বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

‘মিরাকল... লাগেনি
এক ইউনিট রক্তও’

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেউ বলছেন, ‘অবিশ্বাস্য’। কেউ বলছেন ‘রাখে হরি মারে কে!’ বলবেন না-ই বা কেন! কল্যাণীর আনন্দপল্লির ভাস্কর রাম ওরফে ভোলা রামকে যখন রবিবার মধ্যরাতে এনআরএস মেডিক্যাল কলেজের ইমার্জেন্সিতে আনা হয়, তখন তাঁর গলায় বিঁধেছিল আস্ত একটি ত্রিশূল! শুধু বিঁধেই ছিল না, এফোঁড়-ওফোঁড় করে একপ্রান্ত দিয়ে ঢুকে অন্য প্রান্ত দিয়ে বেরিয়ে গিয়েছিল। ইএনটি’র জুনিয়র ডাক্তাররা গভীর রাতে ইউনিটের ইনচার্জ ডাঃ প্রণবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভিডিও কল করে রোগীর অবস্থা দেখানো মাত্রই তিনি চলে আসেন হাসপাতালে। দেখা যায়, ত্রিশূলটি খাদ্যনালীর উপরে ল্যারিঙ্গোফ্যারিংস-এর দিক দিয়ে ঢুকে ও প্রান্ত দিয়ে বেরিয়ে গিয়েছে। অদ্ভুতভাবে ক্যারোটিড ধমনি, জুগুলার শিরা, শ্বাসনালী, মেরুদণ্ডের অগ্রভাগ, স্বরযন্ত্র, খাদ্যনালী স্পর্শ করেনি ওই ত্রিশূল।
আহত ব্যক্তিকে কল্যাণীর জেএনএম হাসপাতাল থেকে ওই অবস্থায় এনআরএসে আনা হলেও জ্ঞান হারাননি তিনি। স্বাভাবিক কথাবার্তাও বলছেন। প্রণবাশিসবাবুর নেতৃত্বে ডাঃ সুতীর্থ সাহা, ডাঃ অর্পিতা মহান্তি, ডাঃ মধুরিমা রায় ও তাঁদের সমগ্র টিম অপারেশন করে সতর্কতার সঙ্গেই ত্রিশূলটি বের করে আনে। চমকে দেওয়া ঘটনা হল, অপারেশনের সময় তিন ইউনিট রক্ত রেডি রাখা হলেও এক ইউনিটও লাগেনি। প্রণবাশিসবাবু বলেন, তন্ত্রসাধনা বা ব্ল্যাক ম্যাজিক এর নেপথ্যে থাকতে পারে। কারণ ওই যুবকের মুখের চারদিকে অদ্ভুতভাবে রক্ত লেগে ছিল। ইএনটি’র প্রধান ডাঃ সুমন্ত্র দত্ত বলেন, এমন আশ্চর্য ঘটনা এত বছরের চিকিৎসা জীবনে দেখিনি। এনআরএসের অ্যানাটমির অধ্যাপক ডাঃ অভিজিৎ ভক্তের দাবি, যে বা যারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে, তারা হয় পেশাদার, না হলে মিরাকল ঘটেছে।  এভাবেই গলায় ঢুকেছিল ত্রিশূল। 

29th     November,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ