Bartaman Patrika
ভ্রমণ
 

শহরের মধ্যে দেশ ভ্যাটিকান

ভ্যাটিকান সিটি। ইতালিয়ানরা বলেন সিটা ডেল ভ্যাটিকানো। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম এই দেশ খ্রিষ্ট ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বিশেষ করে রোমান ক্যাথলিকদের কাছে পবিত্র তীর্থভূমি। ইতালির রোম শহরের মধ্যে টিবের নদীর পশ্চিমপাড়ে অবস্থিত অতিক্ষুদ্র এই দেশটার আয়তন মাত্র ১১০ একর। আর জনসংখ্যার পরিমাণ শুনলে অবাক হবেন মাত্র ১০০০ জন। এই ভ্যাটিকান সিটিকে দেশ না বলে দেশ শহর বললে বোধহয় বোঝার কিছুটা সুবিধে হয়। রোমে টিবের নদীর ওপর পাথর কুঁদে অলংকৃত সেতু পেরিয়ে প্রবেশ করতে হবে দুর্গপ্রাচিরে ঘেরা ছোট্ট এই সার্বভৌম দেশের চৌহদ্দিতে। খ্রিষ্টান ধর্মগুরু পোপের শাসনাধীন এই দেশের দ্রষ্টব্যগুলি খুঁটিয়ে দেখতে পুরো দিন লেগে যাবে। ভাবলে বিস্ময় লাগে একটা শহরের মধ্যে কীভাবে একটা দেশ গড়ে উঠতে পারে। ভ্যাটিকান সিটির ক্ষেত্রে এমনটাই ঘটেছে। এই দেশে প্রবেশের তিনটি প্রবেশদ্বার— ব্রোঞ্জ ডোর, আর্চ অফ দি বেলস ডোর, সেন্ট অ্যানে গেট। ১৫০৬ সাল থেকে এই দেশকে পাহারা দিচ্ছে সুইসরক্ষী। বর্তমানে যার সংখ্যা মাত্র ১১৫ জন। প্রাচীন রেনেসাঁ যুগের ঐতিহ্যবাহী লাল-নীল-হলুদ ডোরাকাটা জোব্বা আকৃতির পোশাক পরা এই সৈন্যরা পোপের নিজস্ব সেনাবাহিনী।
অতীতে ইতালি সহ ইউরোপের অনেকাংশ ছিল খ্রিষ্টান ধর্মযাজক পোপের শাসনাধীন। ১৮ শতকে ইতালিতে পোপের আধিপত্য শেষ হলে ১৯২৯ সালে ইতালির রাজার পক্ষে প্রধানমন্ত্রী মুসোলিনি ও ভ্যাটিকান সিটির পোপের মধ্যে চুক্তির মাধ্যমে স্বাধীন এক সার্বভৌম রাষ্ট্রের মর্যাদা লাভ করে ভ্যাটিক্যান সিটি। এখানে ছড়িয়ে আছে একাধিক বারোক ও রেনেসাঁ শৈলীর কালজয়ী সব স্থাপত্য। চারপাশে চোখে পড়বে অপরূপ সব ভাস্কর্য। দেশের প্রায় অর্ধেক অংশ জুড়ে রয়েছে সবুজে মোড়া ভ্যাটিকান গার্ডেন। যার মধ্যে রয়েছে ছোট টিলা ভ্যাটিকান হিল। দৃষ্টিনন্দন এই বাগানটির আয়তন ৫৭ একর। এই দেশ শহরের মধ্যে পাথর বাঁধানো পথে হেঁটে হেঁটেই সব ঘুরে দেখতে হবে।
ভ্যাটিকান ভ্রমণ শুরু করুন চোখ ধাঁধানো শিল্পকলার নিদর্শন ভ্যাটিকান মিউজিয়াম থেকে। যেমন এর গঠনশৈলী, তেমন এর দেওয়াল, স্তম্ভ, সিলিং জুড়ে রয়েছে নিখুঁত শিল্পকর্ম। ১৬ শতকে পোপ দ্বিতীয় জুলিয়াস এটি নির্মাণ করেন। ভেতরে নানা মহলে থরে থরে সাজানো আছে চিত্রকলা, ভাস্কর্য, পোপেদের ব্যক্তিগত দুর্মুল্য সামগ্রী। মিউজিয়ামের লাগোয়া রাফায়েল চিত্রশালার চারটি ঘরের দেওয়ালে রয়েছে বিখ্যাত চিত্রশিল্পী রাফায়েল ও তাঁর সহশিল্পীদের আঁকা অনবদ্য ফ্রেস্কো। মিউজিয়ামের ইজিপশিয়ান গ্যালারি, ট্যাপেস্ট্রি গ্যালারি, গ্যালারি অফ ম্যাপস, ক্যারেজ প্যাভিলিয়ন সহ অন্যান্য দ্রষ্টব্য দেখে প্রবেশ করুন সিস্টিন চ্যাপেল-এ। আবছা আলোয় মোড়া এই প্রার্থনা কক্ষে পোপের অভিষেক হয়। ১৪৮৩ সালে তৈরি এই স্থাপত্যের সিলিং অলংকৃত করেছিলেন বিশ্ববরেণ্য চিত্রকর মাইকেল অ্যাঞ্জেলো। ১৫০৮ থেকে ১৫১২ সাল ধরে এর সিলিংয়ে তিনি এঁকেছিলেন ৯টি প্যানেল পেইন্টিং সেগুলি আজও অমর হয়ে রয়েছে। এই চিত্রমালার মধ্যে জেনেসিস, আদম-ইভ, ওল্ড আর নিউ টেস্টামেন্ট, দ্য লাস্ট জাজমেন্ট প্রভৃতি মন্ত্রমুগ্ধ করে দেবে। দেওয়ালেও রয়েছে চিত্রমালা। সিস্টিন চ্যাপেলের মধ্যে কথা বলা ও ছবি তোলা নিষেধ। এখান থেকে বেরিয়ে ঘোরানো সিঁড়ি বেয়ে ওপরে উঠে দেখে নিন মিউজিয়ামের বাকী অংশ। কাছেই মহামান্য পোপের বাড়ি অ্যাপোসটলিক প্রাসাদ।
এরপর প্রবেশ করুন পিনাকোটেকা মিউজিয়ামে। মহাকাব্যিক গল্পগাথার শতাধিক মহাচিত্রে সাজানো বিস্ময়কর এই পেইন্টিং গ্যালারি। এখানে দেখবেন লিওনার্দো দা ভিঞ্চি, রাফায়েল, পেরুজিনো, ক্যারাভাগ্গি-ও, জিয়োত্তো প্রভৃতি বিখ্যাত চিত্র শিল্পীদের আঁকা অসাধারণ সব ছবি। সবশেষে দ্রষ্টব্য বিশ্বের বৃহত্তম চার্চ ১৬২৬ সালে তৈরি সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকা। আকাশছোঁয়া এই বিশাল স্থাপত্য মাইকেল অ্যাঞ্জেলো, বার্নিনি, ব্রামান্তে, ম্যাডারনো এই সমস্ত দিকপাল শিল্পীদের পরিকল্পনায় গড়ে উঠেছে। ভেতরের মহলে পা দিলে চমকে যাবেন এর ভাস্কর্য, চিত্রকলা, পোপেদের শিল্পমণ্ডিত মূর্তি, রঙিন পাথরের নিখুঁত কারুকার্য, মোজাইক আর রঙিন কাঁচের রংবাহারি শিল্পকর্ম, পাথরের অজস্র ভাস্কর্য দেখে। এটি ক্যাথলিকদের প্রধান চার্চ। এই চার্চের জায়গায় অতীতে সম্রাট নিরোর সার্কাস ভূমি ছিল। এখানে সমাহিত রয়েছেন ধর্মযাজক সেন্ট পিটার। এখানের ব্রোঞ্জের ‘হোলি ডোর’ খোলা হয় ২৫ বছর অন্তর। এখানে রয়েছে পোপদের সমাধিভূমি ভ্যাটিকান গ্রোটে। রয়েছে ট্রেজারি অফ সেন্ট পিটার্স মিউজিয়াম। ব্যাসিলিকার মাঝখানে বার্নিনিকৃত ব্রোঞ্জের স্তম্ভে ঘেরা পোপের সিংহাসন। মাথায় বিরাট নকশা করা চাঁদোয়া। পোপ এখানে বসে প্রার্থনায় অংশ নেন। এর গা দিয়ে সিঁড়ি নেমেছে মাটির নীচে। সেখানে আছে প্রাচীন চার্চের ধ্বংসাবশেষ ও সমাধিস্থল। ব্যাসিলিকার প্রধান গম্বুজটির নকশা করেছিলেন মাইকেল অ্যাঞ্জেলো। ৫৫১টি সিঁড়ি বেয়ে সেখানে ওঠা যায়। কষ্ট কমাতে অর্ধেক সিঁড়ি পথ এড়িয়ে লিফটেও ওঠা যায় খানিকটা। ওপর থেকে ভ্যাটিকান সিটি আর রোম শহরের দৃশ্য দু’চোখ ভরে দেখুন। সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকার মধ্যে দেখবেন মাইকেল অ্যাঞ্জেলোর বিখ্যাত ভাস্কর্য ‘পিয়েতা’। মাতা মেরির কোলে শুয়ে রয়েছে ক্রুশবিদ্ধ যিশু। ব্যাসিলিকা থেকে বেরোলেই সামনে অশ্বক্ষুরাকৃতির পাথর বাঁধানো প্রশান্ত চত্বর। এটাই সেন্ট পিটার্স স্কোয়্যার। দু’পাশে অর্ধবৃত্তাকারে রয়েছে ২৮৪টি স্তম্ভ যার মাথায় দাঁড়িয়ে আছে ১৪০ জন ধর্মযাজকের মূর্তি। চত্বরের মাঝে রয়েছে দুটি ফোয়ারা আর মিশর থেকে আনা সুউচ্চ ওবেলিক্স পাথর খণ্ড। এই চত্বরটিকে বার্নিনি শিল্পমণ্ডিত করে তুলেছিলেন। এই চত্বরে প্রতি বুধবার সকালে ও বিশেষ ধর্মীয় অনুষ্ঠানের দিনে পোপ দর্শনার্থীদের সামনে এসে উপস্থিত হন ও প্রার্থনা করেন।
ছবি: সুবীর কাঞ্জিলাল
07th  July, 2019
মোহিনী হিমালয় 

সাতের দশকের শেষের দিকের কথা। সবে মাত্র যৌবনে পা রাখা কিশোরের যেমন সব বাধা অতিক্রম করার স্বপ্ন দু’চোখে থাকে, ঠিক তেমনই কোনও দুঃসাহসের ওপর ভর করে বয়সে কিছুটা বড় বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ি থেকে এক জামাকাপড়ে পালিয়েছিলাম সান্দাকফু থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখার লোভ নিয়ে। 
বিশদ

05th  January, 2020
টিকটক 

দীর্ঘতম পাহাড়ি সুরঙ্গ অটল টানেল
প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর ৯৫ তম জন্মদিনে ঘোষণা করা হয় রোটাং টানেলের নাম হবে অটল টানেল। ৩ হাজার মিটার উচ্চতায় মানালি থেকে লে পর্যন্ত ‘অল ওয়েদার রুট’ খুলে যাবে এবছর। ৮.৮ কিমি দীর্ঘ এই সুরঙ্গ পথ বিশ্বের দীর্ঘতম পাহাড়ি সুরঙ্গের তকমাও পেতে চলেছে। সুরঙ্গের মাধ্যমে মোট পথের দৈর্ঘ্য কমছে ৪৬ কিমি।
বিশদ

05th  January, 2020
অন্য গোয়া

উৎপল দাস: গোয়া বললেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে কিছু অসাধারণ সমুদ্রসৈকত, ধ্যানগম্ভীর পর্তুগিজ স্থাপত্য, মিশনারি চার্চ। বড়জোর অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় পর্যটকের জন্য বন্যপ্রাণী অধ্যুষিত অভয়ারণ্য।  
বিশদ

05th  January, 2020
এ রাজ্যের প্রথম ইয়ুথ হস্টেলের মহিলা শাখা কাদম্বিনী 

১৯০৯ সালে জার্মানিতে প্রথম হস্টেলিং বিষয়টি নিয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু হয়। জার্মান শিক্ষক রিচার্ড স্কিরম্যান স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের গ্রামের দিকে বেড়াতে গিয়ে থাকা খাওয়ার প্রয়োজনের কথা নিয়ে ভাবেন। এই ভাবনা থেকেই আটলান্টাতে নিজের স্কুলে প্রথম তৈরি করেন ছাত্রছাত্রীদের জন্য হস্টেল। 
বিশদ

05th  January, 2020
টিকটক 

চলবে টাকা 
ভারতীয়দের জন্য সুখবর। দুবাই বিমানবন্দরে ডিউটি ফ্রি শপে কেনাকাটার জন্য ইউরো, ডলারের প্রয়োজন হবে না। টাকাতেই করা যাবে পছন্দের কেনাকাটা। সম্প্রতি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।  
বিশদ

15th  December, 2019
ভয়ঙ্কর সুন্দর সুন্দরবন 

বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী: জলে কুমির, ডাঙায় বাঘ আর গাছে সাপ— এমনই যদি হয় পরিবেশ, তাহলে আর দাঁড়ানোর জায়গাটা রইল কোথায়? কিন্তু তা সত্ত্বেও এ হল পর্যটকের এক অত্যন্ত প্রিয় গন্তব্য। হোক না শত বিপদ সঙ্কুল, তবুও সে সুন্দরী। ওই যে কথায় বলে না, ভয়ঙ্কর, সুন্দর...!  
বিশদ

15th  December, 2019
মন্দিরনগরী সিয়েমরিপ 

অয়ন গঙ্গোপাধ্যায়: কম্বোডিয়ার ঐতিহাসিক শহর সিয়েমরিপ। ভুবন বিখ্যাত আঙ্কোরভাট মন্দিরের জন্য এই শহর বিখ্যাত। আঙ্কোরভাট, আঙ্কোর থম মন্দির ছাড়াও সিয়েমরিপের পথে-প্রান্তরে শিল্পময় প্রাচীন মন্দিরের ছড়াছড়ি। ভালোভাবে ঘুরতে এখানে দিনচারেক থাকুন। সিয়েমরিপ বিমানবন্দরে পৌঁছে ডলার ভাঙিয়ে কিনে নিন স্থানীয় মুদ্রা রিয়েল। 
বিশদ

15th  December, 2019
জয়সলমিরের মরু উৎসব 

বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী: রঙের রাজ্য রাজস্থান, উৎসবের রাজ্য রাজস্থান, সারা বছর ধরেই এই রাজ্যের এক এক শহরে পালিত হয় নানা ধরনের অনুষ্ঠান। তারই এক অঙ্গ হিসেবে দীর্ঘকাল ধরে মরু রাজ্যের জয়সলমির শহরে পালিত হয় এক অসাধারণ সুন্দর, উপভোগ্য আর বর্ণাঢ্য উৎসব ‘মরু উৎসব’ বা ‘ডেজার্ট ফেস্টিভ্যাল’।   বিশদ

01st  December, 2019
বন্য সুন্দর মাধব ন্যাশনাল পার্ক শিবপুরী

সুভাষ বন্দ্যোপাধ্যায়: চারদিকে মধ্যপ্রদেশের ঘেরাটোপের মধ্যে রয়েছে উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসি। ওখান থেকে সকালবেলা একটা গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পড়ুন ঐতিহাসিক শহর শিবপুরীর উদ্দেশে। ২৫ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে গাড়ি ছুটবে বেশ জোরে।  বিশদ

01st  December, 2019
প্যাংগং লেক 

নবগঠিত কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল লাদাখের অন্যতম নিদর্শন নীল জলের প্যাংগং লেক। এটি এশিয়ার বৃহত্তম ইষৎ লোনা হ্রদ। উচ্চতা প্রায় ১৪ হাজার ফুট। দৈর্ঘ্য প্রায় ১৩৪ কিমি এবং প্রায় ২-৩ কিলোমিটার চওড়া। লাদাখ ভ্রমণের অন্যান্য দ্রষ্টব্য স্থানগুলোর মধ্যে এটি খুবই জনপ্রিয় ও বিস্ময়কর।  
বিশদ

17th  November, 2019
প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে অপরূপ মালয়েশিয়া 
উত্তরা গঙ্গোপাধ্যায়

থাইল্যান্ড বা সিঙ্গাপুরের থেকে কোনও অংশে কম নয় মালয়েশিয়া। কিন্তু তবুও যেন এখনও পর্যটক মহলে তেমনভাবে জায়গা করে নিতে পারেনি। তাই সিঙ্গাপুর বা থাইল্যান্ডের সঙ্গে জুড়ে নিতে পারেন এ দেশের রাজধানী শহর কুয়ালালামপুর। বছরের যে কোনও সময় যাওয়া যায়। 
বিশদ

17th  November, 2019
অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপে ভারতীয় পর্যটকদের বিশেষ প্যাকেজ

ভারতীয় পর্যটকদের কাছে গত কয়েক বছর ধরেই বিদেশ সফরের গন্তব্য তালিকায় অস্ট্রেলিয়া উপরের দিকে এসেছে। আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় টি টোয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপ। তাই ভারতীয় পর্যটকদের জন্য অস্ট্রেলিয়া সরকার বিশেষ সুযোগ সুবিধা নিয়ে এসেছে। ট্যুরিজম অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে নিশান্ত কাশিকরের সঙ্গে কথা বললেন শুভজিৎ ঘোষ।
বিশদ

03rd  November, 2019
পশ্চিমবঙ্গের নতুন পর্যটন কেন্দ্র আসাননগরের লালন মেলা 

বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী: পশ্চিমবঙ্গের সাম্প্রতিকতম পর্যটনকেন্দ্র নদীয়া জেলার আসাননগরে সাড়ম্বরে পালিত হতে চলেছে লালন মেলা। এই মেলা এই বছর ৩০ বছরে পদার্পণ করল। বাউলশ্রেষ্ঠ লালন শা ফকিরের ১২৯তম তিরোধান দিবস (মৃত্যু ১৮৯০) উপলক্ষে অনুষ্ঠিত হতে চলা এই মেলাটি বিশ্ব শান্তি, মানব মৈত্রী ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উদ্দেশে নিবেদিত হতে চলেছে। 
বিশদ

03rd  November, 2019
বারাণসীর দেব দীপাবলি উৎসব 

অয়ন গঙ্গোপাধ্যায়: গঙ্গাতীরের বারাণসী। হাজার বছরের পুরনো এই জনপদ ভারতীয় সনাতন ঐতিহ্য আর সংস্কৃতির আধারভূমি। বারাণসীর গঙ্গাছোঁয়া শতাধিক ঘাটে, পুরনো মহল্লায়, আলোছায়া মাখা গলিপথে আজও ইতিহাসের ছোঁয়া মেলে। 
বিশদ

03rd  November, 2019
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অন্যান্য পুরসভাগুলির সঙ্গে আগামী পুরভোটে উত্তর দমদম, দক্ষিম দমদম এবং দমদম পুরসভার আসন সংরক্ষণের খসড়া তালিকা শুক্রবার প্রকাশিত হল। সেই তালিকা অনুযায়ী কোথাও চেয়ারম্যান, কোথাও চেয়ারম্যান-ইন-কাউন্সিল এবার নিজের জেতা ওয়ার্ডে ভোটে দাঁড়াতে পারছেন না। ...

 ওয়াশিংটন, ১৭ জানুয়ারি: কথায় বলে, চোরা না শোনে ধর্মের কাহিনী’। পাকিস্তানের ক্ষেত্রে এই প্রবাদ যে কতটা লাগসই, ফের তার প্রমাণ মিলল। মার্কিন পারমাণবিক অস্ত্র এবং তা বহনে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির প্রযুক্তি চোরাচালানে আরও একবার নাম জড়াল পাকিস্তানের। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এনআরসি এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে এখন সরগরম গোটা রাজ্য। ডান-বাম উভয়েই আন্দোলনে শামিল হয়েছে। আর এই আবহে কলেজে কলেজে ছাত্রভোটের সম্ভাবনা অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে গেল। আগামী চার-পাঁচ মাসের মধ্যেও এই ভোট না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। ...

বিএনএ, আরামবাগ: পথ দুর্ঘটনায় আরামবাগে মৃত দুঃস্থ যুবকের শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে আর্থিক সাহায্যের জন্য পথে নামলেন মুসলিম সম্প্রদায়ের স্থানীয় যুবকরা। বর্তমান পরিস্থিতিতে শহরে সম্প্রীতির এমন ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

উচ্চবিদ্যায় ভালো ফল হবে। কর্মপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে সুযোগ আসবে। কোনও প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সাফল্য আসবে। ব্যবসায় যুক্ত ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৪৭: সঙ্গীতশিল্পী কে এল সায়গলের মৃত্যু
১৯৭২: ক্রিকেটার বিনোদ কাম্বলির জন্ম
১৯৯৬: রাজনীতিক ও অভিনেতা এন টি রামারাওয়ের মৃত্যু
২০০৩: কবি হরিবংশ রাই বচ্চনের মৃত্যু
২০১৮ – বিশিষ্ট বাঙালি সাংবাদিক ও কার্টুনিস্ট চন্ডী লাহিড়ীর মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.১৭ টাকা ৭১.৮৭ টাকা
পাউন্ড ৯১.২২ টাকা ৯৪.৫১ টাকা
ইউরো ৭৭.৬১ টাকা ৮০.৫৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪০,৪৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৮,৩৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৮,৯৪৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬,৬০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬,৭০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩ মাঘ ১৪২৬, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, নবমী ৫৪/৫ দিবা ৪/১। স্বাতী ৪৪/৪১ রাত্রি ১২/১৬। সূ উ ৬/২৩/৪, অ ৫/১০/৩৪, অমৃতযোগ দিবা ৯/৫৮ গতে ১২/৫০ মধ্যে। রাত্রি ৭/৪৮ গতে ১০/২৭ মধ্যে পুনঃ ১২/১২ গতে ১/৫৮ মধ্যে পুনঃ ২/৫১ গতে ৪/৩৬ মধ্যে। বারবেলা ৭/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১/৭ গতে ২/২৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৪৮ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ৬/৪৯ মধ্যে পুনঃ ৪/৪৪ গতে উদয়াবধি। 
৩ মাঘ ১৪২৬, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, অষ্টমী ৬/৩২/৩৮ দিবা ৯/২/৫৩। স্বাতী ৫২/৪১/৩১ রাত্রি ৩/৩০/২৬। সূ উ ৬/২৫/৫০, অ ৫/৯/৩২, অমৃতযোগ দিবা ১০/০ গতে ১২/৫৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৫৭ গতে ১০/৩৩ মধ্যে ও ১২/১৬ গতে ২/০ মধ্যে ও ২/৫২ গতে ৪/৩৬ মধ্যে। কালবেলা ৭/৪৬/১৯ মধ্যে ও ৩/৪৯/৪ গতে ৫/৯/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৪৯/৪ মধ্যে ও ৪/৪৬/১৮ গতে ৬/২৫/৫৫ মধ্যে। 
২২ জমাদিয়ল আউয়ল 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
পর্ণশ্রীতে মাথায় আঘাত করে লুঠ ৩ লক্ষ টাকা
দক্ষিণ কলকাতার পর্ণশ্রী এলাকায় মাথায় আঘাত করে লুঠ করা হল ...বিশদ

10:11:43 AM

শহরে ট্রাফিকের হাল
আজ, শনিবার সকালে শহরের রাস্তাঘাটে যান চলাচল মোটের উপর স্বাভাবিক। ...বিশদ

10:05:09 AM

একঘণ্টা বিনি পয়সার ভোজ রসগোল্লা, ফুচকা
দমদমে শুরু হল ‘নালেঝোলে’ খাদ্যমেলা। দমদম রোডে ৪ নম্বর দাগা ...বিশদ

09:30:00 AM

রাতেই পার্ক সার্কাস ময়দানে আন্দোলনকারীদের পাশে পি চিদম্বরম
কোনওরকম রাজনৈতিক পতাকা ছাড়াই গভীর রাতে পাক সার্কাসের অবস্থান মঞ্চে ...বিশদ

09:27:00 AM

অবাক কাণ্ড বড়িশার স্কুলে
বড়িশার স্কুলে অবাক কাণ্ড। এক প্রধান শিক্ষক থাকতেই ফের সেখানে ...বিশদ

09:24:43 AM

দাবিদাওয়া নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক সংগঠনের
ইউজিসি’র নয়া বেতনক্রম ঘোষণা হলেও সেই বকেয়া নিয়ে সরকার চুপ। ...বিশদ

09:16:38 AM