বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

সোনা, জাল নোট, অস্ত্র এবং মাদক সহ ৩৪
কোটির সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করল বিএসএফ

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাকপুর: ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কড়া নজরদারি চালিয়ে গত এক বছরে বড় সাফল্য পেল বিএসএফের দক্ষিণবঙ্গ ফ্রন্টিয়ার। মঙ্গলবার পর্যন্ত এক বছরে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন সীমান্তে বিএসএফ ৩৪ কোটি টাকার বেশি সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করেছে। এর মধ্যে সোনার বিস্কুট, জালনোট, মাদক, আগ্নেয়াস্ত্র থেকে গোরু প্রভৃতি অনেক কিছুই রয়েছে। বিএসএফের দাবি, বাংলাদেশ সীমান্তে নজরদারির উপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। জওয়ানরা দিনরাত সতর্ক রয়েছেন। তার ফলেই এই সাফল্য এসেছে। সীমান্তে পাচার বন্ধ করার লক্ষ্য নিয়েই জওয়ানরা কাজ করে চলেছেন।
ভারত-বাংলাদেশ থেকে পাচরের অভিযোগ নতুন নয়। স্থল সীমান্ত হোক, কিংবা জল সীমান্ত। বিএসএফের নজরদারি এড়িয়েই পাচার চলে আসছে। এ দেশ থেকে গোরু, রুপোর গয়না, ফেনসিডিল, মাদক, অস্ত্র, শাড়ি, সাইকেল, টিয়া, হিল ময়না পাখি, মানুষের মাথার চুল সহ বিভিন্ন জিনিসপত্র পাচার হয় বাংলাদেশে। বাংলাদেশ থেকে এ দেশে পাচার হয়ে আসে সোনার বিস্কুট, জালনোট, আগ্নেয়াস্ত্র, বিদেশি পাখি, বিদেশি প্রাণী, ইয়াবা ট্যাবলেট, গাঁজা সহ নানান সামগ্রী। সম্প্রতি, বিএসএফের কড়া নজরদারিতে গোরু পাচার একেবারে কমে গিয়েছে। তবে, পাচারের পদ্ধতি বদলে অন্যান্য পাচার চলছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। বিএসএফ জওয়ানরাও সীমান্তে টহলদারি, রাত্রিকালীন পেট্রলিং বাড়িয়েছে। সারপ্রাইজ অভিযানও চলছে। তাতে সাফল্যও আসছে।
বিএসএফ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২০২০ সালের ১ ডিসেম্বর, চলতি বছরের ৩০ নভেম্বর মঙ্গলবার পর্যন্ত এই এক বছরে বিএসএফ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন সীমান্ত থেকে মোট ৩৪ কোটি ৩৪ লক্ষ টাকার সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করেছে। এর মধ্যে এ দেশ থেকে পাচার হওয়ার জিনিসপত্র যেমন রয়েছে, তেমনই রয়েছে বাংলাদেশ থেকে পাচার হওয়া মালপত্র। এই বাজেয়াপ্ত সামগ্রীর মধ্যে এক বছরে ৩২ কেজি ৯০৫ গ্রাম সোনা বাজেয়াপ্ত হয়েছে, যার বর্তমান দাম ১৬ কোটি ১ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা। ১ লক্ষ ৮১ হাজার ৭১১ বোতল ফেনসিডিল বাজেয়াপ্ত হয়েছে, যার দাম  ৩ কোটি ২০ লক্ষ টাকা। ২,২৩৭টি গবাদি পশু বাজেয়াপ্ত হয়েছে, যার দাম ২ কোটি ৮৩ লক্ষ টাকা। রুপো বাজেয়াপ্ত হয়েছে ৩১৮ কেজি ১৫৮ গ্রাম, যার বাজার দাম ১ কোটি ৫৯ লক্ষ টাকার বেশি। ৯৭২১টি ইয়াবা ট্যাবলেটও বাজেয়াপ্ত হয়েছে, যার দাম প্রায় ৪৮ লক্ষ টাকা।
এছাড়াও, ২৪টি অস্ত্র, ২৮টি গোলাবারুদ, ১৭ লক্ষ ২০ হাজার ৫০০ টাকার জাল ভারতীয় নোট, ১৮৯১ কেজি গাঁজা, ৭ কেজি ৮৫০ গ্রাম মাদক দ্রব্য এবং অনেক পাখিও উদ্ধার হয়েছে। বিএসএফ জানিয়েছে, জওয়ানদের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং ধারাবাহিক প্রচেষ্টার কারণে এই সাফল্য এসেছে। দক্ষিণবঙ্গের সদর দপ্তর থেকেও জওয়ানদের প্রশংসা করা হয়েছে।

3rd     December,   2021
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021