Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

পলিহাউসে বাহারি ক্যাপসিকাম চাষে ঝোঁক বাড়ছে 

ব্রতীন দাস: পলিহাউসে বাহারি ক্যাপসিকাম। বাজারে ভালো দাম মেলায় চাষে ঝোঁক বাড়ছে কৃষকদের। সেপ্টেম্বর থেকে চাষ শুরু করতে হয়। তিনমাসেই ফলন পাওয়া যায়। গাছ বাঁচিয়ে রাখতে পারলে মে মাস পর্যন্ত ফলন পাওয়া সম্ভব। ঠিকমতো পরিচর্যা করতে পারলে গোটা মরশুমে প্রতিটি গাছ থেকে গড়ে ১৫ কেজি করে ফলন পাওয়া যায় বলে জানিয়েছেন উদ্যানপালন বিশেষজ্ঞরা। লাল, হলুদ, সবুজ, কমলা, সাদা, বেগুনি নানা রঙের হয়ে থাকে ক্যাপসিকাম। ভিটামিন ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। সারাবছরই বাজারে চাহিদা থাকে। অনুষ্ঠানের মরশুমে এর দাম বাড়ে। এ রাজ্যে মূলত শীতকালীন ফসল হিসেবে ক্যাপসিকাম চাষ করা হয়ে থাকে। খোলা জমিতে চাষ করলে জানুয়ারি পর্যন্ত করা যায়। কিন্তু, পলিহাউসে তাপমাত্রা ও আর্দ্রতা নিয়ন্ত্রিত থাকে বলে আরও তিনমাস বেশি ফলন পাওয়া যায়। উদ্যানপালন বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ৫০০ বর্গমিটার পলিহাউসে মাটির বেড তৈরি করে গড়ে এক হাজার চারা লাগানো যায়। প্লাস্টিকের ট্রে-তে মাটি ও জৈবসার মিশিয়ে তাতে বীজ বুনে চারা তৈরি করা যেতে পারে। প্রতি কেজি বীজে ৩ গ্রাম থাইরাম দিয়ে বীজ শোধন করতে হবে। গোবরসার ও ভার্মি কম্পোস্ট মিশিয়ে মাটি ভালো করে চেলে নিয়ে তার সঙ্গে ট্রাইকোডার্মা ভিরিডি যোগ করে মাটি শোধন করা যেতে পারে।
ক্যাপসিকামের বীজ মাটির ২ সেমি গভীরে পুঁতে উপরে ঝুরো মাটি দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। তার পর হাল্কা জল স্প্রে করে খড় দিয়ে ঢেকে দিতে পারলে ভালো। এক সপ্তাহ পর চারা বেরতে দেখা যাবে। চারা বেরনোর পর খড় সরিয়ে মশারি দিয়ে ঢেকে দিতে পারলে ভালো। চারার গোড়া যাতে পচে না যায়, সেজন্য ব্যাভিস্টিন বা ডাইথেন ব্যাভিস্টিন মিশ্রণ ১ গ্রাম প্রতি লিটার জলে মিশিয়ে গাছে স্প্রে করতে হবে। চারার বয়স ১৬ দিন হলে ইমিডাক্লোপ্রিড ১ মিলি প্রতি লিটার জলে মিশিয়ে আঠা সহযোগে স্প্রে করতে হবে। এতে সাদামাছির আক্রমণ ঠেকানো যায়। ফলে ভাইরাসঘটিত পাতা কোঁকড়ানো রোগের আশঙ্কা কমে। ক্যাপসিকামের এটিই অন্যতম রোগ। এই রোগে গাছের পাতা লঙ্কার মতো কুঁকড়ে যায়। সাদা মাছি ওই ভাইরাসের বাহক। একবার এই রোগের আক্রমণ হলে তখন আর কিছু করার থাকে না। ফলে আগে থেকে ব্যবস্থা নিতে হবে।
বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক দীপক ঘোষ জানিয়েছেন, তাঁরা ক্যাপসিকামের বিভিন্ন জাতের মধ্যে সংকরায়ণ ঘটাচ্ছেন। এতে ক্যাপসিকামের রং ও আকার আরও ভালো হচ্ছে। বাগান বিলাসিরা টবেও ক্যাপসিকাম ফলাতে পারেন। তবে সাদামাছির আক্রমণ রুখতে বিশেষ ব্যবস্থা নিতে হবে। ক্যাপসিকামের চারার বয়স ১৫ দিন হলে অ্যামোনিয়াম ফসফেট ৩ গ্রাম প্রতি লিটার জলে গুলে স্প্রে করতে পারলে শিকড় ও গাছের স্বাস্থ্য ভালো হয়। একমাস বয়সের চারা ৩-৪টি পাতা হলে তখন ওই চারা মূল জমিতে বসানো উচিত। হলুদ রঙের ক্যাপসিকামের উন্নত জাতগুলি হল, অ্যাঞ্জেল, গোল্ডেন ইয়েলো, অর্কা গৌরব, ইয়েলো ওয়ান্ডার। লাল রঙের ক্যাপসিকামের উন্নত জাত, অদিতি, আশা, ক্যালিফোর্নিয়া ওয়ান্ডার। কমলা রঙের ক্যাপসিকামের উন্নত জাত, কালার-৮, আইএসপি-৭। বেগুনি রঙের ক্যাপসিকামের জাত নিকিতা। কালো রঙের ক্যাপসিকামের জাত স্পিনাজ। সাদা রঙের ক্যাপসিকামের জাত কালার-৬, কালার-৭।
পলিহাউসে প্রথমে বেড তৈরি করতে হবে। বেডে মাটি ফরমালিন দিয়ে শোধন করে নেওয়া উচিত। ১ লিটার জলে ৪০ মিলি ফরমালিন মেশাতে হবে। মাটি শোধনের পর পলিথিন দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। মাটি থেকে ১৫ সেমি উঁচু হতে হবে বেড। চওড়া হবে ১০০ সেমি। প্রয়োজনমতো বেড লম্বা করা যেতে পারে। একটি বেড থেকে অন্য বেডের দূরত্ব হবে ৪৫ সেমি। একই বেডে দু’টি গাছের মধ্যে দূরত্ব হবে ৫০ সেমি। ড্রিপ ইরিগেশনের ব্যবস্থা থাকলে ভালো। চারা বসানোর সময় সামান্য ঠাণ্ডার প্রয়োজন। চারা লাগানোর সময় গাছ প্রতি ১০ গ্রাম ইউরিয়া, ২৫ গ্রাম সিঙ্গল সুপার ফসফেট ও ২০ গ্রাম মিউরিয়েট অফ পটাশ দিতে হবে।
একমাস পর একইমাত্রায় প্রথম চাপান দিতে হবে। ৮০ দিন পর গাছ প্রতি ১০ গ্রাম ইউরিয়া দিতে হবে দ্বিতীয় চাপান হিসেবে। চারার গোড়ার দিকের কিছু পাতা ফেলে দিতে হবে। প্লানোফিক্স প্রয়োগে গাছে প্রচুর ফুল আসে এবং ফল ধরতে সাহায্য করে। ফুল ঝরা ঠেকাতে দু’সপ্তাহ অন্তর দু’বার ২৫ পিপিএম জিএ বা ৫০ পিপিএম এনএএ হরমোন প্রয়োগ করা যেতে পারে। ঠিকমতো পরিচর্যা করতে পারলে একটি ক্যাপসিকামের ওজন ৩৫০ গ্রাম হতে পারে। খোলা জমিতে বিঘা প্রতি ১০-১২ কুইন্টাল ফলন পাওয়া যায়।
কিন্তু, পলিহাউসে বিঘায় প্রায় ৩০ কুইন্টাল ফলন মিলতে পারে। চারা রোপণের পর ল্যাদাপোকার আক্রমণ হতে পারে। এই পোকা গাছের পাতা খেয়ে নেয়। কেরোসিন মেশানো ছাই গাছের গোড়ায় দিতে হবে। কার্বারিল ২ গ্রাম, প্রতি লিটার জলে গুলে স্প্রে করলে সুফল মিলবে। সাদামাছির আক্রমণ রুখতে চারা রোপণের তিন দিন আগে ইমিডাক্লোপ্রিড ১ মিলি, ৩ লিটার জলে গুলে স্প্রে করতে হবে। রোপণের ১০ দিন পর ১ মিলি ইমিডাক্লোপ্রিড, ১ লিটার জলে গুলে বা ১ মিলি ফিপ্রোনিল ১ লিটার জলে গুলে স্প্রে করা যেতে পারে। আঠা লাগানো রঙিন বোর্ড পলিহাউসে ঝুলিয়ে রাখলে জাবপোকা বা সাদামাছির আক্রমণ অনেকটা রোধ করা যায়।  

18th  September, 2019
টানা বৃষ্টিতে কান্দিতে তিল চাষে ব্যাপক ক্ষতি
শস্যবিমা না থাকায় সমস্যায় চাষিরা

সংবাদদাতা, কান্দি: লাগাতার বৃষ্টির জেরে এবছর কান্দি মহকুমা এলাকার কয়েক হাজার তিল চাষি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। চাষ করে এক বিঘা জমিতে ৫০ কেজি তিলও পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ। বেশিরভাগ চাষির শস্যবিমা না থাকায় সমস্যা আরও বেড়েছে। ফলে সরকারি ক্ষতিপূরণের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন এলাকার চাষিরা।  বিশদ

01st  July, 2020
মাছির আক্রমণে মাথায় হাত
বারুইপুরের পেয়ারা চাষিদের 

নবজ্যোতি সরকার: উম-পুনে এমনিতেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বারুইপুরের পেয়ারা চাষ। তার উপর এখন পেয়ারা বাগানে মাছির আক্রমণে মাথায় হাত চাষিদের। ঝাঁকে ঝাঁকে ফলের মাছি আক্রমণ করছে পেয়ারায়। ফল ছিদ্র করে তার ভিতরেই ডিম পাড়ছে।  বিশদ

01st  July, 2020
সুধা পদ্ধতিতে আমন ধান চাষে
আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: সুনিশ্চিত পদ্ধতিতে ধান চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের। তাঁদের মতে, এই পদ্ধতি সহজ ও সরল। এমনকী খরচও কম। প্রচলিত পদ্ধতির চেয়ে এতে ফলন বেশি পাওয়া যায়। আর সেকারণেই চিরাচরিত পথ ছেড়ে ‘সুধা’ পদ্ধতিতে ধান চাষের প্রসারে রাজ্য সরকারও কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে।  বিশদ

01st  July, 2020
ভাল ফলন পেতে জমির চরিত্র
বুঝে আমন চাষ করতে হবে 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: আমন ধান চাষে সঠিক নিয়ম মেনে মাটি প্রস্তুত করার পর ভালো মানের চারা তৈরির দিকে নজর দিতে হবে। পাশাপাশি উঁচু, মাঝারি এবং নিচু জমিতে কী ধরনের ধানের বীজ থেকে চারা তৈরি করলে ভালো ফলন পাওয়া যাবে, সে ব্যাপারে জেনে নিতে হবে কৃষি বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে।   বিশদ

01st  July, 2020
নদীয়া জেলায় কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের জন্য
রেকর্ড আবেদন, ছাপিয়ে গেল লক্ষ্যমাত্রাও 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: উম-পুন পরবর্তী সময়ে মাত্র ১৮দিনে নদীয়া জেলায় কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদনের সংখ্যা এক লক্ষ ছাড়িয়ে গেল। জুন মাসের শেষে লক্ষমাত্রা পেরিয়ে গিয়েছে। সবকিছু খতিয়ে দেখে দ্রুত আবেদনকারীরা যাতে কেসিসি পান তা নিশ্চিত করতে ব্যাঙ্কগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।   বিশদ

01st  July, 2020
স্বাদ বদলে চাহিদা বাড়ছে
‘মণিপুরের পুঁটি’ পেংবা মাছের 

ব্রতীন দাস: বৈচিত্র্যে জোর। মাছে-ভাতে বাঙালির স্বাদ বদলে চাহিদা বাড়ছে পেংবা মাছের। এটি পুঁটি গোত্রীয় মাছ। চাষ হয় মিষ্টি জলে। পেংবা মণিপুরের স্টেট ফিশ। চাষেও ঝামেলা নেই। কারণ, এই মাছ রাক্ষুসে নয়। রুই, কাতলা, মৃগেলের সঙ্গে নিশ্চিন্তে এক পুকুরে চাষ করা যায়।  বিশদ

01st  July, 2020
এবার দু’হাজার হেক্টর বেশি জমিতে বোরো ধান চাষ করে গতবারের রেকর্ড ভাঙল জেলা
কোচবিহার

সংবাদদাতা, দিনহাটা: এ বছর কোচবিহার জেলায় রেকর্ড পরিমাণ জমিতে বোরো ধান চাষ হয়েছে। গতবছর থেকে প্রায় ২০০০ হেক্টর অধিক জমিতে চাষিরা বোরো ধান লাগিয়েছেন। পাশাপাশি এবারে ধান রোপণ যন্ত্রের সাহায্যে ৫০০ হেক্টর জমিতে ধান লাগানোর ক্ষেত্রেও রেকর্ড তৈরি হয়েছে।  বিশদ

29th  June, 2020
বীরভূমে অ্যালোভেরা চাষ করে তৈরি হচ্ছে স্যানিটাইজার, দিশা দেখাচ্ছে স্বনির্ভর গোষ্ঠী 

রামকুমার আচার্য  সিউড়ি: বীরভূমে অ্যালোভেরা চাষ করে তৈরি হচ্ছে স্যানিটাইজার। নতুন আয়ের দিশা দেখাচ্ছেন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা। রাজনগরের চন্দ্রপুর পঞ্চায়েতের অধীন হরিপুরে অ্যালোভেরা বাগান তৈরি করেছে জেলা প্রশাসন। বর্তমানে অ্যালোভেরার পাতা দিয়ে স্যানিটাইজার তৈরি হচ্ছে।  বিশদ

26th  June, 2020
জোড়া ফলায় উত্তর ২৪ পরগনায়
মাছ চাষে ব্যাপক ক্ষতি 

নিজস্ব প্রতিনিধি: একদিকে করোনার জেরে দীর্ঘ লকডাউন। অন্যদিকে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় উমপুন। এই দুইয়ের জেরে উত্তর ২৪ পরগনায় মাছ চাষে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ফলে মাথায় হাত পড়েছে মৎস্য চাষিদের।   বিশদ

24th  June, 2020
উমপুন বিপর্যস্ত সুন্দরবন
এবার লবণ সহনশীল ধান চাষে জোর
বিনামূল্যে মিলবে বীজ 

নবজ্যোতি সরকার: সম্প্রতি মারাত্মক ঘূর্ণিঝড় উমপুন আছড়ে পড়ে সুন্দরবনের উপর। ফলে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বহু ব্লকে চাষের ভয়াবহ ক্ষতি হয়। সেই ক্ষতি সামাল দিতে মাঠে নেমে কৃষকদের নিয়ে কাজ করছেন কৃষিকর্তারা।   বিশদ

24th  June, 2020
ভালো ফলন পেতে হরিশ্চন্দ্রপুরে
শোধন করা বীজ দেওয়া হচ্ছে কৃষকদের 

উমার ফারুক, হরিশ্চন্দ্রপুর, সংবাদদাতা: মালদহ জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর-১ ও ২ ব্লকে বোরো ও আমন ধানের চাষ, দুটোই জনপ্রিয়। বর্তমানে জোরকদমে শুরু হয়েছে আমন ধান চাষ। চাষিরা বীজতলা প্রস্তুত করার জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।  বিশদ

24th  June, 2020
কম খরচে ভালো ফলনের দিশা দেখাবে চাষিদের
ময়ূরেশ্বরে সারের বিকল্প বিশেষ রাসায়নিক মিশ্রণ ব্যবহারে চাষে সাফল্য  

বলরাম দত্তবণিক, রামপুরহাট: সারের বিকল্প বিশেষ তরল রাসায়নিক মিশ্রণ ব্যবহার করে পরীক্ষামূলক চাষে সাফল্য এল ময়ূরেশ্বরে। দপ্তরের আধিকারিকদের দাবি, এটা ‘ন্যানো ফার্টিলাইজার’।   বিশদ

24th  June, 2020
প্রোটিনের ঘাটতি মেটাতে
নয়া ধান আবিষ্কার 

ব্রতীন দাস: প্রোটিনের ঘাটতি মেটাতে নয়া ধান আবিষ্কার করলেন জাতীয় ধান্য গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা। সাধারণ ধানে যেখানে ৬ থেকে ৮ শতাংশ প্রোটিন থাকে, সেখানে সিআর-৩১০ নামে নতুন ওই ধানটিতে প্রোটিনের মাত্রা প্রায় ১১ শতাংশ।   বিশদ

24th  June, 2020
আমনে ভাল ফলন পেতে নিয়ম
মেনে তৈরি করতে হবে জমি 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: আমন ধানে ভাল ফলন পেতে সঠিক নিয়ম মেনে জমি তৈরি করতে হবে। অন্তত ছয় ইঞ্চি গভীরতায় তিনটি চাষ দিয়ে ঠিকমতো মাটি সমতল করে নিতে হবে। এমনটাই জানিয়েছেন কৃষি আধিকারিকরা।  বিশদ

24th  June, 2020

Pages: 12345

একনজরে
বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: শত্রু যখন প্রবল পরাক্রমী, অস্ত্রও দরকার তেমনি আধুনিক। করোনার সঙ্গে যুদ্ধে সরকারি হাসপাতালগুলির হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে হাইটেক সব ‘অস্ত্র’। ভয়ঙ্কর সংক্রামক করোনা ছড়ায় ড্রপলেটের মাধ্যমে।   ...

জোহানেসবার্গ: দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মান পেলেন কুইন্টন ডি’কক। করোনা ভাইরাসের জেরে এবছর এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয়।   ...

নয়াদিল্লি (পিটিআই): একদিকে পাকিস্তান, অন্যদিকে চীন। জোড়া শত্রুর ষড়যন্ত্র সামলাতে হচ্ছে ভারতকে। এই অবস্থায় সীমান্তের পরিকাঠামো মজবুত করতে একসঙ্গে অনেকগুলি হাইওয়ে প্রকল্পের কাজ চলছে।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: এই প্রথম রাজ্যে বায়োফ্লক পদ্ধতিতে মাছ চাষের উদ্যোগ নিল মৎস্য দপ্তর। পরীক্ষামূলকভাবে ১৪টি জেলায় এই পদ্ধতিতে মাছ চাষ করা হবে।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে বাধার মধ্য দিয়ে অগ্রসর হতে হবে। কর্মপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে শুভ যোগ। ব্যবসায় যুক্ত হলে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৮৫- জোসেফ মেইস্টারের উপর জলাতঙ্ক রোগের টিকা সফলভাবে পরীক্ষা করলেন লুই পাস্তুর
১৮৯২- ব্রিটেন পার্লামেন্টে প্রথম ভারতীয় হিসাবে নির্বাচিত হলেন দাদাভাই নওরোজি
১৯০১- শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৪৬- আমেরিকার ৪৩তম প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লু বুশের জন্ম
১৯৪৬- মার্কিন অভিনেতা সিলভেস্টার স্ট্যালোনের জন্ম
১৯৮৫- অভিনেতা রণবীর সিংয়ের জন্ম
১৯৮৬- রাজনীতিবিদ জগজীবন রামের মৃত্যু
২০০২- রিলায়েন্সের প্রতিষ্ঠাতা ধীরুভাই আম্বানির মৃত্যু 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৮৯ টাকা ৭৫.৬১ টাকা
পাউন্ড ৯১.৭০ টাকা ৯৪.৯৭ টাকা
ইউরো ৮২.৫৭ টাকা ৮৫.৬৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
05th  July, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৮, ৯৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬, ৪৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭, ১৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৯, ২৭০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৯, ৩৭০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
05th  July, 2020

দিন পঞ্জিকা

২২ আষাঢ় ১৪২৭, ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, প্রতিপদ ১০/৫৩ দিবা ৯/২৩। উত্তরাষাঢ়া ৪৫/২৭ রাত্রি ১১/১২৷ সূর্যোদয় ৫/১/১২, সূর্যাস্ত ৬/২১/২০৷ অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৪ গতে ১০/২০ মধ্যে। রাত্রি ৯/৪২ গতে ১২/২ মধ্যে পুনঃ ১/২৭ গতে ২/৫৩ মধ্যে। বারবেলা ৬/৪১ গতে ৮/২১ মধ্যে পুনঃ ৩/১ গতে ৪/৪১ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২১ গতে ১১/৪১ মধ্যে।  
২১ আষাঢ় ১৪২৭, ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, প্রতিপদ দিবা ৯/২২। উত্তরাষাঢ়া নক্ষত্র রাত্রি ১২/০। সূযোদয় ৫/১, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৫ গতে ১০/২২ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/১৩ গতে ১২/৩ মধ্যে ও ১/২৮ গতে ২/৫৪ মধ্যে। কালবেলা ৬/৪১ গতে ৮/২২ মধ্যে ও ৩/৩ গতে ৪/৪৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২২ গতে ১১/৪২ মধ্যে।  
১৪ জেল্কদ 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
করোনা: রাশিয়াকে টপকে তৃতীয় স্থানে ভারত 
বিশ্বে করোনা আক্রান্ত হওয়ার নিরিখে রাশিয়াকে টপকে তৃতীয় স্থানে উঠে ...বিশদ

05-07-2020 - 09:32:25 PM

হালিশহরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ 
তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল উত্তর ২৪ পরগনার ...বিশদ

05-07-2020 - 09:28:41 PM

কর্ণাটকে করোনা পজিটিভ আরও ১,৯২৫, মোট আক্রান্ত ২৩,৪৭৪ 

05-07-2020 - 09:06:12 PM

জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ সীমান্তে পাক সেনার গোলাগুলি 

05-07-2020 - 08:37:27 PM

করোনা: মহারাষ্ট্রে নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৬৫৫৫, মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ৬ হাজার ৬১৯ 

05-07-2020 - 08:04:07 PM

করোনা: ফের একদিনে রাজ্যে রেকর্ড সংক্রমণ 
পর পর দু’দিন। নতুন সংক্রমণের নিরিখে ফের রেকর্ড রাজ্যে। গত ...বিশদ

05-07-2020 - 08:02:02 PM