বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

ফের হতে পারে হামলা
ডন টোটনের জেল বদল

নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: ইঙ্গিত মিলেছিল আগেই। স্রেফ নিরাপত্তার কারণেই পেটে গুলি লাগার অস্ত্রোপচারের পরেই চুঁচুড়ার ডন টোটন বিশ্বাসকে কলকাতায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সেই নিরাপত্তার নিরিখে বদলে ফেলা হল জেলও। চুঁচুড়া সংশোধনাগার থেকে বৃহস্পতিবার রাতেই টোটনকে মেদিনীপুর সেন্ট্রাল জেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিসের একটা অংশের আশঙ্কা, আবারও আক্রান্ত হতে পারে টোটন। আর সেই কারণেই ওই সংশোধনাগার পরিবর্তন। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, সদ্য টোটনের উপরে গুলি চালানোর ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছে তার প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে ওঠা বাবু পাল। আগে থেকেই চুঁচুড়ার জেলে আছে টোটনের পুরনো দুশমন বিশাল দাস। ফলে, কোনও ‘চান্স ফ্যাক্টর’ রাখতে চাননি পুলিস কর্তারা।
ওয়াকিবহাল মহলের দাবি, টোটনকে নিরাপদ করার মধ্য দিয়ে আসলে শহর তথা জেলাকেও নিরাপদ করার উদ্দেশ্য পুলিসের আছে। কারণ, সামনেই উৎসব মরশুম। এই অবস্থায় শহরে বা জেলার বিভিন্ন প্রান্তে গ্যাংওয়ার শুরু হয়ে গেলে নাস্তানাবুদ হতে হবে পুলিসকে। একইসঙ্গে উৎসব মরশুম ও তাকে কেন্দ্র করে আবর্তিত হওয়া অর্থনীতির গুরুত্বকেও পুলিস কর্তারা মর্যাদা দিয়েছেন। বিশেষ করে আক্রান্ত হওয়ার পরই টোটন প্রকাশ্যে জানিয়েছিল, ‘বাবু পালকে আমি ছাড়ব না’। সেই বিবৃতিকেও পুলিস মহল বিবেচনায় রেখেছে। এনিয়ে পুলিস কর্তারা কেউ প্রকাশ্যে মন্তব্য করতে চাননি। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিস কর্তা বলেন, ‘আপাত শান্তি’ পরিস্থিতির নিরিখে খুব প্রয়োজন। ‘এক পা পিছিয়ে দু’পা অগ্রসর হওয়া’র নীতি কখনও কখনও খুব কার্যকরী প্রমাণিত হয়।
এদিকে, বৃহস্পতিবার ডানকুনি থেকে টোটনগোষ্ঠীর একঝাঁক দুষ্কৃতীকে পুলিস গ্রেপ্তার করেছিল। তাদের তিনজনকে পুলিস হেফাজতে নিয়েছে। বাকিদের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। প্রসঙ্গত, গত শনিবার হুগলি জেলা সদরে চুঁচুড়ার ইমামবাড়া হাসপাতালে প্রকাশ্যে আক্রান্ত হয়েছিল বিচারধীন ডন টোটন। দুষ্কৃতীদের গুলি তার বুক ও পেটের সংযোগস্থলে লেগেছিল। সেদিনই তার অপারেশন করা হয়। জীবনের ঝুঁকি না থাকলেও, ‘উন্নত চিকিৎসার’ নামে তাকে সেদিনই চুঁচুড়া থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। 
এরপর ১১ আগস্ট মাছি গলতে না পারা নিরাপত্তায় চুঁচুড়া আদালতে তাকে পেশ করা হয়। কিন্তু পুলিস বুঝতে পেরেছিল, একবার আক্রান্ত হওয়ার পরে টোটনের উপরে আক্রমণের সম্ভাবনা বেড়ে গিয়েছে। বিশেষ করে চুঁচুড়ার টোটন সাম্রাজ্যের দখল নেওয়ার জন্য বিরোধীরা মরিয়া হয়ে উঠেছে। এই অবস্থায় চুঁচুড়া সংশোধনাগারে আর টোটনকে রাখতে চায়নি পুলিস মহল। তাই কার্যত নিঃশব্দে তার জেল বদলে দেওয়া হয়েছে। 
আপাতত বিরোধী গোষ্ঠীর কাছ থেকে ‘টার্গেট’কে সরিয়ে তাদের হতোদ্যম করে দেওয়াই মুখ্য উদ্দেশ্য। সেই সঙ্গে জেলার শান্তিশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে স্থিতিশীল করাও। 

13th     August,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ