বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

মুখ্যমন্ত্রীর বার্তার পর সুন্দরবনে তৎপরতা
পরিষেবা পৌঁছে দিতে চারদিনে
২৫৫ দুয়ারে সরকার ক্যাম্প

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া বার্তার পর সুন্দরবনে দুয়ারে সরকার কর্মসূচি পালনে আরও জোর দিল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন। নদী ঘেরা পাঁচটি ব্লকের গ্রাম পঞ্চায়েতগুলিতে স্থায়ী ক্যাম্প হবে। পাশাপাশি মোবাইল ক্যাম্পও হচ্ছে। গত একমাসে এই পাঁচ ব্লকে ৩৬৭টি দুয়ারে সরকার ক্যাম্প করা হয়েছিল। সেখানে আগামী চারদিনে ২৫৫টি ক্যাম্প করার পরিকল্পনা হয়েছে। প্রশাসনের এই তৎপরতায় বসিরহাটের সুন্দরবন এলাকার মানুষ আশ্বস্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। জেলাশাসক শরদকুমার দ্বিবেদী বলেছেন, ‘সুন্দরবনের পাঁচটি ব্লকের প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প হচ্ছে। সকলের কাছে সরকারি পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে আধিকারিকরা কাজ করছেন।
সুন্দরবন সফরে সামসেরনগরের সভায় প্রশাসনিক অব্যবস্থায় বিরক্তি প্রকাশ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পরিষেবা প্রদানের বাস্তব চিত্র যাচাই করতে সভা থেকে জনতার উদ্দেশ্যে ‘দুয়ারে সরকার হচ্ছে কি না?’ প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছিলেন। সভায় উপস্থিত থাকা অধিকাংশ মানুষ ‘হচ্ছে না’, জানানোয় উষ্মা প্রকাশ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে উপস্থিত মুখ্যসচিব ও জেলাশাসকের কাছে জানতেও চান ‘দুয়ারে সরকার কেন হচ্ছে না।’ তখন তাঁকে ‘ক্যাম্প হচ্ছে’ বলে জানান প্রশাসনিক কর্তারা। মঞ্চের সামনে থেকে জনপ্রতিনিধিরাও উঠে দাঁড়িয়ে ‘দুয়ারে সরকার হচ্ছে’, বলে সাফাই দেন। সব শোনার পর মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ, ‘আরও বেশি করে ক্যাম্প করুন।’ এর পাশাপাশি বুধবার হাসনাবাদের খাঁ পুকুরে প্রশাসনের কর্তাদের উদ্দেশ্যে তাঁর বার্তা ছিল, ‘সাধারণ মানুষকে ভালো রাখতে হবে।’ মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পর পাঁচ ডিসেম্বর পর্যন্ত দুয়ারে সরকার ক্যাম্প আয়োজন করা নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছে জেলা প্রশাসন। চারদিনে জেলাজুড়ে ৯০০ ক্যাম্প করার পরিকল্পনা হয়েছে। প্রসঙ্গত গত একমাসে জেলায় ৫ হাজার ১৬৭টি ক্যাম্প হয়েছিল বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে। এবার মাত্র চারদিনেই ৯০০ ক্যাম্প হতে চলেছে। 
প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে, বসিরহাট মহকুমার সুন্দরবন এলাকার পাঁচটি ব্লকের উপর মূলত জোর দেওয়া হয়েছে। গত একমাসে হাসনাবাদে ৬৮, হিঙ্গলগঞ্জে ৭৩, মিনাখায় ১০৭, সন্দেশখালি‑১ ব্লকে ৮১ ও সন্দেশখালি-২  ব্লকে ৩৮টি ক্যাম্প করা হয়েছিল। মোট ক্যাম্প হয়েছিল ৩৬৭টি। এবার চারদিনে হিঙ্গলগঞ্জে ৭২টি ক্যাম্প হবে। বৃহস্পতিবার হাসনাবাদের ৯টি গ্রাম পঞ্চায়েতে ১০টি, হিঙ্গলগঞ্জের ৯টি গ্রাম পঞ্চায়েতে ১৮, মিনাখার ৮টি গ্রাম পঞ্চায়েতে ১৪, সন্দেশখালি‑১ ব্লকের ৮টি গ্রাম পঞ্চায়েতে ১৬ ও সন্দেশখালি‑২ ব্লকের ৮টি পঞ্চায়েতে ৮টি ক্যাম্প করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর সফরসঙ্গী অশোকনগরে বিধায়ক নারায়ণ গোস্বামী এই প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘সুন্দরবনের নদী ঘেরা ব্লকগুলিকে দেখবার জন্য মুখ্যমন্ত্রী অতিরিক্ত জেলাশাসককে বিশেষ দায়িত্ব দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পর প্রশাসন আরও সক্রিয় হয়েছে। সুন্দরবনের প্রান্তিক মানুষের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য জোরকদমে কাজ শুরু করেছে।’ 

2nd     December,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ