Bartaman Patrika
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
 

ভারতের চন্দ্রাভিযান ২.০ 

ডঃ দেবীপ্রসাদ দুয়ারী: ২০ জুলাই ২০১৯। সারা পৃথিবীর মানুষ উদযাপন করবেন ৫০ বছর আগের সেই অবিস্মরণীয় মুহূর্তটিকে। ১৯৬৯ সালে মানুষ প্রথম পা রেখেছিল চাঁদে। মানব সভ্যতার ইতিহাসে অদম্য এক প্রয়াস, মহাশূন্যকে জয় করার এক প্রচেষ্টা এবং পৃথিবীর বাইরে অন্য এক জগৎকে নতুন করে আবিষ্কার করার সেই স্মৃতি এখনও যেন এক অবিশ্বাস্য কল্পনার জগৎকে উজ্জীবিত করে মানব মনে। চাঁদে মানুষের অবতরণের এই সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের ঠিক পাঁচ দিন আগে ১৫ জুলাই ভারতীয় বিজ্ঞানীরা আর এক অবিস্মরণীয় মুহূর্তের সৃষ্টি করতে চলেছেন।
ভারতের পূর্ব উপকূলে বঙ্গোপসাগরের ধারে শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপিত হবে সম্পূর্ণ নিজস্ব প্রযুক্তি দ্বারা নির্মিত GLLV Mark 3 রকেট। ১৫ জুলাইয়ের প্রারম্ভ মুহূর্তে রাত্রি ২টো ৫১ মিনিটে এই GSLV রকেট পাড়ি দেবে — মহাশূন্যে। তার নাকের ডগায় থাকবে ভারতীয় বিজ্ঞানীদের গত সাত বছরের নিরলস সাধনার ফল — একটি মহাকাশ যান, যার নাম চন্দ্রযান-২।
২০০৮ সালের ২২ অক্টোবর একটি PSLV রকেটে চড়ে পাড়ি দিয়েছিল চন্দ্রযান-১। ১৪ নভেম্বর চাঁদের কক্ষপথে পৌঁছে চাঁদের বুকে নিক্ষেপ করেছিল Moon Impactor Probe (MIP)। সেই আঘাতে চাঁদের পৃষ্ঠদেশ থেকে ছিটকে উঠেছিল অনেক ধুলো। সেই ধুলোর বর্ণালী বিশ্লেষণ করে চন্দ্রযান-১ আমাদের জানিয়েছিল, চাঁদের পৃষ্টদেশ ও আবহাওয়ামণ্ডলে জলীয় বাষ্পের উপস্থিতি। চন্দ্রযান-১ হল এগারোটি যন্ত্র সম্বলিত এমন এক মহাকাশযান যা প্রাথমিকভাবে চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ১০০ কিমি উচ্চতা বজায় রেখে প্রতি ১১৭ মিনিটে চাঁদকে প্রদক্ষিণ করেছিল। প্রদক্ষিণরত অবস্থায় তার যন্ত্রের দ্বারা সংগৃহীত যে সমস্ত তথ্য চন্দ্রযান-১ পাঠিয়েছিল ভারতের বিজ্ঞানীদের কাছে, তা অভূতপূর্ব। চাঁদের বুকে ম্যাগনেশিয়াম, অ্যালুমিনিয়াম এবং সিলিকনের মতো খনিজ পদার্থের উপস্থিতির কথা জানান দিয়েছিল সে।
নাসার সঙ্গে সহযোগিতায় তৈরি Moon Mineralogy Mapper (M3) এবং Synthetic Aperture Radar (SAR)-এর মাধ্যমে সারা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়ে চন্দ্রযান-১ খুঁজে পেয়েছিল জলীয় বরফ ও বাষ্পের সন্ধান। উত্তর মেরু অঞ্চলে আবিষ্কার করেছিল, প্রায় ৬০ হাজার কোটি লিটার জলীয় বরফের উপস্থিতির সম্ভাবনাকে। বিজ্ঞানীরা তার আগে আশা করেছিলেন, যে চাঁদে জল পাওয়া যেতে পারে। চন্দ্রযান-১ হল প্রথম উপগ্রহ, যা কিনা প্রমাণ করেছিল সেই বিশ্বাসের সত্যতাকে।
মহাকাশ বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে বিশেষ করে চন্দ্রাভিযানের নিরিখে, ভারতীয় মহাকাশ বিজ্ঞানীদের এ এক অভূতপূর্ব সাফল্য। চাঁদে জলের এই উপস্থিতিই একদিন মহাশূন্যে মানব সভ্যতার প্রথম উপনিবেশ গড়ার কাজ সম্ভব করবে। প্রায় সাড়ে দশমাস ধরে প্রদক্ষিণরত চন্দ্রযান-১ চন্দ্রপৃষ্ঠের বহু ছবি, পৃষ্ঠদেশের খুঁটিনাটি এবং রাসায়নিক গঠন নিয়ে প্রভূত পরিমাণে তথ্য সংগ্রহ করেছে। তাই চন্দ্রযান-১-কে ভারতীয় মহাকাশ বিজ্ঞানের এক স্বর্ণময় অধ্যায়ের পথিকৃৎ হিসাবে ভাবা যেতে পারে।
চন্দ্রযান-১ এর উৎক্ষেপণের সময়ে ভারতীয় বিজ্ঞানীরা কিন্তু পরিকল্পনা করে ফেলেছিলেন আরও এক দৃঢ় পদক্ষেপের। তারা ভাবতে শুরু করেছিলেন চন্দ্রযান-২ এর কথা, যেখানে এই কৃত্রিম উপগ্রহটি যে শুধুমাত্র চাঁদকে প্রদক্ষিণ করবে তা নয়, এই Orbitor থেকে চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণকারী একটি মহাকাশযানের (Lander) পরিকল্পনা করেছিলেন বিজ্ঞানীরা। তাঁরা আরও আশা করেছিলেন যে, এই Lander-এর মধ্যে থেকে একটি স্বয়ংক্রিয় যান (Rover) সফলভাবে তৈরি করতে সক্ষম হবেন।
২০০৮ সাল থেকে তার কাজও শুরু হয়েছিল। ঠিক হয়েছিল, ভারতের ইসরোর বিজ্ঞানীরা তৈরি করবেন প্রদক্ষিণকারী Orbitor এবং স্বয়ংক্রিয় যান (Rover)। অবতরণকারী Module (Lander) তৈরি করার দায়িত্ব নিয়েছিলেন রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা Roscosmos। ঠিক হয়েছিল, ২০১২ সাল নাগাদ চন্দ্রযান-২ কে উৎক্ষেপণ করা হবে। কিন্তু, রাশিয়ার মহাকাশ বিজ্ঞানীরা মঙ্গলের উদ্দেশ্য পাঠানো Phobos Grant Mission-এর জন্য তৈরি অবতরণকারী যানটিকে বানাতে গিয়ে সম্পূর্ণভাবে অসফল হন। তারা ভারতের সঙ্গে সহযোগিতা থেকে সরে আসেন। এই ঘটনাটিতে ইসরোর বিজ্ঞানীদের প্রচেষ্টা আরও সুদৃঢ় হয়। তাঁরা ঠিক করেন, সম্পূর্ণ ভারতীয় প্রযুক্তি দ্বারাই চন্দ্রযান-২ এর Orbitor, Lander এবং Rover-কে তৈরি করবেন। এমনকী, চন্দ্রযান-২ কে পাঠানোর জন্য GSLV Mark-3 রকেটিকেও সম্পূর্ণ নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি করার প্রতিজ্ঞা নিলেন তাঁরা।
ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা ইসরোর বিভিন্ন কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা নিরলস প্রচেষ্টার মধ্যে দিয়ে গত ছ’বছরে সৃষ্টি করেছেন চন্দ্রযান-২। ১৫ জুলাই এই চন্দ্রযান-২ কে নিয়ে পাড়ি দেবে GSLV Mark-3 রকেট। উৎক্ষেপণের কিছুক্ষণের মধ্যেই চন্দ্রযান-২-কে স্থাপন করার চেষ্টা করা হবে পৃথিবীর চারদিকে একটি অতি উপবৃত্তাকার কক্ষপথে। কক্ষপথের আয়তন ধীরে ধীরে বাড়িয়ে একসময় চাঁদের কক্ষপথে প্রবেশ করানো হবে এই মহাকাশযানটিকে। তারপর উৎক্ষেপণের প্রায় বাহান্ন দিন পরে যখন চন্দ্রযান-২ চাঁদের পৃষ্ঠদেশ থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরত্ব বজায় রেখে চাঁদকে প্রদক্ষিণ করতে শুরু করবে, তখন তার থেকে বিচ্ছিন্ন হবে একটি অবতরণকারী যান। ভারতীয় বিজ্ঞানীরা এই যানটির নাম রেখেছেন ‘বিক্রম’।
গত পঞ্চাশ বছরের চন্দ্রাভিযানের ইতিহাসে ভারত প্রথমবার চেষ্টা করবে চাঁদের দক্ষিণ মেরু অঞ্চলে অবতরণ করার। এর আগে কোনও মহাকাশযান যেখানে অবতরণ করতে সক্ষম হয়নি। অবতরণ করার কিছু পরেই বিক্রমের থেকে বেরিয়ে আসবে একটি স্বয়ংক্রিয় যান। ২৭ কিলোগ্রাম ওজনের ছটি চাকা সম্বলিত এই যানটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘প্রজ্ঞান’। এর উপরে থাকবে দুটি যন্ত্র, যা চাঁদের পৃষ্ঠদেশের রসায়ন এবং আবহাওয়ামণ্ডলের অবস্থা সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করবে। এটি অবতরণক্ষেত্র থেকে ধীরে ধীরে প্রায় পাঁচশো মিটার পর্যন্ত ভ্রমণ করতে সক্ষম হবে। সেই তথ্য এই স্বয়ংক্রিয় যান সংগ্রহ করবে এবং তা বেতার সংকেতের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেবে অবতরণকারী বিক্রমের কাছে।
অবতরণকারী Lander বিক্রমের ওজন ১৪৭১ কেজি। মূলত চারটি যন্ত্র থাকবে এতে। চাঁদের পৃষ্ঠদেশের কিছুটা গভীর পর্যন্ত তাপমাত্রা, চন্দ্রপৃষ্ঠের কম্পন, জলীয় বরফের উপস্থিতি এবং আবহাওয়া মণ্ডলের সূর্য রশ্মির প্রভাব খুটিয়ে দেখার চেষ্টা করবে এই যান। এছাড়াও এতে থাকবে Laser Retroreflector Array (LRA), যার মাধ্যমে প্রতিনিয়ত পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব মাপা সম্ভব হবে। বিজ্ঞানীরা এর কার্যাবলী সময়কাল ধার্য করেছেন ১ চান্দ্র দিন। পৃথিবীর হিসাবে যা কিনা প্রায় ১৪ দিনের মতো।
২৩৭৯ কেজি ওজনের চন্দ্রযান-২ প্রদক্ষিণকারী মহাকাশ যানটিতে থাকবে আটটি যন্ত্র। এক বছর সময় ধরে চাঁদকে প্রদক্ষিণ করতে করতে চন্দ্রযান-২ চাঁদের গঠন, আকার, রসায়ন ও জলীয় বরফের উপস্থিতির কথা জানার চেষ্টা করবে। তার সংগৃহীত তথ্য সে প্রেরণ করবে দক্ষিণ ভারতে বায়ালুলুতে Indian Deep Space Network (IDSN)-এর Command ও Communication Centre-এ।
বিজ্ঞানীরা বিশ্বাস করেন, চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে কিছু অঞ্চল আছে যেখানে কোনওদিন সূর্য-রশ্মি পৌঁছয় না। তার ফলে এই অতীব শীতল অঞ্চলে গহ্বরগুলির তলদেশে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বরফ আছে। তাই তাঁদের বিশ্বাস, চন্দ্রযান-২ হবে প্রথম মহাকাশ যান, যা আবিষ্কার করতে পারবে সেই জলীয় বরফের উপস্থিতি। মানবসভ্যতার ইতিহাসে প্রথমবার চন্দ্রযান-২ হবে এমন একটি প্রয়াস, যা চাঁদ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্যের মাধ্যমে আরও উস্কে দেবে চাঁদের বুকে মানুষের উপনিবেশ গড়ে তোলার সম্ভাবনাকে।
আগামী ১৫ জুলাই প্রত্যেক ভারতবাসী উদগ্রীব হয়ে অপেক্ষা করবে চন্দ্রযান-২ এর সফল উৎক্ষেপণের জন্য। দেশবাসীর আশা, ৬ সেপ্টেম্বর সফলভাবে অবতরণ করবে বিক্রম। সফল হবে প্রজ্ঞানের চন্দ্রপৃষ্ঠ সফরও। সেদিন প্রতিটি নাগরিক ভারতীয় মহাকাশ বিজ্ঞানীদের সেই অভূতপূর্ব সাফল্য নিয়ে গর্ব বোধ করবেন। আমরা সবাই অধীর আগ্রহে সেই দিনটির জন্য অপেক্ষা করছি।
(লেখক এম পি বিড়লা তারামণ্ডলের অধিকর্তা, গবেষণা ও শিক্ষণ) 
14th  July, 2019
ডিএসএলআরের দিন শেষ! ফোনে আসছে ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা 

সৌম্য নিয়োগী: ৪৮ মেগাপিক্সেল এখন অতীত। বাজার কাঁপাতে এসে গিয়েছে ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার স্মার্টফোন। তবে তা কতদিন টিকতে পারবে তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। কারণ, স্যামসাং এনে ফেলেছে এমন এক প্রযুক্তি যা শুনলে আপনি হাঁ হয়ে যাবেন। আর তা হল ১০৮ মেগাপিক্সেল ইমেজ সেন্সর। স্মার্টফোন ক্যামেরার সংজ্ঞা বদলে দেবে এই নয়া সেন্সর। 
বিশদ

13th  October, 2019
কৃষকদের জন্য ট্রাক্টর, ফার্ম মেশিনারি ভাড়া দেওয়ার জন্য মোবাইল অ্যাপ আনল কেন্দ্র 

কৃষকদের সুবিধার্থে দু’টি অ্যাপ চালু করেছে নরেন্দ্র মোদির সরকার। একটি ‘সিএইচসি-ফার্ম মেশিনারি’ এবং দ্বিতীয়টি হল ‘কৃষি কিষাণ’। বহুভাষী ‘সিএইচসি-ফার্ম মেশিনারি’ অ্যাপটির মাধ্যমে কৃষকরা ট্র্যাক্টর এবং অন্যান্য ফার্ম মেশিনারি ভাড়া নিতে পারবেন। সম্প্রতি কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার এই অ্যাপ দু’টির উদ্বোধন করেন।  
বিশদ

13th  October, 2019
আর ব্যাঙ্ক নয়, ঋণ এবার স্মার্টফোনেই

সোহম কর: জরুরি পরিস্থিতি। হঠাৎ করে প্রয়োজন হয়ে পড়েছে মোটা টাকার। কী করবেন কিছুই বুঝে উঠতে পারেন না। হাতের কাছে ক্রেডিট কার্ডও নেই যে আপদকালীন টাকার প্রয়োজনটা মিটিয়ে ফেলবেন। উপায়? ছোটাছুটির কোনও দরকার নেই। প্রযুক্তি আর ইন্টারনেট এক লহমায় সেই সমস্যার সমাধান করে দিয়েছে। হাতে শুধু স্মার্টফোন থাকলেই হল। 
বিশদ

13th  October, 2019
দিল্লির কুয়াশাই দক্ষিণ এশিয়ার উষ্ণায়নের কারণ, বলছে গবেষণা 

মৃণালকান্তি দাস: ফি বছর অক্টোবর-নভেম্বর থেকে জমাট ধোঁয়াশায় শ্বাস-বন্ধের আশঙ্কায় ভুগছে দিল্লি। কুয়াশা দেখলে কু ডাকে অনেকের মনেই। রাজধানীর বাসিন্দারা খুব ভালো ভাবেই জানেন, এই যন্ত্রণা থেকে অদূর ভবিষ্যতেও তাঁদের নিষ্কৃতির সম্ভাবনা নেই বিন্দুমাত্র। 
বিশদ

13th  October, 2019
পৃথিবী থেকে চন্দ্রপৃষ্ঠ
চন্দ্রযান-২-এর পথ পরিক্রমা

  জিএসএলভি রকেটের যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য শুরুতেই পিছিয়ে গিয়েছিল উৎক্ষেপণ। তারপর ২২ জুলাই চন্দ্রযান-২-এর সফল উৎক্ষেপণ ঘটান ইসরোর বিজ্ঞানীরা। আর ফিরে তাকাতে হয়নি। পরিকল্পনামাফিক পৃথিবীর কক্ষপথ ছাড়িয়ে এগতে থাকে সেটি। একের পর এক লাফ দিতে দিতে পৌঁছে যায় চাঁদের কক্ষপথে।
বিশদ

11th  October, 2019
বায়ুসেনার যুদ্ধবিমানে সওয়ার আপনিও

সুদীপ্ত সেন: ভারতীয় বায়ুসেনার অংশ হতে চান? না, আপনাকে কোনও পরীক্ষায় বসতে বা শারীরিক সক্ষমতার প্রমাণ দিতে হবে না। শুধু স্মার্ট ফোনের প্লে স্টোর থেকে ‘ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্স: দ্যা কাট অ্যাবভ’ গেমটি ডাউনলোড করে নিন। ব্যস! যুদ্ধবিমানের ককপিটে আপনি। এমআই-১৭ কপ্টার, মিরাজ, সুখোই উড়িয়ে শত্রু শিবিরে হামলা চালানোর জন্য তৈরি। 
বিশদ

29th  September, 2019
আইফোন ১১ সিরিজ: পাওয়া-না পাওয়া
টু কি টা কি

বেশ কয়েক মাসের জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে সদ্য আইফোন ১১ সিরিজ বাজারে এনেছে অ্যাপল। প্রি বুকিং শুরু হয়ে গিয়েছে মার্কিন মুলুকে। ভারতে পাওয়া যাচ্ছে ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে। এই মুহূর্তে যাঁদের কাছে আগের মডেলগুলি রয়েছে, তাঁদের অনেকেই ‘আপগ্রেড’ হওয়ার ইচ্ছায় নতুন মডেলটি কে‌‌নার পরিকল্পনা করছেন। তবে, এর বিরুদ্ধ মতও আছে। 
বিশদ

29th  September, 2019
হাইসেনবার্গ হয়তো এখানেই আছেন 

অ্যালবার্ট আইনস্টাইনের মতোই আরও এক বিখ্যাত জার্মান পদার্থ বিজ্ঞানী ছিলেন ওয়ার্নার কার্ল হাইসেনবার্গ। তাঁকে কোয়ান্টাম মেকানিক্সের জনকও বলা যায়। হাইসেনবার্গের যে তত্ত্বটি তাঁর আবিষ্কারগুলির মধ্যে অন্যতম, তা হল আনসার্টেনিটি প্রিন্সিপাল বা অনিশ্চয়তা নীতি।  
বিশদ

29th  September, 2019
শেয়ার বাজারে লগ্নিকারীদের জন্য দু’টি আ্যাপ আনল জেআরকে গোষ্ঠী 

মিউচ্যুয়াল ফান্ড এবং শেয়ার বাজারে লগ্নিকারীদের জন্য দু’টি পৃথক মোবাইল অ্যাপ বাজারে আনল জেআরকে গোষ্ঠী। অ্যাপ দু’টির নাম জেআরকে মিউচ্যুয়াল ফান্ড এবং জেআরকে কানেক্ট। যার সাহায্যে গ্রাহকরা মোবাইল থেকে সহজেই শেয়ারবাজার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডে এসআইপি (সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান) বা অন্যান্য বিনিয়োগ করতে পারবেন।  
বিশদ

29th  September, 2019
জিপিএসের জায়গা নেবে ইসরোর ‘নাবিক’, মিলল ছাড়পত্র 

নেভিগেশন প্রযুক্তিতে স্বনির্ভর হল ভারত। সৌজন্যে ইসরো। গত বছর এপ্রিল মাস থেকে নিজস্ব কৃত্রিম উপগ্রহ ব্যবহার করে দিক নির্দেশনায় স্বাবলম্বী হয়েছিল ভারত। এতদিনে মিলল স্বীকৃতি। সম্প্রতি সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি নেভিগেশন প্রযুক্তি ‘নাবিক’কে অনুমোদন দিয়েছে আন্তর্জাতিক মোবাইল প্রযুক্তি ও পরিষেবার মান নির্ণায়ক সংস্থা থ্রিজিপিপি। 
বিশদ

29th  September, 2019
ক্যাম স্ক্যানারে ভাইরাস
প্লে-স্টোর থেকে সরাল গুগল

গ্রাহক সুরক্ষা ও নিরাপত্তার স্বার্থে জনপ্রিয় মোবাইল অ্যাপ ‘ক্যাম স্ক্যানার’কে নিজেদের অ্যান্ড্রয়েড প্লে-স্টোর থেকে সরিয়ে দিল তথ্যপ্রযুক্তি জায়ান্ট গুগল। অ্যাপটিতে ভয়ঙ্কর ‘ট্রোজান’ ভাইরাস মিলতেই এই পদক্ষেপ বলে জানা গিয়েছে। ‘ক্যাম স্ক্যানার’-এর লেটেস্ট ভার্সানে এই ভাইরাস মিলেছে।
বিশদ

08th  September, 2019
ভুয়ো অ্যাপ চেনার উপায়

 প্লে-স্টোর থেকে ক্যাম স্ক্যানারের মতো জনপ্রিয় অ্যাপ গুগল সরিয়ে ফেলতেই অ্যাপ ব্যবহারকারী তথা টেকপ্রেমীদের মধ্যে নতুন করে সংশয় জেগেছে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করছে, কোন অ্যাপ আসল? কোন অ্যাপ ব্যবহার করলে সুরক্ষিত থাকবে ব্যক্তিগত গোপন নথি? কেন না, বর্তমান প্রযুক্তি-যুদ্ধে যে দেশের কাছে যত বেশি তথ্য রয়েছে, সেই দেশ তত বেশি শক্তিশালী।
বিশদ

08th  September, 2019
 কৃষ্ণগহ্বরের ছবি তুলে বিজ্ঞানে অস্কার

  ইতিহাস গড়ে ৫ কোটি ৫০ লক্ষ আলোকবর্ষ দূরে (ম্যাসিয়ার ৮৭-গ্যালাক্সির কেন্দ্রে) অবস্থিত কৃষ্ণগহ্বর (ব্ল্যাকহোল)-এর ছবি তুলেছিলেন একদল বিজ্ঞানী। সেই বেনজির কৃতিত্বের জন্য ফান্ডামেন্টাল ফিজিক্সে ব্রেকথ্রু পুরস্কারে সম্মানিত হতে চলেছেন তাঁরা। পোশাকি নাম ‘অস্কার অব সায়েন্স’ বা বিজ্ঞানের অস্কার।
বিশদ

08th  September, 2019
 ইসরোর আরও
১০টি সা ফ ল্য

  ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা বা ইসরো বিগত কয়েক দশকে প্রচুর সাফল্য পেয়েছে, যা দেশবাসীকে গর্বিত করেছে। আজ থেকে পাঁচ দশক আগে ১৯৬৯ সালে যাত্রা শুরু করে মহাকাশ গবেষণায় তাবৎ দেশের সঙ্গে টেক্কা দিচ্ছে ভারত। যে কারণে গোটা বিশ্ব এখন ভারতের সাফল্যকে কুর্ণিশ জানাচ্ছে। একনজরে ইসরো সাফল্য: বিশদ

08th  September, 2019
একনজরে
বিড, ২০ অক্টোবর (পিটিআই): নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে তুতো বোন তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী পঙ্কজা মুণ্ডের বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য করে ইতিমধ্যে বিতর্কে জড়িয়েছেন এনসিপি নেতা ধনঞ্জয় মুণ্ডে। এবার ধনঞ্জয়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল পুলিস। যদিও এনসিপি নেতা দাবি করেন, তাঁর মন্তব্য ‘বিকৃত’ ...

পাপ্পা গুহ, উলুবেড়িয়া: দুর্গাপুজোর পর এবার কালীপুজো। আর এই কালীপুজোতে অতিরিক্ত উপার্জনের আশায় বুক বাঁধতে শুরু করেছেন রাজ্যের জবা ফুলচাষীরা। কালীপুজোয় জবার চাহিদার কথা মাথায় ...

সংবাদদাতা, ময়নাগুড়ি: দীপাবলির আলোর উৎসবের মাঝে যাতে কোনও ধরনের অশান্তির সৃষ্টি কিংবা শান্তিশৃঙ্খলা বিঘ্নিত না হয় সেজন্য ময়নাগুড়ি থানার পুলিস বেশ কিছু উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।  ...

তুরিন, ২০ অক্টোবর: ইউরো কাপের যোগ্যতা বাছাই পর্বে টানা দুই ম্যাচে গোল পাওয়া ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ক্লাবের হয়েও বজায় রাখলেন দুরন্ত ফর্ম। সিরি-এ’তে শনিবার রাতে তাঁর ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীরা শুভ ফল লাভ করবে। মাঝে মাঝে হঠকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায় ক্ষতি হতে পারে। নতুন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮০৫: ত্রাফালগারের যুদ্ধে ভাইস অ্যাডমিরাল লর্ড নেলসনের নেতৃত্বে ব্রিটিশ নৌবাহিনীর কাছে পরাজিত হয় নেপোলিয়ানের বাহিনী
১৮৩৩: ডিনামাইট ও নোবেল পুরস্কারের প্রবর্তক সুইডিশ আলফ্রেড নোবেলের জন্ম
১৮৫৪: ক্রিমিয়ার যুদ্ধে পাঠানো হয় ফ্লোরেন্স নাইটেঙ্গলের নেতৃত্বে ৩৮ জন নার্সের একটি দল
১৯৩১: অভিনেতা শাম্মি কাপুরের জন্ম
১৯৪০: আর্নেস্ট হেমিংওয়ের প্রথম উপন্যাস ফর হুম দ্য বেল টোলস-এর প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয়
১৯৪৩: সিঙ্গাপুরে আজাদ হিন্দ ফৌজ গঠন করলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু
১৯৬৭: ভিয়েতনামের যুদ্ধের প্রতিবাদে আমেরিকার ওয়াশিংটনে এক লক্ষ মানুষের বিক্ষোভ হয়
২০১২: পরিচালক ও প্রযোজক যশ চোপড়ার মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৩৪ টাকা ৭২.০৪ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৮৬ টাকা ৯৩.১৫ টাকা
ইউরো ৭৭.৭৩ টাকা ৮০.৬৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  October, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৯২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৯৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৪৮৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,৬৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৭৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
20th  October, 2019

দিন পঞ্জিকা

২ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ষষ্ঠী ৪/৩৯ দিবা ৭/৩০। আর্দ্রা ৩০/৩৪ সন্ধ্যা ৫/৫২। সূ উ ৫/৩৮/৩৫, অ ৫/৪/৩৯, অমৃতযোগ দিবা ৬/২৫ গতে ৮/৪২ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৪৫ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩৫ গতে ৯/১৬ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৭ গতে ১/২৮ মধ্যে পুনঃ ২/১৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৯/৫৬ গতে ১২/৪৭ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৬ গতে ২/৩০ মধ্যে।
২ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, সপ্তমী ৫৩/৪/১৩ রাত্রি ২/৫২/৫২। আর্দ্রা ২৪/৪১/৫৯ দিবা ৩/৩১/৫৯, সূ উ ৫/৩৯/১১, অ ৫/৫/৫১, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩২ গতে ৮/৪৫ মধ্যে ও ১১/৪২ গতে ২/৪০ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৮ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১১/৪৬ গতে ১/২৯ মধ্যে ও ২/২১ গতে ৫/৪০ মধ্যে, বারবেলা ৯/৫৬/৪১ গতে ১১/২২/৩১ মধ্যে, কালবেলা ১১/২২/৩১ গতে ১২/৪৮/২১ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৬/৪১ গতে ২/৩০/৫১ মধ্যে।
২০ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নানুরে বিজেপি সমর্থকের মাকে গুলি করে খুন 
বীরভূমের নানুরে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে প্রাণ গেল বিজেপি সমর্থকের মায়ের। গুলিবিদ্ধ ...বিশদ

04:55:03 PM

মোবাইল ফোন হারিয়ে ফেলায় বকুনি, নদীয়ার ভীমপুরে আত্মঘাতী কিশোরী 

04:39:00 PM

কোচবিহারে পাতলাখাওয়ায় মৃত তৃণমূল কর্মীর পরিজনদের সঙ্গে দেখা করলেন সুব্রত বক্সি 

04:34:00 PM

শান্তিপুরে বাড়িতে ভূতের অপবাদ দিয়ে মারধর 
বাড়িতে ভূত রয়েছে এমন অপবাদ দিয়ে বেশ কয়েকটি পরিবারের উপর ...বিশদ

04:29:00 PM

সম্পাদক শুভা দত্ত প্রয়াত 
প্রয়াত বর্তমান সংবাদপত্রের সম্পাদক শুভা দত্ত। সোমবার, ২১ অক্টোবর সকাল ...বিশদ

01:39:53 PM

বিধানসভা নির্বাচন: মুম্বইতে স্ত্রী ও পুত্রকে সঙ্গে নিয়ে ভোট দিলেন শচীন তেন্ডুলকর 

12:26:00 PM