Bartaman Patrika
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
 

বদলে গেল কিলোগ্রাম বুঝে নিন নতুন ওজন

সৌম্য নিয়োগী: ২০ মে, ২০১৯। বিজ্ঞানের ইতিহাসে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিন। কারণ, গত ১৩০ বছর ধরে প্রচলিত ওজনের একক কিলোগ্রামের (কেজি) সংজ্ঞা বদল কার্যকর হয়েছে এই দিন থেকে। ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে ফ্রান্সের ভার্সাইতে ওজন ও পরিমাপ বিষয়ক এক সম্মেলনে বিজ্ঞানীরা কিলোগ্রামের সংজ্ঞা পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। ২০ মে বিশ্ব পরিমাপ বিজ্ঞান দিবসে (ওয়ার্ল্ড মেট্রোলজি ডে) এই নতুন সংজ্ঞা কার্যকর হল। ১৮৭৫ সালে এই দিনেই ১৭টি দেশের প্রতিনিধিরা ওজন ও পরিমাপ সংক্রান্ত একক চালুর লক্ষ্যে ‘মিটার কনভেনশেন’ স্বাক্ষর করেছিলেন। এ বছর সেই দিনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির হান্টিংটন হলে কিলোগ্রাম, অ্যাম্পিয়ার (বিদ্যুৎ পরিমাপক একক), কেলভিন (তাপ পরিমাপক একক), মোল (পদার্থ পরিমাপক একক) ইত্যাদি এককের নতুন সংজ্ঞা দিয়েছেন নোবেলজয়ী পদার্থবিদ উলফগ্যাং কেটের্লে। সমস্ত এসআই এককগুলির (ইন্টারন্যাশনাল সিস্টেম অব ইউনিট) সংজ্ঞা আরও নিখুঁত করে তুলেছেন বিজ্ঞানীরা। আগামীদিনে পাঠ্যবইতে সেই সংজ্ঞাই আমাদের পড়তে হবে।
ভর ও ওজনের পার্থক্য
কিলোগ্রামের সংজ্ঞা বদল সম্পর্কে জানতে গেলে আমাদের প্রথমেই যে বিষয়টি মাথায় রাখা প্রয়োজন, তা হল ভর ও ওজনের পার্থক্য। দৈনন্দিন জীবনে কিন্তু আমরা ওজন বলতে ভরকেই বোঝাই। আসলে প্রত্যেক বস্তু পদার্থ দ্বারা গঠিত। ভর হল কোনও বস্তুতে থাকা সেই পদার্থের পরিমাণ। কোনও বস্তুর ভর বস্তুর অবস্থান, আকৃতি বা গতি পরিবর্তনের জন্য পরিবর্তিত হয় না। ভরের আন্তর্জাতিক একক হল কিলোগ্রাম (কেজি)। এর মানে, যখন আমরা বলি কোনও জিনিসের ওজন ৮০ কেজি, তা আসলে সেই জিনিসের ভর।
আর কোনও বস্তুকে পৃথিবী যে বল দ্বারা নিজের কেন্দ্রের দিকে আকর্ষণ করে, তাকে ওই বস্তুর ওজন বলে। পদার্থবিজ্ঞানের ভাষায় বললে, কোনও বস্তুর ভর m এবং পৃথিবীর কোনও স্থানে অভিকর্ষজ ত্বরণ g হলে, ওই স্থানে বস্তুটির ওজন W হবে, W = mg। ওজন একটি বল হওয়ায় বলের একক নিউটনই ওজনের একক। ভর ও ওজন সমানুপাতিক, মানে বস্তুর ভর বেশি হলে ওজনও বেশি হয়। এসআই-এর অনুসারে এক কেজি হল ১৩০ বছরের পুরনো প্লাটিনাম-ইরিডিয়ামের একটি নির্দিষ্ট সিলিন্ডারের ভর। এই সবটাই আমরা পাঠ্যবইতে পড়ে থাকি। কিন্তু বাস্তব জীবনে অনেকেই বিষয়টি মাথায় রাখি না।
এতদিন কিলোগ্রাম যেভাবে
নির্ণয় হতো
কাচের একটা জার, তার ভেতর আর একটু ছোট জার, তারও ভেতর আরও খানিকটা ছোট জার এবং তার ভেতর ধাতব একটা ‘পি’। ফ্রান্সের সেভারে ‘ইন্টারন্যাশনাল বুরো অফ ওয়েটস অ্যান্ড মেজার্স’ এর ভল্টে রাখা আছে এই ইন্টারন্যাশনাল প্রোটোটাইপ কিলোগ্রাম বা ‘আইপিকে’। যা আসল কেজি বা ভর মাপার একক। ফ্রান্সে একে ‘ল্য গ্রঁদ কে’ বলা হয়।
পৃথিবীর সব জায়গায় মাপজোকের এই সমতা আদতে ফরাসি বিপ্লবের অবদান। রক্তক্ষয়ী ওই অভ্যুত্থানের আশীর্বাদ মেট্রিক মাপ-জোক। প্লাটিনামের তৈরি একটা দণ্ড হল মিটার, আর একটা পিণ্ড হল কিলোগ্রাম। ১৭৯৯ সালে কিলোগ্রামের ‘পি’-টা ছিল কেবল প্লাটিনামের। ৯০ বছর পরে যখন তৈরি হল আইফেল টাওয়ার, তার পরে মাপ-জোক বিজ্ঞানীদের প্রথম সম্মেলনে এল নতুন কিলোগ্রাম। ফরাসি বিপ্লবের পর ১৮৮৯ সালে তা পাল্টে প্লাটিনাম-ইরিডিয়াম সঙ্কর ধাতু দিয়ে গড়া হয়। লন্ডনে তৈরির পরে প্লাটিনাম-ইরিডিয়ামের ওই সিলিন্ডার পাঠানো হয় প্যারিসে। দেশে দেশে যার অনুকরণে তৈরি হয়েছে অনুরূপ বাটখারা। ভারতেও দিল্লিতে ‘ন্যাশনাল ফিজিক্যাল ল্যাবরেটরি’-তে রাখা আছে ‘ল্য গ্রঁদ কে’-র প্রতিলিপি। যার নকল বাটখারা রয়েছে দেশের বাজারে।
গত বছর ১৬ নভেম্বর ফ্রান্সেরই ভার্সাইয়ের সম্মেলনে পরিমাপ-বিজ্ঞানীদের ভোটাভুটিতে সেই মর্যাদা হারিয়েছে প্লাটিনাম-ইরিডিয়ামের ধাতব টুকরোটা। ঐতিহাসিক এই ভোটে ৬০ সদস্য রাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। তবে কিলোগ্রামের ধারণাতেই কেবল বদল এসেছে। পরিমাণে বা বাটখারায় কোনও বদল হয়নি। নতুন কিলোগ্রাম এখন ‘প্রাকৃতিক মাপকাঠি’তে মাপা হবে। কারণ, ভর তো পরিবর্তন হয় না।
কেন এই পরিবর্তন
‘ল্য গ্রঁদ কে’ পি-টা যেন কোনওভাবে ধুলোবালির সংস্পর্শে না আসে, সে জন্য সেটিকে ওরকম ত্রিস্তরীয় জারে পুরে রাখা হতো। এমন সাবধানে তাকে নাড়াচাড়া করতে হয় যে, রক্ষণাবেক্ষণ যাঁরা করেন, এর সামনে তাঁদের হাঁচি-কাশিও বারণ। কয়েক দশক অন্তর সেটিকে বাইরে এনে পরীক্ষা করে দেখা হতো। কিন্তু দীর্ঘদিনের ব্যবধানে দেখা গেছে কিছুটা ভর হারিয়েছে ধাতব সিলিন্ডারটা। ক্ষয়ে যাচ্ছে সেটি। পদার্থবিদরা বলছেন, প্লাটিনামের ওজন সবসময় এক থাকে না। নানা কারণে একটি ওজন পরিবর্তিত হয়। যদিও এই পরিবর্তন খুবই সূক্ষ্ম। তা হলে উপায়?
কৃত্রিম থেকে ফের প্রাকৃতিক মানদণ্ড
অন্যান্য মেট্রিক এককের মতো কিলোগ্রাম কিন্তু আগে প্রাকৃতিক মানদণ্ডেই মাপা হতো। হিমাঙ্কে (শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস) এক লিটার বিশুদ্ধ জলের ভরকে বলা হতো এক কিলোগ্রাম। মিটারও ছিল প্রাকৃতিক একটা মানদণ্ড। এরপর কৃত্রিম মাপকাঠি ‘ল্য গ্রঁদ কে’-ই কিলোগ্রামের মাপকাঠি ধরা। এখন আবার তা বদলে প্রাকৃতিক মাপকাঠিতেই ফিরল বিশ্ব। বিজ্ঞানীরা দীর্ঘদিন ধরে এই সমাধানের কথা ভেবেছেন। প্রকৃতি নিখুঁত, তাই তার সাহায্যে মাপজোক হবে ত্রুটিহীন। মাপ তো শুধু ওজনের নয়, দৈর্ঘ্যের, সময়ের, আরও নানা বিষয়ের। যেমন মিটার। আলো শূন্যস্থানের মধ্যে দিয়ে দৌড়য় এক সেকেন্ডে ২৯৯,৭৯২,৪৫৮ মিটার। তা হলে মিটারের মাপও হবে আলো এক সেকেন্ডের ২৯৯,৭৯২,৪৫৮ ভাগের এক ভাগে যতটা দৌড়য়, ততটা।
নতুন মাপকাঠি কী
পদার্থ বিজ্ঞানের সূত্রের সাথে সামঞ্জস্য রাখতে কিলোগ্রামের সংজ্ঞা বদল করা হচ্ছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, তড়িৎ–চুম্বক শক্তির মাধ্যমে কোনও বস্তুকে ওঠানো বা নামানো যায়। কাজেই ওজনের সঙ্গে বিদ্যুতের সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে। প্রয়াত নোবেলজয়ী জার্মান পদার্থবিজ্ঞানী মাক্স প্ল্যাঙ্কের নামাঙ্কিত একটা ধ্রুবক এক্ষেত্রে মূল ভূমিকা রাখছে। প্ল্যাঙ্কের ধ্রুবক (এইচ) মূলত একটা আলোর শক্তি আর কম্পাঙ্কের সম্পর্ককে ব্যাখ্যা করে। এতে ওজন, দূরত্ব ও সময় পরস্পর সম্পর্কিত। এর মান অত্যন্ত ছোট। শূন্য দশমিকের পরে ৩৩টা শূন্য বসিয়ে ৬৬২৬০৭০১৫ বসালে যত হয়, তত কিলোগ্রাম বর্গমিটার/সেকেন্ড। এই যে ধ্রুবকটার ভেতর কিলোগ্রাম রয়েছে, ফলে এখান থেকে কিলোগ্রামের নিখুঁত মাপ পাওয়া যায়। ব্রিটিশ বিজ্ঞানী ব্রায়ান কিবল সুপার অ্যাকুরেট সেট অব স্কেল উদ্ভাবন করে গিয়েছেন। এর মাধ্যমে প্ল্যাঙ্কের ধ্রুবকের মান অত্যন্ত নিখুঁত ভাবে পরিমাপ করা সম্ভব। এখানে ভুলের সম্ভাবনা দশ কোটি ভাগের এক ভাগ। তবে এর পিছনে আইনস্টাইনের শক্তি ও ভরের নিত্যতা সূত্রের (E=mc2) অবদান অনস্বীকার্য।
নোবেল জয়ী পদার্থবিদ কেটের্লে গণনা করে দেখিয়েছেন, নির্দিষ্ট কিছু সংখ্যক ফোটন কণার ভর এক কিলোগ্রামের সমান বলা যায়। অতএব এর মাধ্যমে সংজ্ঞা তৈরি হলে তা নিখুঁত হবে। কেটের্লের গণনায় দেখা গিয়েছে, সিজিয়াম পরমাণুর একটি নির্দিষ্ট তরঙ্গদৈর্ঘ্যের ১.৪৭৫৫২১৪ X ১০৪০ – এতগুলি ফোটনের ভর এক কিলোগ্রাম। সাধারণের দৈনন্দিন ওজন মাপামাপিতে পরিবর্তন না এলেও এর ফলে ওষুধ শিল্প, ন্যানো টেকনোলজি ও ধাতব সংমিশ্রণে যুগান্তকারী পরিবর্তন আসবে।
কিবল্ ব্যালেন্স কী
১৯৯০ সালে কিলোগ্রামের নতুন সংজ্ঞা নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে উঠেছিল। একদল বিজ্ঞানী বলেন, সিলিকন পরমাণুর ভর দিয়ে কিলোগ্রামের সংজ্ঞা দেওয়া সম্ভব। তাঁদের মতে, এক কেজি ভরের অতি বিশুদ্ধ সিলিকন-২৮-এর (সিলিকনের এই আইসোটোপটি প্রকৃতিতে সবচেয়ে বেশি পরিমাণে পাওয়া যায়, যার মধ্যে ১৪টি প্রোটন ও ১৪টি নিউট্রন আছে) সাহায্যে ভর পরিমাপ করা সম্ভব। কিন্তু ১৯৯৯ সালে কিবল্‌ ব্যালেন্স (kibble balance) ব্যবহার করে ভর মাপতে সক্ষম হলেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেকনোলজির (এনআইএসটি) দুই বিজ্ঞানী পিটার মোর এবং ব্যারি টেলর।
কিবল্‌ ব্যালেন্স অত্যন্ত জটিল একটি তুলাযন্ত্র। যা তড়িৎ-চুম্বকীয় মাপন পদ্ধতিতে ভরকে অত্যন্ত নিখুঁতভাবে মাপতে পারে! ন্যাশনাল ফিজিক্স ল্যাবরেটরি তথা এনপিএল-এর বিজ্ঞানী ব্রিটিশ পদার্থবিদ ব্রায়ান কিবল্‌ ১৯৮৫ সালে এই অতি সংবেদনশীল যন্ত্রটি তৈরি করেন। তাঁর নামানুসারেই এর নাম কিবল্‌ ব্যালেন্স। ১৯৯৯ সালে এনপিএল এবং এনআইএসটি-র বিজ্ঞানীরা কিবল্‌ তুলাযন্ত্র ব্যবহার করে প্লাঙ্কের ধ্রুবকের মান নিখুঁত ভাবে মাপতে উঠে পড়ে লাগলেন এবং সেই কাজে সক্ষম হলেন।
কে কী বলছেন
আন্তর্জাতিক ভর ও পরিমাপ সংস্থার প্রাক্তন প্রধান টেরি কুইন বলেছেন, সম্ভবত পাঁচ হাজার বছর আগের মেসোপটেমিয়া সভ্যতা থেকে এক পাল্লায় একটা বাটখারা আর অপর পাল্লায় পণ্য রেখে মাপজোক করে আসছে। এ বছর থেকে এটা বদলে যাচ্ছে। আমি মনে করি, এটা অসাধাণ একটা ঘটনা। কিলোগ্রামের নতুন সংজ্ঞা প্রসঙ্গে নোবেলজয়ী বিজ্ঞানী উইলিয়াম ফিলিপস বলেছেন, ফরাসি বিপ্লবের পরে পরিমাপের জগতে এত বড় বিপ্লব আর হয়নি। ভাটনগর পুরস্কার জয়ী পদার্থবিদ অমিতাভ রায়চৌধুরী বলেন, ভরের একক হিসেবে আন্তর্জাতিক স্তরেই কিলোগ্রামকে গণ্য করা হয়। কিন্তু এক কিলোগ্রাম এখন যে ভাবে পরিমাপ করা হয়, তাতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। অতি সূক্ষ্ম গবেষণার ক্ষেত্রে তার কিছু প্রভাব থাকবে। দৈনন্দিন জীবনে প্রভাব পড়বে না। তবে এই নিয়ে সবচেয়ে বুদ্ধিদীপ্ত মন্তব্যটি সম্ভবত করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলোজির বিজ্ঞানী স্টিফেন স্খলামিঙ্গার। তিনি বলেছেন, ‘ধরুন যদি কোনওদিন কোনও বুদ্ধিমান ভিনগ্রহের প্রাণীর সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ হয়, আর যদি ওরা আমাদের জিজ্ঞেস করে যে আমরা জিনিসপত্র কীভাবে মাপি? উত্তরে আমরা যদি বলি, আমাদের হাতে তৈরি জিনিসের তুলনায় মাপামাপি করি, তা হলে ওরা আমাদের বোকা বলে ধরে নেবে। এত দিনে আমরা চালাক হলাম।’
কিলোগ্রামের সংজ্ঞা বদল হওয়ার বড় প্রভাব পড়বে পড়ুয়াদের উপর, এমনটাই মনে করছেন ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিস্টিক্যাল ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক শুভময় মৈত্র। তিনি বলেন, সিবিএসই-আইসিএসই বোর্ড হয়তো এই শিক্ষাবর্ষে, না হলে পরবর্তী শিক্ষাবর্ষ থেকে কিলোগ্রামের সংজ্ঞায় বদল এনে ফেলবে। কিন্তু, তার বাইরে দেশের বাকি বোর্ডগুলিকেও দ্রুত এই নতুন সংজ্ঞাকে পাঠক্রমে ঢোকাতে হবে। না হলে, পিছিয়ে পড়বে পড়ুয়ারা। বিষয়টি নিয়ে ভাবনা চিন্তা করছে রাজ্য শিক্ষা দপ্তরও।
কলকাতার প্রথম সারির দাঁড়িপাল্লা, বাটখারার দোকান উমাচরণ কর্মকার অ্যান্ড সন্স। সংস্থার মালিক সজল কর্মকার বলেন, এ নিয়ে ‘ওয়েটস অ্যান্ড মেজার্স’-এর থেকে আমরা কোনও নির্দেশিকা পাইনি। তা পেলে তবেই বুঝতে পারব, আমাদের কী করণীয়। আপাতত যেমন চলছিল, তেমনই চলবে।
বদলাতে চলেছে সময়ের এককও
সময়ের একক সেকেন্ডের সংজ্ঞা বদলেরও সময় এসে গিয়েছে। বর্তমানে সেকেন্ড মাপা হয় সিজিয়াম পরমাণু দিয়ে তৈরি ঘড়িতে। সিজিয়ামের পরমাণু নির্দিষ্ট কম্পাঙ্কের আলো শুষে নিয়ে নির্দিষ্ট সময় অন্তর তা তড়িৎ-চুম্বকীয় তরঙ্গ আকারে ছেড়ে দেয়। ঠিক যেমন আদর্শ অবস্থায় একটি পেন্ডুলাম নির্দিষ্ট সময় অন্তর বিশেষ একটি স্থানে পৌঁছায়। সিজিয়ামের ঘড়িতে আলোর ৯১৯,২৬,৩১,৭৭০ বার স্পন্দন বা দোলনকালকে এক সেকেন্ড ধরা হয়। কিন্তু পরবর্তী কালে তৈরি হওয়া ‘অপটিক্যাল অ্যাটমিক ক্লক’ অনেক বেশি নিখুঁত সময় দিচ্ছে।
কলোরাডোর বোল্ডারের ‘ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেকনোলজি’-র পদার্থবিদ অ্যান্ড্রু লাডলো জানিয়েছেন, এই ঘড়িতে কম্পাঙ্ক অনেক বেশি। ফলে ঘড়ির প্রতিটি ‘টিক’ অনেক কাছাকাছি। ফলে এই ঘড়িতে সিজিয়াম ঘড়ির চেয়ে ১০০ গুণ বেশি নিখুঁত ভাবে এক সেকেন্ডকে মাপা যাচ্ছে। তবে এই বদলের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি মিলতে মিলতে ২০২০ সালের শেষ হয়ে যেতে পারে। সেই ইতিহাসেরও সাক্ষী থাকব আমরা।
09th  June, 2019
পুরনো থেকে নতুন স্মার্টফোনে
ডেটা ট্রান্সফার করবেন কীভাবে?

বিলাসিতা, স্টাইল, স্টেটাস আর উন্নত প্রযুক্তি। ফল, পুরনো মোবাইল বদলে ফেলার হিড়িক। কিন্তু নতুন ফোন কিনলেই তো আর হবে না, পুরনো ফোনের ফেলে আসা যাবতীয় ডেটা বা তথ্য ‘ইনট্যাক্ট’ রাখতে হবে। অর্থাৎ, পুরনো মোবাইল থেকে সমস্ত ডেটা নতুন ফোনে ট্রান্সফার। 
বিশদ

09th  June, 2019
বিজ্ঞানীদের মজার কথা
কম কথার বিজ্ঞানী

বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকটা ছিল কোয়ান্টাম মেকানিক্সের যুগ। বহু বিশিষ্ট বিজ্ঞানীর আবির্ভাব ঘটেছিল সে সময়। এদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন পল ডির‌্যাক। পুরো নাম পল আদ্রিয়ান মরিস ডির‌্যাক। বিশদ

09th  June, 2019
অপবিজ্ঞানেই ছিল নিউটনের আকর্ষণ

স্যার আইজ্যাক নিউটনের নাম শোনেননি এরকম লোক বোধহয় সারা পৃথিবী খুঁজলেও পাওয়া যাবে না। পদার্থ বিজ্ঞানের বলবিদ্যা হোক বা মহাকর্ষ-অভিকর্ষ কিংবা আলোক বিজ্ঞান — সব কিছুতেই তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। অনেকে তো বলে থাকেন গণিতের কলনবিদ্যা বিষয়টিও তাঁরই সৃষ্টি, যদিও এ নিয়ে মতভেদ আছে।
বিশদ

12th  May, 2019
ট্রুকলার অ্যাপ থেকে কীভাবে মুছে ফেলবেন নিজের নাম? 

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের কাছে এই অ্যাপটি বর্তমানে অপরিহার্য হয়ে উঠেছে। কোনও অচেনা নম্বর থেকে ফোন এলে ট্রুকলারের মাধ্যমে অনায়াসেই সেই কলারের পরিচয় জেনে নেওয়া যায়। কোথাকার নম্বর, কার নাম ইত্যাদি জেনে নেওয়া যায় এই অ্যাপে। সবচেয়ে সুবিধা হয় কোনও অবাঞ্ছিত ফোন এলে।  
বিশদ

12th  May, 2019
অন্ধকারের উৎস হতে 
ডঃ দেবীপ্রসাদ দুয়ারী

কথায় আছে বাস্তব সত্য কল্পনার চেয়েও আশ্চর্য। তবে এক্ষেত্রে ঠিক কল্পনা নয়। ১৯১৫ সালে তাঁর সাধারণ আপেক্ষিকতাবাদ তত্ত্ব প্রকাশ করেন স্যার অ্যালবার্ট আইনস্টাইন। সেই তত্ত্ব অনুযায়ী, উঠে এল এমন একটি বিষয় যা কল্পবিজ্ঞান ছাড়া অন্য কিছু হতেই পারে না। 
বিশদ

12th  May, 2019
বাজার মাতাচ্ছে কোন
কোন ৬ জিবির মোবাইল

আমাদের কাছে মোবাইল এখন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। শুধুমাত্র ফোন করা নয় এখন গান শোনা, সিনেমা-টিভি দেখার পাশাপাশি গেমিংয়ের দুনিয়াতেও পা রেখেছে মোবাইল। বেশি অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করার ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই প্রয়োজন বেশি র‌্যাম এবং স্টোরেজের।
বিশদ

02nd  May, 2019
 বছরের সেরা পোর্টেবল ব্লুটুথ স্পিকার

 হেডফোনের সীমাবদ্ধতাকে অতিক্রম করে গান শোনার জন্য স্পিকার একটি চমৎকার সমাধান। দিনে দিনে প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে এইসমস্ত স্পিকারের মান ও গুণ। এগুলি যে কোনও পরিবেশ ও পরিস্থিতির জন্য মানানসই। স্পিকারের এই বিপুল সম্ভার থেকে গ্রাহকরা নিজের রুচি, চাহিদা, পছন্দ, এবং আগ্রহের উপর ভিত্তি করে যে কোনও একটি বেছে নিতে পারেন। সাম্প্রতিককালে বাজারে আসা এমনই কয়েকটি সেরা পোর্টেবল ব্লুটুথ স্পিকারের হাল-হকিকত দেওয়া হল আজকের প্রতিবেদনে।
বিশদ

14th  April, 2019
ধুলোঝড়েই মঙ্গলে ‘মৃত্যু’ অপরচুনিটির

বয়সের ভার ছিল গোটা যান্ত্রিক শরীরেই। কিন্তু, ধুলোঝড়টার সঙ্গে আর যুঝতে পারল না। ‘কথা’ বলার চেষ্টা করা হলেও জবাব আসেনি কোনও বার্তারই। শেষমেষ গত মাঝ ফেব্রুয়ারিতে দুঃসংবাদটা এল মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘নাসা’র পক্ষ থেকে। আনুষ্ঠানিকভাবে জানান হল, আর নেই ‘অপরচুনিটি’। মৃত্যু হয়েছে মঙ্গলযান রোভারটির।
বিশদ

14th  April, 2019
অ্যালিসা কার্সন এক স্বপ্নের নাম
মঙ্গলে মহিলা

সৌম্য নিয়োগী: ছেলেবেলায় প্রফেসর শঙ্কুর ডায়েরি, হলিউড সিনেমা বা কল্পবিজ্ঞানের গল্প পড়ে মহাকাশে যাওয়ার বাসনা কার না জন্মায়। বেড়ে উঠতেই তাঁদের অনেকেই বুঝে যান সেই স্বপ্নপূরণ অসম্ভব। তবু মায়াময় লাল গ্রহের হাতছানিকে উপেক্ষা করা দায়। হ্যাঁ, মঙ্গল গ্রহ। আকার-আকৃতিতে যার সঙ্গে পৃথিবীর অনেক সাদৃশ্য। একসময় এই গ্রহে জলের অস্তিত্ব ছিল বলেও ইতিমধ্যে দাবি করেছে নাসা।
বিশদ

14th  April, 2019
সস্তায় টেলিভিশনের সুলুক সন্ধান 

টিভি কিনবেন? কিন্তু দাম দেখে পকেটে ফোস্কা পড়ছে! আপনার বাজেট যদি কমবেশি ১৫ হাজার টাকা হয় তাহলে আপনার জন্য রইল সাধ্যের মধ্যে সেরা কিছু টিভি। 
বিশদ

31st  March, 2019
নিজের ছদ্মনাম ভুলে যেতেন বোর 

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অনেক লোকের মতো ডেনমার্কের বিখ্যাত বিজ্ঞানী নীলস বোর চলে এসেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। আমেরিকায় তখন চলছে ‘ম্যানহাটন প্রজেক্ট’। এই ম্যানহাটন প্রজেক্ট হল পরমাণু বোমা তৈরির গোপন প্রচেষ্টা। 
বিশদ

31st  March, 2019
প্রয়াত ক্যালকুলেটরের
আবিষ্কর্তা মেরিম্যান 

প্রয়াত বৈদ্যুতিন ক্যালকুলেটরের আবিষ্কর্তা জেরি মেরিম্যান। বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। তিন মাস ডালাসের এক হাসপাতালে ভর্তি থাকার পর সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে হৃদযন্ত্র ও কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন মেরিম্যান।
বিশদ

31st  March, 2019
৩০শে বিশ্বজাল
দেবজ্যোতি রায়

‘যা বেবি দৌড়ে যাবি শিখবি মাল্টিমিডিয়া/ গুবলু গাবলু স্বপ্নে পেল ডব্লু ডব্লু আইডিয়া/ ইমেলে যুক্ত হল হনুলুলু হলদিয়া/ দুনিয়া ডট কম দুনিয়া ডট কম দুনিয়া ডট কম...’
বিশদ

31st  March, 2019
সস্তার ইয়ারফোনের হদিশ

বোট ২২০: আপনি যদি জোরে গান শোনার পাশাপাশি দুর্দান্ত বেসও চান তাহলে বোট ২২০ আপনার জন্য পারফেক্ট ইয়ারফোন। এটির ওয়্যার বা তার ট্যাঙ্গেলড ফ্রি। ফলে সহজে ছিঁড়বে না। পাশাপাশি, মেটালিক ফিনিশ হওয়ায় সহজেই মন কাড়বে আপনার। ৩.৫ এমএম জ্যাক রয়েছে ইয়ারফোনটিতে। 
বিশদ

10th  March, 2019
একনজরে
  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রয়াত হয়েছেন শীলা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারপার্সন এমেরিটাস শীলা গৌতম। গত ৮ জুন তিনি পরলোক গমন করেন। ১৯৭১ সালে তিনি শীলা ফোম তৈরি করেন, যা ক্রমশ সফল ব্যবসায় পরিণত হয়েছে। পাশাপাশি তিনি ছিলেন একজন বিচক্ষণ রাজনীতিক। ...

সংবাদদাতা, ময়নাগুড়ি: জলপাইগুড়ি কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা মৎস্য চাষিদের তেলাপিয়া মাছের চাষ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন। কিন্তু কেন বিজ্ঞানীরা এই মাছের চাষ থেকে চাষিদের বিরত থাকতে বলছেন?  ...

 পবিত্র ত্রিবেদি, কলকাতা: বর্ষায় জল জমার দুর্ভোগ থেকে এবারও রেহাই মিলছে না বিধাননগর পুরসভা এলাকার বিভিন্ন জায়গার বাসিন্দাদের। সল্টলেকে জল না জমলেও বিধাননগর পুরসভার বাকি অংশে এই সমস্যা এলাকাবাসীর যন্ত্রণার কারণ হয়। ...

গ্রেম স্মিথ : অস্ট্রেলিয়া দলের প্রধান অস্ত্র পেস বোলিং। ওভালে ভারতের বিরুদ্ধে মন্থর, ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে অজিদের এই অস্ত্র কাজ করেনি। অন্য ম্যাচে ভয়ঙ্কর মূর্তিতে আবির্ভূত হলেও মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিন্সের মতো বোলাররা ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের উপর বিন্দুমাত্র ত্রাসের সঞ্চার করতে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে শুভ। যোগাযোগ রক্ষা করে চললে কর্মলাভের সম্ভাবনা। ব্যবসা শুরু করলে ভালোই হবে। উচ্চতর ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব শিশু শ্রমিক বিরোধী দিবস,
১৯২৯- লেখিকা অ্যান ফ্রাঙ্কের জন্ম,
১৯৫৭- পাকিস্তানের ক্রিকেটার জাভেদ মিঁয়াদাদের জন্ম,
২০০৩- মার্কিন অভিনেতা গ্রেগরি পেকের মৃত্যু 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৬৯ টাকা ৭০.৩৮ টাকা
পাউন্ড ৮৬.৫৮ টাকা ৮৯.৮০ টাকা
ইউরো ৭৭.২১ টাকা ৮০.১৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৯১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,২৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৭০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬,৬৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬,৭৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১২ জুন ২০১৯, বুধবার, দশমী ৩৩/৫০ সন্ধ্যা ৬/২৭। হস্তা ১৭/১৯ দিবা ১১/৫১। সূ উ ৪/৫৫/২০, অ ৬/১৭/৬, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৫ গতে ১১/১০ মধ্যে পুনঃ ১/৪৯ গতে ৫/২৩ মধ্যে। রাত্রি ৯/৫০ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৭ গতে ১/১২ মধ্যে, বারবেলা ৮/১৬ গতে ৯/৫৬ মধ্যে পুনঃ ১১/৩৬ গতে ১/১৬ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৬ গতে ৩/৩৬ মধ্যে। 
২৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১২ জুন ২০১৯, বুধবার, দশমী ৩৫/৫৪/৩৯ রাত্রি ৭/১৭/২৫। হস্তানক্ষত্র ২০/৪৩/৩৩ দিবা ১/১২/৫৮, সূ উ ৪/৫৫/৩৩, অ ৬/১৮/৫১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৮ গতে ১১/১৩ মধ্যে ও ১/৫৪ গতে ৫/২৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫৪ মধ্যে ও ১২/১ গতে ১/২৫ মধ্যে, বারবেলা ১১/৩৭/১২ গতে ১/১৭/৩৭ মধ্যে, কালবেলা ৮/১৬/২২ গতে ৯/৫৬/৪৭ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৬/২৩ গতে ৩/৩৫/৫৭ মধ্যে। 
৮ শওয়াল 
এই মুহূর্তে
বিশ্বকাপ: ৪১ রানে পাকিস্তানকে হারাল অস্ট্রেলিয়া 

10:35:44 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ২৩০/৭(৪০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮) 

10:03:16 PM

 বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ১৬০/৬(৩০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮)

09:20:41 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ১১০/২(২০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮)

08:34:26 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ৫১/১(১০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮)

07:52:25 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তানকে ৩০৮ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া 

06:45:03 PM