বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

সাধারণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে জাতীয় পতাকার রঙের আলোয় সেজেছে জিপিও। ছবি: সায়ন চক্রবর্তী

বিদ্রোহ বিজেপি শিবিরে
টিকিট দেয়নি দল, প্রয়াত
কাউন্সিলারের স্বামী নির্দল প্রার্থী?

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতা পুরভোটের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হতেই বিদ্রোহ শুরু হল বিজেপিতে। সোমবার পদ্ম শিবিরের তরফে ১৪৪টি ওয়ার্ডে প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়। তারপরই দলের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিলেন ৮৬ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলার সদ্য প্রয়াত তিস্তা বিশ্বাসের স্বামী। গত ২৭ অক্টোবর পূর্ব মেদিনীপুরে গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যান তিস্তা। মারাত্মক জখম হন স্বামী গৌরব বিশ্বাস। তিনি দীর্ঘদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গৌরবের দাবি, জেলা ও রাজ্য নেতৃত্ব এবার তাঁকে টিকিট দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল। সেই মতো প্রয়াত স্ত্রীর একাধিক অসম্পূর্ণ কাজ শেষ করার মানসিক প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছিলেন গৌরব। কিন্তু টিকিট না পেয়ে দৃশ্যতই হতাশ দেখাল তাঁকে। এদিন প্রকাশ্যেই তিনি তোপ দেগেছেন দিলীপ ঘোষ, সুকান্ত মজুমদারদের বিরুদ্ধে। গৌরবের অভিযোগ, তৃণমূলের সঙ্গে বিজেপি নেতাদের গোপন 
আঁতাত হয়েছে। যাতে এই ওয়ার্ড থেকে মন্ত্রীর (চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য) ছেলেকে ওয়াকওভার দেওয়া যায়। এলাকাবাসীর অনুরোধ মেনে তিনি পুরভোটে নির্দল হয়ে দাঁড়াবেন বলেও জানান গৌরব। তাঁর কথায়, দক্ষিণ কলকাতায় বিজেপিকে শূন্য করে দেওয়ার চক্রান্ত করছে কয়েকজন নেতা। আমি ভোটে দাঁড়িয়ে দেখিয়ে দেব, পার্টি আমায় টিকিট না দিয়ে কতটা ভুল করল।
এই প্রসঙ্গে বিজেপি’র সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, কে ওনাকে টিকিট দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, তা আমি জানি না। পার্টিতে এভাবে কেউ আগাম প্রার্থী করার কথা বলতে পারে না। সেই সূত্রে দিলীপবাবু তিস্তার পাশের ওয়ার্ডের প্রসঙ্গ টেনে আনেন। ২০১৫ সালের পুরভোটে ৮৭ নম্বর ওয়ার্ডও বিজেপি’র দখলে এসেছিল। কিন্তু এবার ওয়ার্ডটি মহিলা সংরক্ষিত হওয়ায় প্রাক্তন কাউন্সিলার সুব্রত ঘোষকে টিকিট দেয়নি দল। তিনি নয়া প্রার্থীকে জেতাতেই কাজ করবেন, সাফ কথা দিলীপ ঘোষের। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে তিস্তাদেবী ১২৫ ভোটে জয়ী হয়েছিলেন। তাঁর স্বামীর কথায়, তিস্তা বেঁচে থাকলে হয়তো রাজ্য নেতৃত্ব ওকেও টিকিট দিত না। কয়েকজন নেতা নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য অযোগ্যদের টিকিট দিয়েছেন। পুরসভা ভোটে বিজেপিকে কার্যত অপ্রাসঙ্গিক করতেই এই চক্রান্ত বলে মনে করেন গৌরব। ২০১১ সালে সাধারণ কর্মী হিসেবে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন গৌরব। ২০১৪ সালে দক্ষিণ কলকাতা থেকে বিজেপি প্রার্থী তথাগত রায়ের হয়ে যে গুটিকয়েক কর্মী রাস্তায় নেমেছিলেন, গৌরব তাঁদের মধ্যে একজন। তিনি বলেন, তার এক বছরের মধ্যেই ২০১৫ সালে কলকাতা পুরভোটে ৮৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে তিস্তাকে জিতিয়ে আনতে পেরেছিলাম। তৃণমূলের শত প্রলোভন, হুমকির সামনে আমরা কোনওদিন মাথা নত করিনি। দক্ষিণ কলকাতায় বিজেপি’র স্বতন্ত্র সত্তা তৈরি করেছিলাম। আজ তার পুরস্কার পেলাম! ওয়াকওভার দেওয়ার প্রসঙ্গে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের ছেলে তথা ৮৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী সৌরভ বসু বলেন, এটা বিজেপি’র অভ্যন্তরীণ কোন্দল। 

30th     November,   2021
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021