Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

নিষেধাজ্ঞা উঠলেও গম চাষে সতর্ক কৃষি দপ্তর  

ব্রতীন দাস: ছত্রাক ঘটিত ঝলসা বা ‘হুইট ব্লাস্ট’-এর আতঙ্ক কাটিয়ে রাজ্যে বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী জেলাগুলিতে গম চাষের নিষেধাজ্ঞা উঠলেও বিশেষ সতর্ক থাকছে কৃষি দপ্তর। ২০১৫-১৬ সালে রাজ্যে ঝলসার আক্রমণ দেখা দেয় গমের জমিতে। চাষিরা মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে কলকাতায় রাজ্য ও কেন্দ্রের কৃষিকর্তাদের বৈঠক হয়। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, দু’বছর রাজ্যে গম চাষ বন্ধ থাকবে। সেইমতো দক্ষিণবঙ্গের নদীয়া ও মুর্শিদাবাদ জেলায় দু’বছর গম চাষ হয়নি। এছাড়াও বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী এ রাজ্যের জেলাগুলিতে বর্ডার থেকে ৫ কিলোমিটারের মধ্যে গম বুনতে নিষেধ করা হয়। কিন্তু এবার কেন্দ্র থেকে গম চাষ বন্ধ রাখার বিষয়ে নতুন করে কোনও নির্দেশিকা আসেনি। ফলে রাজ্যে হুইট হলিডে বা গম চাষে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে রাজ্যের কৃষি অধিকর্তা ইতিমধ্যে নির্দেশিকা জারি করে জানিয়েও দিয়েছেন, যেসব জেলায় গম চাষ গত দু’বছর বন্ধ ছিল, সেখানে এবার কৃষকরা চাইলে গম বুনতে পারেন। কিন্তু সেক্ষেত্রে গমের চারটি জাত নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ডিবিডব্লু ১৮৭, ডিবিডব্লু ১৭৩, এইচডি ২৯৬৭ ও এইচডি ৩০৪৩ প্রজাতির গমের বীজ কৃষকরা বুনতে পারেন। সেইমতোই নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে। এগুলি ঝলসা রোগ প্রতিরোধকারী এবং সহনশীল জাত। অবশ্যই বীজ হতে হবে সার্টিফায়েড। জমিতে বোনার আগে ভালো করে ছত্রাকনাশক দিয়ে শোধন করে নিতে হবে। জমিতে জারি রাখতে হবে বিশেষ পরিচর্যা। ঝলসার কোনওরকম উপসর্গ দেখা দিলেই রাজ্য কৃষি দপ্তরের সদর অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। বাংলাদেশ থেকেই গমের মারাত্মক ঝলসা রোগটি ঢুকে পড়েছিল বলে অনুমান কৃষি আধিকারিকদের। বিপন্ন চাষিদের মাঠেই ফসল পুড়িয়ে দিতে হয়েছিল। এবার যাতে কোনওভাবেই ওপার বাংলা থেকে চোরাপথে গমের বীজ এ রাজ্যে না ঢোকে, সেদিকে কড়া নজর রাখতে বলা হয়েছে। এনিয়ে সীমান্তরক্ষী বাহিনীকেও সজাগ করা হয়েছে। সরকারি তরফে নির্দিষ্ট করে দেওয়া জাতের বাইরে কোনও দোকানে যাতে গমের বীজ বিক্রি না হয়, সেদিকেও নজর রাখতে বলা হয়েছে কৃষি আধিকারিকদের। রাজ্যের এক কৃষিকর্তা জানিয়েছেন, গম চাষে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেও এ বছর চাষের এলাকা বাড়াতে বিশেষ জোর দেওয়া হচ্ছে না। তবে কোনও কৃষক যদি গম চাষ করতে চান, তাঁকে আমরা নিরুৎসাহিত করছি না। নির্দিষ্ট ভ্যারাইটির বীজ বুনতে বলা হচ্ছে। চাষের প্রথম থেকে কৃষি আধিকারিকদের পরামর্শ মেনে চলতে বলা হচ্ছে। তবে, খুব বেশি জমিতে গম চাষ না করে বিকল্প চাষ হিসেবে তৈলবীজ, ডালশস্য, হাইব্রিড ভুট্টা, পেঁয়াজ চাষ করতে বলা হচ্ছে।
কৃষি আধিকারিকরা জানিয়েছেন, অক্টোবর থেকে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি পর্যন্ত গমের বীজ বোনার সময়। মুর্শিদাবাদে প্রায় ৮০ হাজার হেক্টর জমিতে গমচাষ হতো। কিন্তু গত দু’বছর চাষ বন্ধ থাকায় এবার কৃষকদের মধ্যে গম বোনার ক্ষেত্রে তেমন উৎসাহ নেই। চাষিরা জানিয়েছেন, তাঁদের হাতে এখন গমের বীজ নেই। ফলে চাষ করতে গেলে বীজ কিনতে হবে। তা ছাড়া রাজ্যে শীতের স্থায়ীত্ব কমছে। গরম পড়ে গেলে গম গাছের বৃদ্ধি ভালো হয় না। ফলন মার খায়। এমনকী গম চাষে অন্তত ৫-৬টি সেচ দেওয়ার দরকার পড়ে। ভূগর্ভস্থ জলের সমস্যাও বাড়ছে। এতসব সত্ত্বেও যদি তাঁরা গম চাষ করেন, তা হলে কী সরকারি সহায়তা মিলবে, তা আগে জানানো হোক। জেলার উপ কৃষি অধিকর্তা তাপসকুমার কুণ্ডু জানিয়েছেন, যাঁরা গমচাষ করতে চাইছেন, তাঁদের বলা হয়েছে অবশ্যই যেন সার্টিফায়েড বীজে চাষ করেন। সেইসঙ্গে সরকারের সুপারিশকৃত ভ্যারাইটি ছাড়া গম চাষ করা যাবে না। একই বক্তব্য নদীয়া জেলার উপ কৃষি অধিকর্তা রঞ্জন রায়চৌধুরীর। তিনি বলেন, চাষিরা গমচাষ করতে চাইলে সুপারিশকৃত ভ্যারাইটির সার্টিফায়েড বীজ কিনে করতে বলা হচ্ছে। কৃষি আধিকারিকরা যা-ই বলুন না কেন, বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ড. ধীমান মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, নিষেধাজ্ঞা উঠলেও সাবধানতার কারণে এ বছর নদীয়া ও মুর্শিদাবাদ জেলায় গম চাষ না করাই ভালো। সেক্ষেত্রে কৃষকরা বিকল্প হিসেবে তৈলবীজ ও ডালশস্য চাষ করতে পারেন। জলের সুবিধা থাকলে সব্জিও চাষ করতে পারেন। তাঁদের তরফে নদীয়ার কল্যাণী, বীরভূম, বর্ধমান, হুগলি ও মুর্শিদাবাদ জেলায় গমের ৮৬টি ভ্যারাইটি নিয়ে পরীক্ষামূলক চাষ চলছে বলে জানিয়েছেন ধীমানবাবু। এর মধ্যে ৫টির মতো ভ্যারাইটিকে প্রাধান্য দিয়ে চাষ করানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
তাঁর বক্তব্য, গমের বীজ বোনার সময় ২০-২৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড থাকলেও চলে। কিন্তু গাছের যখন মূল বৃদ্ধির সময়, তখন তাপমাত্রা ১৩-১৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের বেশি হয়ে গেলে ক্ষতি হয়। ফলনে প্রভাব পড়ে। জলের সমস্যার কারণে অনেক চাষিই গমচাষে তিনটির বেশি সেচ দিতে পারেন না। অথচ পাঁচ-ছ’টি সেচ দেওয়া দরকার।
মুর্শিদাবাদের রানিনগর ২ ব্লকের সহকারি কৃষি অধিকর্তা ড. মিঠুন সাহা জানিয়েছেন, এ বছর পারতপক্ষে গম চাষ না করাই ভালো। 

06th  November, 2019
আমতায় নতুন প্রজাতির ধান চাষ
শুরু, বেশি ফলনের আশায় চাষি

  সংবাদদাতা, উলুবেড়িয়া: চিরাচরিত প্রজাতির ধানের পরিবর্তে নতুন প্রজাতির ধান চাষে কৃষকদের উৎসাহিত করার লক্ষ্যে এবার আমতা ২ নং ব্লকের চারটি গ্রাম পঞ্চায়েতের ২০০ হেক্টর জমিতে স্বর্ণ-সাবওয়ান ও এমটিইউ ১১৫৩ প্রজাতির ধান চাষে উদ্যোগ নিল কৃষিদপ্তর।
বিশদ

জলপাইগুড়িতে সুধা পদ্ধতিতে
ধান চাষে আগ্রহ বাড়ছে 

নিজস্ব সংবাদদাতা, জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি জেলায় ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা বাড়াতে সুনিশ্চিত পদ্ধতিতে ধান উৎপাদনে (সুধা) জোর দিয়েছে কৃষি দপ্তর। জলপাইগুড়ি জেলার বিভিন্ন ব্লকে ৫০০ বিঘা জমিতে সুধা পদ্ধতিতে ধান চাষে জোর দেওয়া হয়েছে।   বিশদ

08th  July, 2020
বেগুনে ভাল ফলন পেতে নজর
দিতে হবে রোগপোকা দমনে 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: বেগুন চাষে ভালো ফলন পেতে হলে চাষিদের সুসংহত উপায়ে সঠিক নিয়ম মেনে রোগপোকার আক্রমণ রোধ করতে হবে। এমনটাই বলছেন কৃষি আধিকারিকরা। তাঁরা জানিয়েছেন, এখন বছরের তিন মরশুমেই বেগুনের চাষ করা যায়।  বিশদ

08th  July, 2020
সঠিকভাবে পরিচর্যা করলে মিলছে লাভ
বর্ষাকালীন পেঁয়াজ চাষে ঝুঁকছেন নদীয়ার চাষিরা 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: নদীয়ার বিভিন্ন ব্লকের চাষিদের মধ্যে ক্রমেই বর্ষাকালীন পেঁয়াজ চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে। মূলত দুর্গাপুজোর সময়ে বা তার ঠিক পরেই বাজারে পেঁয়াজের জোগান কমে যাওয়ায় এই ফসল বাজারজাত করা যায়। সেইসময় ভালো দাম মেলায় ক্রমশ এর দিকে ঝুঁকছেন চাষিরা।   বিশদ

08th  July, 2020
মাটি ছাড়াই জলের
উপর শাক-সব্জি চাষ 

ব্রতীন দাস: করোনা সমগ্র মানব জাতিকে ঘরবন্দি করে ফেলেছে। নিজের ইচ্ছামতো ঘোরাফেরা বা বাজার-হাট করা এখন বিপজ্জনক। এই সময় যাঁদের বাড়ি সংলগ্ন কিছুটা জায়গা বা খোলা ছাদ, বারান্দা রয়েছে, তাঁরা সেই জায়গায় টবে শাক-সব্জি ফলাতে পারেন।  বিশদ

08th  July, 2020
আমনে ভালো ফলন পেতে
নজর দিতে হবে চারা তৈরিতে 

জমি তৈরি ও ভালো বীজ নির্বাচনের পর সঠিকভাবে ভালো মানের চারা তৈরি করতে হবে। তাহলেই আমন ধান চাষে ভালো ফলন পাওয়া যাবে। এমনটাই জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। এক বিঘা ধান চাষের জন্য সাধারণভাবে ১০ কেজি পর্যন্ত বীজধান লাগে।   বিশদ

08th  July, 2020
লকডাউনের মধ্যে বাড়ির ছাদে মিনিকিট ধান,
তিল চাষ করে তাক লাগালেন কাটোয়ার যুবক 

অনিমেষ মণ্ডল, কাটোয়া: ছাদজুড়ে সবুজ ধানের ‘খেত’। তিল থেকে সব্জি সবই ফলেছে। লকডাউনের মধ্যে বাড়ির ছাদের মিনিকিট প্রজাতির ধান, তিল চাষ করে তাক লাগালেন কাটোয়ার যুবক। দিনরাত ছাদের মধ্যে চলছে ফসলের পরিচর্যা।   বিশদ

08th  July, 2020
টানা বৃষ্টিতে কান্দিতে তিল চাষে ব্যাপক ক্ষতি
শস্যবিমা না থাকায় সমস্যায় চাষিরা

সংবাদদাতা, কান্দি: লাগাতার বৃষ্টির জেরে এবছর কান্দি মহকুমা এলাকার কয়েক হাজার তিল চাষি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। চাষ করে এক বিঘা জমিতে ৫০ কেজি তিলও পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ। বেশিরভাগ চাষির শস্যবিমা না থাকায় সমস্যা আরও বেড়েছে। ফলে সরকারি ক্ষতিপূরণের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন এলাকার চাষিরা।  বিশদ

01st  July, 2020
মাছির আক্রমণে মাথায় হাত
বারুইপুরের পেয়ারা চাষিদের 

নবজ্যোতি সরকার: উম-পুনে এমনিতেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বারুইপুরের পেয়ারা চাষ। তার উপর এখন পেয়ারা বাগানে মাছির আক্রমণে মাথায় হাত চাষিদের। ঝাঁকে ঝাঁকে ফলের মাছি আক্রমণ করছে পেয়ারায়। ফল ছিদ্র করে তার ভিতরেই ডিম পাড়ছে।  বিশদ

01st  July, 2020
সুধা পদ্ধতিতে আমন ধান চাষে
আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: সুনিশ্চিত পদ্ধতিতে ধান চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের। তাঁদের মতে, এই পদ্ধতি সহজ ও সরল। এমনকী খরচও কম। প্রচলিত পদ্ধতির চেয়ে এতে ফলন বেশি পাওয়া যায়। আর সেকারণেই চিরাচরিত পথ ছেড়ে ‘সুধা’ পদ্ধতিতে ধান চাষের প্রসারে রাজ্য সরকারও কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে।  বিশদ

01st  July, 2020
ভাল ফলন পেতে জমির চরিত্র
বুঝে আমন চাষ করতে হবে 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: আমন ধান চাষে সঠিক নিয়ম মেনে মাটি প্রস্তুত করার পর ভালো মানের চারা তৈরির দিকে নজর দিতে হবে। পাশাপাশি উঁচু, মাঝারি এবং নিচু জমিতে কী ধরনের ধানের বীজ থেকে চারা তৈরি করলে ভালো ফলন পাওয়া যাবে, সে ব্যাপারে জেনে নিতে হবে কৃষি বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে।   বিশদ

01st  July, 2020
নদীয়া জেলায় কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের জন্য
রেকর্ড আবেদন, ছাপিয়ে গেল লক্ষ্যমাত্রাও 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: উম-পুন পরবর্তী সময়ে মাত্র ১৮দিনে নদীয়া জেলায় কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদনের সংখ্যা এক লক্ষ ছাড়িয়ে গেল। জুন মাসের শেষে লক্ষমাত্রা পেরিয়ে গিয়েছে। সবকিছু খতিয়ে দেখে দ্রুত আবেদনকারীরা যাতে কেসিসি পান তা নিশ্চিত করতে ব্যাঙ্কগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।   বিশদ

01st  July, 2020
স্বাদ বদলে চাহিদা বাড়ছে
‘মণিপুরের পুঁটি’ পেংবা মাছের 

ব্রতীন দাস: বৈচিত্র্যে জোর। মাছে-ভাতে বাঙালির স্বাদ বদলে চাহিদা বাড়ছে পেংবা মাছের। এটি পুঁটি গোত্রীয় মাছ। চাষ হয় মিষ্টি জলে। পেংবা মণিপুরের স্টেট ফিশ। চাষেও ঝামেলা নেই। কারণ, এই মাছ রাক্ষুসে নয়। রুই, কাতলা, মৃগেলের সঙ্গে নিশ্চিন্তে এক পুকুরে চাষ করা যায়।  বিশদ

01st  July, 2020
এবার দু’হাজার হেক্টর বেশি জমিতে বোরো ধান চাষ করে গতবারের রেকর্ড ভাঙল জেলা
কোচবিহার

সংবাদদাতা, দিনহাটা: এ বছর কোচবিহার জেলায় রেকর্ড পরিমাণ জমিতে বোরো ধান চাষ হয়েছে। গতবছর থেকে প্রায় ২০০০ হেক্টর অধিক জমিতে চাষিরা বোরো ধান লাগিয়েছেন। পাশাপাশি এবারে ধান রোপণ যন্ত্রের সাহায্যে ৫০০ হেক্টর জমিতে ধান লাগানোর ক্ষেত্রেও রেকর্ড তৈরি হয়েছে।  বিশদ

29th  June, 2020

Pages: 12345

একনজরে
বার্সেলোনা: খেতাবের দৌড়ে পিছিয়ে পড়েও লড়াই জারি বার্সেলোনার। বুধবার ক্যাম্প ন্যু’য়ে লুই সুয়ারেজের করা একমাত্র গোলে কাতালন ডার্বিতে এস্প্যানিয়লকে পরাস্ত করল কিকে সেতিয়েন-ব্রিগেড। এই জয়ের ...

 কাঠমাণ্ডু: গদি বাঁচাতে শেষপর্যন্ত করোনাকে হাতিয়ার করতে চাইছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি। তবে খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে তাঁর এই কৌশল কতটা কার্যকর হবে, তা নিয়ে সন্দিগ্ধ রাজনৈতিক মহল। জানা গিয়েছে, করোনার মোকাবিলায় দেশে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে জরুরি অবস্থা জারির প্রস্তাব ...

 জীবানন্দ বসু, কলকাতা: গত এক বছরে দেশের কম আয়ের শ্রমিক-কর্মচারীদের স্বাস্থ্য ও সামাজিক সুরক্ষা দেখভালের দায়িত্বে রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থা ইএসআই কর্পোরেশন। এর আয় ৫ ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, তমলুক: পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ভুয়ো ক্ষতিগ্রস্তদের কাছ থেকে টাকা ফেরাতে ব্লক লেভেল টাস্ক ফোর্স (বিএলটিএফ) তৈরি করল জেলা প্রশাসন। গত ৭জুলাই জেলাশাসক পার্থ ঘোষ এই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা জারি করেছেন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

পঠন-পাঠনে আগ্রহ বাড়লেও মন চঞ্চল থাকবে। কোনও হিতৈষী দ্বারা উপকৃত হবার সম্ভাবনা। ব্যবসায় যুক্ত হলে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৮৫- ভাষাবিদ মহম্মদ শহীদুল্লাহর জন্ম,
১৮৯৩- গণিতজ্ঞ কে সি নাগের জন্ম,
১৯৪৯- ক্রিকেটার সুনীল গাভাসকরের জন্ম,
১৯৫০- গায়িকা পরভীন সুলতানার জন্ম,
১৯৫১- রাজনীতিক রাজনাথ সিংয়ের জন্ম



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.০৪ টাকা ৭৬.৭৪ টাকা
পাউন্ড ৯২.১৪ টাকা ৯৭.১৪ টাকা
ইউরো ৮২.৯৩ টাকা ৮৭.৪০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫০,০৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭,৪৯০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৮,২০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫১,৭১০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫১,৮১০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১০ জুলাই ২০২০, শুক্রবার, পঞ্চমী ১৬/৩০ দিবা ১১/৩৯। পূর্বভাদ্রপদ অহোরাত্র। সূর্যোদয় ৫/২/৪২, সূর্যাস্ত ৬/২১/২৷ অমৃতযোগ দিবা ১২/৮ গতে ২/৪৮ মধ্যে। রাত্রি ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৬ গতে ২/৫৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৮ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/২২ গতে ১১/৪২ মধ্যে। কালরাত্রি ৯/১ গতে ১০/২১ মধ্যে।
২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ১০ জুলাই ২০২০, শুক্রবার, পঞ্চমী দিবা ১১/২৭। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র অহোরাত্র। সূযোদয় ৫/২, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ১২/৯ গতে ২/৪৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৮/৩০ মধ্যে ও ১২/৪৬ গতে ২/৫৫ মধ্যে ও ৩/৩৭ গতে ৫/৩ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৩ গতে ১১/৪৩ মধ্যে। কালরাত্রি ৯/৩ গতে ১০/২৩ মধ্যে।
১৮ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আজ থেকে বন্ধ হাইকোর্ট
আজ থেকে সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারবিভাগীয় ও প্রশাসনিক কাজ বন্ধ ...বিশদ

08:30:00 AM

উত্তরবঙ্গে প্রবল বর্ষণের পূর্বাভাস
 আগামী রবিবার পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের প্রায় সবকটি জেলাতেই ভারী থেকে অতি ...বিশদ

08:26:37 AM

আজ আইসিএসই, আইএসসির ফল
 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আজ, শুক্রবার দুপুর ৩টেয় প্রকাশিত হতে চলেছে ...বিশদ

08:25:00 AM

কোন জেলায় ক’টি কন্টেইনমেন্ট জোন
কলকাতা ২৫ উত্তর ২৪ পরগনা ৯৫ ...বিশদ

08:19:08 AM

আজকের রাশিফল 
মেষ: ব্যবসায় অতিরিক্ত সতর্কতার প্রয়োজন। বৃষ: শরীর-স্বাস্থ্যে দ্রুত আরোগ্য। মিথুন: একাধিক উপায়ে ...বিশদ

08:17:57 AM

ইতিহাসে আজকের দিনে 
১৮৮৫- ভাষাবিদ মহম্মদ শহীদুল্লাহর জন্ম,১৮৯৩- গণিতজ্ঞ কে সি নাগের জন্ম,১৯৪৯- ...বিশদ

08:13:04 AM