বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

স্কুলের পোর্টাল হ্যাক,
ঢুকল ভুয়ো শিক্ষার্থী
স্কলারশিপের টাকা হাতানোর ছক? 

নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: স্কুলের পোর্টাল হ্যাক করে ঢুকিয়ে দেওয়া হল একগুচ্ছ ছাত্রের নাম। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই তুমুল চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হুগলির বলাগড়ের জিরাট কলোনি হাইস্কুলে। বুধবার কর্তৃপক্ষ বিষয়টি টের পায়। তারা দেখে, একাদশ শ্রেণিতে ১০ জন ভুয়ো শিক্ষার্থীর নাম বাংলা শিক্ষা পোর্টালে আচমকাই যুক্ত হয়েছে। তারপরই বলাগড় থানা সহ সাইবার ক্রাইম বিভাগে অভিযোগ দায়ের করা হয়। ইতিমধ্যে সাইবার ক্রাইম শাখা তদন্ত শুরু করেছে। এভাবে স্কুলের পোর্টাল কে বা কারা হ্যাক করল, তাদের উদ্দেশ্য কী— উত্তর খুঁজছে পুলিস। সরকারের সাম্প্রতিক এক নির্দেশ অনুযায়ী, ওই পোর্টালে নাম উঠলে শিক্ষার্থীদের একটি নির্দিষ্ট আইডি তৈরি হয়। বিভিন্ন স্কলারশিপের টাকা সেই আইডি দেখেই দেওয়া হয়। টাকা সরাসরি শিক্ষার্থীর অ্যাকাউন্টে চলে যায়। তাই এই হ্যাকিংয়ের পিছনে বড়সড় চক্র থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করছে স্কুল। হ্যাকাররা কেবল একটি স্কুলের ক্ষেত্রেই ওই কাণ্ড করেছে বলে মনে করছেন না তদন্তকারীরাও। সেই জায়গা থেকেই বড়সড় কোনও চক্রের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। 
হুগলি গ্রামীণ পুলিসের কর্তারা জানিয়েছেন, বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। স্কুলের পরিচালন সমিতির সভাপতি অধ্যাপক পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ওই পোর্টাল যিনি পরিচালনা করেন, মঙ্গলবার বিষয়টি তাঁর নজরে আসে। বুধবার স্কুলের নথির সঙ্গে মিলিয়ে দেখে ১০ ভুয়ো শিক্ষার্থীর নাম যুক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন তিনি। বাংলা শিক্ষা পোর্টালের তত্ত্বাবধায়ক তথা শিক্ষক শুভদীপ চক্রবর্তী বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত পোর্টাল দেখি। তাই বিষয়টি সহজেই নজরে এসেছে। শিক্ষার্থীদের পরিচয়জ্ঞাপক একটি সংখ্যা ওখানে থাকে। ওই নম্বর দিয়ে আবেদন করলে স্কলারশিপের টাকা শিক্ষার্থীর অ্যাকাউন্টে চলে যায়। ওই নম্বরটি থাকলে আর কোনও খোঁজখবর না করেই টাকা দিয়ে দেওয়া হয়। তাই এই ঘটনা একটা বিরাট পরিকল্পনার ইঙ্গিত দিচ্ছে।
বিদ্যালয় সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, প্রতিটি স্কুলের কাছে পোর্টাল খোলার নিজস্ব পাসওয়ার্ড থাকে। কয়েকজন মাত্র তা জানেন। তাছাড়া জেলার শিক্ষাদপ্তরের কয়েকজনের কাছেও ওই পাসওয়ার্ড থাকে। জিরাট কলোনি স্কুলের দাবি, সংশ্লিষ্টরা কেউই পাসওয়ার্ড বদল করেননি। অথচ চলতি মাসের মাঝামাঝি বারবার পাসওয়ার্ড বদলে যাওয়ার ‌ঘটনা ঘটছিল। তখনই হ্যাকিংয়ের সন্দেহ তৈরি হয়। বুধবার ১০ জন বাড়তি শিক্ষার্থীর নাম পোর্টালে জুড়ে যাওয়ায় সেই সন্দেহে সিলমোহর পড়ে। সেই সঙ্গে সরকারি টাকা তছরুপের নয়া কৌশলও সামনে এল বলে মনে করছেন অনেকে।

1st     December,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ