Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

শত্রুপোকার সঙ্গেই জমিতে ধ্বংস হচ্ছে মিত্রপোকা, উদ্বেগ 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: খেতের পোকা। এদের কেউ শত্রু। আবার কেউ মিত্র। অবশ্যই তা চাষিদের কাছে। শত্রু পোকাদের নিকেশ করতে গিয়ে মিত্ররাও হারিয়ে যাচ্ছে। ফলস্বরূপ উত্তরোত্তর শত্রু পোকার বৃদ্ধি ঘটছে। চাষিদের কাছে এরাই এখন প্রধান মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ নিয়ে চিন্তিত কৃষি বিশেষজ্ঞ ও গবেষণারত বিজ্ঞানীরা। সঠিক বাঁচার পথ খুঁজতে দিশাহারা চাষিরা। ফসল উৎপাদন মার খাচ্ছে। লাভের গুঁড় পিঁপড়েতে খাচ্ছে। দেনার দায় ঘাড়ে এসে চাপছে চাষিদের।
প্রসঙ্গত, চাষ করতে গিয়ে নিত্য-নতুন পোকামাকড়ের উপদ্রব বাড়ছে। শত্রুপোকার সংখ্যা বাড়ছে। সেখানে মিত্রপোকার সংখ্যা কমছে। তার জেরে ফসলের ক্ষতিকারক দিকটা বড় হয়ে উঠছে। প্রতিটি ফসলের উৎপাদনে পোকা তাড়াতে কীটনাশকের যথেচ্ছ ব্যবহার বাড়ছে। একদিকে বাড়ছে খরচ, অন্যদিকে মিত্রপোকা ধ্বংস হচ্ছে। তা নিয়ে চিন্তিত চাষিরা। কৃষি বিশেষজ্ঞরাও এনিয়ে মাঠে নেমেছেন। কীভাবে রক্ষা করা যায় মিত্রপোকার।
উল্লেখ করা যেতে পারে, শোষক পোকা, জাব পোকা, সাদা মাছি, ল্যাদা পোকা, বাদামি শোষক পোকা, মাজরা পোকা প্রভৃতি ক্ষতিকারক পোকার নিধন করতে গিয়ে মিত্রপোকা বা মিত্রজীব সবুজ ফড়িং, লেডিবার্ড বিটল, মাকড়সা, কেঁচো, হেলেসাপ, ব্যাঙ, শামুক প্রভৃতি মারা পড়ছে। ক্ষতি হচ্ছে ফসলের। এরা চাষিদের ফসল উৎপাদনে পরোক্ষভাবে উপকার করে থাকে। কৃষিবিজ্ঞানী গোপালচন্দ্র সেতুয়া বলেন, শত্রুপোকা নিধন করতে গিয়ে অসংখ্য মিত্রপোকা অকালে মারা পড়ছে। চাষিরা নিজেরাই নিজেদের মরণকূপ খুঁড়ছেন। বর্তমানে চাষের পদ্ধতির পরিবর্তন ঘটছে। মাটি পরীক্ষা না করে জমিতে যথেচ্ছ সার ওষুধ প্রয়োগ করা যাবে না। চাষিরা এটা না করে অবিবেচকের মতো কাজ করছেন। চাষিদের জানতে হবে জমিতে অসংখ্য পোকামাকড় আছে। এদের মধ্যে যেমন ফসলের শত্রু আছে, তেমনই মিত্রও আছে। মিত্র পোকাদের বাঁচিয়ে রাখতে হবে। কারণ, মিত্রপোকারাই মাটির উর্বরাশক্তি যেমন বজায় রাখে, আবার এরা শত্রুপোকাদের ডিম ও বাচ্চা খেয়ে নির্মূল করে। বংশবিস্তার করতে দেয় না। কিন্তু চাষিরা অত্যাধিক পরিমাণে নাইট্রোজেন ঘটিত সার ও কীটনাশক ওষুধ ব্যবহার করার ফলে মিত্রপোকারা নিশ্চিহ্ন হচ্ছে। কারা মিত্র এবং কারা শত্রুপোকা তা জানা দরকার চাষিদের। আরামবাগ মহকুমার কৃষি আধিকারিক (প্রশাসন) সজলকুমার ঘোষ বলেন, অধিকাংশ চাষি জানেন না কোনটা মিত্রপোকা, আবার কোনটা শত্রুপোকা। এটা আগে চিনতে হবে। সেইসঙ্গে জমিতে যথেচ্ছহারে সার এবং ওষুধ প্রয়োগ করা যাবে না। আর তা ব্যবহার হচ্ছে বলে মিত্রপোকারা হারিয়ে যাচ্ছে। এবিষয়ে চাষিদের সচেতন করা হচ্ছে। এটা অবশ্যই উদ্বেগের বিষয়। কৃষি বিশেষজ্ঞ হরষিত মজুমদার বলেন, আগে জলাজমিতে শামুক, হেলে সাপ, ব্যাঙ দেখা যেত। এছাড়া মাটিতে যে কেঁচো থাকে, তাতে উর্বরাশক্তি রক্ষা করে। এর পরিমাণও কমছে। এও দেখা যাচ্ছে সবুজ ফড়িং, লেডিবার্ড বিটল, মাকড়সা আর ফসলের রক্ষাকর্তা হয়ে এগিয়ে আসে না। মিত্রপোকাদের বাঁচাতে চাষিদেরই এগিয়ে আসতে হবে। 

02nd  October, 2019
তুফানগঞ্জে কৃষকদের পেঁয়াজ চাষে উৎসাহিত করছেন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ 

সংবাদদাতা, কুমারগ্রাম: উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ তুফানগঞ্জের কৃষকদের পেঁয়াজ চাষ শুরু করতে উৎসাহিত করছেন। তুফানগঞ্জ মহকুমার বিভিন্ন ব্লকে গিয়ে কৃষক বন্ধু চেক বিলি করার সময় মন্ত্রী কৃষকদের পেঁয়াজ চাষ করার কথা বলছেন।  
বিশদ

24th  January, 2020
নিয়ম মেনে আখ চাষে লাভ মিলবে ভালোই 

আখ বসানোর দু’সপ্তাহ পর গোড়ার মাটি আলগা করে দিতে হবে। আখ গাছ বৃদ্ধি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জমিতে আগাছার পরিমাণ বাড়ে। ২-৩ বার নিড়ানি দিয়ে জমি আগাছামুক্ত করতে হবে। জমি থেকে অতিরিক্ত জল বের করে দেওয়া দরকার।
বিশদ

22nd  January, 2020
গড়বেতায় বিঘার পর বিঘা আলুর জমি নাবিধসায় আক্রান্ত, ক্ষতির মুখে চাষিরা 

হরিহর ঘোষাল, চন্দ্রকোণা রোড: পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা-৩ ব্লকে বিঘার পর বিঘা আলু জমি নাবিধসায় আক্রান্ত হয়েছে। ব্যাঙ্ক, সমবায় থেকে লোন নিয়ে চাষ করে চাষিদের এখন সর্বস্বান্ত অবস্থা। কারণ, ধসা আক্রান্ত জমি থেকে কতটা ফলন হবে, তা নিয়ে চাষিরা আশঙ্কায় রয়েছেন। অনেক চাষি আবার মহাজনের সাহায্য নিয়ে চাষ করছেন।  
বিশদ

22nd  January, 2020
হরিশ্চন্দ্রপুরের চাষিদের ড্রাগন ফ্রুট চাষে উৎসাহ দিচ্ছে কৃষিদপ্তর 

সংবাদদাতা, হরিশ্চন্দ্রপুর: মালদহ জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর-২ ব্লকে ড্রাগন ফ্রুট চাষ করতে উৎসাহিত হয়েছেন চাষিরা। দক্ষিণ আমেরিকার জনপ্রিয় ও পুষ্টিকর এই ফলের চাষ শুরু হয়েছে জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর-২ব্লকে। পুষ্টিগুণে ভরপুর এই ড্রাগন ফ্রুট দেখতেও ভারি চমৎকার ।  
বিশদ

22nd  January, 2020
বোরো ধানে সেচের জল নিয়ে চিন্তায় দক্ষিণ ২৪ পরগনার বহু চাষি 

সংবাদদাতা: বোরো ধান চাষে সেচের জল মিলবে কোথা থেকে? সেই চিন্তা শুরু হয়ে গিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ এলাকার চাষিদের। জেলার ডায়মন্ডহারবার ১ ও ২, মগরাহাট ১ও ২, ফলতা, জয়নগর ১ ও ২, বারুইপুর, মন্দিরবাজার ও কুলপি ব্লকে ভূগর্ভের অনেকটা নীচে রয়েছে জলস্তর। 
বিশদ

22nd  January, 2020
আর্সেনিক প্রতিরোধী ‘মুক্তশ্রী’ ধান আশা জাগাচ্ছে কৃষকদের 

নবজ্যোতি সরকার : মুক্তশ্রী হল আর্সেনিক সহনশীল, উচ্চ ফলনশীল, সরু, সুগন্ধী ধান। এই ধান খরা, অতি বৃষ্টি সহ্য করতে পারে। যেভাবে রাজ্যজুড়ে ধান চাষে ভূগর্ভস্থ জলের ব্যবহার বেড়েছে তাতে বাংলার যেকোনও ব্লক যেকোনও দিন আর্সেনিক প্রবণ হয়ে উঠতে পারে বলে মনে করছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। 
বিশদ

22nd  January, 2020
রামপুরহাটে আলুচাষে ব্যাপক ক্ষতির শঙ্কা 

বলরাম দত্তবণিক  রামপুরহাট: সাম্প্রতিক বৃষ্টি ও কুয়াশার জন্য আলুতে দেখা দিয়েছে নাবিধসা রোগ। মাঝে কয়েকদিন আবহাওয়ার উন্নতি হলেও গত রবিবার সকালে রামপুরহাট মহকুমায় ফের বৃষ্টি হয়। যার জেরে আলুচাষে ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চাষিরা। 
বিশদ

22nd  January, 2020
ধান খেতে নাড়া পোড়ানোয় মাটির ক্ষতি 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: ধান খেতে খড় বা নাড়া না পুড়িয়ে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিয়ে পরবর্তী ফসল লাভজনক হিসেবে ঘরে তোলা যায়। এমনটাই জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের বক্তব্য, অনেক চাষি জমিতে ধানের অবশিষ্টাংশ বা নাড়া পু঩ড়িয়ে দিয়ে থাকেন। এতে একদিকে যেমন মাটির ক্ষতি হয়, তেমনই বাতাসে দূষণ ছড়ায়।  
বিশদ

22nd  January, 2020
পুরুলিয়ার নিতুড়িয়ায় জিরে চাষ 

সজল মণ্ডল  রঘুনাথপুর, পুরুলিয়ার নিতুড়িয়া ব্লকে কৃষি দপ্তরের বিশেষ তত্ত্বাবধানে দীঘা গ্রাম পঞ্চায়েতের লালপুর মৌজায় জিরে চাষ হচ্ছে। সাধারণত এবছর রবি মরশুমের ঠান্ডাকে কাজে লাগিয়ে জিরে চাষের বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।  
বিশদ

22nd  January, 2020
খামখেয়ালি আবহাওয়ায় বীজতলা তৈরিতে দেরি
বোরো চাষে জল দেওয়ার সময় পিছচ্ছে প্রশাসন

বিএনএ, সিউড়ি: বীজতলা তৈরিতে দেরি হয়েছে। তাই বীরভূমে বোরো চাষে জল দেওয়ার সময় পিছচ্ছে প্রশাসন। খামখেয়ালি আবহাওয়ার জন্যই বীজতলা তৈরি হয়নি বলে মত কৃষিদপ্তরের। তাই জেলায় আগামী ২৫ জানুয়ারি বোরো চাষের জন্য জল দেওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে দিচ্ছে প্রশাসন। 
বিশদ

20th  January, 2020
রামপুরহাট মহকুমাজুড়ে বৃষ্টি, আলুচাষে ক্ষতির আশঙ্কা চাষিদের 

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: সাম্প্রতিক বৃষ্টি ও কুয়াশার জন্য আলুতে দেখা দিয়েছে নাবিধসা রোগ। মাঝে কয়েকদিন আবহাওয়ার উন্নতি হলেও রবিবার সকালে রামপুরহাট মহকুমায় ফের বৃষ্টি হয়। যার জেরে আলুচাষে ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চাষিরা। 
বিশদ

20th  January, 2020
দেশি রুই, কাতলা, মৃগেল মিলবে বাজারে, ময়না মডেলে মাছ চাষের উদ্যোগ হুগলিতে 

অভিজিৎ চৌধুরী, চুঁচুড়া, বিএনএ: ময়না মডেলে মাছ চাষের জন্য উদ্যোগ নিল হুগলি জেলা মৎস্য দপ্তর। ২০১৯-’২০ অর্থবর্ষে এখানে ছ’টি পুকুরে দেশি রুই, কাতলা ও মৃগেল চাষ করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই মাছগুলি বেশে খানিকটা বড় হয়েছে। ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে এই মাছ বাজারে আসতে পারে বলে মৎস্য দপ্তরের কর্তারা মনে করছেন। 
বিশদ

16th  January, 2020
ধান খেতে নাড়া পোড়ানোয় মাটির ক্ষতি 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: ধান খেতে খড় বা নাড়া না পুড়িয়ে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিয়ে পরবর্তী ফসল লাভজনক হিসেবে ঘরে তোলা যায়। এমনটাই জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের বক্তব্য, অনেক চাষি জমিতে ধানের অবশিষ্টাংশ বা নাড়া পুড়িয়ে দিয়ে থাকেন।  বিশদ

15th  January, 2020
বোরো ধানে সেচের জল নিয়ে
চিন্তায় দক্ষিণ ২৪ পরগনার বহু চাষি 

সংবাদদাতা: বোরো ধান চাষে সেচের জল মিলবে কোথা থেকে? সেই চিন্তা শুরু হয়ে গিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ এলাকার চাষিদের। জেলার ডায়মন্ডহারবার ১ ও ২, মগরাহাট ১ও ২, ফলতা, জয়নগর ১ ও ২, বারুইপুর, মন্দিরবাজার ও কুলপি ব্লকে ভূগর্ভের অনেকটা নীচে রয়েছে জলস্তর।  বিশদ

15th  January, 2020

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, গাজোল: সরস্বতীপুজোয় ইলিশ মাছ খাওয়ার রেওয়াজ মানতে গিয়ে এবার পকেট অনেকটাই হাল্কা হবে ইংলিশবাজারের বাসিন্দাদের। পুজো উপল঩ক্ষে শহরের বাজারগুলিতে বড় ইলিশ মাছের দেখা মিললেও ...

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: সিএএ, এনআরসি ও এনপিআরের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার রামপুরহাট থেকে নলহাটি পর্যন্ত পদযাত্রা করল ফরওয়ার্ড ব্লক। নেতৃত্ব দেন সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক নরেন চট্টোপাধ্যায়।  ...

জাহানাবাদ (বিহার), ২৮ জানুয়ারি (পিটিআই): ‘পাঁচ লাখ মানুষ এক হলে অসমকে ভারত থেকে আলাদা’ করার হুমকি দিয়েছিলেন সিএএ তথা শাহিনবাগ আন্দোলনের অন্যতম মাথা শারজিল ইমাম। মঙ্গলবার তাঁকেই বিহারের জেহানাবাদ থেকে গ্রেপ্তার করল দিল্লি পুলিসের ক্রাইম ব্রাঞ্চ।  ...

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সম্পত্তি সংস্কার বিষয়ে চিন্তাভাবনা ফলপ্রসূ হতে পারে। কর্মক্ষেত্রে প্রভাব-প্রতিপত্তি বৃদ্ধি। যাবতীয় আটকে থাকা কাজের ক্ষেত্রে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৯৬: ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা স্বামী প্রণবানন্দের জন্ম
১৯৬৬: ব্রাজিলের ফুটবলার রোমারিওর জন্ম
১৯৭০: ওলিম্পিকে রুপোজয়ী শ্যুটার রাজ্যবর্ধন সিং রাঠোরের জন্ম
২০০৬: প্রথম ভারতীয় হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম ওভারে হ্যাটট্রিক করলেন ইরফান পাঠান  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৫৮ টাকা ৭২.২৮ টাকা
পাউন্ড ৯১.৬১ টাকা ৯৪.৯০ টাকা
ইউরো ৭৭.২৫ টাকা ৮০.১৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,১৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,০৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৯,৬১৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬,৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৭,০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৪ মাঘ ১৪২৬, ২৯ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার, (মাঘ শুক্লপক্ষ) চতুর্থী ১১/৩ দিবা ১০/৪৬। পূর্বভাদ্রপদ ১৪/৪১ দিবা ১২/১৩। সূ উ ৬/২১/৩, অ ৫/১৮/১৭, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৮ মধ্যে পুনঃ ১০/০ গতে ১১/২৮ মধ্যে পুনঃ ৩/৭ গতে ৪/৩৫ মধ্যে। রাত্রি ৬/১১ গতে ৮/৪৮ মধ্যে পুনঃ ২/০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৯/৫ গতে ১০/২৭ মধ্যে পুনঃ ১১/৫০ গতে ১/১২ মধ্যে। কালরাত্রি ৩/৬ গতে ৪/৪৪ মধ্যে। 
১৪ মাঘ ১৪২৬, ২৯ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার, চতুর্থী ৫/৫৫/২৫ দিবা ৮/৪৬/৪। পূর্ব্বভাদ্রপদ ১০/৫৭/৫৮ দিবা ১০/৪৭/৫। সূ উ ৬/২৩/৫৪, অ ৫/১৭/১৩, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৭ মধ্যে ও ১০/০ গতে১১/২৯ মধ্যে ও ৩/১০ গতে ৪/৩৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/১৫গতে ৮/৫০ মধ্যে ও ২/০ গতে ৬/২৪ মধ্যে। কালবেলা ৯/৭/১৪ গতে ১০/২৮/৫৪ মধ্যে। কালরাত্রি ৩/৭/১৪ গতে ৪/৪৫/৩৪ মধ্যে। 
মোসলেম: ৩ জমাদিয়স সানি 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
 চন্দননগরে সরস্বতী প্রতিমা কিনে এনে আত্মঘাতী সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র
বুধবার সরস্বতী পুজো। মঙ্গলবার বাবার সঙ্গে গিয়ে আনন্দ করেই সরস্বতী ...বিশদ

28-01-2020 - 03:59:00 PM

ট্যুইটে আক্ষেপ রাজ্যপালের
সমাবর্তন অনুষ্ঠান ছেড়ে বেরিয়ে আসার সময় আমার মনে সম্মানের বিষয়টিই ...বিশদ

28-01-2020 - 02:32:28 PM

এবার ক্যানভাসে সিএএ-র প্রতিবাদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের 

28-01-2020 - 02:16:00 PM

এই প্রথম বারুইপুর আদালতে ফাঁসির নির্দেশ
এই প্রথম ফাঁসির নির্দেশ দিল বারুইপুর আদালত। আজ এই আদালতে ...বিশদ

28-01-2020 - 01:56:00 PM

 শিক্ষকদের জন্য সুখবর মমতার
শিক্ষকদের জন্য বড় সিদ্ধান্ত ঘোষণা রাজ্যের। ট্যু ইট করে সেই ...বিশদ

28-01-2020 - 01:51:21 PM

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ না দিয়ে ফিরেই গেলেন রাজ্যপাল 
সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ না দিয়ে ফিরে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। ...বিশদ

28-01-2020 - 01:42:00 PM