বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

ভোটপর্ব ৪
আজ ৪৪ কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: তৃতীয় দফার পরবর্তী রাজনৈতিক সংঘর্ষ, উত্তেজনা, হিংসার আবহেই আজ, শনিবার রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোট। কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, হাওড়া, হুগলি, দক্ষিণ ২৪ পরগনার মোট ৪৪টি বিধানসভা আসনে আজ কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই ভোটগ্রহণ হবে। ৩৭৩ জন প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ করবেন ১ কোটি ১৫ লক্ষ ৯৪ হাজার ৯৫০ জন ভোটদাতা। মোট বুথের সংখ্যা ১৫ হাজার ৯৪০। সব আসনে তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে জোর প্রতিদ্বন্দ্বিতা হলেও কয়েকটি আসনে সংযুক্ত মোর্চা লড়াইতে রয়েছে। বেশ কয়েকটি নজরকাড়া কেন্দ্রে আজ ভোটগ্রহণ হবে সকাল সাতটা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টা পর্যন্ত। ভোটগ্রহণ পর্ব যাতে সুষ্ঠুভাবে হয়, তার জন্য প্রতি বুথের সামনে ১৪৪ ধারা জারি হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনীও। রাত থেকে শুরু হয়েছে নাকা চেকিং। এই মুহূর্তে গোটা রাজ্যে ৯৭২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। যা ইতিহাসে রেকর্ড।
এদিকে, কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে মন্তব্য করায় তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শুক্রবার ফের শো-কজ করল নির্বাচন কমিশন। আজ, শনিবারের মধ্যে সেই নোটিসের জবাব দিতে হবে তাঁকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য বিভিন্ন সভায় তার জবাব দিয়েছেন। বলেছেন, ‘দশটি শো-কজ করলেও একই জবাব পাবে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর একটি অংশের ভূমিকা ভালো নয়। কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান বিজেপির হয়ে কাজ করলে সমালোচনা করব।’ এদিনই তাঁর নিরাপত্তারক্ষী অশোক চক্রবর্তীকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। নন্দীগ্রামে তাঁর ভূমিকা নিয়ে অভিযোগ ওঠায় অশোকবাবুকে অপসারিত করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি ডিরেক্টর সিকিউরিটির এসপি পদমর্যাদার ওএসডি হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন। 
তবে আরও পুলিস অফিসারকে সরানোর দাবি নিয়ে এদিন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাবকে ডেপুটেশন দেন বিজেপি এবং সংযুক্ত মোর্চার নেতারা। সন্ধ্যায় আড়াই ঘণ্টা আরিজ আফতাবকে ঘিরে অবস্থান করেন সংযুক্ত মোর্চার নেতারা। শেষে ভোট-নিরাপত্তার আশ্বাসে তাঁরা অবস্থান প্রত্যাহার করেন। আজকের ভোটে যেসব বিধানসভা কেন্দ্র নিয়ে টানটান উত্তেজনা রয়েছে তা হল, দিনহাটা, নাটাবাড়ি, ভাঙড়, কসবা, যাদবপুর, টালিগঞ্জ, বেহালা পূর্ব ও পশ্চিম, বালি, ডোমজুড়, হাওড়া উত্তর, উত্তরপাড়া, সিঙ্গুর প্রভৃতি। নির্বাচন কমিশনও এই সব কেন্দ্র নিয়ে চিন্তিত। নিরাপত্তার খাতিরে কোনও খামতি রাখতে চায় না নির্বাচন কমিশন। 
আজকের ভোটের প্রতিটি বুথকেই স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত করেছে কমিশন। হাওড়া পুলিস কমিশনারেট এলাকায় ভোটের জন্য বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কাউন্টার ইনসারজেন্সি ফোর্সের এসপি অজিত সিং যাদবকে। তৃতীয় দফায় এভাবে কাউকে দায়িত্ব দেওয়া না হলেও দ্বিতীয় দফায় নন্দীগ্রামে একই দায়িত্বে ছিলেন নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠি এবং হলদিয়ায় প্রবীণ ত্রিপাঠি। পাশাপাশি চতুর্থ দফায় কলকাতা পুলিস এলাকায় ৯৪ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকছে। আলিপুরদুয়ারে থাকছে ৯৬ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। সেখানে পাঁচটি বিধানসভার ভোট রয়েছে। কোচবিহারে ন’টি বিধানসভা আসনের জন্য থাকছে ১৮৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। হাওড়া পুলিস কমিশনারেট এলাকায় থাকছে ৯৯ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং হাওড়া গ্রামীণ পুলিস জেলায় ৩৫ কোম্পানি। ডায়মন্ডহারবার পুলিস জেলায় রয়েছে ৩৮ কোম্পানি আধাসেনা। বারুইপুর পুলিস জেলায় ৪৪ কোম্পানি থাকছে। চন্দননগর পুলিস জেলায় ৭৯ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াও ওয়েব কাস্টিং, সিসিটিভি, ভিডিওগ্রাফি করা হবে। থাকবেন মাইক্রো অবজার্ভাররা। মোট ৫৪ জন পর্যবেক্ষক থাকবেন আজকের ভোটের পাঁচ জেলায়। এঁদের মধ্যে ৩৫ জন সাধারণ পর্যবেক্ষক, ১০ ব্যয় সংক্রান্ত পর্যবেক্ষক এবং ন’জন পুলিস পর্যবেক্ষক রয়েছেন। ২০ হাজার ২৫২টি ইভিএম মজুত রাখা হয়েছে।  

10th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
12th     May,   2021