Bartaman Patrika
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
 

রোদ্দুর ছুঁতে সূর্যের দেশে পাড়ি দিচ্ছে ভারত 

বিনয় মালাকার: চাঁদের পর এবার সূর্য। পরপর দু’বার চন্দ্র অভিযানের সাফল্যের পর ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা বা ইসরোর এখন লক্ষ্য সূর্য। সূর্যের অগ্নি বলয়ে হয়তো পৌঁছনো সম্ভব হবে না, তবে সূর্যের অনেকটাই কাছে পৌঁছনোর চেষ্টা চালানো হবে। যাতে করে আমাদের সবচেয়ে কাছের নক্ষত্র সূর্যকে নাকের ডগায় বসে অধ্যয়ন করা যায়। সেই লক্ষ্যে সূর্যের দেশে পাড়ি দিতে চলেছে ভারতের প্রথম সৌর মহাকাশযান ‘আদিত্য এল-১’। সূর্যের রহস্যভেদ সম্ভব হলে শুধু সৌর পদার্থবিজ্ঞানেরই নয়, পদার্থবিজ্ঞান সহ বিজ্ঞানের অন্যান্য শাখারও নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে।
পৃথিবীতে বসে বিজ্ঞানীরা সূর্যকে নিয়ে অনেক গবেষণা করেছেন, তবে আরও নিখুঁত ও পূর্ণাঙ্গ গবেষণার জন্য সূর্যের কাছে যাওয়াটা ভীষণ জরুরি। সেই কাজই করবে ‘আদিত্য এল-১। সংস্কৃত শব্দ আদিত্য মানে সূর্য। ২০২০ সালের শুরুতে এই মহাকাশ যানটিকে পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল-এক্সএল বা পিএসএলভি-এক্সএল রকেটের সাহায্যে অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান মহাকাশ কেন্দ্র থেকে উৎক্ষেপণ করা হবে। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই মহাকাশযানটির নির্মাণে ইসরোকে সাহায্য করেছে বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব অ্যাস্ট্রোফিজিক্স (আইআইএ), পুনের ইন্টার ইউনিভার্সিটি সেন্টার ফর অ্যাস্ট্রোনমি অ্যান্ড অ্যাস্ট্রোফিজিক্স (আইইউসিএএ), আমেদাবাদের ফিজিক্যাল রিসার্চ ল্যাবরেটরি (পিআরএল), কলকাতার ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ (আইআইএসইআর), রাজস্থানের উদয়পুর সোলার অবজারভেটরি রাজস্থান এবং তিরুবনন্তপুরমের স্পেস ফিজিক্স ল্যাবরেটরি।
প্রথমে মনে করা হয়েছিল আদিত্য এল-১-কে দিয়ে সূর্যের করোনা বা সোলার করোনার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। কারণ, ৪০০ কিলোগ্রাম ওজনের এই উপগ্রহে ‘ভিজিবল এমিশন লাইন করোনাগ্রাফ’ নামে একটি মাত্র ‘পে-লোড’ থাকার কথা ছিল। সেজন্য এটিকে ৮০০ কিলোমিটার পৃথিবীর নিম্ন কক্ষপথে স্থাপন করার পরিকল্পনা হয়েছিল। পরে সেই পরিকল্পনা পাল্টে যায় এবং আদিত্য-১ রূপান্তরিত হয় আদিত্য এল-১-এ।
এল-১ হল প্রথম ল্যাগর‌্যাঞ্জ পয়েন্ট। একটি উপগ্রহ ল্যাগর‌্যাঞ্জিয়ান পয়েন্টের চারদিকে যে পথ অনুসরণ করে তাকে হ্যালো অরবিট বলে। পৃথিবী ও সূর্যের মধ্যে মোট পাঁচটি ল্যাগর‌্যাঞ্জিয়ান পয়েন্ট আছে — এল-১, এল-২, এল-৩, এল-৪ এবং এল-৫। এই এল-১-কে কেন্দ্র করে একটি ‘হ্যালো কক্ষপথে’ পরিক্রমণ করবে আদিত্য এল-১। এল-১ পয়েন্ট হল সোলার সিস্টেমের এমন একটি অবস্থান যেখানে পৃথিবী ও সূর্যের সম্মিলিত মাধ্যাকর্ষণ বল ওই অবস্থানে রাখা তৃতীয় কোনও ছোট বস্তু বা উপগ্রহের ওপর অনুভূত কেন্দ্রাতিক বলের সমান ও বিপরীতমুখী। ফলে উপগ্রহটি স্থিতিশীল একটি কক্ষপথে আবর্তন করবে।
পৃথিবী থেকে ১৫ লক্ষ কিলোমিটার এবং সূর্য থেকে ১ হাজার ৪৮১ লক্ষ কিলোমিটার দূর অবস্থান করে কোনও গ্রহণ বা বাধা ছাড়াই কমপক্ষে পাঁচ বছর নিরবচ্ছিন্নভাবে আদিত্য এল-১ সূর্যকে পর্যবেক্ষণ করবে। উৎক্ষেপণের প্রায় ১০০ দিন পরে উপগ্রহটি এল-১-কে কেন্দ্র করে হ্যালো অরবিটে ঘুরতে শুরু করবে। এইভাবে সূর্যের বাড়িতে গোপন নজরদারি চালিয়ে সূর্যের যাবতীয় কার্যকলাপের কথা ও ছবি পাঠিয়ে দেবে এই নীলগ্রহে। উপগ্রহটিতে মোট সাতটি পে-লোড বা পরীক্ষা-নিরীক্ষামূলক অত্যাধুনিক বৈজ্ঞানিক যন্ত্র থাকবে। জ্বালানি সহ ১ হাজার ৫০০ গ্রাম ওজনের এই সর্বাধুনিক উপগ্রহটি সৌর করোনার রহস্য উন্মোচন করতে পারবে বলেই বিজ্ঞানীদের ধারণা।
কিন্তু, কেন সৌর করোনা এত রহস্যময়? সূর্যের কেন্দ্রে একটি পরমাণু চুল্লি রয়েছে। সেখানে প্রতিনিয়ত হাইড্রোজেন নিউক্লীয়-সংযোজন প্রক্রিয়ায় হিলিয়ামে পরিণত হয়। এই রূপান্তরের সময় যে পরিমাণ ভর ‘হারিয়ে’ যায় সেই ভরই তাপশক্তি এবং আলোকশক্তিতে রূপান্তরিত হয়। এই পুরো প্রক্রিয়াটি হয় আইনস্টাইনের E=mc2 সূত্র মেনে। এর ফলে সূর্যের কেন্দ্রের তাপমাত্রা প্রায় ১.৫ কোটি কেলভিন হয়। সূর্যপৃষ্ঠের বা ফোটোস্ফিয়ারের তাপমাত্রা ৫ হাজার কেলভিন। অর্থাৎ, সূর্যের কেন্দ্র থেকে সূর্যপৃষ্ঠের দিকে এগিয়ে গেলে তাপমাত্রা কমতে থাকে। কিন্তু ফোটোস্ফিয়ার থেকে দশ গুণের বেশি দূরত্বে থাকা সোলার করোনার তাপমাত্রা প্রায় ১০ লক্ষ কেলভিন।
অর্থাৎ সূর্যের কেন্দ্রের কাছে থাকা ফোটোস্ফিয়ারের তুলনায় অনেক দূরে থাকা করোনার তাপমাত্রা প্রায় ২০০ গুণ বেশি। আবার করোনার তাপমাত্রা সব জায়গায় সমান নয়। কোথাও অনেক বেশি, কোথাও অনেক কম। কেন করোনার তাপমাত্রা এত বেশি, কেনই বা করোনার বিভিন্ন অংশের তাপমাত্রার মধ্যে এত পার্থক্য — সূর্যের এই সমস্ত হেঁয়ালিপনার কারণ অনুসন্ধান করবে আদিত্য এল-১।
করোনা ছাড়াও এই মহাকাশযানটি ফোটোস্ফিয়ার এবং ক্রোমোস্ফিয়ারের ওপর নজরদারি চালাবে। ফোটোস্ফিয়ার হল সূর্যের সর্বনিম্ন একটি স্তর। পৃথিবীতে আমরা যে সমস্ত আলোকিত বস্তুকে দেখি, সেই আলো এই ফোটোস্ফিয়ার থেকেই নির্গত হয়। সূর্য থেকে এই আলো ৮ মিনিট ২০ সেকেন্ড পরে আমাদের পৃথিবীতে এসে পৌঁছয়। দ্বিতীয় স্তরটি হল, ক্রোমোস্ফিয়ার। সবচেয়ে বাইরে থাকে করোনা। পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের সময় চাঁদ ফোটোস্ফিয়ারকে ঢেকে দেয়। আমরা তখন গোলাপি-লাল রঙের ক্রোমোস্ফিয়ার এবং করোনাকে দেখতে পাই।
২০১৮ সালের ১২ আগস্ট আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা বিশ্বের প্রথম সৌর মহাকাশযান ‘পার্কার সোলার প্রোব’ মহাকাশে পাঠায়। ইতিমধ্যেই সেটি সফলভাবে দু’বার সূর্যকে ভীষণ কাছ থেকে (সূর্য থেকে মাত্র ৮০ লক্ষ কিলোমিটার) প্রদক্ষিণ করেছে। এই মহাকাশযানটি ইতিমধ্যেই অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠিয়েছে। এগুলো আদিত্য এল-১-কে অনেক সাহায্য করবে বলে মনে করা হচ্ছে। যে সূর্যকে আমরা আকাশে রোজ সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দেখি, যার জন্য শুধু এই পৃথিবীতেই জল তরল অবস্থায় আছে, পৃথিবীতে প্রাণের সঞ্চার হয়েছে, সেই সূর্যের গোপন রহস্য উন্মোচন করতে পারবে আদিত্য এল-১। এমনটাই ধারণা ইসরোর বিজ্ঞানীদের।
নাসা আর ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির পর ভারতই প্রথম পাড়ি দিচ্ছে সৌর মুলুকে। এই অভিযান সফল হলে মহাকাশ বিজ্ঞানের ইতিহাসে ভারতের জায়গাটা শুধু শক্তিশালীই হবে না, পদার্থবিজ্ঞানের দীর্ঘস্থায়ী অনেক প্রশ্নের সমাধানও করা যাবে। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে চাঁদে ভারত নিজস্ব স্পেস স্টেশন তৈরি করবে। ২০২০ সালটা তাই ভারতের মহাকাশ গবেষণায় একটি গুরুত্বপূর্ণ বছর। এরপর ইসরো যথাক্রমে গগনযান, চন্দ্রযান-৩, মঙ্গল-২ এবং শুক্র মিশন পাঠাবে মহাকাশে। 

আদিত্য এল-১-এর সাতটি পে-লোডের কাজ:
১. ভিজিবল এমিশন লাইন করোনাগ্রাফ: করোনার উপর নজর রাখার
জন্য থাকবে শক্তিশালী এই করোনাগ্রাফ। এটি সূর্যের মধ্যে ঘটে চলা বিভিন্ন গতিমান প্রক্রিয়া এবং কীভাবে করোনা থেকে ভর নির্গত (করোনাল মাস এমিশন) হয় তা পরীক্ষা করবে। করোনার চৌম্বকক্ষেত্রের পরিমাপ করবে। করোনাগ্রাফ হল একটি বিশেষ যন্ত্র, যা সূর্যের আলোকে আটকানোর জন্য তৈরি করা হয়েছে। যাতে করে জ্বলন্ত সূর্যের উত্তপ্ত বহির্মুখী স্তরটিকে দেখতে পাওয়া যায়। অন্যথায় যে স্তরটি সূর্যের আলোতে লুকিয়ে থাকে। করোনাগ্রাফ আসলে সূর্যালোককে অবরুদ্ধ করে মহাকাশে কৃত্রিমভাবে একটি পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ সৃষ্টি করবে।
২. সোলার আল্ট্রাভায়োলেট ইমেজিং টেলিস্কোপ: এটি সূর্যের ফোটোস্ফিয়ার এবং ক্রোমোস্ফিয়ারের ছবি পাঠাবে। এই টেলিস্কোপটি ২০০-৪০০ ন্যানোমিটার তরঙ্গদৈর্ঘ্যের (আল্ট্রাভায়োলেট অঞ্চল) পরিসরের মধ্যে সূর্যেকে পর্যবেক্ষণ করবে।
৩. আদিত্য সোলার উইন্ড পার্টিকেল এক্সপেরিমেন্ট: এটি সৌরবায়ুর বৈশিষ্ট্য পরিবর্তন এবং তার বণ্টন ব্যবস্থা ও আলোকধর্মের অধ্যয়ন করবে।
৪. প্লাজমা অ্যানালাইজার প্যাকেজ ফর আদিত্য: এটি সৌরবায়ুর উপাদান এবং সৌরবায়ুর শক্তির বিন্যাস পর্যবেক্ষণ করবে।
৫. সোলার লো এনার্জি এক্স-রে স্পেক্ট্রোমিটার: কোন বিশেষ কৌশলে করোনার তাপমাত্রা এত বেড়ে যায় তা বোঝার জন্যে এক্স-রে ফ্লেয়ার (সৌর শিখা) গুলির ওপর নজর রাখবে এই স্পেক্ট্রোমিটার। এক্স-রে ফ্লেয়ার হল শক্তিশালী সৌর বিকিরণ যা করোনা থেকে নির্গত হয়।
৬. হাই এনার্জি এল-১ অরবিটিং এক্স-রে স্পেক্ট্রোমিটার: সৌর করোনায় ঘটে চলা প্রক্রিয়াগুলি পর্যবেক্ষণ করবে এবং বিস্ফোরণের সময় সৌরশক্তি যুক্ত কণাগুলিকে ত্বরান্বিত করতে কী পরিমাণ শক্তির প্রয়োজন তার একটা আন্দাজ দেবে এই স্পেক্ট্রোমিটার।
৭. ম্যাগনেটোমিটার: আন্তঃগ্রহ চৌম্বকীয় ক্ষেত্রের (Interplanetary Magnetic Field) পরিমাপ এবং প্রকৃতি বোঝার চেষ্টা করবে এই ম্যাগনেটোমিটার।

আদিত্য মিশনের মূল লক্ষ্য:
 সূর্যপৃষ্ঠ থেকে বহু দূরে থাকা করোনার তাপমাত্রা সূর্যপৃষ্ঠের তাপমাত্রার থেকে এত বেশি কেন, করোনা থেকে কীভাবে ভর নির্গত হয় তা বোঝার চেষ্টা করা। কোনও অঞ্চলের আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানতে এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।
 সৌরঝড়ের কারণ এবং তার গতিপথ বোঝার চেষ্টা করা। এটা বুঝতে পারলে এই গ্রহের টেলি যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও নিখুঁত এবং নির্ঝঞ্ঝাট করা যাবে।
 সৌরঝড় কোন পথে পৃথিবীতে আসে, কেন অন্য পথে না গিয়ে ওই পথ ধরেই সৌরঝড় আমাদের গ্রহে আসছে তা জানার চেষ্টা করা হবে। এই সৌরঝড় পৃথিবীর চারপাশে প্রদক্ষিণরত যোগাযোগ রক্ষাকারী উপগ্রহগুলিকে তছনছ করে দিতে পারে।
 সূর্য থেকে আসার ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মি সূর্যের ঠিক কোন জায়গা থেকে এবং কী পরিমাণে আসে তা অনুধাবন করার চেষ্টা করা হবে।
(লেখক হুগলি জেলার নেতাজি মহাবিদ্যালয়ের পদার্থবিদ্যা বিভাগের প্রধান)
12th  January, 2020
হোয়াটস অ্যাপে চালু হয়ে গেল ডার্ক মোড 

অবশেষে দীর্ঘ অপেক্ষার পর ডার্ক মোড লঞ্চ করল হোয়াটসঅ্যাপ। সমস্ত অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস ব্যবহারকারীদের হোয়াটসঅ্যাপেই পাওয়া যাবে নতুন এই অপশন। মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহেই ডার্ক মোড লঞ্চ করে সংস্থা।   বিশদ

10th  March, 2020
পৃথিবীর দ্বিতীয় চাঁদ 

উপগ্রহের সংখ্যায় মঙ্গল গ্রহের সমকক্ষ হয়ে উঠল পৃথিবী। আমাদের গ্রহের উপগ্রহের সংখ্যা আর এক নয়। নীল গ্রহকে ঘিরে পাক খাচ্ছে আরও একটি চাঁদ। সম্প্রতি বিষয়টি নজরে আসায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মধ্যে। যদিও, আকারে ও ঔজ্জ্বল্যে চাঁদের ধারেকাছেও আসতে পারবে না উপগ্রহটি। আসলে এটি একটি গ্রহাণু।  
বিশদ

08th  March, 2020
অক্সিজেন ছাড়াই জীবনধারণ,
সন্ধান মিলল নতুন প্রাণীর 

অক্সিজেন ছাড়া কোনও প্রাণী বাঁচতে পারে না। কিন্তু, বর্তমানে কয়েকজন বিজ্ঞানী এমন এক প্রাণী খুঁজে পেয়েছেন, যা অক্সিজেন ছাড়াও বহাল তবিয়তে থাকতে পারে। এই আবিষ্কার প্রাণীজগৎ সম্পর্কে ধারণা তা আমূল বদলে দিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। 
বিশদ

08th  March, 2020
সূর্যের রহস্যভেদে সোলার অরবিটর 

সূর্যের মেরু অঞ্চলের ছবি তুলতে মহাকাশে পাড়ি দিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির (ইএসএ) তৈরি নতুন মহাকাশযান। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ফ্লোরিডার উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে অ্যাটলাস-৫ রকেটে চেপে সূর্যের উদ্দেশে পাড়ি দেয় নাসার এই সোলার অরবিটর। 
বিশদ

08th  March, 2020
বোস থেকে বোসন: কোয়ান্টাম
ইন্ডিয়ান সত্যেন্দ্রনাথ বসু 

গত মাসেই গিয়েছে তাঁর মৃত্যুবার্ষিকী। তিনি বাংলায় বিজ্ঞানচর্চার পথিকৃৎ সত্যেন্দ্রনাথ বসু। এই বিশ্বের অর্ধেক কণাই তাঁর নামাঙ্কিত — বোসন কণা। বাকি ফের্মিয়ন। যতদিন এই পৃথিবীতে আলো থাকবে, ততদিনই ফোটন থাকবে। ততদিনই থাকবে বোসন। আর ততদিনই বোসন স্রষ্টা আলো হয়ে থাকবেন। তাঁর ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে সত্যেন্দ্রনাথ বসুর প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য। লিখছেন বিনয় মালাকার... 
বিশদ

08th  March, 2020
মোবাইলে গেম ডাউনলোড করার কয়েকটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট 

জেন ওয়াই প্রজন্ম ভীষণ গেম খেলতে ভালোবাসেন। বাসে-ট্রেনে-ট্রামে প্রায় সব জায়গাতেই মোবাইল হাতে গেম খেলতে দেখা যায় তাঁদের। অ্যান্ড্রোয়েড প্লে-স্টোর বা আইফোনের অ্যাপ স্টোর থেকে তাঁরা বেশিরভাগ গেম ডাউনলোড করে থাকেন। কিন্তু, এমন কিছু গেম রয়েছে, যা প্লে-স্টোরে পাওয়া যায় না।  
বিশদ

09th  February, 2020
চলতি বছরেই বাজারে আসছে ১১৭টি ইমোজি 

ইমোজি। ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপের যুগে যা ছাড়া আমরা চলতেই পারি না। শব্দের বদলে ইমোজি দিয়ে মনের ভাব প্রকাশ করাতেই স্বচ্ছন্দ নতুন প্রজন্ম। সেই চাহিদার কথা মাথায় রেখেই প্রতিবছর নতুন নতুন ইমোজি বাজারে নিয়ে আসে ‘ইউনিকোড কনসর্টিয়াম’। এই সংস্থাটি নতুন ইমোজি বাজারে আনার ছাড়পত্র দেয়।
বিশদ

09th  February, 2020
এবার থেকে মোবাইল ফোনের আইএমইআই নম্বর দেবে সরকার 

আরও বেশি গ্রাহক সুরক্ষা, না কি তার আড়ালে নজরদারি? এবার থেকে মোবাইলে আইএমইআই নম্বর দেবে ভারত সরকারই। এতদিন ১৫ সংখ্যার এই নম্বর সরবরাহ করতো আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘জিএসএমএ’। ভারতে এই সংস্থার হয়ে মোবাইল স্ট্যান্ডার্ড অ্যালায়েন্স অব ইন্ডিয়া (এমএসএআই) আইএমইআই সংক্রান্ত সমস্ত কাজকর্ম চালাত। 
বিশদ

09th  February, 2020
মারণ করোনা 

ভাইরাসটির গায়ে থাকা স্পাইক মানুষের শরীরের অবস্থিত রিসেপটরের সঙ্গে খাপে খাপ আটকে যায়। যার জেরেই এই মৃত্যুমিছিল বলে মনে করছেন বিজ্ঞানী-গবেষকেরা। লিখছেন কল্যাণকুমার দে... 
বিশদ

09th  February, 2020
 টিভির ভোলবদল

 শৌণক সুর: বর্তমান যুগে টিভি ছাড়া বাড়িতে থাকাই দায়। সারাদিন পর বাড়িতে ফিরেই সুইচ অন করে বোকাবাক্সের সামনে বসে পড়া যেন নিত্যদিনের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। আশির দশকে টিভিতে খবর সম্প্রচার ছাড়া বিনোদনের তেমন কোনও অনুষ্ঠানই ছিল না। বিশদ

27th  January, 2020
এই বোস সেই বোস নয়

মৃণাল শীল: আমরা দেশনায়ক সুভাষচন্দ্র বসুর ছাত্রাবস্থার একটি ঘটনার সঙ্গে সকলেই পরিচিত। সেটি হল, প্রেসিডেন্সি কলেজের ইতিহাসের এক ইংরেজ অধ্যাপক ওটেন সাহেব এক বাঙালি ছাত্রকে বিনা কারণে অপমান করেন। এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয় গোটা প্রেসিডেন্সি কলেজ।  
বিশদ

12th  January, 2020
অদৃশ্য ক্যামেরার ফোন!

রোটেটর, পপ আপ, আন্ডার ডিসপ্লে ক্যামেরার স্মার্টফোনের দুনিয়ায় নতুন সংযোজন। ছবি তোলার পরই অদৃশ্য হয়ে যাবে ক্যামেরা। এমনই অভিনব প্রযুক্তির স্মার্টফোনের আত্মপ্রকাশ করল ওয়ান প্লাস। সম্প্রতি লাস ভেগাসে আয়োজিত ‘কনজিউমার ইলেক্ট্রনিক্স শো’-তে (সিইএস ২০২০) মডেলটি প্রকাশ্যে এনেছে ওয়ান প্লাস।
বিশদ

12th  January, 2020
সেরা কিছু প্রযুক্তিগত উন্নতি 

১০৮, ৪৮ ও ৬৪ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা: মোবাইল ক্যামেরার অগ্রগতি ডিএসএলআর জগৎকে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে ঠেলে দিয়েছে। বিশ্বে প্রথমবার ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর বাজারে নিয়ে এসেছে স্যামসাং।  বিশদ

29th  December, 2019
এ বছরের সেরা ব্যক্তিত্ব 

২০১৯ সালে বিজ্ঞানের অগ্রগতিতে অবদান রাখা ব্যক্তিদের মধ্যে এক ঝলকে খুঁজে নেওয়া কয়েকজন...  বিশদ

29th  December, 2019
একনজরে
  নয়াদিল্লি, ৮ এপ্রিল: দেশজুড়ে লকডাউনের মধ্যেও ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে। আর এর মধ্যে একটা বড় অংশের সংক্রমণের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রক দায় চাপিয়েছে নিজামুদ্দিনের ধর্মীয় সমাবেশের উপর। ...

  বিএনএ, বারাকপুর: লকডাউনে বাড়ির বাইরে গিয়ে মোবাইল গেম খেলার সময় কংক্রিটের শেড ভেঙে এক তরুণের মৃত্যু হল। মঙ্গলবার রাতে চাকদহ থানার মদনপুরের মারফোডাঙায় ঘটনাটি ঘটে। পুলিস জানিয়েছে, মৃতের নাম শীতল পাসোয়ান (১৮)। ...

 নয়াদিল্লি, ৮ এপ্রিল: ক্রিকেট জীবনে অনেক সাফল্যই রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। কিন্তু ভারতের মাটিতে লাল বলের ক্রিকেটে আজ পর্যন্ত সিরিজ জিততে না পারার আক্ষেপ কুরে কুরে ...

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: সোনামুখীর পাঁচালের ঐতিহ্যবাহী গাজন স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। কমিটি সূত্রে জানা গিয়েছে, লকডাউনের কারণে যে কোনওরকম জমায়েত বন্ধের নির্দেশ রয়েছে। তা মেনে এবারের গাজন স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের পঠন পাঠনে আগ্রহ বাড়বে। কর্মপ্রার্থীদের কর্মপ্রাপ্তিদের যোগ। বিশেষত সরকারি বা আধা সরকারি ক্ষেত্রে যোগ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৫৬: বাংলার নবাব হলেন সিরাজউদ্দৌলা
১৮৯৩: লেখক রাহুল সাংকৃত্যায়নের জন্ম
১৮৯৮: গায়ক পল রবসনের জন্ম
১৯৪৮: অভিনেত্রী ও রাজনীতিক জয়া বচ্চনের জন্ম
২০০৯: পরিচালক শক্তি সামন্তের মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৫.২৯ টাকা ৭৭.০১ টাকা
পাউন্ড ৯২.০৮ টাকা ৯৫.৩৪ টাকা
ইউরো ৮১.১২ টাকা ৮৪.১৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

২৫ চৈত্র ১৪২৬, ৯ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার, (চৈত্র কৃষ্ণপক্ষ) দ্বিতীয়া ৪৮/৪ রাত্রি ১২/৩৯। স্বাতী ৪৭/৩ রাত্রি ১২/১৫। সূ উ ৫/২৫/৩৫, অ ৫/৫০/৫৯, অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৪৬ গতে ৩/৬ মধ্যে। বারবেলা ২/৪৬ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৩৮ গতে ১/৫ মধ্যে।
২৬ চৈত্র ১৪২৬, ৯ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার, প্রতিপদ ১/৫৮/২৮ প্রাতঃ ৬/১৪/১৮ পরে দ্বিতীয়া ৫৬/২১/৪০ রাত্রি ৩/৫৯/৩৫। স্বাতী ৫৫/৯/৩৯ রাত্রি ৩/৩০/৪৭। সূ উ ৫/২৬/৫৫, অ ৫/৫১/৪৩। অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৪৬ গতে ৩/৫ মধ্যে। বারবেলা ৪/১৮/৩৭ গতে ৫/৫১/৪৩ মধ্যে, কালবেলা ১১/৩৯/১৯ গতে ১/৬/১৩ মধ্যে।
১৫ শাবান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত ৫৯১, মৃত ২০
ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫৯১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ...বিশদ

05:43:09 PM

করোনায় আক্রান্ত হাওড়া হাসপাতালের সুপার সহ ২
 

হাওড়া হাসপাতালের সুপার নারায়ণ চট্টোপাধ্যায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি ...বিশদ

05:20:09 PM

করোনা: অস্ট্রিয়ায় নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৮৬ জন 

04:32:55 PM

করোনা: রাজ্যে আক্রান্ত আরও ১২ জন
রাজ্যে আজ আরও ১২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সেইমত ...বিশদ

04:24:00 PM

কাপড়ের মাস্ক তৈরি করুক ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প: মমতা 

04:21:00 PM

করোনা: গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৪২২৬ জন 

04:10:08 PM