Bartaman Patrika
ভ্রমণ
 

শহরের মধ্যে দেশ ভ্যাটিকান

ভ্যাটিকান সিটি। ইতালিয়ানরা বলেন সিটা ডেল ভ্যাটিকানো। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম এই দেশ খ্রিষ্ট ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বিশেষ করে রোমান ক্যাথলিকদের কাছে পবিত্র তীর্থভূমি। ইতালির রোম শহরের মধ্যে টিবের নদীর পশ্চিমপাড়ে অবস্থিত অতিক্ষুদ্র এই দেশটার আয়তন মাত্র ১১০ একর। আর জনসংখ্যার পরিমাণ শুনলে অবাক হবেন মাত্র ১০০০ জন। এই ভ্যাটিকান সিটিকে দেশ না বলে দেশ শহর বললে বোধহয় বোঝার কিছুটা সুবিধে হয়। রোমে টিবের নদীর ওপর পাথর কুঁদে অলংকৃত সেতু পেরিয়ে প্রবেশ করতে হবে দুর্গপ্রাচিরে ঘেরা ছোট্ট এই সার্বভৌম দেশের চৌহদ্দিতে। খ্রিষ্টান ধর্মগুরু পোপের শাসনাধীন এই দেশের দ্রষ্টব্যগুলি খুঁটিয়ে দেখতে পুরো দিন লেগে যাবে। ভাবলে বিস্ময় লাগে একটা শহরের মধ্যে কীভাবে একটা দেশ গড়ে উঠতে পারে। ভ্যাটিকান সিটির ক্ষেত্রে এমনটাই ঘটেছে। এই দেশে প্রবেশের তিনটি প্রবেশদ্বার— ব্রোঞ্জ ডোর, আর্চ অফ দি বেলস ডোর, সেন্ট অ্যানে গেট। ১৫০৬ সাল থেকে এই দেশকে পাহারা দিচ্ছে সুইসরক্ষী। বর্তমানে যার সংখ্যা মাত্র ১১৫ জন। প্রাচীন রেনেসাঁ যুগের ঐতিহ্যবাহী লাল-নীল-হলুদ ডোরাকাটা জোব্বা আকৃতির পোশাক পরা এই সৈন্যরা পোপের নিজস্ব সেনাবাহিনী।
অতীতে ইতালি সহ ইউরোপের অনেকাংশ ছিল খ্রিষ্টান ধর্মযাজক পোপের শাসনাধীন। ১৮ শতকে ইতালিতে পোপের আধিপত্য শেষ হলে ১৯২৯ সালে ইতালির রাজার পক্ষে প্রধানমন্ত্রী মুসোলিনি ও ভ্যাটিকান সিটির পোপের মধ্যে চুক্তির মাধ্যমে স্বাধীন এক সার্বভৌম রাষ্ট্রের মর্যাদা লাভ করে ভ্যাটিক্যান সিটি। এখানে ছড়িয়ে আছে একাধিক বারোক ও রেনেসাঁ শৈলীর কালজয়ী সব স্থাপত্য। চারপাশে চোখে পড়বে অপরূপ সব ভাস্কর্য। দেশের প্রায় অর্ধেক অংশ জুড়ে রয়েছে সবুজে মোড়া ভ্যাটিকান গার্ডেন। যার মধ্যে রয়েছে ছোট টিলা ভ্যাটিকান হিল। দৃষ্টিনন্দন এই বাগানটির আয়তন ৫৭ একর। এই দেশ শহরের মধ্যে পাথর বাঁধানো পথে হেঁটে হেঁটেই সব ঘুরে দেখতে হবে।
ভ্যাটিকান ভ্রমণ শুরু করুন চোখ ধাঁধানো শিল্পকলার নিদর্শন ভ্যাটিকান মিউজিয়াম থেকে। যেমন এর গঠনশৈলী, তেমন এর দেওয়াল, স্তম্ভ, সিলিং জুড়ে রয়েছে নিখুঁত শিল্পকর্ম। ১৬ শতকে পোপ দ্বিতীয় জুলিয়াস এটি নির্মাণ করেন। ভেতরে নানা মহলে থরে থরে সাজানো আছে চিত্রকলা, ভাস্কর্য, পোপেদের ব্যক্তিগত দুর্মুল্য সামগ্রী। মিউজিয়ামের লাগোয়া রাফায়েল চিত্রশালার চারটি ঘরের দেওয়ালে রয়েছে বিখ্যাত চিত্রশিল্পী রাফায়েল ও তাঁর সহশিল্পীদের আঁকা অনবদ্য ফ্রেস্কো। মিউজিয়ামের ইজিপশিয়ান গ্যালারি, ট্যাপেস্ট্রি গ্যালারি, গ্যালারি অফ ম্যাপস, ক্যারেজ প্যাভিলিয়ন সহ অন্যান্য দ্রষ্টব্য দেখে প্রবেশ করুন সিস্টিন চ্যাপেল-এ। আবছা আলোয় মোড়া এই প্রার্থনা কক্ষে পোপের অভিষেক হয়। ১৪৮৩ সালে তৈরি এই স্থাপত্যের সিলিং অলংকৃত করেছিলেন বিশ্ববরেণ্য চিত্রকর মাইকেল অ্যাঞ্জেলো। ১৫০৮ থেকে ১৫১২ সাল ধরে এর সিলিংয়ে তিনি এঁকেছিলেন ৯টি প্যানেল পেইন্টিং সেগুলি আজও অমর হয়ে রয়েছে। এই চিত্রমালার মধ্যে জেনেসিস, আদম-ইভ, ওল্ড আর নিউ টেস্টামেন্ট, দ্য লাস্ট জাজমেন্ট প্রভৃতি মন্ত্রমুগ্ধ করে দেবে। দেওয়ালেও রয়েছে চিত্রমালা। সিস্টিন চ্যাপেলের মধ্যে কথা বলা ও ছবি তোলা নিষেধ। এখান থেকে বেরিয়ে ঘোরানো সিঁড়ি বেয়ে ওপরে উঠে দেখে নিন মিউজিয়ামের বাকী অংশ। কাছেই মহামান্য পোপের বাড়ি অ্যাপোসটলিক প্রাসাদ।
এরপর প্রবেশ করুন পিনাকোটেকা মিউজিয়ামে। মহাকাব্যিক গল্পগাথার শতাধিক মহাচিত্রে সাজানো বিস্ময়কর এই পেইন্টিং গ্যালারি। এখানে দেখবেন লিওনার্দো দা ভিঞ্চি, রাফায়েল, পেরুজিনো, ক্যারাভাগ্গি-ও, জিয়োত্তো প্রভৃতি বিখ্যাত চিত্র শিল্পীদের আঁকা অসাধারণ সব ছবি। সবশেষে দ্রষ্টব্য বিশ্বের বৃহত্তম চার্চ ১৬২৬ সালে তৈরি সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকা। আকাশছোঁয়া এই বিশাল স্থাপত্য মাইকেল অ্যাঞ্জেলো, বার্নিনি, ব্রামান্তে, ম্যাডারনো এই সমস্ত দিকপাল শিল্পীদের পরিকল্পনায় গড়ে উঠেছে। ভেতরের মহলে পা দিলে চমকে যাবেন এর ভাস্কর্য, চিত্রকলা, পোপেদের শিল্পমণ্ডিত মূর্তি, রঙিন পাথরের নিখুঁত কারুকার্য, মোজাইক আর রঙিন কাঁচের রংবাহারি শিল্পকর্ম, পাথরের অজস্র ভাস্কর্য দেখে। এটি ক্যাথলিকদের প্রধান চার্চ। এই চার্চের জায়গায় অতীতে সম্রাট নিরোর সার্কাস ভূমি ছিল। এখানে সমাহিত রয়েছেন ধর্মযাজক সেন্ট পিটার। এখানের ব্রোঞ্জের ‘হোলি ডোর’ খোলা হয় ২৫ বছর অন্তর। এখানে রয়েছে পোপদের সমাধিভূমি ভ্যাটিকান গ্রোটে। রয়েছে ট্রেজারি অফ সেন্ট পিটার্স মিউজিয়াম। ব্যাসিলিকার মাঝখানে বার্নিনিকৃত ব্রোঞ্জের স্তম্ভে ঘেরা পোপের সিংহাসন। মাথায় বিরাট নকশা করা চাঁদোয়া। পোপ এখানে বসে প্রার্থনায় অংশ নেন। এর গা দিয়ে সিঁড়ি নেমেছে মাটির নীচে। সেখানে আছে প্রাচীন চার্চের ধ্বংসাবশেষ ও সমাধিস্থল। ব্যাসিলিকার প্রধান গম্বুজটির নকশা করেছিলেন মাইকেল অ্যাঞ্জেলো। ৫৫১টি সিঁড়ি বেয়ে সেখানে ওঠা যায়। কষ্ট কমাতে অর্ধেক সিঁড়ি পথ এড়িয়ে লিফটেও ওঠা যায় খানিকটা। ওপর থেকে ভ্যাটিকান সিটি আর রোম শহরের দৃশ্য দু’চোখ ভরে দেখুন। সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকার মধ্যে দেখবেন মাইকেল অ্যাঞ্জেলোর বিখ্যাত ভাস্কর্য ‘পিয়েতা’। মাতা মেরির কোলে শুয়ে রয়েছে ক্রুশবিদ্ধ যিশু। ব্যাসিলিকা থেকে বেরোলেই সামনে অশ্বক্ষুরাকৃতির পাথর বাঁধানো প্রশান্ত চত্বর। এটাই সেন্ট পিটার্স স্কোয়্যার। দু’পাশে অর্ধবৃত্তাকারে রয়েছে ২৮৪টি স্তম্ভ যার মাথায় দাঁড়িয়ে আছে ১৪০ জন ধর্মযাজকের মূর্তি। চত্বরের মাঝে রয়েছে দুটি ফোয়ারা আর মিশর থেকে আনা সুউচ্চ ওবেলিক্স পাথর খণ্ড। এই চত্বরটিকে বার্নিনি শিল্পমণ্ডিত করে তুলেছিলেন। এই চত্বরে প্রতি বুধবার সকালে ও বিশেষ ধর্মীয় অনুষ্ঠানের দিনে পোপ দর্শনার্থীদের সামনে এসে উপস্থিত হন ও প্রার্থনা করেন।
ছবি: সুবীর কাঞ্জিলাল
07th  July, 2019
রোপওয়েতে জুড়ছে এলিফ্যান্টা 

 দেশের দীর্ঘতম রোপওয়ে হতে চলেছে মুম্বই থেকে এলিফ্যান্টা দ্বীপের যোগাযোগ। সমুদ্রের উপর দিয়ে দীর্ঘ ৮ কিমি পথ পেরিয়ে পৌঁছনো যাবে এলিফ্যান্টা দ্বীপের গুহা মন্দিরে। বিশদ

06th  September, 2020
আবার ফুলের উপত্যকায় 

 অতিমারীর আবহেই উত্তরাখণ্ড পর্যটন দপ্তর বিশ্ব ঐতিহ্যের ফুলের উপত্যকা (ভ্যালি অব ফ্লাওয়ারস) খুলে দিয়েছে পর্যটকদের জন্য। বিশদ

06th  September, 2020
দরজা খুলছে থাইল্যান্ড 

 পর্যটনের স্বর্গরাজ্য থাইল্যান্ড। কিন্তু করোনার জেরে বন্ধ রয়েছে এদেশের ঢোকার পথ। এবার বিদেশি পর্যটকদের জন্য দরজা খুলে দিচ্ছে এই দেশও। বিশদ

06th  September, 2020
নির্জনের চুপকথা 

দিগারডি যাওয়ার পথে বাঁশিটাঁড়ে এসে গাড়ি থামিয়ে এক পশলা জিরেন নেওয়া আমাদের বরাবরের সিলেবাসে। কারণটা হল সড়কটা এখান থেকে অনেকটা গড়ানে নেমে এক ঝাঁপে ভুচুণ্ডি পাহাড়ের পেট ফুঁড়ে বেরিয়ে গিয়েছে। বিশদ

06th  September, 2020
প্রকৃতির মাঝে, পাহাড়ের কোলে 

কোভিড নাইন্টিন বিনোদনপ্রিয় বাঙালির দিনগুলোকেই আলুনি করে দিয়েছে। সিনেমা হল বন্ধ। করোনার জন্য ঘোরার প্ল্যানও বিশ বাঁও জলে। বদলে মাস্ক, স্যানিটাইজার, কন্টেইনমেন্ট জোন, হটস্পট শব্দগুলো সারাক্ষণ কান পচিয়ে দিল। লাগাতার পাঁচমাস ঘরে আর কাহাতক বসে থাকা যায়। নিয়মবিধির মধ্যে থেকে অনেকেই চাইছেন ছোট্ট ট্যুরে যদি কয়েকটা দিন প্রাণভরে শ্বাস নিয়ে আসা যায়। ভ্রমণপিপাসুদের জন্য এমনই কয়েকটি হটস্পটের সন্ধান দিচ্ছেন বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী।  
বিশদ

06th  September, 2020
লাদাখের অচেনা গ্রামে 

করোনা ভাইরাস অতিমারীর ধাক্কায় আজ বিশ্বজোড়া মানুষ গৃহবন্দি। যাঁদের পায়ের তলায় সরষে, তাঁদের কাছে এই বন্দিদশা আরও কষ্টের। দেশ-বিদেশের প্রিয় পর্যটনকেন্দ্রগুলিও গত কয়েক মাস ধরে খাঁ খাঁ করছে। সারা দুনিয়া আজ সুদিনের অপেক্ষায় বসে রয়েছে।
বিশদ

09th  August, 2020
মেজাজটাই আসল রাজা... 

করোনা আবহে এখন সকলের মনেই আতঙ্ক। মারণ ভাইরাস ঘরবন্দি করে ফেলেছে গোটা বিশ্বকে। প্রায় স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে সমস্ত শিল্প। ট্রেন বা বিমান পরিষেবা কবে আবার স্বাভাবিক হবে তার নিশ্চয়তা নেই। তবু হাত-পা গুটিয়ে ঘরে বসে থাকলে তো চলবে না। মাস্ক-স্যানিটাইজার সহযোগে এই ‘নিউ নর্মাল’ দুনিয়ায় একটু প্রকৃতির শ্বাস নেওয়ার জন্য কি কাছে-পিঠে বেরিয়ে পড়া যায় না? বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা ঐতিহ্যশালী রাজবাড়ির আতিথেয়তায় কয়েকটা দিন কাটিয়ে এলে মন্দ কী? কোথায়, কেমন সেসব রাজবাড়ির অন্দরমহল? রাজঅতিথি হতে পকেটে রেস্তই বা কতটা প্রয়োজন? করোনা পরিস্থিতিতে জায়গাগুলো কতটা নিরাপদ? সবদিক খোঁজখবর নিয়ে লিখেছেন বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী।
বিশদ

09th  August, 2020
সুন্দরী ছিবো 

বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী: দার্জিলিং থেকে মাত্র ৬ কিমি দূরে এক অসামান্য পার্বত্য সৌন্দর্যমণ্ডিত স্থান ছিবো। এখানকার পাহাড়ের গায়ে গজিয়ে ওঠা বাড়িঘর দেখলে মনে হবে কাঠের বাক্স সাজানো রয়েছে পাহাড়ের ঢালে।   বিশদ

15th  March, 2020
বারবার সা ম থা র 

নবনীতা ভট্টাচার্য: গুহার সামনে গিয়ে থমকে দাঁড়ালাম। ঢালু জমি থেকে অন্ধকারে ঢুকে গিয়েছে গুহার মুখ। মরচে ধরা শুকনো পাতায় ঢাকা শুরুর পথ। হুড়মুড়িয়ে ঢুকতে গিয়ে বকুনি খেলাম।  বিশদ

15th  March, 2020
গ্রামীণ সংস্কৃতির নিদর্শন
রাজস্থানের শিল্পগ্রাম

 অয়ন গঙ্গোপাধ্যায়: রাজস্থানের উদয়পুর শহরের একপ্রান্তে রয়েছে আরাবল্লী পর্বতের সীমারেখা। সেই পাহাড়ের পাদদেশেই ৭০ একর জায়গা জুড়ে ছড়িয়ে পশ্চিম ভারতের গ্রামীণ শিল্প-সংস্কৃতির অপূর্ব নিদর্শন সমৃদ্ধ এথনিক ভিলেজ ‘শিল্পগ্রাম’। বিশদ

01st  March, 2020
  ভ্রমণ মেলার আকর্ষণ ছিল কাশ্মীর

 সম্প্রতি ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে হয়ে গেল তিন দিনের ভ্রমণ মেলা— ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ফেয়ার সামার। দ্বিতীয় বছরের এই ভ্রমণ মেলায় প্রধান আকর্ষণ ছিল জম্মু-কাশ্মীরের স্টল। ৩৭০ ধারা বিলোপের পরে এই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটিতে পর্যটন ব্যবসা ভয়ঙ্কর ক্ষতির মুখোমুখি হয়েছে। বিশদ

01st  March, 2020
মানালিতে ইগলু  

বরফে ঢাকা মানালিতে এবার অন্যতম আকর্ষণ ইগলু হোটেল। এই শীতে যাঁরা মানালি যাবেন, তাঁরা নতুন অভিজ্ঞতার স্বাদ নিতে পারেন। নিজেদের এস্কিমো ভেবে থাকতে পারেন ইগলুতে। স্কি ড্রাইভাররা নিজেদের থাকার জন্য এই ইগলুগুলি তৈরি করেন বরফ দিয়ে। পর্যটকদের যদি ইগলুতে থাকার সুযোগ করে দেওয়া যায়, সেই ভাবনাতেই এই ইগলু হোটেলের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।  
বিশদ

16th  February, 2020
হীরক রাজার দেশে 

পুরুলিয়া জেলার রঘুনাথপুর সাব-ডিভিশনের অন্তর্গত নান্দুয়াড়া গ্রামের জয়চণ্ডী পাহাড়। আদ্রা জংশন স্টেশন থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই অপূর্ব সুন্দর পাহাড়। প্রায় ৪৫০টি সিঁড়ি কষ্ট করে বেয়ে পাহাড়ের উপর উঠতে হয়। উপরে রয়েছে জয়চণ্ডী মাতার মন্দির ও বজরঙ্গবলীজির মন্দির। 
বিশদ

16th  February, 2020
গ্যারান্টেড ডিপারচার পরিষেবা আসছে 

শুভজিৎ ঘোষ: বিগত কয়েক বছরে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক পর্যটন শিল্পে ভারত খুবই উন্নতি করেছে। আর এই উন্নত বাজারকে মাথায় রেখেই পর্যটন সংস্থা ‘এসওটিসি’ ভারতে আরও বেশি করে বিনিয়োগ করতে চাইছে। প্রসঙ্গত, এই বছর সংস্থার ৭১তম বর্ষও বটে।  
বিশদ

16th  February, 2020
একনজরে
জেনিভা: করোনার জেরে স্থগিত হল ২০২০ সালের ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ। শুক্রবার ফিফার সভাপতি গিয়ান্নি ইনফান্তিনো এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘সামগ্রিক পরিস্থিতি বিচার করে এবছরের ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছর অনুষ্ঠিত হবে ...

সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: পঞ্চায়েতের উন্নয়নমূলক কাজেরও এবার পরীক্ষা হবে ‘গবেষণাগারে’! এমনই পরিকল্পনা নিল পঞ্চায়েত দপ্তর। লক্ষ্য মূলত দু’টি। এক, অসাধু ঠিকাদার কিংবা নির্মাণকারী সংস্থার ফাঁকিবাজি রুখে কাজের গুণগতমান বজায় রাখা।   ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিশিষ্ট রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী পূর্বা দামের জীবনাবসান হল। শনিবার সকাল সাড়ে ছ’টা নাগাদ দক্ষিণ কলকাতার বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর।   ...

সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: কালচিনির ডিমা চা বাগানের বিচ লাইন থেকে শনিবার সকালে বনকর্মীরা একটি অজগর উদ্ধার করেন। এদিন সকালে বাগানের জমিতে প্রায় আট ফুট লম্বা অজগরটিকে দেখে শ্রমিকরা বনদপ্তরের নিমাতি রেঞ্জে খবর দেয়।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বেফাঁস মন্তব্যে বন্ধুর সঙ্গে মনোমালিন্য। সম্পত্তি নিয়ে ভ্রাতৃবিরোধ। সৃষ্টিশীল কাজে আনন্দ। কর্মসূত্রে দূর ভ্রমণের সুযোগ।প্রতিকার: ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৪৮: চিত্রপরিচালক মহেশ ভাটের জন্ম
২০০৪: চিত্রপরিচালক সলিল দত্তের মৃত্যু 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৮৯ টাকা ৭৪.৬০ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৫৫ টাকা ৯৬.৯১ টাকা
ইউরো ৮৫.১০ টাকা ৮৮.২১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  September, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫২,৩৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৯,৭০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫০,৪৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৬,৭৪০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৬,৮৪০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৪ আশ্বিন ১৪২৭, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, তৃতীয়া ০/২৮ প্রাতঃ ৫/৩৯ পরে চতুর্থী ৫২/২৮ রাত্রি ২/২৮। স্বাতীনক্ষত্র ৪৩/২৯ রাত্রি ১০/৫২। সূর্যোদয় ৫/২৮/১৮, সূর্যাস্ত ৫/৩১/৫৪। অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬ গতে ৮/৪১ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৭ মধ্যে। রাত্রি ৭/৫৫ গতে ৯/৩০ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ১/২৯ মধ্যে পুনঃ ২/১৭ গতে উদয়াবধি। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৩/৫৫ গতে ৪/৪৩ মধ্যে। বারবেলা ১০/০ গতে ১/১ মধ্যে। কালরাত্রি ১২/৫৯ গতে ২/২৯ মধ্যে।  
৩ আশ্বিন ১৪২৭, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, তৃতীয়া দিবা ১০/২। চিত্রানক্ষত্র দিবা ৬/১৫ পরে স্বাতীনক্ষত্র শেষরাত্রি ৪/৩৫। সূর্যোদয় ৫/২৮, সূর্যাস্ত ৫/৩৪। অমৃতযোগ দিবা ৬/২০ গতে ৮/৪১ মধ্যে ও ১১/৪৭ গতে ২/৫৪ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪২ গতে ৯/২১ মধ্যে ও ১১/৪৯ গতে ১/২৭ মধ্যে ও ২/১৭ গতে ৫/২৮ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৩/৪১ গতে ৪/২৮ মধ্যে। বারবেলা ১০/০ গতে ১/২ মধ্যে। কালরাত্রি ১২/৫১ গতে ২/২৯ মধ্যে।  
মোসলেম: ২ শফর। 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রাজ্যে করোনা পজিটিভ আরও ৩,১৭৭ জন 
রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩,১৭৭ জনের শরীরে মিলল করোনা ...বিশদ

08:18:20 PM

আইপিএল: দিল্লি ৬ ওভারে ২৩/৩ 

08:08:47 PM

আইপিএল: টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত পাঞ্জাবের 

07:13:06 PM

১২, ১৩ ও ১৪ অক্টোবর রাজ্যে ট্রাক ধর্মঘট 

05:37:00 PM

করোনা: কোন কোন দেশ বেশি আক্রান্ত?  
করোনায় আক্রান্তের বিচারে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। এদেশে করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

04:45:13 PM

উত্তরপ্রদেশে করোনায় আক্রান্ত আরও ৫,৮০৯ জন, মৃত ৯৪ 

04:32:47 PM