বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

আক্রান্ত ও মৃত্যুতে ফের চলতি
বছরের রেকর্ড ভাঙল কোভিড
আজ রাজ্যে আসতে পারে আরও তিন লাখ টিকা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি দিনদিন আরও উদ্বেগজনক হচ্ছে। রোজ নিজের রেকর্ড নিজেই ভাঙছে কোভিড ১৯। গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আগের দিনের থেকে এই সংক্রমণ বাড়ল ৩০৬ জনের মধ্যে। মোট দৈনিক সংক্রমণ পাঁচ হাজার ছুঁতে চলেছে। মঙ্গলবারের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮১৭ জন। সোমবার যা ছিল ৪৫১১। করোনায় দৈনিক মৃত্যুতেও চলতি বছরের রেকর্ড হয়েছিল সোমবার। মারা গিয়েছিলেন ১৪ জন। এদিনের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, দৈনিক মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ২০। রোগ পরীক্ষার সংখ্যা কিছুটা বেড়ে ৪২ হাজার পার করেছে। যদিও সুস্থতার হার কমছে। এদিকে, করোনা সংক্রমণ এড়াতে পড়ুয়াদের সমস্ত হস্টেল খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি, স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে অফলাইন পঠনপাঠন বন্ধ করার দাবি তুলেছেন পড়ুয়ারা। স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রের খবর, রাত সাড়ে ন’টা পর্যন্ত পাওয়া হিসেব অনুযায়ী, মঙ্গলবার টিকা পেয়েছেন ১ লক্ষ ১৩ হাজার ৭১০ জন। ১ হাজার ২৮৯ কেন্দ্রে টিকাদান হয়েছে। আবার বহু কেন্দ্রে গিয়ে মানুষ টিকা পাননি, এমনও ঘটেছে। কতগুলি হাসপাতালে ভ্যাকসিনের অভাবে টিকাকরণ কর্মসূচি বন্ধই ছিল। দ্রুত টিকা চেয়ে বারবার বার্তা পাঠিয়েছেন আগেই। সোমবার কেন্দ্রকে আরও টিকা পাঠাতে অনুরোধ করে চিঠি পাঠান মুখ্যস঩চিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর অনুরোধে সাড়া দিয়ে আজ বুধবার রাজ্যে আসতে পারে তিন লক্ষ কোভ্যাকসিন। প্রসঙ্গত, সোমবার সন্ধ্যায় রাজ্যে এসেছিল চার লক্ষ কোভিশিল্ড। দপ্তরের এক শীর্ষকর্তা বলেন, টিকার আকালের মধ্যে আমাদের এখন প্রধান লক্ষ প্রথমবার টিকা পাওয়া মানুষজনের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার ব্যবস্থা করা। তারপর তো আসবে নতুন করে টিকাকরণের প্রশ্ন। সূত্রের খবর, এদিনের হিসেব অনুযায়ী, রাজ্যের বিভিন্ন করোনা হাসপাতালের শয্যা দ্রুত ভরে উঠছে। সরকারি কোভিড হাসপাতালগুলিতে প্রায় সাত হাজার রোগীর মধ্যে দু’হাজার শয্যা পূর্ণ হয়ে গিয়েছে। করোনার চিকিৎসা করা প্রাইভেট হাসপাতালগুলির চারভাগের তিনভাগই ভর্তি।
এদিন পরিস্থিতি মোকাবিলায় চারটি পৃথক নির্দেশনামা প্রকাশ করেছে রাজ্য। তাতে গত বছরের মতোই করোনা হাসপাতালগুলিতে পরিদর্শন করা এবং খামতি মেটানো, চিকিৎসার গাইডলাইন তৈরি বা বদল করা, সিসিইউগুলিতে ভর্তি রোগীদের অবস্থার দিকে খেয়াল রাখা সহ একাধিক বিষয়ে জোর দেওয়া হয়েছে।

14th     April,   2021

মুখ্যমন্ত্রীর ৪টি চিঠি নিয়ে মুখে কুলুপ
মমতাকে এড়িয়ে ডিএমদের সঙ্গে
কোভিড-বৈঠক ‘উদ্বিগ্ন’ মোদির

রাজ্যে রাজ্যে বাড়ছে সংক্রমণ এবং মৃত্যু। টিকা, অক্সিজেন, হাসপাতালে বেডের আকাল দেশজুড়ে। এই সঙ্কটকালে সার্বিক টিকাকরণ এবং অক্সিজেনের দাবিতে বারবার প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছেন একাধিক অবিজেপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। এদিনও ১২ জন বিরোধী নেতা মিলিতভাবে চিঠি দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদিকে। যদিও পত্রাঘাত পর্বে অন্যতম অবশ্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বিগত কয়েকদিনে নরেন্দ্র মোদিকে চারটি চিঠি পাঠিয়েছেন। অথচ প্রধানমন্ত্রী উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন অনুভব করেননি।

 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
12th     May,   2021