যেও কাঁটার মতো বিঁধছে দু’টি বিষয়। পিয়ালির এবারের অভিযানের লক্ষ্য ছিল, অক্সিজেন সিলিন্ডারের সাহায্য ছাড়াই এভারেস্ট জয়। সর্বোচ্চ শৃঙ্গ ছুঁতে যখন আর মাত্র ৪০০ মিটার বাকি, তখন নিজেকে রক্ষা করতে অক্সিজেন নিতে বাধ্য হন তিনি। সেই সময় আবহাওয়া খারাপ থাকায় কোনও ঝুঁকি নিতে চায়নি অভিযান আয়োজক সংস্থাও। আরেকটি উদ্বেগ হল অর্থের সংস্থান নিয়ে। আয়োজক সংস্থার কাছে পিয়ালির বকেয়া এখনও ১৪ লক্ষ টাকা। তা না মিটিয়ে দিলে এই কৃতিত্বের শংসাপত্র তিনি আদৌ পাবেন কি না, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। সোমবার সকালেও ওই সংস্থার তরফে পিয়ালির বোনকে ফোন করা হয়েছিল। টাকার প্রসঙ্গই মূলত আলোচনা হয়। পরিবারের সদস্যরা জানতেন, সব ঠিক থাকলে ২৬ মে লোৎসের দিকে রওনা হতে পারবেন পিয়ালি। কিন্তু মঙ্গলবার বিকেলে সুদূর নেপাল থেকে আসা বার্তায় খুশি ছড়িয়ে পড়ে। যদিও বকেয়া অর্থ জোগাড় করাই এখন মূল চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে বসাক পরিবারের কাছে। 

25th     May,   2022
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ