বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

ববিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট: সিবিআই-ইডিকে
নিয়ে অধ্যক্ষ সম্মেলনেও সরব হবেন বিমান
দুই তদন্তকারী অফিসারকে বিধানসভায় তলব

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: তাঁকে এড়িয়ে নারদ কাণ্ডে রাজ্যের দুই মন্ত্রী সহ তিন বিধায়কের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিলকে বিধিসম্মত নয় বলে মনে করছেন বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এজেন্সি সিবিআই এবং ইডির এই ভূমিকায় কার্যত রাজ্যের বিধানসভার মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে তাঁর দৃঢ় ধারণা। তাই দুই এজেন্সির এহেন আচরণের বিরুদ্ধে আগামী কাল বুধবার অনুষ্ঠিতব্য দেশের বিধানসভার অধ্যক্ষদের সম্মেলনে এব্যাপারে মুখ খুলবেন তিনি। সোমবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতায় দ্ব্যর্থহীনভাবে একথা জানান বিমানবাবু। 
নারদ কাণ্ডে দুই মন্ত্রী ফিরহাদ (ববি) হাকিম ও সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং বিধায়ক মদন মিত্রের বিরুদ্ধে প্রথমে সিবিআই চার্জশিট পেশ করেছে। সম্প্রতি চার্জশিট দিয়েছে ইডি। অভিযুক্ত তিনজনই আইনসভার সদস্য হওয়ায় তাঁদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন আইনে চার্জশিট দাখিলের জন্য তাঁর কাছ থেকে আগাম অনুমোদন নেওয়ার কথা সংশ্লিষ্ট আইনেই বলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিমানবাবু। তাঁর বক্তব্য, দুই এজেন্সি সে-পথ না মাড়ানোয় এই চার্জশিট দাখিলের প্রক্রিয়া আইনসিদ্ধ নয়। পাশাপাশি এই আচরণে বিধানসভার মর্যাদারও হানি হয়েছে। তাই দুই এজেন্সির তদন্তকারী অফিসার যথাক্রমে সত্যেন্দ্র সিং এবং ডঃ রথীন বিশ্বাসকে এজন্য সশরীরে এসে জবাবদিহি করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। ২২ সেপ্টেম্বর দুপুরে ওই দু’জনকে বিধানসভায় তাঁর চেম্বারে হাজিরা দেওয়ার জন্য এদিনই আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি পাঠিয়েছেন অধ্যক্ষ। তবে দুই এজেন্সির তরফে বলা হচ্ছে, চার্জশিট দাখিলের জন্য তাঁরা রাজ্যপালের কাছ থেকে অনুমোদন নিয়েছেন। সেক্ষেত্রে অধ্যক্ষের অনুমোদন আর আবশ্যিক নয়।
রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার অযাচিতভাবে তাঁর এক্তিয়ারে হস্তক্ষেপ করছেন বলে বেশ কিছু দিন আগেই অভিযোগ করেছিলেন অধ্যক্ষ। এনিয়ে তিনি ইতিমধ্যেই একবার বিধানসভার অধ্যক্ষদের সম্মেলনে নালিশ জানান। তবে এবার রাজ্যপালের পাশাপাশি দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এজেন্সির এহেন ভূমিকা নিয়ে জাতীয় স্তরে সরব হতে চাইছেন ক্ষুব্ধ অধ্যক্ষ। এজন্য তিনি ফের অধ্যক্ষ সম্মেলনের মঞ্চকেই ব্যবহার করার পরিকল্পনা করেছেন। বুধবার ভার্চুয়াল মাধ্যমে ওই সম্মেলনে যোগ দেবেন তিনি। তাঁর বলার জন্য ধার্য হয়েছে মাত্র পাঁচ মিনিট। সম্মেলনের বিধায়কদের ভূমিকা নিয়ে মূল আলোচ্য বিষয় নিয়ে বলার ফাঁকেই তিনি এই বিষয়টি সকলের সামনে তুলে ধরতে চান। বিশেষভাবে সম্মেলনের প্রধান উদ্যোক্তা তথা লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চান বিমানবাবু এই পদক্ষেপের মাধ্যমে। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, দুই কেন্দ্রীয় এজেন্সির তদন্তকারী অফিসারদের ডেকে পাঠানো বা তাঁদের ভূমিকা নিয়ে অধ্যক্ষ সম্মেলনের মঞ্চে সরব হওয়ার বিষয়ে বিমানবাবুর এহেন পদক্ষেপ রাজ্য বিধানসভার ইতিহাসে নজিরবিহীন। হালে বিভিন্ন মামলার জেরে রাজ্যের শাসক দলের হেভিওয়েট নেতা-মন্ত্রীদের যেভাবে দুই এজেন্সি জেরার জন্য তলব করতে শুরু করেছে তারই পাল্টা হিসেবে অধ্যক্ষ এই অবস্থান নিচ্ছেন বলেও তাদের ধারণা।

14th     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021