বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র চালাতে সহযোগিতা
করছে না বহু প্রাথমিক স্কুল, অভিযোগ
দক্ষিণ ২৪ পরগনা

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: নিজস্ব ভবন না থাকলে প্রাথমিক স্কুলে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র চালানোর নির্দেশিকা জারি করেছিল প্রশাসন। তবে সেই নির্দেশের তোয়াক্কা না করে বহু স্কুল অসহযোগিতা করছে। এমনই অভিযোগ উঠেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বিভিন্ন জায়গায়। ফলে বাধ্য হয়ে ক্লাব বা ভাড়াবাড়িতে চালাতে হচ্ছে বেশ কিছু অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রকে। ব্লকস্তরে সংশ্লিষ্ট স্কুলের সঙ্গে আলোচনা করে এই সমস্যা দূর করার চেষ্টা চলছে। কিন্তু প্রশ্ন হল, সরকারি নির্দেশিকা থাকার পরও প্রাথমিক স্কুলগুলি কেন এমন আচরণ করছে? দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান অজিত নায়েক বলেন, এখনও এ নিয়ে কোনও অভিযোগ আসেনি। বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখব।
জানা গিয়েছে, বেশ কিছু ব্লকে প্রধান শিক্ষকরা তাঁদের স্কুলে আইসিডিএস সেন্টার চালাতে দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ। তাঁরা মুখে না বললেও তাঁদের আচরণে তা স্পষ্ট। বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া, শৌচালয়ে তালা ঝুলিয়ে রাখা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিচ্ছে। 
বিষয়টি জেলা প্রশাসনের নজরে আনা হয়েছে বলে খবর। এ নিয়ে আরও কড়া পদক্ষেপ করা হোক, দাবি ব্লকের আধিকারিকদের। ডায়মন্ডহারবার, আলিপুর সদর, বারুইপুরের মতো বেশ কিছু ব্লকে এই সমস্যা রয়েছে। সবটা মেটানো না গেলেও কিছু স্কুলে আলোচনার পর এই সমস্যা দূর হয়েছে। প্রশ্ন হল, এই অসহযোগিতার কারণ কী? প্রধান শিক্ষকদের একাংশের বক্তব্য, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র চললে তার বিদ্যুতের বিল কে দেবে? তাছাড়া রান্নার পর স্কুল চত্বর নোংরা হয়ে পড়ে থাকবে। 
সেসব কে পরিষ্কার করবে? পাশাপাশি আইসিডিএস কেন্দ্রের যে শিশুরা শৌচালয় ব্যবহার করবে, তা পরিষ্কার করার দায়িত্বই বা কে নেবে? এইসব কারণ দেখিয়েই সেন্টার চালাতে অনুমতি দিচ্ছেন না তাঁরা। এই প্রসঙ্গে জেলাশাসক সুমিত গুপ্তা বলেন, আমরা ফের নির্দেশিকা জারি করব। কোনও স্কুল যাতে এব্যাপারে আপত্তি না জানায়, সেই নির্দেশ দেওয়া হবে। 

14th     August,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ