বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

দুর্গাপুজো কার্নিভালের জন্য প্রস্তুত হুগলি
নিরাপত্তায় কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিস 

নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: শুধু কলকাতা নয়। এবার দুর্গাপুজোর কার্নিভাল রাজ্যজুড়ে। বাংলার দুর্গাপুজোকে ইউনেস্কো আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেওয়ার পর এমনই বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের নির্দেশে এবার জেলায় জেলায় পালিত হবে শোভাযাত্রা। আজ, শুক্রবার বিকেলেও সেরা পুজোগুলিকে নিয়ে শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে হুগলি প্রশাসন। সেই উপলক্ষে চুঁচুড়ায় সমস্ত প্রস্তুতি তুঙ্গে। কার্নিভালের জন্য যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। তাই গাড়ির গতিপথ পরিবর্তন করেছে পুলিস। 
কলকাতার রেড রোডের ধাঁচে প্রথমবার কার্নিভাল অনুষ্ঠিত হবে হুগলির চুঁচুড়ায়। আজ বিকেল পাঁচটা থেকে তা শুরু হবে। মোট ২৩টি পুজো কমিটি এই শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করবে। তার মধ্যে সর্বপ্রথমে থাকবে মহিলা আয়োজিত দুর্গাপুজো। প্রতিটি পুজো কমিটি তাদের নিজেদের ট্যাবলো সাজাবে। জমায়েত শুরু হবে কারবালা মোড়ে। সেখান থেকে পিপুলপাতি, বকুলতলা, ময়ূরপঙ্ক্ষী ঘাট, জোড়া ঘাট, পুরনো লঞ্চ ঘাট হয়ে অন্নপূর্ণা ঘাটে বিসর্জন হবে প্রতিমাগুলির। সেই রাস্তায় থাকছে তিনটি মঞ্চ। কার্নিভালের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বিশিষ্টরা। এছাড়াও সেখানে থাকবেন বিচারকরাও। এই শোভাযাত্রা উপলক্ষে আরও মোট ৯টি পুরস্কারের আয়োজন করা হয়েছে। তিনটি ক্যাটিগরিতে এই ৯টি পুরস্কার দেওয়া হবে। সেরা প্রতিমার জন্য থাকছে তিনটি পুরস্কার— প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয়। এছাড়াও প্রথমবারের জন্য অনুষ্ঠিত হুগলির এই শোভাযাত্রায় সাংস্কৃতিক নৈপুণ্য প্রদর্শনেও থাকছে বিশেষ পুরস্কার। বিচারকদের পছন্দে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানাধিকারদের জন্য থাকছে পুরস্কার। এখানেই শেষ নয়। পুজোর সময় সুষ্ঠু আইন-শৃঙ্খলা ও সেরা পরিবেশ সচেতনতার জন্যও থাকছে তিনটি পুরস্কার (প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয়)। যেহেতু শোভাযাত্রাতেও প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে, তাই উদ্যোক্তাদের মধ্যে একে অপরকে টেক্কা দেওয়ার চেষ্টাও রয়েছে। নিজেদের পরিকল্পনা অন্যের থেকে গোপন রেখে পুরস্কার ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য শেষ মূহুর্তের প্রস্তুতিতে উদ্যোক্তারা। 
অন্যদিকে, দুর্গাপুজোর এই কার্নিভালকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা নিয়েও আঁটোসাঁটো ব্যবস্থা করেছে পুলিস ও প্রশাসন। জানা গিয়েছে, শোভাযাত্রার রাস্তার দু’ধার বরাবর বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড করে দেওয়া হয়েছে। সেখান থেকেই শোভাযাত্রা দেখতে পাবেন সাধারণ মানুষ। পুলিস সূত্রে খবর, হুগলির স্টেশন রোড থেকে ঘড়ি মোড়, খাদিনা মোড় থেকে খরুয়া বাজার পর্যম্ত যান নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রশাসনের তরফে নিরাপত্তাজনিত কারণে অ্যাম্বুলেন্স ও পুলিস ক্যাম্পের ব্যবস্থা করা হয়েছে। জেলাশাসক দীপাপ্রিয়া পি বলেন, সমস্ত প্রস্তুতি সারা হয়েছে। চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার বলেন, দীর্ঘদিন ধরে শোভাযাত্রার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সমস্ত উদ্যোক্তারাই প্রতিযোগিতায় নেমেছেন। চুঁচুড়ার আঞ্চলিক ইতিহাসের চর্চাকার সপ্তর্ষি বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, প্রাচীন শহরের জন্য এটি একটি দৃষ্টান্ত। আশা করা যায় আজকের পর এটি আক্ষরিক অর্থে দৃষ্টান্ত হয়ে উঠবে। চুঁচুড়া সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যে নতুন পালক যুক্ত হবে। 
হুগলির চুঁচুড়ায় কার্নিভালের প্রস্তুতি তুঙ্গে। -নিজস্ব চিত্র

7th     October,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ