Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

বাঁকুড়ায় পতিত জমিতে ডাল ও সর্ষে চাষে জোর 

বিএনএ, বাঁকুড়া: অনাবৃষ্টির কারণে বাঁকুড়া জেলায় এবার প্রায় ৩০ শতাংশ জমিতে আমন চাষ করতে পারেননি কৃষকরা। তাই আমনের ক্ষতি পোষাতে জেলায় সরকারি সাহায্যে প্রায় ৩৯ হাজার হেক্টর জমিতে ডাল ও তৈল চাষের উদ্যোগ নিয়েছে কৃষি দপ্তর। এজন্য ইতিমধ্যেই ব্লক কৃষি দপ্তর থেকে বিভিন্ন ধরনের তৈলবীজ ও ডাল শস্যের বীজ এবং অনুখাদ্য বিলির কাজ শুরু করেছে কৃষি দপ্তর। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই বীজ বিলির প্রক্রিয়া শেষ করতে চায় প্রশাসন।
এরমধ্যে ২৫ হাজার ৪৬৬ হেক্টর জমিতে সর্ষে, ৫ হাজার ৩০০ হেক্টরে মসুর, ২ হাজার ৬৬ একর জমিতে ছোলা, ৩ হাজার হেক্টরে খেসারি, ১ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে মুগ, ২৫০ হেক্টর করে জমিতে তিল ও সূর্যমুখী চাষের পরিকল্পনা নিয়েছে। তবে বীজ বণ্টনের প্রক্রিয়া শুরু হতেই বিভিন্ন ব্লকে সরকারি সুবিধা প্রাপকদের তালিকা নিয়ে চাষিদের মধ্যে ক্ষোভ দানা বাঁধতে শুরু করেছে।
বাঁকুড়া জেলা কৃষি দপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর সুশান্ত মহাপাত্র বলেন, বৃষ্টিপাত কম হয় এবার জেলায় আমনের চাষ কিছুটা মার খেয়েছে। চাষিদের লোকসান মেটাতে এবার জেলায় ডাল শস্য চাষের উপর বাড়তি জোর দেওয়া হচ্ছে। চাষিদের উৎসাহিত করতে কৃষি দপ্তর থেকে বীজ, অনুখাদ্য, সার ও কীটনাশক দেওয়া হচ্ছে।
জেলা কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, চলতি বছরে শুরুর দিকে প্রয়োজনের তুলনায় বৃষ্টি কম হওয়ায় প্রায় ১ লক্ষ ১০ হাজার হেক্টর জমিতে আমনের চাষ করা সম্ভব হয়নি। তাই বিকল্প চাষ হিসেবে জেলায় এবার রবি শস্য তৈলবীজ ও ডাল শস্য চাষের উপর জোর দিচ্ছে। জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পের মাধ্যমে চাষিদের সুবিধা প্রদানের পাশাপাশি টার্গেট রাইস ফেলো এরিয়া প্রকল্পতে ডাল ও তৈল বীজ চাষের পাশাপাশি কারণে রাজ্যের বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে চাষিদের বীজ ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী দেবে কৃষি দপ্তর।
জেলা কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পে ১০০হেক্টর জমিতে মসুর, ২০০হেক্টর জমিতে সর্ষে, ২৫০ হেক্টর জমিতে সূর্যমুখী এবং ২৫০ হেক্টর জমিতে তিল চাষের লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। এছাড়াও টার্গেট রাইস ফেলো এরিয়া প্রকল্পে ৪হাজার হেক্টর জমিতে মসুর কলাই, ৩ হাজার হেক্টর জমিতে খেসারি, ১৭০০ জমিতে মুগ, ৫০০ হেক্টর জমিতে সর্ষে ও এক হাজার হেক্টর জমিতে ছোলা চাষের উদ্যোগ নিয়েছে। এই দুই প্রকল্পে চাষিদের বীজের সঙ্গে সঙ্গে অনুখাদ্য ও প্রয়োজনীয় ওষুধ দেবে কৃষি দপ্তর। অনাবৃষ্টির কারণে এবার জেলায় ২০ হাজার ২৬৬ হেক্টর জমিতে সর্ষে, ১ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে ছোলা ও হাজার হেক্টর জমিতে মসুর চাষের উদ্যোগ নিয়েছে।
অনাবৃষ্টির কারণে রাজ্য সরকারের দেওয়া বিশেষ প্যাকেজে মূলত সদর মহকুমার শালতোড়া, ছাতনা, মেজিয়া, বড়জোড়া, ওন্দা, বাঁকুড়া ১ ও ২ ব্লক এবং খাতড়া মহকুমার হীড়বাঁধ, তালডাংরা, সারেঙ্গা, সিমলাপাল, রাইপুর, রানিবাঁধ, খাতড়া ব্লকে জোর দেওয়া হবে। এজন্য ইতিমধ্যেই প্রয়োজনীয় সমস্ত ধরনের বীজ ও সার জেলায় এসে গিয়েছে।
শুধু তাই নয়, ব্লক ভিত্তিক চাষিদের বীভিন্ন তৈলবীজ ও ডালের বীজ বণ্টন শুরু হয়েছে। জেলাজুড়ে গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে পাওয়া নামের তালিকা অনুযায়ী বীজ অনুখাদ্য বণ্টনের কাজ জোর কদমে চলছে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই কাজ সম্পূর্ণ শেষ করতে চায় জেলা কৃষি দপ্তর। তবে এই বীজ ও চাষের সামগ্রী বণ্টন নিয়ে ইতিমধ্যেই রাইপুর, ছাতনা, ইন্দপুর ও রানিবাঁধ ব্লকে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলছেন স্থানীয় চাষিদের একাংশ। বুধবার রানিবাঁধ ব্লক কৃষি দপ্তরে তা নিয়ে বিক্ষোভও দেখান স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ। তাঁদের দাবি, ব্লকের জন্য পাঁচ হাজার সর্ষে বীজের প্যাকেট এলেও তা কিসের ভিত্তিতে কাদের বিলি করা হয়েছে তা দপ্তরের আধিকারিকরাই জানেন। তবে এলাকার অধিকাংশ চাষিই সরকারি বীজ ও অন্যান্য উপকরণ পাননি। শুধু তাই নয়, যে সমস্ত চাষিকে কৃষি দপ্তর বীজ দিয়েছে তাঁদের একাংশও ক্ষুব্ধ।
সব্যসাচী মাহাত নামে সারেঙ্গার এক চাষি বলেন, আমার বাড়ির পাশে যে জমিতে ডালশস্য চাষের জন্য আবেদন করেছি, তা মুগ কলাই চাষের উপযোগী। কিন্তু, কৃষিদপ্তর আমাকে সর্ষের বীজ দিয়েছে। সর্ষে চাষের উপযোগী জমি আমার নিজের নেই। তাই সরকারি বীজ পাওয়ার পর চাষের জন্য হন্যে হয়ে অন্যের জমি খুঁজতে হচ্ছে।
 

08th  November, 2019
ফলন ও স্বাদে জ্যোতি আলুকে টেক্কা দেবে হিমালিনী, বাড়ছে চাষ 

ব্রতীন দাস: ফলনে জ্যোতি আলুকে টেক্কা দেবে হিমালিনী। শুধু তাই নয়, বাজারে এই আলুর দামও বেশি। সেই সঙ্গে ধসা সহনশীল জাত। ফলে এই আলু চাষে ঝুঁকি অনেকটাই কম। বলছেন কৃষি বিজ্ঞানীরা।  
বিশদ

20th  November, 2019
গড়বেতায় দেশি মাগুরের সঙ্গে গলদা চিংড়ির অভিনব মিশ্র চাষ  

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গড়বেতা ১ নম্বর ব্লকের তাপসকুমার তেওয়ারি ব্লকের ১০ নম্বর গরঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত ধ্বনি গ্রামের চাষিদের নিয়ে কম খরচে, অল্প সময়ের মধ্যে দেশি মাগুরের সঙ্গে গলদা চিংড়ির চাষ করে ভালো লাভ পেয়েছেন। এতে ওই অঞ্চলের চাষিদের মধ্যে মাছ চাষে প্রবল উৎসাহ দেখা দিয়েছে।  
বিশদ

20th  November, 2019
মুরারইয়ে গড়ে উঠবে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র, জানালেন মৎস্যমন্ত্রী 

বলরাম দত্তবণিক, রামপুরহাট: মুরারইয়ে গড়ে উঠবে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র। মঙ্গলবার বীরভূমের মুরারই-১ ব্লকের রূপরামপুরে প্রস্তাবিত জায়গা পরিদর্শন করার পর এমনটাই জানালেন মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা। 
বিশদ

20th  November, 2019
ডাল চাষ করে লাভের মুখ দেখতে পারেন চাষিরা 

সন্দীপ বর্মন, কোচবিহার: কোচবিহার জেলার আবহাওয়া ও জমির চরিত্র অনুযায়ী নভেম্বর মাস ডাল চাষের উপযুক্ত সময় বলে জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা জানান, একটু উঁচু, যেখানে বৃষ্টির জল দাঁড়ায় না, এ ধরনের ঢালু জমিতে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকেই কলাইয়ের বীজ বোনা যেতে পারে। অনেকে অক্টোবরেও এই চাষ শুরু করতে পারেন।  
বিশদ

20th  November, 2019
সাগরদিঘিতে আপেল চাষের উদ্যোগ নিচ্ছে জেলা প্রশাসন 

সুখেন্দু পাল, বহরমপুর: কাশ্মীরে কাজ করতে যাওয়া শ্রমিকদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সাগরদিঘি ব্লকে আপেল চাষ করবে মুর্শিদাবাদ জেলা প্রশাসন। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাস থেকেই চাষ শুরু হবে। ১০০ দিনের প্রকল্পে বাগান করা হবে। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, পরীক্ষামূলকভাবে ১০ একর জমিতে প্রথমে আপেল চাষ হবে। 
বিশদ

20th  November, 2019
শিলিগুড়িতে রেশম গুটি উৎপাদনে লাভের মুখ 

সুব্রত ধর, শিলিগুড়ি : রেশম দপ্তরের উদ্যোগে ফাঁসিদেওয়া ও মাটিগাড়ায় অগ্রহায়ণী পি-১ সঞ্চ গুটির ভালো উৎপাদন হয়েছে। পরবর্তী বন্দগুলিতেও উৎপাদনে জোর দেওয়া হচ্ছে। পরিচর্যা, প্রশিক্ষণ ও বিক্রির সুবন্দোবস্ত থাকায় এই গুটি উৎপাদনের ফলে কৃষকরা আর্থিকভাবে সহজেই লাভবান হতে পারবেন। 
বিশদ

20th  November, 2019
বুলবুলের তাণ্ডব: জেলায় পিছতে পারে রবি চাষ 

বিএনএ, কৃষ্ণনগর: বুলবুলের তাণ্ডবে রবি শস্য চাষ পিছিয়ে যেতে পারে। কৃষি দপ্তরের কর্তারা বলেন, বুলবুলের প্রভাবে যে বৃষ্টিপাত হয়েছে তাতে মাটির রস বেড়ে যাবে। রবি শস্য চাষে মাটির রস বা ‘জো’টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হয়। ফলে শীতকালীন চাষে প্রভাব পড়তে পারে। কারণ, এখনই চাষ শুরু করা যাবে না। 
বিশদ

15th  November, 2019
কালীপুজোর আগে নিম্নচাপের বৃষ্টিতে ক্ষতি সামলে
তড়িঘড়ি আলু বসাচ্ছেন জেলার চাষিরা 

সংবাদদাতা, বহরমপুর: দুর্গাপুজোর পর আলু বসানো হলেও নিম্নচাপের জেরে বহু চাষির আলু জমিতেই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। সেই ক্ষতি পোষাতে ফের চাষিরা ঝুঁকি নিয়েই মাঠে নেমেছেন। ক্ষতি পুষিয়ে নিতে মাঠে আলু বসাচ্ছেন বড়ঞা ব্লকের চাষিরা। এদিকে বাড়িতে বীজ মজুত করে এখনও জমিতে নামতে না পারায় বহু চাষি বিপাকে পড়েছেন। 
বিশদ

15th  November, 2019
বুলবুল কাড়ল খেতের ফসল
জমি থেকে দ্রুত জল বের করে প্রয়োগ করতে হবে বহুমুখী ছত্রাকনাশক

ব্রতীন দাস: বুলবুলের দাপটে মাথায় হাত চাষিদের। আমন ধান তো বটেই, সব্জি, ফুল সহ বিভিন্ন শস্যের মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। এর পর রয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ২৪ পরগনা, হুগলি, বর্ধমান ও নদীয়া। 
বিশদ

13th  November, 2019
শীতে ডালিয়া ফোটাতে প্রস্তুতি নিতে হবে এখনই 

নবজ্যোতি সরকার : শীতকালীন রঙিন সুন্দরী চন্দ্রমল্লিকা এবং ডালিয়া ফুলগুলি যাঁরা বাণিজ্যিকভাবে চাষ করতে চান, তাঁরা এখন নিজেদের বাগান তৈরি করুন। এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা। এই দুই ফুলের চাহিদা প্রচুর। এগুলি ভালোই অর্থকরী। উৎপাদন চন্দ্রমল্লিকায় বিঘা প্রতি দেড় থেকে দুই টন। 
বিশদ

13th  November, 2019
উন্নত জাত ও নিয়ম মেনে গম চাষে মিলবে লাভ

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: সঠিক নিয়ম মেনে চাষ করলে গমে ভালো উৎপাদন পাওয়া যাবে। কার্তিক মাসের শেষ থেকে অগ্রহায়ণ মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত আমন ধান কাটা শেষ হলেই ওই জমিতে রস থাকা অবস্থায় গমের বীজ বুনে ফেলতে হবে। ফলে গম চাষের জন্য দ্রুত প্রস্তুতি শেষ করতে হবে। 
বিশদ

13th  November, 2019
নিষেধাজ্ঞা উঠলেও গম চাষে সতর্ক কৃষি দপ্তর  

ব্রতীন দাস: ছত্রাক ঘটিত ঝলসা বা ‘হুইট ব্লাস্ট’-এর আতঙ্ক কাটিয়ে রাজ্যে বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী জেলাগুলিতে গম চাষের নিষেধাজ্ঞা উঠলেও বিশেষ সতর্ক থাকছে কৃষি দপ্তর। ২০১৫-১৬ সালে রাজ্যে ঝলসার আক্রমণ দেখা দেয় গমের জমিতে। চাষিরা মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েন। 
বিশদ

06th  November, 2019
আয় বাড়াতেই শালবনীতে কাজুবাগান তৈরির উদ্যোগ 

হরিহর ঘোষাল, মেদিনীপুর: আয় বাড়াতে শালবনীর কাশীজোড়া পঞ্চায়েত এলাকায় কাজুর বাগান তৈরির উদ্যোগ নিতে চলেছে ব্লক কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই জায়গা চিহ্নিতকরণের কাজ হয়ে গিয়েছে। এমনকী, জল সরবরাহ করার জন্য সেখানে পাম্প মেশিনও বসানো হয়েছে। 
বিশদ

06th  November, 2019
মুর্শিদাবাদে একাঙ্গী চাষে উৎসাহ বাড়ছে কৃষকদের 

সুখেন্দু পাল, বহরমপুর: মুর্শিদাবাদে চাষ হওয়া একাঙ্গীর চাহিদা তুঙ্গে। অনেক চাষি চাহিদামতো তা সরবরাহ করতে পারছেন না। জেলা কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, একাঙ্গী দেখতে অনেকটা আদার মতো। মাটির তলাতেই তা হয়। গাছও দেখতে আদার মতোই। স্থানীয়ভাবে তা একআনি নামেই পরিচিত।  
বিশদ

06th  November, 2019

Pages: 12345

একনজরে
বিএনএ, কোচবিহার: এই প্রথম কলকাতার সল্টলেকে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের উদ্যোগে প্রাথমিক শিক্ষকদের খেলাধুলোর বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। কোচবিহার জেলার পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি সূত্রে জানা গিয়েছে, কোচবিহার থেকে পাঁচজন প্রাথমিক শিক্ষক এই প্রশিক্ষণ নিতে গিয়েছেন।  ...

 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...

 ফিরদৌস হাসান, শ্রীনগর,২০ নভেম্বর: বুধবার শ্রীনগরের বিধায়ক হোস্টেলে ‘বন্দি’ নেতাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দিল কেন্দ্র। এই মুহূর্তে বিধায়ক হোস্টেলে ৩০ জন বিভিন্ন দলের নেতা বন্দি। তাঁদের সঙ্গে দেখা করে হোস্টেল থেকে বেরিয়েই ক্ষোভে ফেটে পড়লেন আত্মীয়-পরিজনেরা। ...

সংবাদদাতা, ইটাহার: ব্লক কৃষি দপ্তরের ‘সুধা’ (সুনিশ্চিত ধান) পদ্ধতিতে চাষ করে বিশেষ সফলতা পেলেন উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ ব্লকের বিষ্ণুপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কলুয়া গ্রামের চাষি আবু শাহেদ। এঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই এলাকার অন্যান্য চাষিদের মধ্যে সুধা পদ্ধতিতে ধান চাষের ব্যাপারে উৎসাহ দেখা ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উপার্জন বেশ ভালো হলেও ব্যয়বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে সঞ্চয় তেমন একটা হবে না। শরীর খুব একটা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব টেলিভিশন দিবস
১৬৯৪: ফরাসি দার্শনিক ভলতেয়ারের জন্ম
১৮৭৭: ফোনোগ্রাফ আবিষ্কারের কথা জানালেন থমাস এডিসন
১৯৭০: নোবেলজয়ী পদার্থবিদ চন্দ্রশেখর বেঙ্কটরামনের মৃত্যু
১৯৭৪ - শিশু সাহিত্যিক পুণ্যলতা চক্রবর্তীর মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.১৭ টাকা ৭৩.৩৩ টাকা
পাউন্ড ৯০.৪৯ টাকা ৯৪.৮৫ টাকা
ইউরো ৭৭.৬২ টাকা ৮১.৩৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৯৭৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৯৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৫৩৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, নবমী ১৩/৫০ দিবা ১১/২৯। পূর্বফাল্গুনী ৩১/২২ রাত্রি ৬/২৯। সূ উ ৫/৫৬/৪২, অ ৪/৪৮/০০, অমৃতযোগ দিবা ৭/২৩ মধ্যে পুনঃ ১/১১ গতে ২/৩৮ মধ্যে। রাত্রি ৫/৪১ গতে ৯/১১ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৯ গতে ৩/১৯ মধ্যে পুনঃ ৪/১২ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ২/৫ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ১১/২২ গতে ১/০ মধ্যে।
৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, নবমী ৮/১৫/৩৯ দিবা ৯/১৭/৩। পূর্বফাল্গুনী ২৮/৯/৬ সন্ধ্যা ৫/১৪/২৫, সূ উ ৫/৫৮/৪৭, অ ৪/৪৭/৪৮, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৪ মধ্যে ও ১/১৫ গতে ২/৪০ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৩ গতে ৯/১৫ মধ্যে ও ১১/৫৫ গতে ৩/২৯ মধ্যে ও ৪/২২ গতে ৬/০ মধ্যে, বারবেলা ৩/২৬/৪১ গতে ৪/৪৭/৪৮ মধ্যে, কালবেলা ২/৫/৩৩ গতে ৩/২৬/৪১ মধ্যে, কালরাত্রি ১১/২৩/১৭ গতে ১/২/১২ মধ্যে।
২৩ রবিয়ল আউয়ল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
গোটা দেশে এনআরসি হবে: অমিত শাহ 
গোটা দেশে এনআরসি হবে বলে রাজ্যসভায় জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত ...বিশদ

20-11-2019 - 04:31:00 PM

পর্ণশ্রীতে গ্যাস সিলিন্ডার চুরি, ধৃত ২ 

20-11-2019 - 03:18:00 PM

নরেন্দ্রপুরে দম্পতির রহস্যমৃত্যু 
নরেন্দ্রপুরে এক দম্পতির দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য। আজ সকালে নরেন্দ্রপুরের ...বিশদ

20-11-2019 - 02:34:00 PM

মায়ের বকুনি, অভিমানে আত্মঘাতী সপ্তম শ্রেণীর পড়ুয়া 
পড়াশোনা নিয়ে মায়ের বকুনির জেরে অভিমানে আত্মঘাতী হল সপ্তম শ্রেণীর ...বিশদ

20-11-2019 - 01:38:34 PM

আসানসোলে ৫ কুখ্যাত দুষ্কৃতী গ্রেপ্তার 
ডাকাতির উদ্দেশ্যে জরো হওয়া পাঁচ কুখ্যাত দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করল আরপিএফের ...বিশদ

20-11-2019 - 01:32:39 PM

মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘিতে সভামঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 

20-11-2019 - 01:26:09 PM