বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

যত্রতত্র হকার ও বেআইনি পার্কিং
নিউ মার্কেট ঘুরে ক্ষুব্ধ মেয়র পারিষদ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘এখানে কেন ডালা লাগানো হয়েছে? খুলে ফেলুন।’ কিংবা ‘এটা কী গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গা? গাড়ি সরান’- এই কথাগুলি অন্য কারও নয়, কলকাতা পুরসভার মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমারের। শনিবার নিউ মার্কেট এলাকা পরিদর্শনে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে অবব্যস্থা তাঁর নজরে আসে। তারপর ঘুরতে ঘুরতে এই মন্তব্যগুলি করতে থাকেন তিনি। দেবাশিসবাবু কলকাতা শহরের হকার পুনর্বাসনের দায়িত্বে। শনিবার টাউন ভেন্ডিং কমিটির(টিভিসি) সদস্যদের সঙ্গে তিনি নিউ মার্কেট পরিদর্শন করেন। ঘোরার সময় অব্যবস্থার যেসব ছবি তাঁর চোখে পড়েছে তা যে মোটেও সন্তুষ্ট করেনি তাঁকে তা দেবাশিসের একের পর এক মন্তব্যে স্পষ্ট বুঝতে পেরেছেন সবাই।  
পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে নিউ মার্কেটে টাউন ভেন্ডিং কমিটির সমীক্ষা চালানোর কথা। তার অঙ্গ হিসেবে এদিন দেবাশিসবাবু নিউ মার্কেট চত্বর ঘুরে দেখতে বেরন। এই দলে ছিল পুলিসও। পরিদর্শক দলের পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে, কোথাও গোটা রাস্তায় হাঁটার জায়গা নেই। হকারদের দখলে থাকার কারণে কার্যত গায়েব হয়েছে হাঁটার রাস্তা। কোথাও বেআইনি পার্কিং করা হয়েছে। মেয়র পারিষদ নিজে এদিন সেসব চাক্ষুষ করলেন। পুরসভার এক কর্তার বক্তব্য, সব মিলিয়ে নিউ মার্কেটের সেই হযবরল দশাই রয়ে গিয়েছে। 
এদিন দুপুরে দেবাশিস কুমার পুরভবন থেকে নিউ মার্কেটে যাবেন বলে বেরন। ভবন থেকে বেরিয়েই দেখেন রাস্তার উপরে সার দিয়ে একের পর এক দোকান রাস্তা দখল করে রয়েছে। দেখতে পান, রাস্তার ধারজুড়ে ও রাস্তার বাইরের অংশে ফুটপাতে জুতো ঝুলিয়ে রাখা। দেবাশিসবাবু নিজে সেগুলি সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। আর একটু এগতেই দেখেন, গাড়ি পার্কিং করা রয়েছে। দেবাশিসবাবু চালককে গাড়ি সরিয়ে নিতে বলেন। যদিও সে নির্দেশ শোনার পর চালক নিরুত্তর ছিলেন। এর পাশাপাশি নিউ মার্কেট থানা লাগাতার মাইকিং করেছে। হকাররা কতটা জায়গা নিতে পারবেন তা বারবার বলা হয়। তার সঙ্গে প্লাস্টিকের ব্যবহার যাতে না হয় তাও বলা হচ্ছিল। পরিদর্শনের পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে দেবাশিসবাবু বলেছেন, ‘গাড়ি চলাচলের রাস্তায় হকার বসতে দেওয়া হবে না। টিভিসির কাছে রিপোর্ট যাবে। সেখানে আলোচনা হবে। তারা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। হকার বসার ক্ষেত্রে কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু নিয়ম মেনে বসতে হবে তাঁদের। এই শ্রেণির ব্যবসায়ীদের রুটি রুজির কথা মাথায় রেখেই হকার সুরক্ষা আইন হয়েছে। কাউকে উচ্ছেদ নয়। পুনর্বাসন দেওয়া হবে। কীভাবে সেটা হবে, সেই কাজ করবে টিভিসি। তাছাড়া, অনেকে সঠিক স্থানে গাড়ি পার্কিং করছেন না। এই বিষয়টিও গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হবে।’ 

27th     November,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ