বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

মনোনয়নপত্র জমা দিতে সপরিবারে কলকাতা পুরসভার ৮২ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী ফিরহাদ হাকিম। সোমবার তোলা নিজস্ব চিত্র। 

বিজেপি ৩০ সেপ্টেম্বর খেয়েছে ৩
গোল, ৪ গোল খাবে ৩০ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মাত্র একমাসের ব্যবধান। ভোটের তারিখ এক। ৩০। কিন্তু শুধু মাসের পার্থক্য। একটা ভোট হয়ে গিয়েছে ৩০ সেপ্টেম্বর। পরের ভোট ৩০ অক্টোবর। যে সূত্রেই তৃণমূল বলছে, আবারও হারবে বিজেপি। 
৩০ সেপ্টেম্বর ভোট হয় ভবানীপুর, জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জে। যে ভোটে ভবানীপুরবাসী ‘ঘরের মেয়ে’ মমতার উপর পূর্ণ আস্থা রাখেন। ৫৮ হাজারের বেশি ভোটে নির্বাচিত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জে জয়ী হন তৃণমূলের প্রার্থীরা। ৩০ অক্টোবর উপনির্বাচন হতে চলেছে খড়দহ, গোসাবা, শান্তিপুর ও দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্রে। দুর্গাপুজোর পর্বে ভোট প্রচার করা যায়নি। তবে পুজোমণ্ডপ ঘুরে জনসংযোগ সেরেছেন তৃণমূলের প্রার্থীরা। প্রচারের জন্য হাতে মাত্র দিন দশেক সময়। ফলে একাদশী থেকেই প্রচার পর্ব শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল। তবে পুরোমাত্রায় প্রচারে তৃণমূল ঝড় তুলতে চাইছে লক্ষ্মীপুজোর পর দিন থেকে। ভোটে জয়-পরাজয় নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলছে রাজনৈতিক মহলে। এখানেই তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, বিজেপি আগের ভোটে তিন গোলে হেরেছে। এবারও হারবে এবং চার গোল খাবে। আর এবার তৃণমূলের হাতে আসবে ওদের জেতা আসনও।
খড়দহ ও গোসাবা দুটি আসনই তৃণমূল গত ভোটে জিতেছিল। খড়দহে জেতেন কাজল সিনহা। তাঁর মৃত্যুতেই উপনির্বাচন হচ্ছে। এই ভোটে তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। রাজনৈতিক অভিজ্ঞতায় বিরোধী দলের প্রার্থীদের থেকে তিনি ঢের এগিয়ে। একপ্রস্থ প্রচার ইতিমধ্যেই সেরে ফেলেছেন। জানিয়েছেন, দু’বেলা টানা প্রচার চলছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ মেনে ছোট আকারে সভা করা হচ্ছে। বাড়ি বাড়ি পৌঁছেছে লিফলেট। তাতে তৃণমূল প্রার্থীর আবেদন, একজন সর্বক্ষণের দলীয় কর্মী। মানুষের জন্য এর আগে অন্য বিধানসভাতেও কাজ করেছি। এবার খড়দহের মানুষের আশীর্বাদে অমিত মিত্র, সৌগত রায়ের উন্নয়নের ধারাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। উল্লেখ্য, খড়দহে ২০১১, ২০১৬ ও ২০২১ সালে তৃণমূল প্রার্থীরাই নির্বাচিত হন।
গোসবা থেকে টানা তিনবার বিধায়ক হন তৃণমূলের জয়ন্ত নস্কর। তাঁর প্রয়াণে উপনির্বাচন হচ্ছে সেখানে। তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মণ্ডল প্রতিদিনই দু’বেলা এলাকা ঘুরে প্রচার সারছেন। তাঁর বক্তব্য, ১৬টি গ্রাম পঞ্চায়েতে দু’বেলা সভা চলছে। সেই সঙ্গে সাংগঠনিকভাবে বুথ ও অঞ্চল কমিটির বৈঠক হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়াই মূল লক্ষ্য আমাদের।
এই উপনির্বাচনে আলোচনার কেন্দ্রে রয়েছে শান্তিপুর ও দিনহাটা। শান্তিপুরে মতুয়া ভোট অনেক। একুশের ভোটে এখান থেকে জেতেন বিজেপির জগন্নাথ সরকার। কিন্তু সাংসদ থেকে তিনি বিধায়ক পদ ছেড়ে দেন। তাই এই উপনির্বাচন। তৃণমূল প্রার্থী ব্রজকিশোর গোস্বামী ঠাকুর পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কিত। তিনিও প্রচার চালাচ্ছেন রোজ। এখানেই তৃণমূলের দাবি, মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষ মমতার উপরেই আস্থা রাখেন। তাঁরা এবার বিজেপিকে আর ভোট দেবেন না।
গুরুত্বপূর্ণ হল শেষ বিধানসভা নির্বাচনে দিনহাটায় বিজেপির কাছে মাত্র ৫৭ ভোটে পরাজিত হন তৃণমূলের উদয়ন গুহ। এবারও তাঁর উপরই ভরসা রেখেছে দল। জিতেও ইস্তফা দেন বিজেপির নিশীথ প্রামাণিক। তাই এই ভোট। উদয়নবাবু বলেছেন, মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন তাঁরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরই সঙ্গে থাকবেন। রাজ্যে আগের ভোটে হেরে এমনিতেই ব্যাকফুটে বিজেপি। যদিও গেরুয়া শিবিরের নেতা শমীক ভট্টাচার্যের দাবি, আমরা লড়াইয়ের ময়দানে আছি। 

18th     October,   2021
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021