বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

঩বন্ধ হচ্ছে ঘরে-বাইরের দরজা,
হতাশ বাংলার শিল্পপ্রেমী মহল

সুদীপ্ত রায়চৌধুরী, কলকাতা: বিবাদি বাগ চত্বর। অফিসযাত্রী, খুচরো ব্যবসায়ীদের ঠেলাঠেলির চেনা ছবিটা আজ একটু অন্যরকম। ওল্ড কারেন্সি বিল্ডিংয়ের নীচে একটা জমাট বাধা ভিড়। কিছুটা অবাক নজরে সেদিকে তাকিয়ে টুল পেতে বসে থাকা নোট বদলকারীরা। হাতে ধরা কড়কড়ে নোটের তাড়া সামলাতে সামলাতে তাঁদের একটাই প্রশ্ন, ‘হচ্ছেটা কী?’ ভিড়ের স্রোতে গা ভাসাতেই মিলল উত্তর। রবিবার বন্ধ হতে চলেছে শহরের সাধের প্রদর্শনী। ‘ঘরে-বাইরে’। দু’বছর পূর্ণ হওয়ার আগেই আচমকা এই ঘোষণায় হতবাক রাজ্যের শিল্পপ্রেমীরা।
ঘরে-বাইরের পথ চলার শুরুটা হয়েছিল বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে। সংস্কৃতি মন্ত্রকের অধীনে থাকা আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া ও ন্যাশনাল গ্যালারির সঙ্গে একযোগে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করে ড্যাগ মিউজিয়াম। ২০২০ সালের ১১ জানুয়ারি। উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। একদিন পর থেকেই তা খুলে দেওয়া হয় আমজনতার জন্য। মাঝে করোনার প্রকোপে কিছুদিন বন্ধ থাকলেও আনলক পর্বে ফের খুলে দেওয়া হয় ঘরে-বাইরের দরজা। এই প্রদর্শনীর লক্ষ্য ছিল একটাই—বাংলার দুই শতাব্দীর চিত্রকলা, ভাস্কর্য তুলে ধরা। ১৮৩৩ সালে ইতালীয় স্থাপত্যশৈলীতে নির্মিত কারেন্সি বিল্ডিংয়ে ১৮-২০ শতকের শিল্পীদের সৃষ্টিকর্ম দেখতে ভিড়ও জমে বেশ। আর হবে নাই বা কেন! অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর, গগনেন্দ্রনাথ ঠাকুর থেকে নন্দলাল বসু, যামিনী রায়, রামকিঙ্কর বেইজ, সুনয়নী দেবী—কে নেই সেই তালিকায়! তিনতলা বাড়িটির ছোট-বড়-মাঝারি ঘরগুলির দেওয়ালে ফ্রেমবন্দি নানান সময়-মূহূর্ত-স্মৃতি। বাদ যায়নি করিডর-সিঁড়ির পাশের দেওয়ালগুলিও। তুলনামূলক ছোট ফ্রেমে কার্ডে আঁকা ছবি থেকে নামজাদা দেশি-বিদেশি আলোকচিত্রীদের তোলা সাদা-কালোয় তিলোত্তমার পুরনো চেহারা। 
গত বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ড্যাগ মিউজিয়ামের পেজে জানানো হয়, ২৮ নভেম্বর দোরে আগল দিচ্ছে ‘ঘরে-বাইরে’। সূত্রের খবর, গত বছরেই ড্যাগ মিউজিয়ামের সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে গিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের। মন্ত্রকের তরফে তা পুনর্নবীকরণ না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত এই পদক্ষেপ। ড্যাগের তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এই প্রদর্শনীতে ভারতের পাশাপাশি বিভিন্ন বিদেশি শিল্পীদের ছবি, আলোকচিত্র প্রদর্শিত হচ্ছে। রবিবার এই প্রদর্শনী বন্ধ করা হলেও আশা করব খুব তাড়াতাড়ি আমরা আবার নতুন ডালি নিয়ে সংস্কৃতির রাজধানীর বুকে ফিরে আসব।’ ছবি-ভাস্কর্য আর দেখার সুযোগ মিলবে না ভেবে হতাশ আর্ট কলেজের একদল পড়ুয়া। তাঁরা জানালেন, মাঝেমধ্যেই এখানে এসে প্রাচীন-দুর্লভ ছবিগুলি দেখে শেখার চেষ্টা করি। আর সেই সুযোগ পাওয়া যাবে না। তবে আজ-কাল দু’দিনই আসব। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘরে-বাইরের বন্ধ হয়ে যাওয়ার খবর দেখে সল্টলেক-দমদম-বেহালা থেকে ভিড় জমিয়েছিলেন তরুণ থেকে প্রবীণ অনেকেই। 
এ যেন পোস্টআপিসের চারদিকে অশ্রুজলে ভেসে রতনের ঘুরে বেড়ানোর মতো। ক্ষীণ আশা... ফিরে আসার।

28th     November,   2021
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021