বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

মিথ্যা অভিযোগ থেকে মুক্ত শিক্ষক, 
অবসরকালীন পাওনা মেটাতে নির্দেশ
খারিজ প্রাথমিক স্কুল কাউন্সিলের যাবতীয় সিদ্ধান্ত

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মিথ্যা অভিযোগে তিনি সাসপেন্ড হন। অভিযোগ খারিজ হওয়ায় প্রাথমিক শিক্ষক রামপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় নির্দোষ ঘোষিত হন। কিন্তু ২০১৭ সালে অবসর নিলেও পাননি অবসরকালীন আর্থিক নানা সুবিধা। এমনকী, পেনশনও। যাবতীয় সেই সব প্রতিবন্ধকতা দূর করে ৫ শতাংশ সুদ সহ রামপ্রসাদবাবুর পাওনা মিটিয়ে দিতে নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহা। সেই সঙ্গে তাঁর নির্দেশে খারিজ হয়েছে বর্ধমান জেলা প্রাথমিক স্কুল কাউন্সিলের সম্পর্কিত সব সিদ্ধান্ত। 
১৯৮০ সালে প্রাথমিক শিক্ষকতায় যোগ দিয়ে রামপ্রসাদবাবু প্রধান শিক্ষক হন ২০০৯ সালে। ২০১২ সালের ৩০ মে ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসায়’ অভিযুক্ত হন। দুই মাস পরে জামিন পান। কিন্তু স্কুলে ঢুকতে পারেননি। আসেন হাইকোর্টে। আদালত তাঁর পক্ষে নির্দেশ দিলেও জেলা প্রাথমিক স্কুল কাউন্সিল কোনও পদক্ষেপ করেনি। অন্যদিকে, হাইকোর্টের বৃহত্তর বেঞ্চের নির্দেশ অনুসরণে সিপিএফ থেকে জিপিএফ প্রকল্পে অর্থাৎ, পেনশন সহ অবসরকালীন অন্যান্য আর্থিক সুবিধা পেতে তিনি আবেদন জমা করেছিলেন। যা কাউন্সিল খারিজ করে। কাউন্সিলের এই দুই সিদ্ধান্তের বৈধতা তিনি ২০১৭ সালে চ্যালেঞ্জ করেন। 
তাঁর আইনজীবী জয়তোষ মজুমদার ও সৌগত মিত্র আদালতকে জানান, সাসপেন্ড থাকা অবস্থায় ২০১৭ সালে তিনি অবসর নেন। ২০১৮ সালের ১০ জানুয়ারি দুর্গাপুর আদালত তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খারিজ করে। কাউন্সিলও ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে সাসপেন্ড অর্ডার প্রত্যাহার করে।  কিন্তু সিপিএফ থেকে জিপিএফে যাওয়ার জন্য তাঁকে কত টাকা ফেরত দিতে হবে, তা আজও জানানো হয়নি। কেন তাঁর আবেদন খারিজ করা হল, তার কারণ বলেনি। সব কিছু খতিয়ে দেখে উচ্চ আদালতের নির্দেশ, কত টাকা তাঁকে ফেরত দিতে হবে, তা রায় হাতে পাওয়ার চার সপ্তাহের মধ্যে সরকারপক্ষকে জানিয়ে দিতে হবে। ওই অর্থ ফেরত পেয়ে জেলা স্কুল পরিদর্শক রামপ্রসাদবাবুর জিপিএফ বাবদ প্রাপ্য নির্ধারণ করে তা মেটানোর ব্যবস্থা করবেন। 

26th     May,   2022
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ