বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

পরীক্ষকের অজ্ঞতার শিকার মামলাকারীর
উত্তরপত্র পুনর্মূল্যায়ন করে নিয়োগের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ বা প্রশিক্ষক কে? উত্তরে দু’টি নাম দেওয়া ছিল। এক, রবি শাস্ত্রী ও দুই, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। পরীক্ষার্থী প্রথম নামের পাশে টিক চিহ্ন দিয়েছিলেন। কিন্তু, পরীক্ষক উত্তরটিকে ভুল বলে চিহ্নিত করেন। পরীক্ষকের এমনই সব সিদ্ধান্তের শিকার হয়ে চাকরির সুযোগ হারান প্রতিবন্ধী প্রার্থী এসানুল হক। মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে চাকরিদাতা নদীয়া জেলা আদালত সেই পরীক্ষার যাবতীয় নথি ট্রাঙ্কভর্তি করে শুনানিতে হাজির করেছিল। বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার নির্দেশ, প্রথমবার যাঁরা পরীক্ষক ছিলেন, তাঁদের বাদ দিয়ে নদীয়া আদালত নতুন কাউকে দিয়ে মামলাকারীর উত্তরপত্রের মূল্যায়ন করাবে। যোগ্য বিবেচিত হলে তাঁকে উপযুক্ত পদে নিযুক্ত করতে হবে। 
চাঞ্চল্যকর এই মামলার আরও এক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, পদার্থবিদ্যায় অনার্স উত্তীর্ণ মামলাকারী ওই আদালতে ফরাস বা পিওনের চাকরির জন্য ২০১৯ সালে আবেদন করেছিলেন। হাওড়ার শ্যামপুরের এই বাসিন্দা ৯০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ধরে নিয়েছিলেন, কমবেশি অন্তত ৬০ পাবেন। কিন্তু, ফল বেরলে দেখা যায়, তাঁর নামের পাশে বরাদ্দ হয়েছে মাত্রই ২২ নম্বর! তথ্য জানার অধিকার আইন অনুযায়ী, তিনি উত্তরপত্র হাতে পাওয়ার জন্য আবেদন করেন। তা মেলেনি। মামলা করেন হাইকোর্টে। রাজ্যের শীর্ষ আদালত তাঁর উত্তরপত্র দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়। আর তা হাতে পাওয়ার পরই পরীক্ষকের এমনই সব বিচিত্র সিদ্ধান্ত দেখার পর তিনি দ্বিতীয়বার হাইকোর্টে মামলা করেন। তিনি দাবি করেন, কম করে তাঁর ৫০ নম্বর পাওয়া উচিত। অথচ, যিনি সবচেয়ে কম ২৫ নম্বর পেয়েছেন, তাঁকেও চাকরির জন্য যোগ্য বিবেচনা করা হয়েছে। তাঁর আইনজীবী মণিশঙ্কর চট্টোপাধ্যায় জানান, এই বছরের ১০ মার্চ মামলাটির শুনানির দিন ধার্য হয়। সেদিন ওই পরীক্ষা সম্পর্কিত যাবতীয় নথি পেশ করার কথা ছিল। কিন্তু, সেদিন তো নয়ই, পরবর্তী আরও তিনটি শুনানির দিনেও তা পেশ হয়নি। ক্ষুব্ধ আদালত হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মারফত নদীয়ার জেলা বিচারককে অবিলম্বে ওই নথি পাঠানোর নির্দেশ দেয়। আর তারই জেরে ওই আদালতের এক বিচারক এদিন সেইসব নথি ট্রাঙ্কে ভরে হাইকোর্টে আসেন। যিনি এজলাসে শুনানির সময় হাজির থেকে বিচারপতির জিজ্ঞাসার উত্তরে জানান, এক এজেন্সিকে পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্র মূল্যায়ন করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। সেই মূল্যায়নের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়াও সম্পন্ন হয়ে গিয়েছে। 

14th     April,   2021

মুখ্যমন্ত্রীর ৪টি চিঠি নিয়ে মুখে কুলুপ
মমতাকে এড়িয়ে ডিএমদের সঙ্গে
কোভিড-বৈঠক ‘উদ্বিগ্ন’ মোদির

রাজ্যে রাজ্যে বাড়ছে সংক্রমণ এবং মৃত্যু। টিকা, অক্সিজেন, হাসপাতালে বেডের আকাল দেশজুড়ে। এই সঙ্কটকালে সার্বিক টিকাকরণ এবং অক্সিজেনের দাবিতে বারবার প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছেন একাধিক অবিজেপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। এদিনও ১২ জন বিরোধী নেতা মিলিতভাবে চিঠি দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদিকে। যদিও পত্রাঘাত পর্বে অন্যতম অবশ্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বিগত কয়েকদিনে নরেন্দ্র মোদিকে চারটি চিঠি পাঠিয়েছেন। অথচ প্রধানমন্ত্রী উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন অনুভব করেননি।

 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
12th     May,   2021