Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 
 

অরণ্য দিবস উপলক্ষে সুন্দরবন অঞ্চলে পাঁচ কোটি ম্যানগ্রোভ লাগানোর প্রকল্পের সূচনা হল। মঙ্গলবার তোলা নিজস্ব চিত্র। 

বাঁকুড়ায় পতিত জমিতে ডাল ও সর্ষে চাষে জোর 

বিএনএ, বাঁকুড়া: অনাবৃষ্টির কারণে বাঁকুড়া জেলায় এবার প্রায় ৩০ শতাংশ জমিতে আমন চাষ করতে পারেননি কৃষকরা। তাই আমনের ক্ষতি পোষাতে জেলায় সরকারি সাহায্যে প্রায় ৩৯ হাজার হেক্টর জমিতে ডাল ও তৈল চাষের উদ্যোগ নিয়েছে কৃষি দপ্তর। এজন্য ইতিমধ্যেই ব্লক কৃষি দপ্তর থেকে বিভিন্ন ধরনের তৈলবীজ ও ডাল শস্যের বীজ এবং অনুখাদ্য বিলির কাজ শুরু করেছে কৃষি দপ্তর। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই বীজ বিলির প্রক্রিয়া শেষ করতে চায় প্রশাসন।
এরমধ্যে ২৫ হাজার ৪৬৬ হেক্টর জমিতে সর্ষে, ৫ হাজার ৩০০ হেক্টরে মসুর, ২ হাজার ৬৬ একর জমিতে ছোলা, ৩ হাজার হেক্টরে খেসারি, ১ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে মুগ, ২৫০ হেক্টর করে জমিতে তিল ও সূর্যমুখী চাষের পরিকল্পনা নিয়েছে। তবে বীজ বণ্টনের প্রক্রিয়া শুরু হতেই বিভিন্ন ব্লকে সরকারি সুবিধা প্রাপকদের তালিকা নিয়ে চাষিদের মধ্যে ক্ষোভ দানা বাঁধতে শুরু করেছে।
বাঁকুড়া জেলা কৃষি দপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর সুশান্ত মহাপাত্র বলেন, বৃষ্টিপাত কম হয় এবার জেলায় আমনের চাষ কিছুটা মার খেয়েছে। চাষিদের লোকসান মেটাতে এবার জেলায় ডাল শস্য চাষের উপর বাড়তি জোর দেওয়া হচ্ছে। চাষিদের উৎসাহিত করতে কৃষি দপ্তর থেকে বীজ, অনুখাদ্য, সার ও কীটনাশক দেওয়া হচ্ছে।
জেলা কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, চলতি বছরে শুরুর দিকে প্রয়োজনের তুলনায় বৃষ্টি কম হওয়ায় প্রায় ১ লক্ষ ১০ হাজার হেক্টর জমিতে আমনের চাষ করা সম্ভব হয়নি। তাই বিকল্প চাষ হিসেবে জেলায় এবার রবি শস্য তৈলবীজ ও ডাল শস্য চাষের উপর জোর দিচ্ছে। জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পের মাধ্যমে চাষিদের সুবিধা প্রদানের পাশাপাশি টার্গেট রাইস ফেলো এরিয়া প্রকল্পতে ডাল ও তৈল বীজ চাষের পাশাপাশি কারণে রাজ্যের বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে চাষিদের বীজ ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী দেবে কৃষি দপ্তর।
জেলা কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পে ১০০হেক্টর জমিতে মসুর, ২০০হেক্টর জমিতে সর্ষে, ২৫০ হেক্টর জমিতে সূর্যমুখী এবং ২৫০ হেক্টর জমিতে তিল চাষের লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। এছাড়াও টার্গেট রাইস ফেলো এরিয়া প্রকল্পে ৪হাজার হেক্টর জমিতে মসুর কলাই, ৩ হাজার হেক্টর জমিতে খেসারি, ১৭০০ জমিতে মুগ, ৫০০ হেক্টর জমিতে সর্ষে ও এক হাজার হেক্টর জমিতে ছোলা চাষের উদ্যোগ নিয়েছে। এই দুই প্রকল্পে চাষিদের বীজের সঙ্গে সঙ্গে অনুখাদ্য ও প্রয়োজনীয় ওষুধ দেবে কৃষি দপ্তর। অনাবৃষ্টির কারণে এবার জেলায় ২০ হাজার ২৬৬ হেক্টর জমিতে সর্ষে, ১ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে ছোলা ও হাজার হেক্টর জমিতে মসুর চাষের উদ্যোগ নিয়েছে।
অনাবৃষ্টির কারণে রাজ্য সরকারের দেওয়া বিশেষ প্যাকেজে মূলত সদর মহকুমার শালতোড়া, ছাতনা, মেজিয়া, বড়জোড়া, ওন্দা, বাঁকুড়া ১ ও ২ ব্লক এবং খাতড়া মহকুমার হীড়বাঁধ, তালডাংরা, সারেঙ্গা, সিমলাপাল, রাইপুর, রানিবাঁধ, খাতড়া ব্লকে জোর দেওয়া হবে। এজন্য ইতিমধ্যেই প্রয়োজনীয় সমস্ত ধরনের বীজ ও সার জেলায় এসে গিয়েছে।
শুধু তাই নয়, ব্লক ভিত্তিক চাষিদের বীভিন্ন তৈলবীজ ও ডালের বীজ বণ্টন শুরু হয়েছে। জেলাজুড়ে গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে পাওয়া নামের তালিকা অনুযায়ী বীজ অনুখাদ্য বণ্টনের কাজ জোর কদমে চলছে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই কাজ সম্পূর্ণ শেষ করতে চায় জেলা কৃষি দপ্তর। তবে এই বীজ ও চাষের সামগ্রী বণ্টন নিয়ে ইতিমধ্যেই রাইপুর, ছাতনা, ইন্দপুর ও রানিবাঁধ ব্লকে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলছেন স্থানীয় চাষিদের একাংশ। বুধবার রানিবাঁধ ব্লক কৃষি দপ্তরে তা নিয়ে বিক্ষোভও দেখান স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ। তাঁদের দাবি, ব্লকের জন্য পাঁচ হাজার সর্ষে বীজের প্যাকেট এলেও তা কিসের ভিত্তিতে কাদের বিলি করা হয়েছে তা দপ্তরের আধিকারিকরাই জানেন। তবে এলাকার অধিকাংশ চাষিই সরকারি বীজ ও অন্যান্য উপকরণ পাননি। শুধু তাই নয়, যে সমস্ত চাষিকে কৃষি দপ্তর বীজ দিয়েছে তাঁদের একাংশও ক্ষুব্ধ।
সব্যসাচী মাহাত নামে সারেঙ্গার এক চাষি বলেন, আমার বাড়ির পাশে যে জমিতে ডালশস্য চাষের জন্য আবেদন করেছি, তা মুগ কলাই চাষের উপযোগী। কিন্তু, কৃষিদপ্তর আমাকে সর্ষের বীজ দিয়েছে। সর্ষে চাষের উপযোগী জমি আমার নিজের নেই। তাই সরকারি বীজ পাওয়ার পর চাষের জন্য হন্যে হয়ে অন্যের জমি খুঁজতে হচ্ছে।
 

08th  November, 2019
লাগানো হবে দেড় লক্ষ চারা
বাঁকুড়ায় ৪২৫ হেক্টর পতিত জমিতে তৈরি করা হবে ফলের বাগান 

অরূপ ভট্টাচার্য, বাঁকুড়া: গত কয়েক বছরে বাঁকুড়া জেলায় আম, মোসাম্বি, পেয়ারা, বেদানা ও কুলের চাষ করে লাভের মুখ দেখেছেন চাষিরা। তাই বর্ষার মরশুমে জেলায় চাষের অযোগ্য ৪২৫ হেক্টর পতিত জমিতে প্রায় দেড় লক্ষ চারা লাগিয়ে ফলের বাগান তৈরি করবে জেলা প্রশাসন। 
বিশদ

কেঁচো সার তৈরি করে বিক্রি করবে মন্তেশ্বরের পিপলন পঞ্চায়েত 

অনিমেষ মণ্ডল, পূর্বস্থলী: মন্তেশ্বরের পিপলন পঞ্চায়েতের উদ্যোগে চলছে ভার্মি কম্পোষ্ট বা কেঁচো সার তৈরির প্রস্তুতি। প্রতি মাসে ১০ টন সার তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে ব্লকের প্রতিটি পঞ্চায়েতকে ওই সার বিক্রি করা হবে বলে ব্লক প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। 
বিশদ

ঘুরে দাঁড়াতে জৈব পদ্ধতিতে ভরসা রাখছেন পান চাষিরা 

নবজ্যোতি সরকার: উম-পুন ঘূর্ণিঝড়ে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দক্ষিণ সুন্দরবন এলাকার পান চাষ। দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ, নামখানা, পাথরপ্রতিমা ও সাগরদ্বীপের হাজার হাজার পান বরজ নষ্ট হয়ে গিয়েছে। 
বিশদ

বর্ষায় মাছচাষে সতর্কতা জরুরি, বলছেন বিশেষজ্ঞরা 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায় : বর্ষা চলছে। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এই সময় মাছ চাষিদের বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। কারণ, বর্ষায় মাছের বিভিন্ন রোগ ও সমস্যা দেখা দেয়। তাছাড়া পুকুরে নতুন মাছ ছাড়ার সময় এখন। ফলে এই সময় বাড়তি সতর্কতা না নিলে লোকসান হতে পারে। 
বিশদ

কেঁচো সার তৈরি করে বিক্রি করবে মন্তেশ্বরের পিপলন পঞ্চায়েত 

সংবাদদাতা, পূর্বস্থলী: মন্তেশ্বরের পিপলন পঞ্চায়েতের উদ্যোগে চলছে ভার্মি কম্পোষ্ট বা কেঁচো সার তৈরির প্রস্তুতি। প্রতি মাসে ১০ টন সার তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে ব্লকের প্রতিটি পঞ্চায়েতকে ওই সার বিক্রি করা হবে বলে ব্লক প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। ফার্মে তিন জন কর্মী কাজ করছেন।
বিশদ

13th  July, 2020
আমতায় নতুন প্রজাতির ধান চাষ
শুরু, বেশি ফলনের আশায় চাষি

  সংবাদদাতা, উলুবেড়িয়া: চিরাচরিত প্রজাতির ধানের পরিবর্তে নতুন প্রজাতির ধান চাষে কৃষকদের উৎসাহিত করার লক্ষ্যে এবার আমতা ২ নং ব্লকের চারটি গ্রাম পঞ্চায়েতের ২০০ হেক্টর জমিতে স্বর্ণ-সাবওয়ান ও এমটিইউ ১১৫৩ প্রজাতির ধান চাষে উদ্যোগ নিল কৃষিদপ্তর।
বিশদ

10th  July, 2020
জলপাইগুড়িতে সুধা পদ্ধতিতে
ধান চাষে আগ্রহ বাড়ছে 

নিজস্ব সংবাদদাতা, জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি জেলায় ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা বাড়াতে সুনিশ্চিত পদ্ধতিতে ধান উৎপাদনে (সুধা) জোর দিয়েছে কৃষি দপ্তর। জলপাইগুড়ি জেলার বিভিন্ন ব্লকে ৫০০ বিঘা জমিতে সুধা পদ্ধতিতে ধান চাষে জোর দেওয়া হয়েছে।   বিশদ

08th  July, 2020
বেগুনে ভাল ফলন পেতে নজর
দিতে হবে রোগপোকা দমনে 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: বেগুন চাষে ভালো ফলন পেতে হলে চাষিদের সুসংহত উপায়ে সঠিক নিয়ম মেনে রোগপোকার আক্রমণ রোধ করতে হবে। এমনটাই বলছেন কৃষি আধিকারিকরা। তাঁরা জানিয়েছেন, এখন বছরের তিন মরশুমেই বেগুনের চাষ করা যায়।  বিশদ

08th  July, 2020
সঠিকভাবে পরিচর্যা করলে মিলছে লাভ
বর্ষাকালীন পেঁয়াজ চাষে ঝুঁকছেন নদীয়ার চাষিরা 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: নদীয়ার বিভিন্ন ব্লকের চাষিদের মধ্যে ক্রমেই বর্ষাকালীন পেঁয়াজ চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে। মূলত দুর্গাপুজোর সময়ে বা তার ঠিক পরেই বাজারে পেঁয়াজের জোগান কমে যাওয়ায় এই ফসল বাজারজাত করা যায়। সেইসময় ভালো দাম মেলায় ক্রমশ এর দিকে ঝুঁকছেন চাষিরা।   বিশদ

08th  July, 2020
মাটি ছাড়াই জলের
উপর শাক-সব্জি চাষ 

ব্রতীন দাস: করোনা সমগ্র মানব জাতিকে ঘরবন্দি করে ফেলেছে। নিজের ইচ্ছামতো ঘোরাফেরা বা বাজার-হাট করা এখন বিপজ্জনক। এই সময় যাঁদের বাড়ি সংলগ্ন কিছুটা জায়গা বা খোলা ছাদ, বারান্দা রয়েছে, তাঁরা সেই জায়গায় টবে শাক-সব্জি ফলাতে পারেন।  বিশদ

08th  July, 2020
আমনে ভালো ফলন পেতে
নজর দিতে হবে চারা তৈরিতে 

জমি তৈরি ও ভালো বীজ নির্বাচনের পর সঠিকভাবে ভালো মানের চারা তৈরি করতে হবে। তাহলেই আমন ধান চাষে ভালো ফলন পাওয়া যাবে। এমনটাই জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। এক বিঘা ধান চাষের জন্য সাধারণভাবে ১০ কেজি পর্যন্ত বীজধান লাগে।   বিশদ

08th  July, 2020
লকডাউনের মধ্যে বাড়ির ছাদে মিনিকিট ধান,
তিল চাষ করে তাক লাগালেন কাটোয়ার যুবক 

অনিমেষ মণ্ডল, কাটোয়া: ছাদজুড়ে সবুজ ধানের ‘খেত’। তিল থেকে সব্জি সবই ফলেছে। লকডাউনের মধ্যে বাড়ির ছাদের মিনিকিট প্রজাতির ধান, তিল চাষ করে তাক লাগালেন কাটোয়ার যুবক। দিনরাত ছাদের মধ্যে চলছে ফসলের পরিচর্যা।   বিশদ

08th  July, 2020
টানা বৃষ্টিতে কান্দিতে তিল চাষে ব্যাপক ক্ষতি
শস্যবিমা না থাকায় সমস্যায় চাষিরা

সংবাদদাতা, কান্দি: লাগাতার বৃষ্টির জেরে এবছর কান্দি মহকুমা এলাকার কয়েক হাজার তিল চাষি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। চাষ করে এক বিঘা জমিতে ৫০ কেজি তিলও পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ। বেশিরভাগ চাষির শস্যবিমা না থাকায় সমস্যা আরও বেড়েছে। ফলে সরকারি ক্ষতিপূরণের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন এলাকার চাষিরা।  বিশদ

01st  July, 2020
মাছির আক্রমণে মাথায় হাত
বারুইপুরের পেয়ারা চাষিদের 

নবজ্যোতি সরকার: উম-পুনে এমনিতেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বারুইপুরের পেয়ারা চাষ। তার উপর এখন পেয়ারা বাগানে মাছির আক্রমণে মাথায় হাত চাষিদের। ঝাঁকে ঝাঁকে ফলের মাছি আক্রমণ করছে পেয়ারায়। ফল ছিদ্র করে তার ভিতরেই ডিম পাড়ছে।  বিশদ

01st  July, 2020

Pages: 12345

একনজরে
লখনউ: গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের ঘনিষ্ঠ এক সহযোগী তথা আত্মীয়কে গ্রেপ্তার করল উত্তরপ্রদেশ পুলিস। ধৃতের নাম শশীকান্ত ওরফে সোনু পাণ্ডে। তাকে জেরা করে এনকাউন্টারের দিন পুলিসের ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এফসিআইতে বিভিন্ন পদে চাকরির টোপ দিয়ে এ রাজ্যের পঞ্চান্ন জন বেকার যুবকের কাছ থেকে পৌনে এক কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল। তারাতলা থানা এলাকার ব্রেস ব্রিজের বাসিন্দা প্রতারিত সুবোধকুমার সিংয়ের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে সম্প্রতি তদন্তে নেমেছে ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, আরামবাগ: সোমবার গভীর রাতে আরামবাগ শহরের কালীপুরে তৃণমূলের পতাকা ও ফ্লেক্স ছিঁড়ে ফেলার ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। শাসক দলের অভিযোগ, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই ওই কাজ করেছে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।   ...

সংবাদদাতা, মালদহ: মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আধুনিক ট্রমা কেয়ার সেন্টারটি নভেম্বর মাস নাগাদ চালু হতে পারে। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার পরেই এই বিশেষ চিকিৎসা কেন্দ্রটি চালু করার কথা ভাবনাচিন্তা করছে মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

পড়শির ঈর্ষায় অযথা হয়রানি। সন্তানের বিদ্যা নিয়ে চিন্তা। মামলা-মোকদ্দমা এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। প্রেমে বাধা।প্রতিকার: একটি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮২০: সাহিত্যিক অক্ষয়কুমার দত্তের জন্ম
১৯০৩: রাজনীতিক কে কামরাজের জন্ম
১৯০৪: রুশ লেখক আস্তন চেকভের মৃত্যু
১৯৫৪: আর্জেন্তিনার ফুটবলার মারিও কেম্পেসের জন্ম  



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৪৬ টাকা ৭৬.১৭ টাকা
পাউন্ড ৯২.৯৩ টাকা ৯৬.২০ টাকা
ইউরো ৮৩.৮৮ টাকা ৮৬.৯৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯, ৭৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭, ২২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭, ৯৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫১, ৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫২, ০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার, দশমী ৪৩/৯ রাত্রি ১০/২০। ভরণী ২৯/৭ অপঃ ৪/৪৩। সূর্যোদয় ৫/৪/৪২, সূর্যাস্ত ৬/২০/১৪। অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৩ গতে ১১/১৫ মধ্যে পুনঃ ১/৫৫ গতে ৫/২৭ মধ্যে। রাত্রি ৯/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১২/৪ গতে ১/৩০ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৩ গতে ১০/৩ মধ্যে পুনঃ ১১/৪২ গতে ১/২১ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৩ গতে ৩/৪৪ মধ্যে।  
৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার, দশমী রাত্রি ৮/৪৩। ভরণী নক্ষত্র অপরাহ্ন ৪/৭। সূযোদয় ৫/৪, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৩ গতে ১১/১৬ মধ্যে ও ১/৫৬ গতে ৫/২৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫৬ মধ্যে ও ১২/৪ গতে ১/৩০ মধ্যে। কালবেলা ৮/২৪ গতে ১০/৪ মধ্যে ও ১১/৪৩ গতে ১/২৩ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৪ গতে ৩/৪৪ মধ্যে।
২৩ জেল্কদ  

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
মাধ্যমিকে ষষ্ঠ অশোকনগরের অস্মি চৌধুরি চিকিৎসক হতে চায় 
মাধ্যমিকে রাজ্যে ষষ্ঠ স্থান অধিকার করেছে অশোকনগর বাণীপিঠ ...বিশদ

01:46:07 PM

বিহারে রাজভবনের ২০ জন কর্মী করোনায় আক্রান্ত 

01:36:04 PM

মাধ্যমিকে সপ্তম চন্দননগরের সুহা ঘোষ ভবিষ্যতে বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে চায় 

01:35:35 PM

৭০১ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স

01:32:50 PM

মাধ্যমিকে দশম জুনায়েদ হাসান চিকিৎসক হতে চায় 

01:29:42 PM

ময়নাগুড়িতে  ব্যারিকেড করে বিজেপির মিছিল আটকাল পুলিস 

01:27:50 PM