Bartaman Patrika
ভ্রমণ
 

শহরের মধ্যে দেশ ভ্যাটিকান

ভ্যাটিকান সিটি। ইতালিয়ানরা বলেন সিটা ডেল ভ্যাটিকানো। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম এই দেশ খ্রিষ্ট ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বিশেষ করে রোমান ক্যাথলিকদের কাছে পবিত্র তীর্থভূমি। ইতালির রোম শহরের মধ্যে টিবের নদীর পশ্চিমপাড়ে অবস্থিত অতিক্ষুদ্র এই দেশটার আয়তন মাত্র ১১০ একর। আর জনসংখ্যার পরিমাণ শুনলে অবাক হবেন মাত্র ১০০০ জন। এই ভ্যাটিকান সিটিকে দেশ না বলে দেশ শহর বললে বোধহয় বোঝার কিছুটা সুবিধে হয়। রোমে টিবের নদীর ওপর পাথর কুঁদে অলংকৃত সেতু পেরিয়ে প্রবেশ করতে হবে দুর্গপ্রাচিরে ঘেরা ছোট্ট এই সার্বভৌম দেশের চৌহদ্দিতে। খ্রিষ্টান ধর্মগুরু পোপের শাসনাধীন এই দেশের দ্রষ্টব্যগুলি খুঁটিয়ে দেখতে পুরো দিন লেগে যাবে। ভাবলে বিস্ময় লাগে একটা শহরের মধ্যে কীভাবে একটা দেশ গড়ে উঠতে পারে। ভ্যাটিকান সিটির ক্ষেত্রে এমনটাই ঘটেছে। এই দেশে প্রবেশের তিনটি প্রবেশদ্বার— ব্রোঞ্জ ডোর, আর্চ অফ দি বেলস ডোর, সেন্ট অ্যানে গেট। ১৫০৬ সাল থেকে এই দেশকে পাহারা দিচ্ছে সুইসরক্ষী। বর্তমানে যার সংখ্যা মাত্র ১১৫ জন। প্রাচীন রেনেসাঁ যুগের ঐতিহ্যবাহী লাল-নীল-হলুদ ডোরাকাটা জোব্বা আকৃতির পোশাক পরা এই সৈন্যরা পোপের নিজস্ব সেনাবাহিনী।
অতীতে ইতালি সহ ইউরোপের অনেকাংশ ছিল খ্রিষ্টান ধর্মযাজক পোপের শাসনাধীন। ১৮ শতকে ইতালিতে পোপের আধিপত্য শেষ হলে ১৯২৯ সালে ইতালির রাজার পক্ষে প্রধানমন্ত্রী মুসোলিনি ও ভ্যাটিকান সিটির পোপের মধ্যে চুক্তির মাধ্যমে স্বাধীন এক সার্বভৌম রাষ্ট্রের মর্যাদা লাভ করে ভ্যাটিক্যান সিটি। এখানে ছড়িয়ে আছে একাধিক বারোক ও রেনেসাঁ শৈলীর কালজয়ী সব স্থাপত্য। চারপাশে চোখে পড়বে অপরূপ সব ভাস্কর্য। দেশের প্রায় অর্ধেক অংশ জুড়ে রয়েছে সবুজে মোড়া ভ্যাটিকান গার্ডেন। যার মধ্যে রয়েছে ছোট টিলা ভ্যাটিকান হিল। দৃষ্টিনন্দন এই বাগানটির আয়তন ৫৭ একর। এই দেশ শহরের মধ্যে পাথর বাঁধানো পথে হেঁটে হেঁটেই সব ঘুরে দেখতে হবে।
ভ্যাটিকান ভ্রমণ শুরু করুন চোখ ধাঁধানো শিল্পকলার নিদর্শন ভ্যাটিকান মিউজিয়াম থেকে। যেমন এর গঠনশৈলী, তেমন এর দেওয়াল, স্তম্ভ, সিলিং জুড়ে রয়েছে নিখুঁত শিল্পকর্ম। ১৬ শতকে পোপ দ্বিতীয় জুলিয়াস এটি নির্মাণ করেন। ভেতরে নানা মহলে থরে থরে সাজানো আছে চিত্রকলা, ভাস্কর্য, পোপেদের ব্যক্তিগত দুর্মুল্য সামগ্রী। মিউজিয়ামের লাগোয়া রাফায়েল চিত্রশালার চারটি ঘরের দেওয়ালে রয়েছে বিখ্যাত চিত্রশিল্পী রাফায়েল ও তাঁর সহশিল্পীদের আঁকা অনবদ্য ফ্রেস্কো। মিউজিয়ামের ইজিপশিয়ান গ্যালারি, ট্যাপেস্ট্রি গ্যালারি, গ্যালারি অফ ম্যাপস, ক্যারেজ প্যাভিলিয়ন সহ অন্যান্য দ্রষ্টব্য দেখে প্রবেশ করুন সিস্টিন চ্যাপেল-এ। আবছা আলোয় মোড়া এই প্রার্থনা কক্ষে পোপের অভিষেক হয়। ১৪৮৩ সালে তৈরি এই স্থাপত্যের সিলিং অলংকৃত করেছিলেন বিশ্ববরেণ্য চিত্রকর মাইকেল অ্যাঞ্জেলো। ১৫০৮ থেকে ১৫১২ সাল ধরে এর সিলিংয়ে তিনি এঁকেছিলেন ৯টি প্যানেল পেইন্টিং সেগুলি আজও অমর হয়ে রয়েছে। এই চিত্রমালার মধ্যে জেনেসিস, আদম-ইভ, ওল্ড আর নিউ টেস্টামেন্ট, দ্য লাস্ট জাজমেন্ট প্রভৃতি মন্ত্রমুগ্ধ করে দেবে। দেওয়ালেও রয়েছে চিত্রমালা। সিস্টিন চ্যাপেলের মধ্যে কথা বলা ও ছবি তোলা নিষেধ। এখান থেকে বেরিয়ে ঘোরানো সিঁড়ি বেয়ে ওপরে উঠে দেখে নিন মিউজিয়ামের বাকী অংশ। কাছেই মহামান্য পোপের বাড়ি অ্যাপোসটলিক প্রাসাদ।
এরপর প্রবেশ করুন পিনাকোটেকা মিউজিয়ামে। মহাকাব্যিক গল্পগাথার শতাধিক মহাচিত্রে সাজানো বিস্ময়কর এই পেইন্টিং গ্যালারি। এখানে দেখবেন লিওনার্দো দা ভিঞ্চি, রাফায়েল, পেরুজিনো, ক্যারাভাগ্গি-ও, জিয়োত্তো প্রভৃতি বিখ্যাত চিত্র শিল্পীদের আঁকা অসাধারণ সব ছবি। সবশেষে দ্রষ্টব্য বিশ্বের বৃহত্তম চার্চ ১৬২৬ সালে তৈরি সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকা। আকাশছোঁয়া এই বিশাল স্থাপত্য মাইকেল অ্যাঞ্জেলো, বার্নিনি, ব্রামান্তে, ম্যাডারনো এই সমস্ত দিকপাল শিল্পীদের পরিকল্পনায় গড়ে উঠেছে। ভেতরের মহলে পা দিলে চমকে যাবেন এর ভাস্কর্য, চিত্রকলা, পোপেদের শিল্পমণ্ডিত মূর্তি, রঙিন পাথরের নিখুঁত কারুকার্য, মোজাইক আর রঙিন কাঁচের রংবাহারি শিল্পকর্ম, পাথরের অজস্র ভাস্কর্য দেখে। এটি ক্যাথলিকদের প্রধান চার্চ। এই চার্চের জায়গায় অতীতে সম্রাট নিরোর সার্কাস ভূমি ছিল। এখানে সমাহিত রয়েছেন ধর্মযাজক সেন্ট পিটার। এখানের ব্রোঞ্জের ‘হোলি ডোর’ খোলা হয় ২৫ বছর অন্তর। এখানে রয়েছে পোপদের সমাধিভূমি ভ্যাটিকান গ্রোটে। রয়েছে ট্রেজারি অফ সেন্ট পিটার্স মিউজিয়াম। ব্যাসিলিকার মাঝখানে বার্নিনিকৃত ব্রোঞ্জের স্তম্ভে ঘেরা পোপের সিংহাসন। মাথায় বিরাট নকশা করা চাঁদোয়া। পোপ এখানে বসে প্রার্থনায় অংশ নেন। এর গা দিয়ে সিঁড়ি নেমেছে মাটির নীচে। সেখানে আছে প্রাচীন চার্চের ধ্বংসাবশেষ ও সমাধিস্থল। ব্যাসিলিকার প্রধান গম্বুজটির নকশা করেছিলেন মাইকেল অ্যাঞ্জেলো। ৫৫১টি সিঁড়ি বেয়ে সেখানে ওঠা যায়। কষ্ট কমাতে অর্ধেক সিঁড়ি পথ এড়িয়ে লিফটেও ওঠা যায় খানিকটা। ওপর থেকে ভ্যাটিকান সিটি আর রোম শহরের দৃশ্য দু’চোখ ভরে দেখুন। সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকার মধ্যে দেখবেন মাইকেল অ্যাঞ্জেলোর বিখ্যাত ভাস্কর্য ‘পিয়েতা’। মাতা মেরির কোলে শুয়ে রয়েছে ক্রুশবিদ্ধ যিশু। ব্যাসিলিকা থেকে বেরোলেই সামনে অশ্বক্ষুরাকৃতির পাথর বাঁধানো প্রশান্ত চত্বর। এটাই সেন্ট পিটার্স স্কোয়্যার। দু’পাশে অর্ধবৃত্তাকারে রয়েছে ২৮৪টি স্তম্ভ যার মাথায় দাঁড়িয়ে আছে ১৪০ জন ধর্মযাজকের মূর্তি। চত্বরের মাঝে রয়েছে দুটি ফোয়ারা আর মিশর থেকে আনা সুউচ্চ ওবেলিক্স পাথর খণ্ড। এই চত্বরটিকে বার্নিনি শিল্পমণ্ডিত করে তুলেছিলেন। এই চত্বরে প্রতি বুধবার সকালে ও বিশেষ ধর্মীয় অনুষ্ঠানের দিনে পোপ দর্শনার্থীদের সামনে এসে উপস্থিত হন ও প্রার্থনা করেন।
ছবি: সুবীর কাঞ্জিলাল
07th  July, 2019
পঞ্চকেদার

গাড়োয়াল হিমালয়ের অন্তর্গত সর্বপরিচিত ট্রেকরুট হল পঞ্চকেদার। কেদারনাথ, মদ্‌ম঩হেশ্বর, তুঙ্গনাথ, রুদ্রনাথ ও কল্পেশ্বর হল এর অন্তর্ভুক্ত। স্বর্গারোহণের পথে মহিষরূপী শিব ভীম দ্বারা আবিষ্ট হয়ে খণ্ডিতভাবে ছড়িয়ে পড়েছিল এই সকল স্থানে। এদেরকে কেন্দ্র করেই এই তীর্থস্থানগুলি গড়ে উঠেছে বলে মানুষের বিশ্বাস। বিশদ

07th  July, 2019
কালকা স্টেশনে ছোট রেলের মিউজিয়াম  

পাহাড়ি পথে শুয়োঁপোকার মতো চলা ছোট রেলের অতীত দেখতে পাবেন কালকা স্টেশনে। দেশ বিদেশের পর্যটকরা ছোট রেলে চড়ে পৌঁছে যান সিমলা। সাহেবদের তৈরি শতাব্দী প্রাচীন এই রেলকে এবার ফ্ল্যাশব্যাকে দেখে নেওয়ার সু্যোগ পাবেন সবাই। 
বিশদ

16th  June, 2019
ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ারস  

ফুলের উপত্যকা ‘ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ারস।’ উত্তরাখণ্ডের এই বর্ণময় উপত্যকায় রঙের রামধনু খেলে বর্ষার আগে। বিশ্ব ঐতিহ্যের তকমাপ্রাপ্ত এই ফুলের উপত্যকায় প্রায় তিনশো প্রজাতির ফুল মেলে ধরে তাদের সৌন্দর্যকে।  
বিশদ

16th  June, 2019
গঙ্গায় হাউস বোট 

নামে হাউস বোট হলেও হাউস নেই। তাতে কী? এই বোটে চেপে ঘোরা তো যাবে গঙ্গার বুকে। সম্প্রতি কেরলের হাউস বোটের মতো গঙ্গায় ভাসল ‘গঙ্গাশ্রী ’ ও ‘জলশ্রী ’ নামে দুটি হাউস বোট।  
বিশদ

16th  June, 2019
এবার দার্জিলিংয়ের চিড়িয়াখানায় টাকিন 

ভুটানের জাতীয় পশু টাকিন। পাহাড়ি ছাগল ও অ্যান্টিলোপের মাঝামাঝি গোত্রের এক প্রাণী টাকিন। প্রাণীটি সংকটাপন্ন তালিকাভুক্ত।  
বিশদ

16th  June, 2019
অন্ধ্রপ্রদেশ বেড়াতে গেলে 

বিজয়ওয়াড়া শহর ছাড়িয়ে এসেছি প্রায় আধঘণ্টা আগে, এবার গাড়ি হাইওয়ে ছেড়ে মোড় নিয়ে ঢুকল গ্রামের মধ্যে। পূর্বঘাট পর্বতমালার পায়ের নীচে ছোট্ট গ্রাম কোণ্ডাপল্লি। কিন্তু গ্রামে ঢুকে প্রথমেই মনে হল অন্ধ্রপ্রদেশের এই স্বল্পপরিচিত গ্রামের সঙ্গে পূর্ব বর্ধমানের নতুনগ্রামের কী আশ্চর্য মিল!  
বিশদ

16th  June, 2019
গাঁয়ের নাম পাবুং

অজন্তা সিনহা: ঘুম ভাঙে ‘ওম মণিপদ্মে হুম’ সুরে। আহা, কি শান্তি! এমন সকাল রোজ রোজ কেন হয় না? যাঁরা শুনেছেন, তাঁরা জানেন, এই সুরের এক অতুলনীয় ও অপ্রতিরোধ্য শক্তি রয়েছে, যা খুব সহজেই মনকে অপার শান্তির দেশে নিয়ে যায়—উত্তরবঙ্গের চারকোলের অন্তর্গত পাবুং গ্রামে (নামভেদে পাবং)।  
বিশদ

16th  June, 2019
 যা যা ব র চাঙপাদের ঘর গেরস্থালি

 উৎপল দাস: জুন, জুলাই, আগস্ট আর সেপ্টেম্বর— এই চার মাস হল লাদাখ ভ্রমণের শ্রেষ্ঠ সময়। আর এই ভ্রমণসূচির মধ্যে যদি থাকে সোমোরিরি লেক আর তার সংলগ্ন কোরজোক গ্রাম তাহলে সেখানে আরও একটা দিন বাড়তি থাকুন। দেখে আসুন যাযাবর চাঙপাদের ঘর গেরস্থালি।
বিশদ

02nd  June, 2019
ভাটোয়ারি পাওয়ালি কাঁটা ত্রিযুগীনারায়ণ

 রতনলাল বিশ্বাস: অতীতে উত্তরাখণ্ডের চারধাম অর্থাৎ যমুনোত্রী, গঙ্গোত্রী, কেদারনাথ ও বদ্রীনাথ যাত্রা একসঙ্গে সম্পন্ন করার জন্য একটা পায়ে চলা পথ ছিল। বহু ধর্মপ্রাণ মানুষেরা এই পথেই চারধাম যাত্রা করতেন। বর্তমানে হিমালয়ের অন্তঃপুরে অনেক স্থানেই গাড়িপথ পৌঁছে গিয়েছে। এই চারধাম যাত্রায় এখন সামান্যই হাঁটতে হয়।
বিশদ

02nd  June, 2019
উদ্ধার ৪০ মমি

 মিশর ভ্রমণের আকর্ষণ পর্যটকদের কাছে ইতিহাসের সন্ধানে। প্রাচীন এক সভ্যতার কাছে পৌঁছে মুগ্ধ হয়ে যাওয়া। এবার পর্যটকদের কাছে আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে মিশর ভ্রমণ। সম্প্রতি মিশরের মিনইয়ার সমাধি ক্ষেত্র থেকে আবিষ্কার হয়েছে ৪০টি মমি।
বিশদ

02nd  June, 2019
আন্দামান, লাক্ষাদ্বীপে সি প্লেন

 এক দ্বীপ থেকে আর এক দ্বীপে যেতে জাহাজই ভরসা।এবার সে পথে যুক্ত হতে চলেছে সি প্লেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের আইল্যান্ড ডেভেলপমেন্ট এজেন্সির বৈঠকে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপের স্বরাজ দ্বীপ, শহীদ দ্বীপ, হাটবে ও লং আ ইল্যান্ডকে সি প্লেনের পরিষেবার জন্য নির্বাচন করা হয়।
বিশদ

02nd  June, 2019
জোড়াসাঁকো ঠাকুর বাড়ির আলোকধ্বনি

 রবীন্দ্রনাথ ও ঠাকুর বাড়ি। বাংলা শুধু নয়, সমগ্র দেশে স্বাধীনতা আন্দোলনে রবীন্দ্রনাথ ও তাদের বাড়ির ভূমিকা অনস্বীকার্য। সেই ইতিহাসকে দেশের তরুণ প্রজন্মকে তথা দেশ বিদেশের পর্যটকদের সামনে তুলে ধরতে জোড়াসাঁকোয় শুরু হয়েছে আলোকধ্বনি প্রদর্শনী।
বিশদ

19th  May, 2019
দার্জিলিংয়ের টয় ট্রেনে ভিস্তাডোম কামরা

 পর্যটকদের কাছে টয় ট্রেনের আকর্ষণ দুর্নিবার। কু ঝিক ঝিক করে পাহাড়ের আঁকা বাঁকা পথ ধরে হুইসল তুলে ছুটে যায় খেলনা রেল। রেলপথের দু’পাশে সরে সরে যায় সবুজের রহস্য ঘেরা জঙ্গল, রংবাহারি ফুলের বাড়ি, বারান্দা। লাল টুকটুকে পাহাড়ি শিশুর মুখ। 
বিশদ

19th  May, 2019
গরমের ছুটিতে ঠিকানা হোক মধ্যপ্রদেশের কাশ্মীর

ভোট মিটলেই গরমের ছুটি। কাশ্মীর যাওয়া এখন প্রায় অসম্ভব। তাহলে কোথায় যাওয়া যেতে পারে। মধ্যপ্রদেশের কাশ্মীর গেলে কেমন হয়? ভাবছেন তো মধ্যপ্রদেশের কাশ্মীর? সেটা আবার কোথায়? তাহলে বলেই ফেলি।
বিশদ

19th  May, 2019
একনজরে
 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...

 অভিজিৎ চৌধুরী  মালদহ, বিএনএ: গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে লাগাতার নানান অশান্তি এবং অভিযোগের প্রেক্ষিতে এবার উপাচার্যকে ডেকে পাঠালেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী। আগামী ১৪ই জুলাই কলকাতায় উপাচার্যকে বৈঠকে থাকার জন্য বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: পাত্রের বাড়ির দাবিমতো বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনতে না পারায় বিয়ের সাড়ে ৪ মাসের মধ্যে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠল তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। পুলিস জানিয়েছে, মৃতার নাম আতিফা খাতুন (১৬)। ...

 করাচি, ১০ জুলাই (পিটিআই): অর্থ নিয়ে বচসার জেরে পাকিস্তানে খুন হলেন একজন টিভি সঞ্চালক। মঙ্গলবার রাতে খায়াবন-ই-বুখারি এলাকায় বোল নিউজ চ্যানেলের টিভি সঞ্চালক মুরিদ আব্বাস ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

আবেগের বশে কোনও কাজ না করাই ভালো। দাম্পত্য জীবনে বনিবনার অভাবে সংসারে অশান্তি বাড়বে। কর্মে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস
১৮২৩ সালের এই দিনে ভারতের তৈরি প্রথম জাহাজ ডায়না কলকাতা বন্দর থেকে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে।
১৮৮৯ সালের এই দিনে অবিভক্ত ভারতের কলকাতায় প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হয়।
১৯২১: মঙ্গোলিয়ায় গণপ্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করল লাল ফৌজ
১৯৩০ সালের এই দিনে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ডন ব্রাডম্যান এক দিনে ৩০৯ রান করার রেকর্ড করেন, পরে টেস্ট ম্যাচে তা ৩৩৪ রানের সর্বোচ্চ রেকর্ড হয়েছিল।
১৯৫৬: সাহিত্যিক অমিতাভ ঘোষের জন্ম
১৯৬২: প্রথম ট্রান্সআতলান্তিক স্যাটেলাইট টেলিভিশনের সম্প্রচার শুরু হল
১৯৬৭: সাহিত্যিক ঝুম্পা লাহিড়ির জন্ম
১৯৭২: বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম খেলা ববি ফিশার ও বরিস স্পাসকির মধ্যে শুরু হল
১৯৭৯: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম মহাকাশ স্টেশন স্কাইল্যাব পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করে। সেটিকে ভারত মহাসাগরে ফেলে ধ্বংস করা হয়।
২০০৬: মুম্বইয়ে ধারাবাহিক বিস্ফোরণে ২০৯জনের মৃত্যু
২০১২: আবিষ্কার হল প্লুটোর পঞ্চম উপগ্রহ এস/২০১২ পি ১





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৭.৮৩ টাকা ৬৯.৫২ টাকা
পাউন্ড ৮৩.৯৪ টাকা ৮৭.০৭ টাকা
ইউরো ৭৫.৪৬ টাকা ৭৮.৩৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৪,৭৬৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩২,৯৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৩,৪৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,০৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,১৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৬ আষা‌ঢ় ১৪২৬, ১১ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, দশমী ৫০/০ রাত্রি ১/৩। স্বাতী ২৭/১১ দিবা ৩/৫৫। সূ উ ৫/২/৪৯, অ ৬/২১/১, অমৃতযোগ দিবা ৩/৪১ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৭/৪ গতে ৯/১২ মধ্যে পুনঃ ১২/৩ গতে ২/১২ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৩/১ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ১১/৪২ গতে ১/২ মধ্যে।
২৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১১ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, নবমী ০/১৫/১৭ প্রাতঃ ৫/৮/৪৭ পরে দশমী ৫৬/১২/২১ রাত্রি ৩/৩১/৪০। স্বাতীনক্ষত্র ৩৫/৩৮/১৯ রাত্রি ৭/১৮/৪, সূ উ ৫/২/৪৪, অ ৬/২৩/১০, অমৃতযোগ দিবা ৩/৪২ গতে ৬/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪ গতে ৯/১৩ মধ্যে ও ১২/৪ গতে ২/১২ মধ্যে ও ৩/৩৭ গতে ৫/৩ মধ্যে, বারবেলা ৪/৪৩/৬ গতে ৬/২৩/১০ মধ্যে, কালবেলা ৩/৩/৩ গতে ৪/৪৩/৬ মধ্যে, কালরাত্রি ১১/৪২/৫৭ গতে ১/২/৫৪ মধ্যে।
৭ জেল্কদ
এই মুহূর্তে
 বিশ্বকাপ: অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে ইংল্যান্ড

09:49:59 PM

 বিশ্বকাপ: ইংল্যান্ড ২১০/২ (৩০ ওভার)

09:41:16 PM

 বিশ্বকাপ: ইংল্যান্ড ১৪৭/২ (২০ ওভার)

08:55:51 PM

বিশ্বকাপ: ইংল্যান্ড ৫০/০ (১০ ওভার)

08:00:01 PM

 মুচিপাড়া ডাকাতি: একজন কনস্টেবল পলাতক

06:46:00 PM

 বিশ্বকাপ: ইংল্যান্ডকে ২২৪ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া

06:44:41 PM