বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

 

আকাশে আজ রঙের খেলা…। বৃহস্পতিবার আন্দুলে তোলা দীপ্যমান সরকারের ছবি
 ​​​​​​​

বঙ্গভঙ্গ বিজেপির বিচ্ছিন্নতাবাদী
কৌশল, রুখতে মরিয়া তৃণমূল

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাংলা ভাগ... উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার ছক এবং তার মরিয়া প্রচার। বিধানসভা ভোটে স্বপ্নভঙ্গের পর এটাই এখন বিজেপির কৌশল। মুখ্যমন্ত্রী আগেই এ ব্যাপারে সরব হয়েছেন। সরাসরি কাঠগড়ায় তুলেছেন গেরুয়া শিবিরকে। এবার বিজেপির ‘বঙ্গভঙ্গের ছক’ ব্যর্থ করতে মরিয়া হয়ে আসরে নামল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘বাহিনী’। শুক্রবার রাজ্যের শাসক দলের নেতা, মন্ত্রী, সাংসদ, বিধায়করা একযোগে আক্রমণ শানালেন বিজেপির বিরুদ্ধে। স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিলেন, বাংলা অখণ্ড, ঐক্যবদ্ধই থাকবে। ট্যুইটারেও উঠল আওয়াজ, #বেঙ্গলস্ট্যান্ডসইউনাইটেড। 
নির্বাচন পর্ব শেষ হতেই বিজেপি নানাভাবে বাংলায় অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ। পশ্চিমবঙ্গ থেকে উত্তরবঙ্গকে আলাদা করার প্রয়াস তার জ্বলন্ত উদাহরণ। আর এই প্রসঙ্গে আগুনে ঘৃতাহুতি দিয়েছেন স্বয়ং বিজেপি সাংসদ জন বারলা। তিনি বলেছেন, ‘উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মর্যাদা দিলে আমরা স্বাগত জানাব। সংসদেও বিষয়টি তুলব।’ জলপাইগুড়ির বৈঠকে যা অন্তরালে ছিল, সেই ‘ছক’ এখন প্রকাশ্যে। আর এই ক্ষেত্রে বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তির সঙ্গে বিজেপির গোপন আঁতাত রয়েছে কি না, এমন প্রশ্নও তুলতে শুরু করেছে রাজ্যের শাসক দল। সুখেন্দুশেখর রায়ের আক্রমণ, বিজেপি উত্তরের রাজ্যগুলিকে পৃথক করে দেওয়ার কৌশল করছে। আবার কেএলও নেতা জীবন সিংও ভিডিও বার্তায় দাবি করছেন, উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য হিসেবে চাই। তাহলে বিজেপি ও কেএলও নেতার মধ্যে সুনির্দিষ্ট যোগাযোগ আছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করলে কি ভুল হবে? তৃণমূল শিবিরের সাফ অভিযোগ, উত্তরবঙ্গে বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তিকে উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করছে বিজেপি। প্রশ্রয় দেওয়া হচ্ছে। বিজেপি কীভাবে দেশের নানা সীমান্তে ভাগাভাগির চেষ্টা করেছিল, সেই তথ্য সামনে এনেছেন তৃণমূল নেতারা। বলেছেন, এর আগে লাদাখকে জম্মু ও কাশ্মীরকে থেকে বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এই রাজ্যেও একই খেলা খেলতে চাইছে বিজেপি। 
তৃণমূলের প্রাক্তন সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়ের স্পষ্ট বার্তা, গেরুয়া শিবির যতই চেষ্টা করুক, উত্তরবঙ্গ বাংলার অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। বঙ্গভঙ্গের চক্রান্তের বিরুদ্ধে এদিন একযোগে গর্জে ওঠেন তৃণমূল নেতৃত্ব। বিজেপি সাংসদ জন বারলার বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়। তৃণমূল উত্তরবঙ্গের নেতৃত্বের কটাক্ষ, বিধানসভা নির্বাচনে পরাজয়কে মেনে নিতে পারছে না বিজেপি। তাই বিভিন্নভাবে অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা চালাচ্ছে। আর এক্ষেত্রে বিজেপির আইটি সেল মিথ্যা তথ্য প্রচার করে আরও ঘোঁট পাকাতে চাইছে।
শিলিগুড়ি, মালদহ, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাতেও তৃণমূল নেতৃত্ব এদিন সাংবাদিক বৈঠক করে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হন। নেতৃত্বের বক্তব্য, এর আগে বিজেপি নেতৃত্ব পাহাড় নিয়ে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। ২০০৯ থেকে গোর্খাল্যান্ডের স্থায়ী সমাধান করবে বলে কিছুই করেনি। ভোটের লক্ষ্যে বিজেপির কারসাজি বাংলার মানুষ ধরে ফেলেছেন। মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস বলেন, উত্তরবঙ্গ বাংলাতেই থাকবে। বিজেপির বাংলা ভাগের চক্রান্ত তৃণমূল সর্বশক্তি দিয়ে রুখবে বলে স্পষ্ট জানিয়েছেন তিনি।

19th     June,   2021
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021