বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

৫ বছর পর এভারেস্ট চূড়ায় বাঙালি কন্যা
চন্দননগরের পিয়ালির লক্ষ্য এবার লোৎসে

নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: ছিল পাহাড় প্রমাণ প্রতিবন্ধকতা। কিন্তু জেদও ছিল প্রবল। সেই জেদই হিমালয়ের তথা পৃথিবীর সর্বোচ্চ চূড়ায় পৌঁছে দিল বঙ্গতনয়া পিয়ালি বসাককে। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, শৃঙ্গজয়ের পথে ন্যূনতম কৃত্রিম অক্সিজেন ব্যবহার করেছেন চন্দননগরের মেয়ে। পরিবারের দাবি, এই ‘হিসেব’ই এক অনন্য মাইলস্টোন স্পর্শ করিয়েছে তাঁদের মেয়েকে। বাংলা তো বটেই দেশের প্রথম মহিলা হিসেবেও। 
বয়স তখন সবে পাঁচ বছর। তেনজিং নোরগের গল্প পড়তে গিয়েই পাহাড়ের ডাক শুনেছিলেন পিয়ালি। শুরু হয় পাহাড় চড়া। ২০১৮ সালে মানাসলু জয়। ২০২১ সালে ধৌলাগিরি জয় করে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসেন পিয়ালি। কারণ, পৃথিবীর সপ্তম উচ্চতম শৃঙ্গে কৃত্রিম অক্সিজেন ছাড়া প্রথম পা রাখা নারী তিনিই। 
সেই জয় যদিও তাঁর জীবনকে খুব একটা বদলে দিতে পারেনি। কারণ, আর্থিক সঙ্কট। জটিল মস্তিষ্কের রোগে আক্রান্ত বাবা। সেই চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করতেই মাথার ঘাম পায়ে পড়ছে এই ছাপোষা পরিবারের। জেদ আর নিজের সামান্য চাকরিকে সম্বল করেই চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন পৃথিবীর উচ্চতম শৃঙ্গে পা রাখার। অক্সিজেন সিলিন্ডার ছাড়াই। গত ৪ এপ্রিল চন্দননগর থেকে রওনা হন তিনি। প্রায় অর্ধেক চন্দননগর জড়ো হয়েছিল স্টেশনে। কিন্তু তখনও অভিযানের সম্পূর্ণ টাকা জোগাড় হয়নি। ফলে বসে থাকতে হয়েছিল বেসক্যাম্পে পৌঁছেও। শেষপর্যন্ত ছাড়পত্র মেলে। এদিন নেপালের পায়োনিয়ার মাউন্টেনিয়ারিং এজেন্সির দাবি, ৮৪৫০ মিটার পর্যন্ত কৃত্রিম অক্সিজেন ছাড়াই উঠেছিলেন পিয়ালি। তারপর আবহাওয়া খারাপ হয়। শেষ ৩৯৯ মিটারের জন্য বাধ্যতামূলক ভাবে তাঁকে অক্সিজেন নিতে হয়। রবিবার সকাল ৯টার আশেপাশে। ফের এক বাঙালি কন্যার হাতে এভারেস্টে তখন উড়েছে তেরঙ্গা পতাকা। চন্দননগরের কাঁটাপুকুরে রোদ তখনও চড়া হয়নি। ক্রমে গোটা রাজ্যে দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ল এক জেদি মেয়ের অবাক কাণ্ডের ‌ই঩তিকথা। 
‘জানতাম ও যখন পণ করেছে, তখন ও করবেই।’ মেয়ের কীর্তিতে একরাশ গর্ব ঝরে পড়ছিল মা স্বপ্না বসাকের গলায়। কিন্তু মূহূর্তে বদলে গেল পরিস্থিতি। স্বামীর দিকে তাকিয়ে আক্ষেপ, ‘বাবার হাত ধরেই ওর পাহাড় জয়ের স্বপ্ন দেখা। কিন্তু সেই মানুষটাই মেয়ের এই সাফল্য অনুভব করতে পারছে না।’
২০১৭ সালে হাওড়ার কুন্তল কাঁড়ার এবং ইছাপুরের শেখ সাহাবুদ্দিন এভারেষ্ট জয় করেছিলেন। কিন্তু পিয়ালির ক্ষেত্রে ফারাকটা গড়ে দিয়েছে ন্যূনতম অক্সিজেনের ব্যবহার। বর্ষীয়ান এভারেস্টজয়ী পর্বতারোহী দেবব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘কৃত্রিম অক্সিজেন নিয়ে নাকি অক্সিজেন ছাড়া, তাতে গুরুত্ব দিয়ে কী লাভ! বরং টুসি, ছন্দার পর ফের এক বাঙালি মহিলা পৃথিবীর সর্বোচ্চ শিখরে উঠল, তাতেই গর্বিত আমরা।’
অভিযানে পিয়ালি বসাক। ফাইল চিত্র

23rd     May,   2022
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ