বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

পরাজয়ের হ্যাটট্রিক রোখাই চ্যালেঞ্জ
লালপার্টির ব্লু আইড বয় শতরূপের
কেন্দ্র: কসবা

অর্পণ সেনগুপ্ত, কলকাতা: রাজ্যজুড়ে নবীণ-প্রবীণ বামপন্থীদের নজরে যে কেন্দ্রগুলি থাকে, তার অন্যতম কসবা। লালপার্টির ‘ব্লু আইড বয়’ শতরূপ ঘোষ কী করেন, তা নিয়ে এবারও কৌতূহল তুঙ্গে। শতরূপের চ্যালেঞ্জ হল, তিনি যাঁদের আইকন, সেই নব্য প্রজন্মের বামপন্থীদের কাছে একটা জয় এনে উদাহরণ হিসেবে নিজেকে তুলে ধরা। আবার অন্যদিকে রয়েছে জাভেদ আহমেদ খানের মতো পোড়খাওয়া তৃণমূল নেতার কাছে পরাজয়ের হ্যাটট্রিকের ভ্রুকুটি।
কসবা নিয়ে যাঁরা ন্যূনতম খোঁজখবর রাখেন, তাঁরাই জানেন, জাভেদ খান ভোটে অনেকটাই এগিয়ে থাকেন তিলজলা, তপসিয়ার সংখ্যালঘু মানুষের ভোটে। অন্যান্য এলাকা থেকে মোটামুটি ভোট পেলেও জয় নিয়ে আর চিন্তা করতে হয় না তাঁকে। সেই শক্তিশালী ভোটব্যাঙ্ক কি অটুট? শতরূপ দাবি করছেন, তপসিয়ায় এবার তৃণমূল এক তৃতীয়াংশ ভোট পাবে। কোন জাদুতে এটা সম্ভব হবে? তাঁর ব্যাখ্যা, আইএসএফ ভোট শরিক হওয়ায় তারা তাঁর হয়ে প্রচার করছেন। সংখ্যালঘু এলাকায় আইএসএফ সাড়া পাচ্ছে। তাছাড়া, তৃণমূলেরও অন্দরেও জাভেদ খানকে নিয়ে অসন্তোষের খবর আসছে এলাকার সিপিএম নেতাদের কাছে। সেটাও তাঁদের ভরসা জোগাচ্ছে। এর পাশাপাশি, কোনও হেভিওয়েট নেতার বদলে চিকিৎসক ইন্দ্রনীল খাঁকে  বিজেপি প্রার্থী করায় কিছুটা সুবিধা পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন শতরূপ। ডাকাবুকো শতরূপ আরও দাবি করছেন, গতবার তাঁদের ভোটারদের আটকে দিয়ে জিতেছিল তৃণমূল। এবার কিন্তু শাসক দলকে বুঝে নেওয়া হবে। 
জাভেদ সাহেব অবশ্য সমস্ত জল্পনা উড়িয়েই দিচ্ছেন। তিনি বলেন, এবার সিপিএমের অবস্থা গতবারের চেয়েও খারাপ। উম-পুন বা লকডাউনের গোটা সময়ে সিপিএমকে খুঁজে পাননি বিধানসভার ভোটাররা। তাঁকেই ছুটে যেতে হয়েছে। আর বিজেপি নিজের অন্তর্কলহেই দুর্বল হয়ে রয়েছে। তিনি বলেন, শুনলাম ১০৭ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপির প্রচার তাদের কর্মীদের বচসার জেরেই ভেস্তে গিয়েছে। তাই বিজেপিকে পাত্তা দিচ্ছি না। জয়ের মার্জিন এবার দ্বিগুণ করব।
কলকাতা পুরসভার ৬৬, ৬৭ নম্বর ওয়ার্ড তৃণমূলের জোরের জায়গা। এরকম সংখ্যালঘু এলাকায় কি সত্যি আইএসএফ প্রভাব ফেলতে পেরেছে? মার্টিনপাড়া এলাকার জড়িবুটি মোড়ের মণিহারি দোকানি রফিক সাহেব বলেন, লোকে বিজেপিকে হারাতে চায়। আমরা আইএসএফকে পাত্তা দিচ্ছি না। ওরা ভোট কাটুয়া। আপনি এলাকায় ঘুরলেই বুঝবেন, হাওয়া কেমন। পলিটিক্যালি ওয়াকিফ (রাজনীতি সচেতন) কেউ আইএসএফের কথা শুনে ভোট নষ্ট করবে না। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক লালকুঠি এলাকার এক বাসিন্দা বলেন, উন্নয়ন নিয়ে কিন্তু মানুষের মনে ক্ষোভ রয়েছে। তবে, এখন যা অবস্থা, তাতে সেটা বড় ফ্যাক্টর হবে না।
কসবার মধ্যবিত্ত বাঙালি এলাকায় সিপিএমের ভোটব্যাঙ্ক বেশ শক্তিশালী। রাজডাঙা নবপল্লি এলাকার বাসিন্দা, এক ফুল ব্যবসায়ী বলেন, শতরূপকে কিন্তু এলাকায় পাওয়া যায়। বাসিন্দারা বলছেন, প্রচারে অভিনবত্ব রয়েছে সিপিএম প্রার্থীর। শতরূপের প্রচারে ‘হাল্লা গাড়ি’ নামাচ্ছেন তাঁর অনুগামীরা। নাচ-গান, পথনাটিকায় রয়েছে লাল ফেরানোর ডাক। ‘মীরাক্কেল’ খ্যাত কমেডিয়ান তথা নাট্যব্যক্তিত্ব সৌরভ পালোধি, প্রয়াত মন্ত্রী শ্যামল চক্রবর্তীর অভিনেত্রী মেয়ে ঊষসী চক্রবর্তীরা শতরূপের জন্য প্রচারে জান-প্রাণ লড়িয়ে দিচ্ছেন। টেলিভিশনের ‘জুন’ ঊষসীকে দেখতে ভিড়ও হচ্ছে ভালোই। অন্যদিকে, জাভেদ খান তাঁর প্রচারে একদিন গোরুর গাড়ি নিয়ে চমক দিতে চাইলেও বাকি সময় ভরসা রেখেছেন, স্ট্রিট কর্নার এবং বাড়ি বাড়ি প্রচারের মতো পুরনো টেকনিকে। এদিকে, বিজেপি গত দু’বারের নির্বাচনে তৃতীয় স্থানে থাকা বিকাশ দেবনাথের বদলে প্রার্থী করেছে চিকিৎসক ইন্দ্রনীল খাঁকে। পিপিই-র পরিবর্তে হাসপাতালের চিকিৎসকদের রেনকোট দেওয়া হচ্ছে, এই অভিযোগ করে শিরোনামে এসেছিলেন ইন্দ্রনীল। এমনিতে, ভদ্র এবং স্বচ্ছ ভাবমূর্তির হলেও স্থানীয় বিজেপিতে তাঁকে নিয়ে কিছুটা দ্বন্দ্ব রয়েছে। তিনি প্রচারে প্রাণপাত করলেও দেওয়াল লিখনে কিন্তু বেশ পিছিয়েই রয়েছে বিজেপি। সেটা কর্মীদের নিষ্ক্রিয় হওয়ার কারণে কি না, তা অবশ্য বলা যাচ্ছে না। তবে, কর্মী অসন্তোষের কথা উড়িয়ে ইন্দ্রনীলবাবু বলেন, তৃণমূলই এসব ছড়াচ্ছে। প্রচারে নিজেদের লোক ঢুকিয়ে ঝামেলা বাধাচ্ছে। এবার ভোট হবে উন্নয়নের নিরিখে। অনুন্নয়ন কিন্তু ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ভিত্তিতে হয়নি। ধর্ম নির্বিশেষে ভোটারদের অভিযোগ পানীয় জল, রাস্তাঘাট, পরিচ্ছন্নতা নিয়ে। তাই জয় ছাড়া কিছু ভাবছি না।
কসবার ভোটার, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের এক অধ্যাপক বলেন, এখানে যথেষ্ট অবাঙালি ভোটার বেড়েছে। তবে, সবাই যে বিজেপির ভোটার, তা নয়। দক্ষিণ ভারতীয় এবং গোবলয়ের ব্রাহ্মণরা কিন্তু কংগ্রেসের ভোটব্যাঙ্ক। সেটা সিপিএমের পরিবর্তে তৃণমূলেই যেতে পারে। কঠিন আসনগুলিতে কংগ্রেস বা সিপিএম তরুণদের এগিয়ে দিয়েছে। শতরূপকেও সেই নীতির শিকার বলে আমার মনে হয়।

7th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
15th     April,   2021