বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

আরামবাগে বৈদ্যুতিক চুল্লির উদ্বোধন,
নাম-সংকীর্তনে নেচেগেয়ে ভাইরাল পুর প্রশাসক
 

নিজস্ব প্রতিনিধি, আরামবাগ: খোল-করতাল, খঞ্জনির সঙ্গে চলছে ‘তোমায় হৃদ মাঝারে রাখব, ছেড়ে দেব না’ গান। সাদা ধূতি-পাঞ্জাবি পরে গানের তালে দু-হাত তুলে নাচছেন কয়েকজন। তাঁদের মধ্যমণি অবশ্য খোদ আরামবাগ পুরসভার প্রশাসক স্বপন নন্দী। আরামবাগ শহরের পাঁড়ের ঘাটে দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষিত ইলেক্ট্রিক শ্মশান চুল্লির উদ্বোধনের পর হরিনামের দলের সঙ্গে নাচে কোমর দুলিয়ে নজর কাড়লেন তিনি। ১৬ ফেব্রুয়ারি এই ইলেক্ট্রিক শ্মশান চুল্লির ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। মঙ্গলবার সেটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের জন্য পাঁড়ের ঘাট শ্মশান চত্বরে যজ্ঞ, নাম সংকীর্তন সহকারে পুজোপাঠের আয়োজন করা হয়। বহু সাধারণ মানুষও নাম সংকীর্তনে অংশ নেন।
পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, এই চুল্লির কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালে। এনিয়ে বিভিন্ন আইনি জটিলতা ও বিজেপির নানা বিরোধিতার জেরে এটির কাজ শেষ হতে সময় লেগে যায়। তবে, শেষ পর্যন্ত চুল্লির উদ্বোধন হওয়ায় খুশি এলাকার মানুষ।  শহরের মূল কেন্দ্রে এই শ্মশান হওয়ায় মরা পোড়ার  গন্ধ ও পরিবেশ দূষণের কারণে দীর্ঘদিন ধরে অসুবিধায় পড়তেন পাঁড়ের ঘাট লাগোয়া বাসিন্দারা। এতদিন পর সেই সমস্যার সমাধান হওয়ায় নাগরিকরা খুবই খুশি। তাই এদিন হরিনাম সংকীর্তন ঘিরে মেতে ওঠেন শহরের মানুষ। শ্মশান লাগোয়া কালীমন্দির চত্বরে এদিন খিচুড়ি প্রসাদেরও আয়োজন করা হয়। সেখানে রান্নার কাজেও হাত লাগান পুরসভার প্রশাসক। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলার প্রদীপ সিংহরায় সহ অন্যান্যরা।স্বপনবাবু বলেন, এই চুল্লি দ্রুত  গড়ার জন্য মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কয়েক বছর আগেই আমাদের জানান। কিন্তু, বিজেপির কয়েকজন চক্রান্ত করে সেই কাজে বাধা দিয়েছিল। আদালতেও গিয়েছিল। সেই জটিলতা কাটিয়ে আদালতের অনুমতি আমরা পেয়েছি। সেই চুল্লির উদ্বোধন হয়ে গিয়েছে। ৮ থেকে ১০ হাজার মানুষ  এদিন ভোগপ্রসাদ গ্ৰহণ করেন। আরমবাগবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল এই ইলেক্ট্রিক চুল্লির। এতে শহরের নয়, আরামবাগ মহকুমার বিভিন্ন এলাকার মানুষ উপকৃত হবেন।
তবে, এদিনের অনুষ্ঠানে পুর প্রশাসকের নাচ ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। প্রসঙ্গত, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সম্প্রতি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নাচে, গানে মেতে উঠতে দেখা যায়। ভোটের জনসংযোগ ও প্রচারের এটাই এখন নতুন ট্রেন্ড হয়ে গিয়েছে। এদিন অবশ্য তৃণমূল নেতা তথা পুরসভার প্রশাসকের নাচ নিয়ে কটাক্ষ করেছে বিরোধীরা। এ ব্যাপারে বিজেপির আরামবাগ সাংগঠনিক সভাপতি বিমান ঘোষ বলেন, ভোটের আগে এটাই ওঁর শেষ নাচ।  

24th     February,   2021
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
5th     March,   2021